জীবন যুদ্ধে হার না মেনে ১৮ ইঞ্চি দৈঘের শাহিন নিজের আয়েই চলছেন একমাত্র সখ ক্রিকেটার তামিমের সাথে দেখা করার

Daily Inqilab বরিশাল ব্যুরো

১০ মার্চ ২০২৩, ০৪:৫১ পিএম | আপডেট: ০১ মে ২০২৩, ১২:২০ এএম

বরিশালের শাহীন ফকির তার ১৮ ইঞ্চির শরীর নিয়েও কারো বোঝা না হয়ে জীবনযুদ্ধে টিকে থাকার সংগ্রমে অবরিত অবিচল । মাত্র ১৮ ইঞ্চি উচ্চতার এই যুবকটি নিজের আয়েই টিকে আছেন। কারো কাছে ভিক্ষার হাত পতেন নি কখনো। শারীরিক প্রতিবন্ধকতা স্বাভাবিক জীবন থেকে তাকে দুরে রাখলেও দমিয়ে রাখতে পারেনি ১৮ ইঞ্চির এ মানুষটিকে।
জন্মের পর পোলিও আক্রান্ত হয়ে পঙ্গুত্ব বরন করা শাহীন বরিশালের মুলাদী উপজেলার চর কমিশনার এলাকার আবুল হাসেম ফকিরের ছেলে। বাবা-মা, দুই ভাই, চার বোন ও ভাবি-ভাতিজীকে নিয়ে যৌথ পরিবারে বাস শহিনের । তিন বোনের বিয়ে হয়ে গেছে। একমাত্র ভাই মালয়শিয়া প্রবাসী।
চতুর্থ শ্রেণির পর পড়াশোনা চালিয়ে নিতে না পারলেও কাজ-কর্ম করে নিজের আয়েই বেঁচে থাকার লক্ষ্যে অবিচল শাহীন। বছর পাঁচেক ধরে নিজের ছোট ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমেই অর্থনৈতিকভাবে কিছুটা স্বাবলম্বী হয়েছেন ত্রিশোর্ধ্ব শাহীন। মোবাইল ব্যাংকিং সেবার পাশাপাশি শিশুদের কয়েক ধরনের খাদ্যপণ্য বিক্রি করে মোটামুটি ভাল আছেন।
মা আলেয়া বেগম সাংবাদিকদের বলেছেন, জন্মের পর থেকে সাত দিন বয়সী শাহীন অনেক কান্নাকাটি করলে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলে, তাকে ‘বরিশালে নিয়ে বড় ডাক্তার দেখাতে’ বলেন। কিন্তু অর্থনৈতিক সংকট এবং দুর্গম যাতায়াত ব্যবস্থার কারণে তাদের পক্ষে সে চিকিৎসা দেয়া সম্ভব হয়নি।কিন্তু কিছুদিন পর শাহীনের হাত পা বেঁকে যেতে থাকলে বরিশালে নিয়ে জানতে পারেন শাহিন পোলিও আক্রান্ত হয়েছে। মা আলেয়া বেগম জানান, শাহীন অজু, গোসল ও বাথরুমসহ নিজে কিছুই করতে পারে না। দৈনন্দিন সব কাজে তার অন্যের সহাজ্য প্রয়োজন হয়। তবে তার পরেও কারো বোঝা না হয়ে সে নিজের আয়ে চলতে চায়। আর সে লক্ষ্যে শত কষ্ট শিকার করেও সে প্রতিদিন দোকানে যায়, ব্যবসা চালিয়ে নিজের আয়ে চলছে।
বাড়ি থেকে আধা কিলোমিটার দূরত্বে বরিশাল সদর উপজেলার শায়েস্তাবাদ ইউনিয়নের হায়াতসার গ্রামে ফুলতলা বাজারের পূর্বে শাহীনের ছোট্ট দোকান। আর একটি জরাজীর্ণ হুইল চেয়ারে বসে সে দোকানে বেচাকেনা সহ বাসায় যাওয়া-আসা করে শাহিন। তবে সে নিজে চেয়ারটি চালাতে না পাড়ায় মাসিক পাঁচশ টাকার বিনিময়ে একজন লোক দিয়ে প্রতিদিন সকাল সাড়ে ৯টায় দোকানে যায় ও রাত ৮টার দিকে ঘরে ফেরে শাহিন। “এলাকার পোলাপানরাও কাজকর্মে সাহায্য করে। কোনো সমস্যা হয় না। দোকানের আশে-পাশে কিশোর ও তরুণ কেউ না কেউ থাকেই।” তারাও শাহিনকে সবসময় সহায়তা করে বরল জানাল তার মা।
