জাতীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন দিয়ে মুক্তি দিন পীর সাহেব চরমোনাই

Daily Inqilab স্টাফ রিপোর্টার

১৬ মার্চ ২০২৩, ০৮:৪৬ পিএম | আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০২৩, ১১:৪৫ পিএম

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম (পীর সাহেব চরমোনাই) বলেছেন, সরকার যেনতেনভাবে নির্বাচন দিয়ে পুনরায় ক্ষমতায় যাওয়ার ফন্দি ফিকির করছে। কিন্তু সরকারের সে স্বপ্ন জনগণ পূরণ করতে দেবে না। তিনি সরকারকে উদ্দেশ্য করে বলেন, জনগণের ভাষা বোঝার চেষ্টা করুন এবং জাতীয় সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচন দিয়ে জাতিকে চলমান কলঙ্ক থেকে মুক্তি দিন। তিনি বলেন, বর্তমান শিক্ষামন্ত্রী ইসলাম, ঈমান বিধ্বংসী ও ইতিহাস বিকৃতকারী সিলেবাস এদেশেবাসির উপর চাপিয়ে দেয়ার গভীর ষড়যন্ত্র লিপ্ত রয়েছেন। তিনি এ সম্পর্কে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান।
পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, সরকারের বিগত বছরের সীমাহীন লুটপাট, দুর্নীতি, অর্থপাচারের কারণে দেশ আজ এক ভয়াবহ অর্থনৈতিক বিপর্যয়ের সম্মুখীন। সরকারি হিসাবেই বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ইতোমধ্যে ৪০ বিলিয়ন ডলারের নিচে। ফলে অতি প্রয়োজনীয় পণ্য আমদানির জন্যও ঋণপত্র খুলতে পারছে না সরকার। জ্বালানির সঙ্কট মূলত সেখান থেকেই।
আজ বৃহস্পতিবার লক্ষ্মীপুর লিল¬াহ জামে মসজিদ মাঠে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ লক্ষ্মীপুর জেলা শাখা আয়োজিত বিশাল গণ-সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। দলের লক্ষ্মীপুর জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইনের সভাপতিত্বে এবং সেক্রেটারি মাওলানা মহিউদ্দিনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত গণ-সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা নূরুল করীম আকরাম। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন, জামেয়া ওসমানিয়া চাটখিলের শিক্ষা সচিব মুফতি মুহাম্মদ আছেম, লক্ষ্মীপুর দারুল উলুম কামিল মাদরাসার মাওলানা মোহাম্মদ ইসমাইল, জামেয়া আবু হানিফা এর পরিচালক মাওলানা আব্দুল কাইয়ুম, ইশাতুল উলুম লুধুয়ার মুহাদ্দিস হাফেজ মাওলানা হারুনুর রশিদ, জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ লক্ষ্মীপুর জেলা সভাপতি হাফেজ মাওলানা আব্দুর রহিম, জামেয়া ইসলামিয়া মারকাজুল উলূমের প্রিন্সিপাল মাওলানা মুহা. ওমর ফারুক, ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন বাংলাদেশ লক্ষ্মীপুর জেলা সভাপতি ডা: নাসির উদ্দিন, ইসলামী যুব আন্দোলন বাংলাদেশ লক্ষ্মীপুর জেলা সভাপতি মাওলানা মোখলেছুর রহমান, ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশ লক্ষ্মীপুর জেলা সভাপতি এইচ এম হাবিবুর রহমান।
বিশেষ অতিথি অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন বলেন, দ্রব্যমূল্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির কারণে সাধারণ মানুষ চরমভাবে অসহায় হয়ে পড়েছে। বারবার নিত্যপণ্যের দাম বাড়ায় সাধারণ মানুষের হাতের নাগালের বাইরে চলে গেছে। সরকার দলীয় লোকজন বাজার সিন্ডিকেটের সাথে জড়িত থাকায় সরকার সিন্ডিকেট ভাঙতে পারছে না, আর এর খেসারত দিচ্ছে জনগণ। বারবার তেল, বিদ্যুৎ ও গ্যাসের দাম বৃদ্ধি করে সরকার জনগণকে শোষণ করছে। এমন পরিস্থিতিতে জনগণের প্রতি সরকারের কোন প্রকার দায়বদ্ধতা আছে বলে মনে হয় না।

 


