কেন্দ্রীয় কারাগারে যেভাবে সময় কাটছে আদম তমিজির

Daily Inqilab অনলাইন ডেস্ক

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১:৪১ এএম | আপডেট: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১:৪১ এএম

বহুল আলোচিত-সমালোচিত মানবিক বাংলাদেশ সোসাইটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক আদম তমিজি হক এরই মধ্যে গোয়েন্দা পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়ে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে রয়েছেন। সেখানে তিনি কারাগার কর্তৃপক্ষের দেয়া খাবার খাওয়ার পাশাপাশি কারা ক্যান্টিন থেকে খাবার কিনে খাচ্ছেন (প্রিজনার্স ক্যাশ)।

কারাগার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, আদম তমিজি হক কারাগারের বাইরে ‘বেপরোয়া’ আচরণ করলেও কারাঅভ্যন্তরে এখন তার অবস্থা অনেকটা স্বাভাবিক।

জানা গেছে, গুলশান ২ এলাকার বাসিন্দা আদম তমিজি হক এর বিরুদ্ধে গত বছরের ১৫ নভেম্বর সাইবার নিরাপত্তা আইন ২০২৩ এর ধারায় মামলা এবং পরবর্তীতে তাকে ডিবির একটি দল গ্রেফতার করে তাদের হেফাজতে নেয়। পুলিশ হেফাজতে থাকার পর গত ৪ জানুয়ারি আদালতের নির্দেশে তাকে কেরানীগঞ্জের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।

বর্তমানে আদম তমিজি ১/১০ নামক সূর্যমুখী সেলে আছেন। ওই সেলে একাই থাকছেন বলে কারা সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

কারাগারের দায়িত্বশীল কর্মকর্তাদের সাথে আলাপ করে জানা গেছে, কারাগারে যাওয়ার পর থেকে আদম তমিজি তেমন ‘অস্বাভাবিক’ আচরণ করেননি। সেলের নিরাপত্তায় দায়িত্ব-রত কারারক্ষীদের সাথে প্রয়োজনীয় কথাবার্তা ছাড়া বাকি সময় নীরবে পার করছেন তিনি। তবে এ পর্যন্ত তার সাথে পরিবারের সদস্যদের কতবার সাক্ষাৎ হয়েছে তা জানা সম্ভব হয়নি। হাজতি বন্দীদের সাথে ১৫ দিনে একবার পরিবারের সদস্যদের সাক্ষাৎ করার নিয়ম রয়েছে।

জানা গেছে, কারাগার থেকে অন্যান্য বন্দীর মতো তাকেও সকালের নাশতা, দুপুর ও রাতের খাবার দেয়া হয়। তবে প্রায় সময় তিনি কর্তৃপক্ষের দেয়া খাবার খাওয়ার পাশাপাশি কারা ক্যান্টিন থেকে পিসি অ্যাকাউন্টে (বৈধ) জমা থাকা টাকা দিয়ে দৈনন্দিন খাবার কিনে খান।

গতকাল কারাগারের সাথে সংশ্লিষ্ট একজন বলেন, আদম তমিজি হক কারাগারের বাইরে হইচই করেছে ঠিকই কিন্তু ভেতরে (জেলখানায়) আসলে সবাই সোজা হয়ে যান।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কারাগারের সেলে তাকে একা রাখার কারণ হচ্ছে, অন্য বন্দীরা তার সাথে থাকতে চায় না।


বিভাগ : বাংলাদেশ


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

এই বিভাগের আরও

কুসিক উপনির্বাচন : সংখ্যালঘু নতুন ও দক্ষিনের ভোটার জয়-পরাজয়ে ফ্যাক্টর
সিরাজগঞ্জে ‘শিক্ষকের গুলিতে’ মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থী আহত
কুমিল্লায় দুগ্ধপোষ্য শিশু চুরির অপরাধে এক নারীর দশ বছরের কারাদণ্ড
মুসলিম উম্মাহর ঐক্য, শান্তি ও সমৃদ্ধি এবং দেশের শান্তি- শৃঙ্খলা রক্ষায় আল্লাহর রহমত কামনা করে মোকামিয়ার দুই দিনব্যাপী মাহফিল সম্পন্ন
ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে ১৭, সাধারণ কেন্দ্রে থাকবে ১৬ জনের ফোর্স
আরও

আরও পড়ুন

লাক্ষাদ্বীপে কেন দ্বিতীয় সামরিক নৌঘাঁটি তৈরি করছে ভারত?

লাক্ষাদ্বীপে কেন দ্বিতীয় সামরিক নৌঘাঁটি তৈরি করছে ভারত?

