রাষ্ট্র ব্যবস্থা সংস্কারের আন্দোলন এগিয়ে নেয়ার আহবান গণতন্ত্র মঞ্চের

Daily Inqilab স্টাফ রিপোর্টার

১১ মার্চ ২০২৩, ০৩:৪৬ পিএম | আপডেট: ০১ মে ২০২৩, ১২:০৪ এএম

সরকারের পদত্যাগ ও একটা অন্তর্বর্তীকালীন সরকার এবং সরকারের উদ্যোগে একটা সুষ্ঠু নির্বাচন করে রাষ্ট্র ব্যবস্থা সংস্কারের যে আন্দোলন শুরু হয়েছে তা এগিয়ে নেওয়ার আহবান জানিয়েছে গণতন্ত্র মঞ্চের শীর্ষনেতারা।

শনিবার (১১ মার্চ) দুপুরে বিদ্যুতের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি, চাল, ডাল, তেল, কৃষি ও শিক্ষা উপকরণসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন উর্ধ্বগতির প্রতিবাদ এবং বর্তমান সংসদ বিলুপ্ত করে অন্তর্বর্তীকালীন সরকার প্রতিষ্ঠাসহ যুগপৎ আন্দোলনের ১৪ দফা দাবিতে গণতন্ত্র মঞ্চের উদ্যোগে পল্টন মোড়ে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে নেতারা এ আহবান জানান।

রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক হাসনাত কাইয়ূমের সভাপতিত্বে ও সাংগঠনিক সমন্বয়ক ইমরান ইমনের পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না, বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি, গণ অধিকার পরিষদের সদস্য সচিব নুরুল হক, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি'র সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট কে এম জাবির প্রমুখ।

সভাপতির বক্তব্যে হাসনাত কাইয়ূম বলেন, ১৪ দফা কর্মসূচির ভিত্তিতে এই সরকারের পদত্যাগ ও একটা অন্তর্বর্তীকালীন সরকার এবং সরকারের উদ্যোগে একটা সুষ্ঠু নির্বাচন করে সাংবিধান সংস্কার করে, রাষ্ট্র ব্যবস্থা সংস্কারের পথে যে আন্দোলন শুরু হয়েছে তাতে সবাইকে অংশ নিতে হবে।

তিনি বলেন, গনতন্ত্র মঞ্চের কেন্দ্রীয় পরিচালনা কমিটি আগামী মিটিং করে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করবে।

নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, প্রধানমন্ত্রী বিশাল বহর নিয়ে জনগণের টাকায় দেশ বিদেশে ঘুরছেন তার ক্ষমতা টিকেয়ে রাখার জন্য কিন্তু তাতে মানুষের কি লাভ হয়েছে। সরকার যতই তালবাহানা করুক, শেখ হাসিনার অধিনে কোন নির্বাচন হবে। গণতন্ত্র মঞ্চসহ যুগপৎ আন্দোলনে যারা আছেন কেউ এই তার অধীনে কোন নির্বাচনে যাবে না। প্রধানমন্ত্রী অনেক সময় অনেক ওয়াদা করেছেন কিন্তু কখনোই কথা রাখেন না। তার কথায় আর কারো আস্থা নাই। উনাকে ক্ষমতা ছেড়ে দিতেই হবে।

বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেন, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সংগঠক মাসুদ রানাকে গতরাতে আশুলিয়ায় হামলা করে আহত করা হয়েছে। সারাদেশে মানুষকে হামলা- মামলা করে আন্দোলন থেকে বিরত রাখতে চায়। কিন্তু মানুষের সামনে আন্দোলনের মধ্যে দিয়ে এই সরকারের পতন নিশ্চিত করা ছাড়া উপায় নাই। সারাদেশের মানুষের কোথাও কোন নিরাপত্তা নাই, দেশের মানুষকে গ্যাসচেম্বারে তুলে রেখেছে। এই সরকার সারাদেশের মানুষকে বন্ধক রেখে তাদের অবৈধ ক্ষমতাকে দীর্ঘায়িত করতে চায়। এদের পতন নিশ্চিত করতে হবে।

গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি বলেন, বর্তমান রাষ্ট্র ব্যবস্থায় ক্ষমতার সুষ্ঠু বন্টন নাই। গণতন্ত্র মঞ্চ স্পষ্ট করেছে রাষ্ট্রের ক্ষমতা কার কাছে কতোটা থাকবে কিভাবে বন্টন হবে তার কাঠামো ঠিক করতে হবে। রাষ্ট্রের কাঠামোগত সংস্কার না করলে আমাদর সংকটের সমাধান হবে না। বিদ্যুৎ ও গ্যাসের সিস্টেম লস ব্যবস্থাপনা নিয়ন্ত্রণ করতে পারলেও নিত্যপণ্যের দাম অনেক সহনীয় পর্যায়ে থাকতো কিন্তু সরকার এই নিয়ন্ত্রণ করেনা কারন সিস্টেম লসের নাম লুটপাট করে।

গণ অধিকার পরিষদের সদস্য সচিব নুরুল হক বলেন, বর্তমান সরকার উন্নয়নের নামে লুটপাট চালিয়ে যাচ্ছে, এবং পাচার করছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম এমন পর্যায়ে গেছে সাধারণ মানুষের সংসার চালানো মুশকিল হয়ে গেছে। বিরোধী দলের আন্দোলন সংগ্রাম ব্যাহত করার জন্য সরকার সারাদেশকে সংঘাতের দিকে ঠেলে দিতে শান্তি সমাবেশের নামে অশান্তি তৈরি করছে। অবিলম্বে অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের অধিনে নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে হবে।

