ঢাকায় ইমারত নির্মাণ বিধিমালা অনুসরণ করা হচ্ছে না নগর পরিল্পনাবিদ অধ্যাপক ড. আকতার মাহমুদ

Daily Inqilab ইনকিলাব

১৮ মার্চ ২০২৩, ০৯:৪৩ পিএম | আপডেট: ২৮ মার্চ ২০২৩, ১০:২৪ পিএম

ঢাকা শহর অপরিকল্পিত ভাবে গড়ে উঠেছে। রাজধানীতে ইমারত নির্মাণে বিধিমালা অনুসরণ করা হচ্ছে না। দুর্যোগ ঝুঁকি নিয়ে এ শহরে বাস করছে দেড়কোটি মানুষ। নগরীর ৬৫ শতাংশ ভবন দূর্বল মাটির ওপর প্রতিষ্ঠিত। যা ভবন নিরাপত্তা ঝুঁকির অন্যতম কারণ। এভাবে ভবন ধসের ঝুঁকি নিয়ে একটি শহর টিকতে পারে না। ভবন নিরাপত্তা নিশ্চিত না হলে মানুষের প্রাণহানী ও সম্পদ ক্ষতির ঝুঁকি বাড়বে এবং টেকসই উন্নয়ন লক্ষমাত্র অর্জন সম্ভব হবে না। ভবন নিরাপত্তার জন্য দায়িত্ব প্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান সমূহ যথাযথ দায়িত্ব পালন করছে না। রাজউক অনুমোদিত নকশা অনুযায়ী ভবন নির্মান হচ্ছে কিনা সে বিষয়ে নজরদারীর ঘাটতি রয়েছে। এমনকি নকশা অনুমোদনের ক্ষেত্রে দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে। ভবন নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হলে দায়িত্ব প্রাপ্ত সংস্থা, পেশাজীবী ও ভবন মালিক সবাইকে সমন্বিত ভাবে দায়িত্ব পালন করতে হবে। নিরাপদ ভবন নিশ্চিত করার জন্য মহানগর ইমারত নির্মাণ বিধিমালা ও বিল্ডিং কোডের অনুশীলন নিশ্চিত করা জরুরি। আজ শনিবার বাংলাদেশ চলচিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশনে (এফডিসি) অনুষ্ঠিত এক ছায়া সংসদ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় বিশিষ্ট নগর পরিল্পনাবিদ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আকতার মাহমুদ এসব কথা বলেছেন। প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানটির আয়োজন করে ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি’র চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ।
সভাপতির বক্তব্যে ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি’র চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ বলেন, সাইন্সল্যাবরোটরি ও পুরান ঢাকায় বিস্ফোরণে হতাহতের ঘটনায় আমাদের চোখে আঙ্গুল দিয়ে বুঝিয়ে দিয়েছে কত ভায়াবহ ঝুঁকির মধ্যে আমরা বসবাস করছি। নগর ব্যবস্থাপণায় সুশাসনের অভাব, অপরিকল্পিত নগরয়ন, বিল্ডিং কোড না মেনে ভবন নির্মাণ, সেবা প্রদানকারী সংস্থাগুলোর অবহেলা, দুর্নীতি ও নাগরিকদের উদাসীনতা ভবন ধসের ঝুঁকি বাড়িয়ে তুলছে। অভিযোগ রয়েছে রাজউক থেকে নকশার অনুমোদন পেতে এক বছরেরও বেশি সময় লেগে যায়। নির্মাণ শেষে বিল্ডিংয়ের অকোপেন্সি সার্টিফিকেট পেতেও বেশ কষ্ট হয়। ইমারত নির্মান বিধিমালা যথাযথ ভাবে অনুসরন না করায় ভবন নিরাপত্তাহীনতা সহ নগর দুর্যোগের ঝুঁকি বাড়ছে। তিনি আরো বলেন ভবন ধসে যেসব সাধারণ মানুষ, পথচারী আকস্মিক ভাবে নিহত ও আহত হচ্ছে তাদের অসহায় পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর কোন রাষ্ট্রীয় মেকানিজম নেই। কলকারখানার দুর্ঘটনায় আহত-নিহত শ্রমিকরা শ্রমিক কল্যাণ তহবিল ও মালিকদের নিকট থেকে আর্থিক সহযোগিতা পেয়ে থাকে। কিন্তু ভবন ধসে প্রাণ হারানো বা আহত ব্যক্তি বা তাদের পরিবার তেমন কোন আর্থিক সহযোগিতা পায় না। তাই আজ এই অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বিগত সময়ে ভবন ধসের ঘটনায় আহত ও নিহত পরিবারকে সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে মানবিক সহায়তা প্রদানের দাবি করেন।‘মালিকদের উদাসীনতাই ভবন নিরাপত্তাহীনতার প্রধান কারণ’ শীর্ষক বিতর্ক প্রতিযোগিতায় শরিয়তপুরের মজিদ জরিনা ফাউন্ডেশন স্কুল এন্ড কলেজকে পরাজিত করে ঢাকার সামসুল হক খান স্কুল এন্ড কলেজের বিতার্কিকরা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে। বিতর্ক প্রতিযোগিতার বিচারক ছিলেন অধ্যাপক আবু মুহাম্মদ রইস, ড. এস এম মোর্শেদ। প্রতিযোগিতা শেষে চ্যাম্পিয়ন ও রানারআপ দলকে ট্রফি ও সনদপত্র প্রদান করা হয়।