নিজের উচ্চতা কতটুকু তা সঠিক না জানলেও শাহীন বলেন, “অনেক বছর আগে একজন পরিমাপ করে বলেছিল মাত্র ১৮ ইঞ্চি।” তার মতে, “বাইচ্যা থাকতে অইলে কাম কইরা খাওয়া লাগে, এছাড়া তো খাওয়া যায় না। আমার মতো মানুষ যারা, তারা ভিক্ষা কইরা খায়। আমি ওই পথে যাই নাই, ওটা ভালো পথ না। তাই করমো কইরা খাই।”
দোকান থেকে প্রতিদিন গড়ে ৩০০ টাকা আয় করার কথা জানিয়ে শাহীন বলেন, ‘নিজের আয়ের টাকাই খরচ করি’ । ইচ্ছা আছে ব্যবসাটা বড় করার। তবে এই স্বল্প আয়েই পরোপকারী হিসেবে এলাকায় সুনাম আছে প্রতিবন্দী শহিনের। সকলেই এক বাক্যে “সে খুব ভালো লো ‘ বলে জনিয়ে কারো যদি টাকা লাগে বা অন্য কোন সহায়তা প্রয়োজন হয়, তবে নিদিধায় সে তাকে সহায়তা করে’। মানুষের সহায়তা তার প্রয়োজন হলেও উল্টো সে মানুষকে সহায়তা করে।”
এলাকার সবাই শাহীনকে ভালবাসে জানিয়ে বলেন, “তাকে আমরা সবাই সহায়তা করি। নিজেরাও মাঝে মধ্যে বাড়ি থেকে নিয়ে আসি। আবার বাড়িতেও পৌছে দেই।” এমনকি সৎ ব্যবসায়ী হিসেবেও শাহীনের সুনাম আছে জানিয়ে দোকানে থাকা কিশোর নুরুজ্জামান নাঈম বলেন, “কাউকে তিনি ঠকান না। এমনকী গ্রামের যারা, নগদ, রকেট ও বিকাশে পাসওয়ার্ড মনে রাখতে পারেন না, তারাও পাসওয়ার্ড শাহীন ভাইর কাছে রাখে। টাকা এলে উঠিয়ে দেন তিনি।”
সাংবাদিকদের সাথে আলাপ প্রসঙ্গে জীবনের একটি চাওয়ার কথা জানান ক্রিকেটপ্রেমী শাহীন। “জীবনে একবার হলেও ক্রিকেটার তামিম ইকবালের সঙ্গে সরাসরি দেখা করতে চাই জানিয়ে সে বলে, ‘আমার জীবনের একটা লক্ষ্যই হচ্ছে তামিম ইকবালের সঙ্গে একটিবার হলেও একটু কথা বলা।” প্রিয় খেলোয়াড় তামিম ইকবালকে একবার হলেও তার সঙ্গে দেখা করার সুযোগ করে দেয়ার অনুরোধ জানান জীবনযুদ্ধে হার না মানা প্রতিবন্দী যুবক শাহিন।
পাশাপাশি নিজের জরাজীর্ণ হুইল চেয়ারটি দেখিয়ে বলেন, “কেউ যদি একটি মোটরচালিত হুইল চেয়ার দিত, তাহলে তার জীবনটা আরো একটু সহজ হত।”
এ ব্যাপারে শায়েস্তাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান আরিফুজ্জামান মুন্না সাংবাদিকদের বলেন, “শারীরিক প্রতিবন্ধিতা শাহীনকে আটকে রাখতে পারেনি। নিজেকে স্বাবলম্বী করার চেষ্টা করছে সে।”শাহীন সরকারি প্রতিবন্ধী ভাতা পাচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, “আমাদের পক্ষে যতটা সম্ভব, সাধ্যমতো সহযোগিতার চেষ্টা কিরছি” হুইল চেয়ারের “বিষয়টি জানা ছিলো না’ জানিয়ে তিনি বলেন, আমি ব্যক্তিগতভাবে তাকে একটি হুইল চেয়ার দেয়ার চেষ্টা করবো।”১০-৩-