জেএসডির সহ-সভাপতি এড. কে এম জাবের বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ১৪ বছর ধরে বাংলাদেশের মানুষের উপর জুলুম নির্যাতন চালিয়েছে। গণতন্ত্র মঞ্চ সুনির্দিষ্ট কর্মসূচির ভিত্তিতে অবিলম্বে বৃহত্তর আন্দোলনের এর মাধ্যমে এই সরকারকে পদত্যাগে বাধ্য করা হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন নাগরিক ঐক্যের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল্লাহ কায়ছার, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জেএসডির সিনিয়র যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক কামাল পাটোয়ারী, জেএসডির সাংগঠনিক সম্পাদক মোশারফ হোসেন মন্টু, গণ অধিকার পরিষদ এর সিনিয়র যুগ্ন আহবায়ক রাশেদ খান, বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির রাজনৈতিক পরিষদের সদস্য মীর মোফাজ্জল হোসেন মোস্তাক, রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলন এর প্রচার ও মিডিয়া সমন্বয়ক সৈয়দ হাসিব উদ্দিন হোসেন, যুব অধিকার পরিষদ এর সভাপতি মঞ্জুর মোর্শেদ মামুন, ছাত্র ফেডারেশন এর এর সভাপতি মশিউর রহমান রিচার্ড, সাধারণ সম্পাদক সৈকত আরিফ, নাগরিক ছাত্র ঐক্যের সভাপতি মোশাররফ হোসেন, রাষ্ট্র সংস্কার শ্রমিক আন্দোলন এর সমন্বয়ক শাহ আলম হোসাইন প্রমুখ।


বিভাগ : বাংলাদেশ


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

নোয়াখালীতে নিজ ফার্মেসী থেকে ব্যাবসায়ীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

নোয়াখালীতে নিজ ফার্মেসী থেকে ব্যাবসায়ীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

কঙ্গনার চড়কাণ্ড নিয়ে যা বললেন স্বরা ভাস্কর

কঙ্গনার চড়কাণ্ড নিয়ে যা বললেন স্বরা ভাস্কর

দিনাজপুরে আজ রবিবার আগাম ঈদুল আজহা'র নামাজ অনুষ্ঠিত

দিনাজপুরে আজ রবিবার আগাম ঈদুল আজহা'র নামাজ অনুষ্ঠিত

কোকাকোলার বিতর্কিত বিজ্ঞাপন: জীবন-শিমুলকে লিগ্যাল নোটিশ

কোকাকোলার বিতর্কিত বিজ্ঞাপন: জীবন-শিমুলকে লিগ্যাল নোটিশ

নেটিজেনের বিরুদ্ধে ১০০ কোটির মামলা রাবিনার

নেটিজেনের বিরুদ্ধে ১০০ কোটির মামলা রাবিনার

আগে দুই-তিন ঘণ্টা পেটাব, তারপর কথা: বুবলীর হুমকি

আগে দুই-তিন ঘণ্টা পেটাব, তারপর কথা: বুবলীর হুমকি

ফের ডিপফেক ভিডিওর শিকার আলিয়া ভাট!

ফের ডিপফেক ভিডিওর শিকার আলিয়া ভাট!

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদে বেবী নাজনীন

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদে বেবী নাজনীন

স্কটল্যান্ডকে বিদায় করে ইংল্যান্ডকে নিয়েই সুপার এইটে অস্ট্রেলিয়া

স্কটল্যান্ডকে বিদায় করে ইংল্যান্ডকে নিয়েই সুপার এইটে অস্ট্রেলিয়া

উখিয়ায় 'আরএসও' সদস্যকে 'আরসা' সন্ত্রাসীর গুলি করে হত্যা

উখিয়ায় 'আরএসও' সদস্যকে 'আরসা' সন্ত্রাসীর গুলি করে হত্যা

স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার ৬ ক্যাচ মিস নিয়ে শোরগোল

স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার ৬ ক্যাচ মিস নিয়ে শোরগোল

মাঠে নেমেই ইয়ামালের ইতিহাস

মাঠে নেমেই ইয়ামালের ইতিহাস

৯ জনের মায়ামির নাটকীয় জয়

৯ জনের মায়ামির নাটকীয় জয়

'বৃষ্টি' ও নামিবিয়াকে হারিয়ে সুপার এইট স্বপ্ন উজ্জ্বল করল ইংল্যান্ড

'বৃষ্টি' ও নামিবিয়াকে হারিয়ে সুপার এইট স্বপ্ন উজ্জ্বল করল ইংল্যান্ড

শুরুর ধাক্কা সামলে ইতালির স্বস্তির জয়

শুরুর ধাক্কা সামলে ইতালির স্বস্তির জয়

২৩ সেকেন্ডেই জালের দেখা! ইউরোর দ্রুততম গোলের রেকর্ড

২৩ সেকেন্ডেই জালের দেখা! ইউরোর দ্রুততম গোলের রেকর্ড

ইয়ামাল-কারভাহালের দুই 'বিপরীত' মাইলফলকের রাত

ইয়ামাল-কারভাহালের দুই 'বিপরীত' মাইলফলকের রাত

মদ্রিচের ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে শুভসূচনা স্পেনের

মদ্রিচের ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে শুভসূচনা স্পেনের

পশুবাহী গাড়ি আটকে চাঁদাবাজির অভিযোগে পাঁচ পুলিশ সদস্য বরখাস্ত

পশুবাহী গাড়ি আটকে চাঁদাবাজির অভিযোগে পাঁচ পুলিশ সদস্য বরখাস্ত

সিলেট বিভাগের ১০ উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের শপথ

সিলেট বিভাগের ১০ উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের শপথ