বিভাগ : বাংলাদেশ


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

সম্ভাব্য শেষ ফরাসি ওপেনে প্রথম রাউন্ডেই বিদায় নাদালের

সম্ভাব্য শেষ ফরাসি ওপেনে প্রথম রাউন্ডেই বিদায় নাদালের

বাংলাদেশে কুরুলুস উসমান অভিনেতা ওসমান বে'কে নিয়ে ভক্তদের মাঝে উন্মাদনা

বাংলাদেশে কুরুলুস উসমান অভিনেতা ওসমান বে'কে নিয়ে ভক্তদের মাঝে উন্মাদনা

'অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনা' আখ্যা দিলেও আগ্রাসন চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার নেতানিয়াহুর

'অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনা' আখ্যা দিলেও আগ্রাসন চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার নেতানিয়াহুর

ইউরোর প্রাথমিক দল ঘোষণা স্পেনের,নতুন মুখ ফেরমিন লোপেজ

ইউরোর প্রাথমিক দল ঘোষণা স্পেনের,নতুন মুখ ফেরমিন লোপেজ

দেড় লাখ ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত

দেড় লাখ ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত

পানিবন্দি লাখো মানুষ

পানিবন্দি লাখো মানুষ

দুনিয়ার ধন-সম্পদ মানুষের জন্য পরীক্ষা

দুনিয়ার ধন-সম্পদ মানুষের জন্য পরীক্ষা

ভারত একনায়কতন্ত্রের দিকে যাচ্ছে, পুতিন ও শেখ হাসিনা যা করেছেন মোদি তাই করতে চাইছেন -অরবিন্দ কেজরিওয়াল

ভারত একনায়কতন্ত্রের দিকে যাচ্ছে, পুতিন ও শেখ হাসিনা যা করেছেন মোদি তাই করতে চাইছেন -অরবিন্দ কেজরিওয়াল

ফিচ রেটিংসে ফের বাংলাদেশের ঋণমান অবনমন

ফিচ রেটিংসে ফের বাংলাদেশের ঋণমান অবনমন

এডিপি বাস্তবায়ন অর্ধেকেরও কম

এডিপি বাস্তবায়ন অর্ধেকেরও কম

নিজের বুক পেতে উপকূলকে এবারও রক্ষা করল সুন্দরবন

নিজের বুক পেতে উপকূলকে এবারও রক্ষা করল সুন্দরবন

পৌনে তিন কোটি গ্রাহক বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন

পৌনে তিন কোটি গ্রাহক বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন

কসাই জিহাদকে নিয়ে কলকাতার সেই ফ্ল্যাটে ঢাকা ডিবির তদন্ত দল

কসাই জিহাদকে নিয়ে কলকাতার সেই ফ্ল্যাটে ঢাকা ডিবির তদন্ত দল

একদিনে ৩ হাজার ৩৩৫ মি.মি. বৃষ্টিপাত রেকর্ড!

একদিনে ৩ হাজার ৩৩৫ মি.মি. বৃষ্টিপাত রেকর্ড!

রিমালের প্রভাবে আন্তর্জাতিক রুটের ১০ ফ্লাইট বাতিল

রিমালের প্রভাবে আন্তর্জাতিক রুটের ১০ ফ্লাইট বাতিল

১১১ উপজেলায় কোটিপতি ১০৬ প্রার্থী

১১১ উপজেলায় কোটিপতি ১০৬ প্রার্থী

নিষেধাজ্ঞা উঠছে, সউদীর কাছে প্রাণঘাতী অস্ত্র বিক্রি করবে যুক্তরাষ্ট্র

নিষেধাজ্ঞা উঠছে, সউদীর কাছে প্রাণঘাতী অস্ত্র বিক্রি করবে যুক্তরাষ্ট্র

রাখাইনে নির্বিচারে মুসলিম নিধন ও শিরোñেদ চালাচ্ছে আর্মি

রাখাইনে নির্বিচারে মুসলিম নিধন ও শিরোñেদ চালাচ্ছে আর্মি

শরণার্থী শিবিরে ইসরাইলি হামলায় জীবন্ত পুড়ে মরল অসহায় ফিলিস্তিনিরা

শরণার্থী শিবিরে ইসরাইলি হামলায় জীবন্ত পুড়ে মরল অসহায় ফিলিস্তিনিরা

একদিনে ১৩ জনের করোনা শনাক্ত

একদিনে ১৩ জনের করোনা শনাক্ত