বিভাগ : বাংলাদেশ


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

ফিলিস্তিনকে সদস্য করতে জাতিসংঘের প্রস্তাবে যুক্তরাষ্ট্রের ভেটো

ফিলিস্তিনকে সদস্য করতে জাতিসংঘের প্রস্তাবে যুক্তরাষ্ট্রের ভেটো

ইসরাইল আগ্রাসন চালালে ইরানের পারমাণবিক বিবেচনার পরিবর্তন ঘটবে : তেহরান

ইসরাইল আগ্রাসন চালালে ইরানের পারমাণবিক বিবেচনার পরিবর্তন ঘটবে : তেহরান

ব্রিটেনের প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো বন্ধ হতে শুরু করেছে

ব্রিটেনের প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো বন্ধ হতে শুরু করেছে

শায়খ নাসির উদ্দীন মাহমুদ চেরাগ-ই-দেহলভী-৪

শায়খ নাসির উদ্দীন মাহমুদ চেরাগ-ই-দেহলভী-৪

অক্সিজেন সিলিণ্ডার ছাড়া বাইরে প্রচণ্ড গরমে অসুস্থ চিকিৎসারত শিশুরা

অক্সিজেন সিলিণ্ডার ছাড়া বাইরে প্রচণ্ড গরমে অসুস্থ চিকিৎসারত শিশুরা

দেশটা এখন আওয়ামী মগের মুল্লুকে পরিণত হয়েছে -মির্জা ফখরুল

দেশটা এখন আওয়ামী মগের মুল্লুকে পরিণত হয়েছে -মির্জা ফখরুল

৩ দিনের হিট অ্যালার্ট

৩ দিনের হিট অ্যালার্ট

মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকিতে নগরবাসী

মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকিতে নগরবাসী

বাড়ছে তেল-স্বর্ণের দাম, শেয়ারের পতন

বাড়ছে তেল-স্বর্ণের দাম, শেয়ারের পতন

নতুন সঙ্কটে দেশের অর্থনীতি

নতুন সঙ্কটে দেশের অর্থনীতি

মধুখালীতে গণপিটুনি দিয়ে নির্মাণ শ্রমিক দুই সহোদরকে হত্যা

মধুখালীতে গণপিটুনি দিয়ে নির্মাণ শ্রমিক দুই সহোদরকে হত্যা

বিএনপি পথহারা পথিকের মতো দিশেহারা -ওবায়দুল কাদের

বিএনপি পথহারা পথিকের মতো দিশেহারা -ওবায়দুল কাদের

শরীয়তের ওপর আমলই সব সমস্যার সমাধান-২

শরীয়তের ওপর আমলই সব সমস্যার সমাধান-২

ডেঙ্গু আক্রান্ত ১৩ রোগী হাসপাতালে

ডেঙ্গু আক্রান্ত ১৩ রোগী হাসপাতালে

ফল-ফসলে হিটশকের শঙ্কা

ফল-ফসলে হিটশকের শঙ্কা

বয়স ৬১ শরীর ৩৮

বয়স ৬১ শরীর ৩৮

নীল রঙের বিরিয়ানি

নীল রঙের বিরিয়ানি

বাসন মাজার ঝামেলা শেষ

বাসন মাজার ঝামেলা শেষ

কৃষক লীগ নেতাদের গণভবনের সবজি উপহার দিলেন প্রধানমন্ত্রী

কৃষক লীগ নেতাদের গণভবনের সবজি উপহার দিলেন প্রধানমন্ত্রী

তিন মাস বন্ধ ভোলার ৩৪.৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্র

তিন মাস বন্ধ ভোলার ৩৪.৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্র