কসবা রেলস্টেশন এবং সালদানদী রেলসেতুর নির্মাণকাজ অব্যাহত থাকবে: পররাষ্ট্রসচিব

Daily Inqilab কসবা (ব্রা‏হ্মণবাড়িয়া) উপজেলা সংবাদদাতা

১৮ মার্চ ২০২৩, ০৭:৪১ পিএম | আপডেট: ২৯ মার্চ ২০২৩, ০১:০৫ এএম

পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন আজ শনিবার আখাউড়া-লাকসাম রেলপথের ব্রা‏হ্মণবাড়িয়ার কসবা রেলস্টেশন এলাকা ও সালদানদী রেলসেতুর নির্মাণকাজ পরিদর্শনকালে বলেন; আখাউড়া-লাকসাম রেলপথের ব্রা‏হ্মণবাড়িয়ার কসবা রেলস্টেশন এলাকা এবং সালদা নদী রেলসেতুর নির্মাণকাজ বারবার বন্ধ হলেও আর বন্ধ হবে না। নির্মাণকাজ নির্দিষ্ট সময়ের আগেই শেষ হবে। আখাউড়া-লাকসাম রেলপথ নির্মাণকাজ পূণরায় শুরু হওয়ার সপ্তম দিনে আজ শনিবার কসবা রেলস্টেশন এলাকা পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন।
ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের জিরো পয়েন্টের ১৫০ গজের ভেতর কাজ করার অভিযোগ তুলে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) ২০২০ সালের ৯ সেপ্টেম্বর কসবা রেলস্টেশন ও সালদা রেলসেতুর নির্মাণকাজ বন্ধ করে দেয়। পরে উচ্চপর্যায়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রায় আড়াই বছর বন্ধ থাকার পর ১২ মার্চ ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের কসবা রেলস্টেশন, রেলপথ ও সালদা রেলসেতুর নির্মাণকাজ শুরু হয়েছে।
পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, সাম্প্রতিককালে সমস্যাগুলো সমাধান করে রেলস্টেশন ও সালদা রেলসেতুর নির্মাণকাজ শুরু হয়েছে। ৭ দিন যাবত পুরোদমে কাজ চলছে। এ নির্মাণকাজ শেষ হলে উভয় দেশের জন্য ভালো হবে। তিনি আরও বলেন, বন্ধুপ্রতিম ভারতের সঙ্গে আমাদের যোগাযোগ ব্যবস্থা আরও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। এটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কাজ।
এসময় মাসুদ বিন মোমেনের সঙ্গে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ইন্সপেক্টর জেনারেল অব মিশনস আসাদ আলম সিয়াম, ওই মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক (দক্ষিণ এশিয়া) রকিবুল হক, পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম, বিজিবি কুমিল্লা সেক্টরকমান্ডার কর্নেল মো. আবুল কালাম শামসুদ্দিন রানা, ৬০ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল মুহাম্মদ আশিক হাসানউল্লাহ, আখাউড়া-লাকসাম রেলপথ নির্মাণকাজ প্রকল্পের পরিচালক মো. সুবক্তগীন, কসবা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আমিমুল এহসান খান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) সঞ্জীব সরকার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
নির্মাণ প্রকল্পের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ও রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের ব্রা‏হ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া রেলজংশন থেকে লাকসাম রেলজংশন পর্যন্ত ৭২ কিলোমিটার ডাবল লাইনের কাজ অব্যাহত আছে। ২০১৬ সালের ১ নভেম্বর প্রকল্পটির নির্মাণকাজ শুরু হয়। এর মধ্যে প্রকল্পের অধিকাংশ কাজ শেষ হলেও বিএসএফের বাধার মুখে কসবা রেলস্টেশন, স্টেশনের ডাবল লাইন ও সালদা রেলসেতুর নির্মাণকাজ বন্ধ ছিল।
এ প্রকল্পের পরিচালক মো. সুবক্তগীন বলেন, পুরো প্রকল্পটির নির্মাণকাজ শেষ হলে জাতীয় অর্থনীতিতে এটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। বর্তমানে ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথে ২৩ জোড়া ট্রেন চালু আছে। নির্মাণকাজ সম্পন্ন হলে এ পথে মোট ৭২ জোড়া ট্রেন চলাচল করতে সক্ষম হবে।
শনিবার বেলা ১১টার দিকে কসবা রেলওয়ে স্টেশন এলাকা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন বলেন, কসবা সীমান্ত হাটসহ সব ক'টি হাট শিগগিরই খুলে দেওয়া হবে। চালু করা হবে আরও বেশ কয়েকটি সীমান্ত হাট। এ ব্যাপারে খুব শিগগিরই ভারতীয় হাইকমিশনারের সঙ্গে কথা বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। সীমান্ত হাটের গুরুত্ব উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, সীমান্তহাটগুলো হচ্ছে ভারত-বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের সম্প্রীতির মেলবন্ধন। এ বন্ধন আরও মজবুত করতে সীমান্ত হাট খুলে দেওয়া হবে।
উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, করোনা মহামারির কারণে ২০২০ সালের ১১ মার্চ থেকে তিন বছরেরও অধিক সময় সীমান্ত হাট বন্ধ রয়েছে।
এ সূত্রে আরও জানা যায়, ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের ২০৩৯ পিলারের কাছে ব্রা‏হ্মণবাড়িয়ার কসবা পৌর এলাকার তারাপুর ও ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের সিপাহীজলা জেলার কমলাসাগর এলাকায় দুই দেশের সমপরিমাণ ১ একর ৫০ শতক জায়গাজুড়ে সীমান্ত হাট বসে। প্রতি রোববার সাপ্তাহিক হাটের দিন। এতে উভয় দেশের ২৫টি করে মোট ৫০টি দোকান চালু আছে।
২০১৫ সালের ৬ জুন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দুই দিনের সফরে বাংলাদেশে আসেন। সে সময় ঢাকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কার্যালয় থেকে এ হাটের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন দু'দেশের প্রধানমন্ত্রী। ওই বছরের ১১ জুন থেকে সপ্তাহে একদিন এ হাট চালু করা হয়।
সীমান্ত হাট বন্ধ থাকায় ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে উভয় দেশের বরাদ্দ পাওয়া দোকান মালিকগণ।