 


বিভাগ : বাংলাদেশ


আরও পড়ুন

লেপার্ড ট্যাঙ্কের প্রথম চালান পেল ইউক্রেন

লেপার্ড ট্যাঙ্কের প্রথম চালান পেল ইউক্রেন

আফগান শরণার্থীদের হোটেল থেকে উচ্ছেদ করবে ব্রিটেন!

আফগান শরণার্থীদের হোটেল থেকে উচ্ছেদ করবে ব্রিটেন!

চীনের পাশেই থাকছে পাকিস্তান

চীনের পাশেই থাকছে পাকিস্তান

পেলে, ম্যারাডোনার পাশে মেসিও

পেলে, ম্যারাডোনার পাশে মেসিও

ওলী আউলিয়াদের মাধ্যমে এদেশে ইসলাম এসেছে -জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের ইফতার মাহফিলে মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক

ওলী আউলিয়াদের মাধ্যমে এদেশে ইসলাম এসেছে -জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের ইফতার মাহফিলে মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক

রোজার দিনসমূহের সীমারেখা

রোজার দিনসমূহের সীমারেখা

ঢাকার বায়ু দূষণে দায়ী ভারত

ঢাকার বায়ু দূষণে দায়ী ভারত

হাওরে আতঙ্ক বজ্রপাত

হাওরে আতঙ্ক বজ্রপাত

তুচ্ছ ঘটনায় দুই সহপাঠীকে হত্যা

তুচ্ছ ঘটনায় দুই সহপাঠীকে হত্যা

স্কটল্যান্ডের প্রথম মুসলিম প্রধান কে এই হামজা ইউসুফ?

স্কটল্যান্ডের প্রথম মুসলিম প্রধান কে এই হামজা ইউসুফ?

রাস্তায় নামলেই দুর্ভোগ

রাস্তায় নামলেই দুর্ভোগ

বাংলাদেশে শিগগিরই গণঅভ্যুত্থান হবে

বাংলাদেশে শিগগিরই গণঅভ্যুত্থান হবে

চট্টগ্রামে অপহৃত শিশু আয়নী ৭ দিনেও উদ্ধার হয়নি

চট্টগ্রামে অপহৃত শিশু আয়নী ৭ দিনেও উদ্ধার হয়নি

ছাগলনাইয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১

ছাগলনাইয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১

জাতীয় পার্টি জনগণের উন্নয়নে রাজনীতি করে: এমপি খোকা

জাতীয় পার্টি জনগণের উন্নয়নে রাজনীতি করে: এমপি খোকা

জাতীয় জাদুঘরের গ্যালারির সংখ্যা বৃদ্ধি ও ঢাকা মহানগর জাদুঘর রূপান্তর কার্যক্রম সম্পর্কে বৈঠকে সিদ্ধান্ত

জাতীয় জাদুঘরের গ্যালারির সংখ্যা বৃদ্ধি ও ঢাকা মহানগর জাদুঘর রূপান্তর কার্যক্রম সম্পর্কে বৈঠকে সিদ্ধান্ত

‘রাশিয়া-ইউক্রেনের লড়াই ২৪ ঘণ্টায় থামিয়ে দিতে পারি’, ট্রাম্পের দাবি ঘিরে শোরগোল

‘রাশিয়া-ইউক্রেনের লড়াই ২৪ ঘণ্টায় থামিয়ে দিতে পারি’, ট্রাম্পের দাবি ঘিরে শোরগোল

রাহুল ইস্যুতে স্পিকার ওম বিড়লার বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনতে চলেছে বিরোধীরা

রাহুল ইস্যুতে স্পিকার ওম বিড়লার বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনতে চলেছে বিরোধীরা

তান্ত্রিকের পরামর্শে শিশুকে ‘নরবলি’, ব্যাপক বিক্ষোভ কলকাতায়!

তান্ত্রিকের পরামর্শে শিশুকে ‘নরবলি’, ব্যাপক বিক্ষোভ কলকাতায়!

নারী-পুরুষ সমতা ও উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে টাস্কফোর্স গঠনের সুপারিশ

নারী-পুরুষ সমতা ও উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে টাস্কফোর্স গঠনের সুপারিশ