বিএসএমএমইউ’র নার্সিং ছাত্রছাত্রীদের ক্যাপিং সেরিমনি নার্সদের প্রতি রোগীদেরকে নিজ হাতে ওষুধ খাইয়ে দেয়ার আহ্বান ভিসি’র

Daily Inqilab স্টাফ রিপোর্টার

২০ মার্চ ২০২৩, ০৬:২৬ পিএম | আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০২৩, ১০:৪৭ পিএম

 

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেছেন, নার্সদেরকে তিনটি কাজ অবশ্যই করতে হবে। তা হলো প্রতিদিন সকালবেলা হাসিমুখে রোগীদের খোঁজখবর নেয়া, রোগীর শরীরের তাপমাত্রা পর্যবেক্ষণসহ কিছু প্রয়োজনীয় বিষয় দেখা এবং রোগীদেরকে একটু বসিয়ে নিজ হাতে ওষুধ খাইয়ে দেয়া। রোগীকে নিজ পরিবারের সদস্য ভেবে ইমপ্যাথি দিয়ে সেবা দিতে হবে। তিনি বলেন, নার্সিং পেশা অত্যন্ত সম্মানজনক পেশা। এই পেশাকে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা দ্বিতীয় শ্রেণীতে উন্নীত করেছেন। শুধু তাই নয়, বর্তমান সরকারের আমলে ৩০ হাজার নার্স নিয়োগ দেয়া হয়েছে। শিগগিরই আরো ৩ হাজার নার্স নিয়োগ দেয়া হবে। বিদেশেও নার্সদের চাহিদা রয়েছে, সেই চাহিদা পূরণ করা গেলে দেশ অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হবে।

সোমবার (২০ মার্চ) শহীদ ডা. মিলন হলে বিএসসি নার্সিং এর ১২তম ব্যাচের ক্যাপিং সেরিমনি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে নার্সিং অনুষদের ডিন প্রফেসর ডা. দেবব্রত বনিক নার্সিং পেশার উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবদানের কথা উল্লেখ করে বলেন, নার্সিং পেশায় পিএইচডি ডিগ্রী চালুর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

সুন্দর এই অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি (একাডেমিক) প্রফেসর ডা. একেএম মোশাররফ হোসেন, প্রো-ভিসি প্রশাসন প্রফেসর ডা. ছয়েফ উদ্দিন আহমদ, প্রো-ভিসি (গবেষণা ও উন্নয়ন) প্রফেসর ডা. মো. মনিরুজ্জামান খান, কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, প্রক্টর প্রফেসর ডা. মো. হাবিবুর রহমান দুলাল প্রমুখসহ নার্সিং বিভাগের শিক্ষক, শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


বিভাগ : বাংলাদেশ


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

‘মুসলিম লিগ ধর্মনিরপেক্ষ দল’, আমেরিকায় দাবি রাহুলের

‘মুসলিম লিগ ধর্মনিরপেক্ষ দল’, আমেরিকায় দাবি রাহুলের

শর্টগান ও দুই রাউন্ড গুলিসহ রূপসায় সন্ত্রাসী আটক

শর্টগান ও দুই রাউন্ড গুলিসহ রূপসায় সন্ত্রাসী আটক

মুদ্রাস্ফীতিতে শ্রীলঙ্কাকেও পিছনে ফেলল পাকিস্তান! বাড়ছে দেউলিয়া হওয়ার আশঙ্কা

মুদ্রাস্ফীতিতে শ্রীলঙ্কাকেও পিছনে ফেলল পাকিস্তান! বাড়ছে দেউলিয়া হওয়ার আশঙ্কা

মৃত্যু ছুঁয়েছে প্রায় ১০০! তবু দুঃসময় পেরিয়ে স্বাভাবিক হওয়ার পথে মণিপুর

মৃত্যু ছুঁয়েছে প্রায় ১০০! তবু দুঃসময় পেরিয়ে স্বাভাবিক হওয়ার পথে মণিপুর

আরও ৮৯ জনের করোনা শনাক্ত, ‍মৃত্যু ২

আরও ৮৯ জনের করোনা শনাক্ত, ‍মৃত্যু ২

একজনও কালো টাকা সাদা করেনি : অর্থমন্ত্রী

একজনও কালো টাকা সাদা করেনি : অর্থমন্ত্রী

সেনেগালে বিরোধী নেতার জেল, বিক্ষোভে নিহত ৯

সেনেগালে বিরোধী নেতার জেল, বিক্ষোভে নিহত ৯

খুবিতে ‘এ’ ইউনিটে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা কাল, পরীক্ষার্থী ৮৮০৩

খুবিতে ‘এ’ ইউনিটে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা কাল, পরীক্ষার্থী ৮৮০৩

স্ত্রীর স্বীকৃতি পেতে স্বামীর বাড়ীতে কিশোরীর অনশন

স্ত্রীর স্বীকৃতি পেতে স্বামীর বাড়ীতে কিশোরীর অনশন

রাজশাহীর পুঠিয়ায় সড়ক দূর্ঘটনায় মোটরসাইকেল চালক নিহত

রাজশাহীর পুঠিয়ায় সড়ক দূর্ঘটনায় মোটরসাইকেল চালক নিহত

স্ত্রীর স্বীকৃতি পেতে ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে এক সন্তানের জননীর অনশন

স্ত্রীর স্বীকৃতি পেতে ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে এক সন্তানের জননীর অনশন

সুইডেনের ন্যাটোয় যোগদানের ইঙ্গিত বাইডেনের

সুইডেনের ন্যাটোয় যোগদানের ইঙ্গিত বাইডেনের

আইনজীবী জিবরান নাসির করাচিতে অপহৃত হয়েছেন, দাবি স্ত্রীর

আইনজীবী জিবরান নাসির করাচিতে অপহৃত হয়েছেন, দাবি স্ত্রীর

মার্কিন সিনেটেও পাস হলো ঋণসীমা তুলে দেয়ার আইন

মার্কিন সিনেটেও পাস হলো ঋণসীমা তুলে দেয়ার আইন

বামনায় বজ্রপাতে শিক্ষার্থী নিহত

বামনায় বজ্রপাতে শিক্ষার্থী নিহত

তারাকান্দায় নির্বাচনী সহিংসতার পর প্রশাসনের ১৪৪ ধারা জারি

তারাকান্দায় নির্বাচনী সহিংসতার পর প্রশাসনের ১৪৪ ধারা জারি

ফকিরহাটে চেতনানাশক মিশ্রিত বাতাসা খাইয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ কবিরাজের

ফকিরহাটে চেতনানাশক মিশ্রিত বাতাসা খাইয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ কবিরাজের

কুলাউড়ায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কলেজ ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ

কুলাউড়ায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কলেজ ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ

‘খোদার চেয়েও বেশি জ্ঞানী মোদি!’-রাহুল গান্ধীর কটাক্ষ ভাইরাল

‘খোদার চেয়েও বেশি জ্ঞানী মোদি!’-রাহুল গান্ধীর কটাক্ষ ভাইরাল

টেকনাফে র‌্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক-১

টেকনাফে র‌্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক-১