বিভাগ : বাংলাদেশ


আরও পড়ুন

মার্কিন পররাষ্ট্র নীতি বদলেযেতে পারে ২০২৪ সালে

মার্কিন পররাষ্ট্র নীতি বদলেযেতে পারে ২০২৪ সালে

মেক্সিকোতে শরণার্থী শিবিরে বিধ্বংসী অগ্নিকা-ে মৃত অন্তত ৪০

মেক্সিকোতে শরণার্থী শিবিরে বিধ্বংসী অগ্নিকা-ে মৃত অন্তত ৪০

বিতর্কে নারী ডিসি-ইউএনও

বিতর্কে নারী ডিসি-ইউএনও

মামলার আগেই র‌্যাব গ্রেফতার করতে পারে কি না -প্রশ্ন হাইকোর্টের

মামলার আগেই র‌্যাব গ্রেফতার করতে পারে কি না -প্রশ্ন হাইকোর্টের

সুলতানার মৃত্যুতে তদন্ত কমিটি করেছে র‌্যাব

সুলতানার মৃত্যুতে তদন্ত কমিটি করেছে র‌্যাব

ওলী আউলিয়াদের মাধ্যমে এদেশে ইসলাম এসেছে

ওলী আউলিয়াদের মাধ্যমে এদেশে ইসলাম এসেছে

রমজানে গোশত নিম্নবিত্তের নাগালে নেই

রমজানে গোশত নিম্নবিত্তের নাগালে নেই

বিশ্ববাজারে কমলেও বাংলাদেশে কমছে না তেলের দাম

বিশ্ববাজারে কমলেও বাংলাদেশে কমছে না তেলের দাম

তিন দিনব্যাপী জাতীয় ভূমি সম্মেলন শুরু হচ্ছে

তিন দিনব্যাপী জাতীয় ভূমি সম্মেলন শুরু হচ্ছে

বিএনপিকে সংলাপ নয়, আলোচনার জন্য ডেকেছি

বিএনপিকে সংলাপ নয়, আলোচনার জন্য ডেকেছি

সৌদিতে নিহত ৮ বাংলাদেশীর মধ্যে ২ জনের বাড়ী কুমিল্লা

সৌদিতে নিহত ৮ বাংলাদেশীর মধ্যে ২ জনের বাড়ী কুমিল্লা

নগরবাসীর ভোগান্তি চরমে

নগরবাসীর ভোগান্তি চরমে

আরাভ খানের বিরুদ্ধে অস্ত্র মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ

আরাভ খানের বিরুদ্ধে অস্ত্র মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ

বিএনপি নেতাদের বিবেক-বুদ্ধি-চক্ষুলজ্জা হারিয়ে গেছে

বিএনপি নেতাদের বিবেক-বুদ্ধি-চক্ষুলজ্জা হারিয়ে গেছে

ঢাবি ছাত্রীদের মুখম-ল খোলা রাখার নোটিশ হাইকোর্টে স্থগিত

ঢাবি ছাত্রীদের মুখম-ল খোলা রাখার নোটিশ হাইকোর্টে স্থগিত

লেপার্ড ট্যাঙ্কের প্রথম চালান পেল ইউক্রেন

লেপার্ড ট্যাঙ্কের প্রথম চালান পেল ইউক্রেন

আফগান শরণার্থীদের হোটেল থেকে উচ্ছেদ করবে ব্রিটেন!

আফগান শরণার্থীদের হোটেল থেকে উচ্ছেদ করবে ব্রিটেন!

এই তাসকিন দেখেন শীর্ষ দল হওয়ার স্বপ্ন

এই তাসকিন দেখেন শীর্ষ দল হওয়ার স্বপ্ন

চীনের পাশেই থাকছে পাকিস্তান

চীনের পাশেই থাকছে পাকিস্তান

পেলে, ম্যারাডোনার পাশে মেসিও

পেলে, ম্যারাডোনার পাশে মেসিও