কুসিক উপনির্বাচন : সংখ্যালঘু নতুন ও দক্ষিনের ভোটার জয়-পরাজয়ে ফ্যাক্টর

কুসিক উপনির্বাচন : সংখ্যালঘু নতুন ও দক্ষিনের ভোটার জয়-পরাজয়ে ফ্যাক্টর

সিরাজগঞ্জে ‘শিক্ষকের গুলিতে’ মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থী আহত

সিরাজগঞ্জে ‘শিক্ষকের গুলিতে’ মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থী আহত

বাংলাদেশকে কঠিন লক্ষ্য দিল শ্রীলঙ্কা

বাংলাদেশকে কঠিন লক্ষ্য দিল শ্রীলঙ্কা

সুগার মিলের আগুন নিয়ন্ত্রণে নৌবাহিনী

সুগার মিলের আগুন নিয়ন্ত্রণে নৌবাহিনী

টেকসই ভবিষ্যতের লক্ষ্যে পরিবেশবান্ধব জ্বালানিতে গুরুত্ব দিচ্ছে গ্রামীণফোন

টেকসই ভবিষ্যতের লক্ষ্যে পরিবেশবান্ধব জ্বালানিতে গুরুত্ব দিচ্ছে গ্রামীণফোন

মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম গন্তব্য আবুধাবীতে ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা

মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম গন্তব্য আবুধাবীতে ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা

ওয়ারীর ১৪ রেস্টুরেন্টে অভিযান, আটক ১৬

ওয়ারীর ১৪ রেস্টুরেন্টে অভিযান, আটক ১৬

শিক্ষার্থীদের সঠিক মূল্যায়নের জন্য প্রয়োজন দক্ষ শিক্ষকঃ গবেষণা

শিক্ষার্থীদের সঠিক মূল্যায়নের জন্য প্রয়োজন দক্ষ শিক্ষকঃ গবেষণা

দূষণজনিত রোগ প্রতিরোধে জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনায় স্বাস্থ্য বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা হবে : পরিবেশমন্ত্রী

দূষণজনিত রোগ প্রতিরোধে জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনায় স্বাস্থ্য বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা হবে : পরিবেশমন্ত্রী

কুমিল্লায় দুগ্ধপোষ্য শিশু চুরির অপরাধে এক নারীর দশ বছরের কারাদণ্ড

কুমিল্লায় দুগ্ধপোষ্য শিশু চুরির অপরাধে এক নারীর দশ বছরের কারাদণ্ড

ভি সিরিজের নতুন স্মার্টফোন এনেছে ভিভো

ভি সিরিজের নতুন স্মার্টফোন এনেছে ভিভো

অ্যাপলকে ১৮০ কোটি ইউরো জরিমানা করেছে ইইউ

অ্যাপলকে ১৮০ কোটি ইউরো জরিমানা করেছে ইইউ

গ্রুমিং সচেতনতার জন্য বিয়ার্ডো ও লিভনের স্পেশাল এডিশন ‘স্টাইলিং সল্যুশন’

গ্রুমিং সচেতনতার জন্য বিয়ার্ডো ও লিভনের স্পেশাল এডিশন ‘স্টাইলিং সল্যুশন’

মুসলিম উম্মাহর ঐক্য, শান্তি ও সমৃদ্ধি এবং দেশের শান্তি- শৃঙ্খলা রক্ষায় আল্লাহর রহমত কামনা করে মোকামিয়ার দুই দিনব্যাপী মাহফিল সম্পন্ন

মুসলিম উম্মাহর ঐক্য, শান্তি ও সমৃদ্ধি এবং দেশের শান্তি- শৃঙ্খলা রক্ষায় আল্লাহর রহমত কামনা করে মোকামিয়ার দুই দিনব্যাপী মাহফিল সম্পন্ন

ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে ১৭, সাধারণ কেন্দ্রে থাকবে ১৬ জনের ফোর্স

ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে ১৭, সাধারণ কেন্দ্রে থাকবে ১৬ জনের ফোর্স

হিলি সীমান্ত পরিদর্শনে সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর প্রতিনিধি দল

হিলি সীমান্ত পরিদর্শনে সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর প্রতিনিধি দল

আড়াই ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি চিনি মিলের আগুন

আড়াই ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি চিনি মিলের আগুন

স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে ভূমিকা রাখবেন স্মার্ট ইমামরা-সিকৃবি ভিসি

স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে ভূমিকা রাখবেন স্মার্ট ইমামরা-সিকৃবি ভিসি

প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর বাড়িতে পুলিশের অভিযান, সমালোচনার মুখে পাকিস্তানের সরকার

প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর বাড়িতে পুলিশের অভিযান, সমালোচনার মুখে পাকিস্তানের সরকার