দৃষ্টিনন্দন বাঁকখালী ব্রীজ যোগাযোগ সহজ করণ ছাড়াও ভূমিকা রাখবে পর্য়টন আকর্ষণে

Daily Inqilab কক্সবাজার ব্যুরো

১৪ মার্চ ২০২৩, ০৬:৫৪ পিএম | আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০২৩, ১১:৩৪ পিএম

দৃষ্টিনন্দন বাঁকখালী ব্রীজটি যোগাযোগ সহজ করণ ছাড়াও ভূমিকা রাখবে পর্য়টন আকর্ষণে।
কক্সবাজার শহরের ঐতিহাসিক স্থান বদর মোকাম পয়েন্টের কস্তুরাঘাট দিয়ে বাঁকখালী নদীর উপর নির্মিত হচ্ছে নন্দন এই বাঁকখালী ব্রীজ। এটি সিভিল এভিয়েশনের কক্সবাজার বিমানবন্দর সম্প্রসারণ প্রকল্পের কাজ। তবে এই প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় কক্সবাজার।

এই ব্রীজ যেমন যুক্ত করবে কক্সবাজার শহরের ও বিমানবন্দরের সাথে খুরুস্কুলের শেখ হাসিনা আশ্রায়ণ প্রকল্প। তেমনি কক্সবাজার হয়ে সিতাকুন্ড পর্যন্ত মেরিন ড্রাইভ সড়ক সম্প্রসারিত হলে তাতে যুক্ত হবে এটি। পাশাপাশি পর্যটক আকর্ষনে ভূমিকা রাখবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কক্সবাজার স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ মামুন খান জানান, বাঁকখালী নদীর উপর এটি একটি চমৎকার ব্রীজ হবে। এটি প্রাথমিকভাবে কক্সবাজার শহরের সাথে বিমানবন্দর ও খুরুস্কুলে শেখ হাসিনা আশ্রায়ণ প্রকল্পের সাথে যুক্ত হবে। পাশাপাশি কক্সবাজার শহরে পর্যটক আকর্ষণে সহায়ক হবে। তিনি আরো জানান, ব্রীজটির দৈর্ঘ ৫৯৫ মিটার বা প্রায় ২ হাজার ফুট এবং প্রস্ত ৪০ ফুট। ব্রীজটি নির্মিত হচ্ছে ২৬০ কোটি টাকা ব্যয়ে।
প্রকল্পের তথ্যাবধানকারী কক্সবাজার সদর উপজেলা ইন্জিনিয়ার তৌহিদুল ইসলাম জানান, বাঁকখালী নদীর উপর নির্মিত দৃষ্টিনন্দন ব্রীজটি উত্তরের সংযোগ সড়ক দিয়ে শেখ হাসিনা আশ্রায়ন প্রকল্প হয়ে খুরুস্কুল টাইম বাজারে সংযুক্ত হবে। আর দক্ষিণে বিমানবন্দর ও কক্সবাজার শহরের সাথে সংযুক্ত হবে।

তিনি আরো বলেন, উত্তর পাশে জমি অধিগ্রহণ বিষয়ে কিছুটা জটিলতা ছিল। তবে তা এখন নিরসন হয়েছে। তাই আগামী জুনের মধ্যে এই ব্রীজের নির্মাণ কাজ সমাপ্ত হবে বলে তিনি আশা করছেন। পাশাপাশি দুইপাশের সংযোগ সড়কগুলো ওই সময়ের মধ্যে সংস্কার করা হবে বলে তিনি জানান।

সড়ক ও জনপথ বিভাগের সূত্রমতে আগামীতে কক্সবাজার হয়ে সিতাকুন্ড পর্যন্ত মেরিন ড্রাইভ সড়ক সম্প্রসারিত হলে এটি তাতে যুক্ত হবে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, বদরমোকাম কস্তুরাঘাট এলাকায় বাঁকখলী নদীর উপর এই ব্রীজ নির্মাণ করা হচ্ছে। এই ব্রীজের কারণে দুইপাশে জমির মূল্য বেড়েগেছে বহুগুন। দক্ষিণ পাশের বিস্তৃত ভরা বাঁকখালী দখল করে বস্তি গড়ে তুলেছি প্রভাবশালীরা। সম্প্রতি ওই বস্তি উচ্ছেদ করে জেলা প্রশাসন।


বিভাগ : বাংলাদেশ


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

গাজায় শান্তি আলোচনায় মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকায় থাকতে চাইছে না কাতার?

গাজায় শান্তি আলোচনায় মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকায় থাকতে চাইছে না কাতার?

মণিপুরী ছাত্র‌দের জন্য একটি আলাদা হোস্টেল তৈরির প্রতিশ্রুতি দিলেন সিসিক মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী

মণিপুরী ছাত্র‌দের জন্য একটি আলাদা হোস্টেল তৈরির প্রতিশ্রুতি দিলেন সিসিক মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী

আবুধাবীতে চালু হলো ইউএস বাংলার ফ্লাইট

আবুধাবীতে চালু হলো ইউএস বাংলার ফ্লাইট

বিশ্বকে বাঁচাতে জীবাশ্ম জ্বালানিতে অর্থায়ন বন্ধের দাবি তরুণদের

বিশ্বকে বাঁচাতে জীবাশ্ম জ্বালানিতে অর্থায়ন বন্ধের দাবি তরুণদের

ইরানের হামলার বিষয়ে প্রশ্ন এড়িয়েই যাচ্ছেন ব্লিনকেন

ইরানের হামলার বিষয়ে প্রশ্ন এড়িয়েই যাচ্ছেন ব্লিনকেন

রাজশাহী পবায় ট্রাক চাপায় তিন মোটরসাইকেল আরোহী নিহত, আহত ৩

রাজশাহী পবায় ট্রাক চাপায় তিন মোটরসাইকেল আরোহী নিহত, আহত ৩

নিউইয়র্কে সোনালী এক্সচেঞ্জের গ্রাহক সমাবেশ ও ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত

নিউইয়র্কে সোনালী এক্সচেঞ্জের গ্রাহক সমাবেশ ও ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত

বিমানবন্দর এলাকায় বাসের ধাক্কায় এক প্রকৌশলী নিহত

বিমানবন্দর এলাকায় বাসের ধাক্কায় এক প্রকৌশলী নিহত

ফিলিস্তিন জাতিসংঘের সদস্য না হওয়ায় দুঃখ প্রকাশ আরব দেশগুলোর

ফিলিস্তিন জাতিসংঘের সদস্য না হওয়ায় দুঃখ প্রকাশ আরব দেশগুলোর

সুনামগঞ্জের দেখার হাওরে কৃষকদের নিয়ে ধান কাটলেন কৃষিমন্ত্রী

সুনামগঞ্জের দেখার হাওরে কৃষকদের নিয়ে ধান কাটলেন কৃষিমন্ত্রী

সিলেটের উপর দিয়ে বয়ে যেতে পারে ৬০ কি:মি বেগে বজ্র বৃষ্টি সহ দমকা হাওয়া !

সিলেটের উপর দিয়ে বয়ে যেতে পারে ৬০ কি:মি বেগে বজ্র বৃষ্টি সহ দমকা হাওয়া !

আনোয়ারায় হিট স্ট্রোকে শাহজাদা ছালেহ আহমদ (৭৪) শাহর মৃত্যু

আনোয়ারায় হিট স্ট্রোকে শাহজাদা ছালেহ আহমদ (৭৪) শাহর মৃত্যু

দুবাই পানিতে তলিয়ে যাবার কারণ ক্লাউড সিডিং?

দুবাই পানিতে তলিয়ে যাবার কারণ ক্লাউড সিডিং?

জার্মানির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ জেলেনস্কির

জার্মানির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ জেলেনস্কির

নেতানিয়াহুকে গ্রেপ্তারি করার প্রস্তুতি নিচ্ছে আইসিসি, জরুরি বৈঠক তলব

নেতানিয়াহুকে গ্রেপ্তারি করার প্রস্তুতি নিচ্ছে আইসিসি, জরুরি বৈঠক তলব

বান্দরবানে অপহৃত সেই ব্যাংক ম্যানাজার কে চট্টগ্রামে বদলী

বান্দরবানে অপহৃত সেই ব্যাংক ম্যানাজার কে চট্টগ্রামে বদলী

মূল্যস্ফীতিই অর্থনীতিতে বড় সমস্যা

মূল্যস্ফীতিই অর্থনীতিতে বড় সমস্যা

খাদের কিনারে মধ্যপ্রাচ্য

খাদের কিনারে মধ্যপ্রাচ্য

সেনাপ্রধান এসএম শফিউদ্দিন আহমেদের প্রশংসনীয় বক্তব্য

সেনাপ্রধান এসএম শফিউদ্দিন আহমেদের প্রশংসনীয় বক্তব্য

রাঙ্গুনিয়ায় বলি খেলায় বিজয়ী রুবেল

রাঙ্গুনিয়ায় বলি খেলায় বিজয়ী রুবেল