লিবিয়ায় নাটোরের ৪ যুবক জিম্মি, মুক্তিপণের দাবিতে নির্যাতন

Daily Inqilab অনলাইন ডেস্ক

০৮ জুন ২০২৪, ১২:২৭ পিএম | আপডেট: ০৮ জুন ২০২৪, ১২:২৭ পিএম

ছেলেকে বিদেশ পাঠাতে চড়া সুদে ঋণ নিয়েছেন। সেই ঋণ এখনো শোধ হয়নি। এরই মধ্যে খবর এসেছে লিবিয়ায় জিম্মি করা হয়েছে ছেলেকে। মুক্তিপণ আদায়ে পাঠানো হচ্ছে নির্যাতনের ভিডিও।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে এভাবেই ছেলের জিম্মিদশার কথা জানাচ্ছিলেন লিবিয়ায় জিম্মি সোহানের বাবা শাহজাহান প্রামাণিক। সোহানের বাড়ি নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার বিয়াঘাট ইউনিয়নের বাবলাতলা গ্রামে। সোহানের সঙ্গেই জিম্মি হয়েছেন একই গ্রামের আরও দুই যুবক মো. সাগর হোসেন (২৪), নাজিম আলী (৩২) ও নাজিরপুর ইউনিয়নের হামলাইকোল গ্রামের মো. বিদ্যুৎ হোসেন (২৬)।

গোয়ালের গরু, চাষের জমি বন্ধক আর চড়া সুদে মহাজনী ঋণ এবং এনজিও থেকে কিস্তি তুলে এই চার যুবককে লিবিয়ায় পাঠিয়েছে তাদের পরিবার।

তাদের পরিবার জানিয়েছে, বছর দুয়েক আগে এই চার যুবক লিবিয়ায় পাড়ি জমান। লিবিয়া যাওয়ার পর প্রতিমাসে অন্তত ২০ হাজার করে টাকা পাঠাতেন তারা । কিন্তু গত রোববার (২ জুন) রাতে ওই চার যুবকের ইমু নম্বর থেকে পরিবারের কাছে নির্যাতনের ভিডিও পাঠানো হয়। এরপর জিম্মি ব্যক্তিদের মাধ্যমে পরিবারের কাছে ৪০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন অপহরণকারীরা। মুক্তিপণের টাকা না দিলে নির্যাতনের মাত্রা বাড়ানো হবে, প্রাণে মেরে ফেলা হবে বলে হুমকিও দেওয়া হয়। তবে এখনোও বিষয়টি পুলিশকে জানায়নি পরিবারের লোকজন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জিম্মি হওয়া বিদ্যুৎ হোসেনের বাবা এনামুল হক এখনো লিবিয়াতেই আছেন। মূলত তার মাধ্যমেই ছেলে বিদ্যুৎসহ চারজন লিবিয়ায় যান। তবে জিম্মি ঘটনার পর থেকেই অপহরণের শিকার যুবকদের পরিবারের সঙ্গে এনামুল হক ঠিকমতো যোগাযোগ রক্ষা করছেন না।

শাহজাহান আলী জানান, রোববার ইমু নম্বরে কল দিয়ে কান্নাজড়িত কণ্ঠে তার ছেলে সোহান জানিয়েছে, ১০ লাখ টাকা না দিলে অপহরণকারীরা তাকে মেরে ফেলবে। বাড়ির ভিটে ছাড়া তাদের কোনো জমাজমি নেই। ভিটে বিক্রি করলেও দশ লাখ টাকা হবে না। ছেলেকে জিম্মিদশা থেকে মুক্ত করতে তিনি সরকারের হস্তক্ষেপ চেয়েছেন।

নাজিমের স্ত্রী নাদিরা বেগম জানান, অপহরণকারীরা তার স্বামীকে ছেড়ে দিতে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ চেয়েছেন। স্বামীকে মুক্ত করতে টাকার যোগান দিতে পারছেন না তিনি। মোবাইল ফোনে নির্যাতনের ভিডিও পাঠাচ্ছেন অপহরণকারীরা।

জিম্মি যুবক সাগরের বিধবা মা ছকেরা বেওয়া বলেন, অনেক কষ্টে ঋণ করে ছেলেকে বিদেশে পাঠিয়েছিলেন। এখন আবার ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দিয়ে ছেলেকে ছাড়াতে হবে। তিনি নারী শ্রমিক। তার পক্ষে মুক্তিপণের টাকা জোগাড় করা সম্ভব নয়।

বিয়াঘাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমান সুজা জানান, ঘটনাটি শোনার পর জিম্মিদের উদ্ধারে তিনি দ্রুত সরকারের সহযোগিতা চেয়েছেন।

গুরুদাসপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সালমা আক্তার বলেন, লিবিয়ায় জিম্মি চার যুবককে উদ্ধারের জন্য প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে কাজ শুরু করেছেন তারা। এছাড়া জিম্মি ব্যক্তিদের পরিবারে গিয়ে সার্বিক সহযোগিতা দেওয়ার কথাও জানিয়েছেন তিনি।


বিভাগ : প্রবাস জীবন


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

শেষের প্রত্যাবর্তনে ডেনমার্ককে রুখে দিল স্লোভেনিয়া

শেষের প্রত্যাবর্তনে ডেনমার্ককে রুখে দিল স্লোভেনিয়া

টেকনাফে বিজিবির পৃথক অভিযানে দেড় লক্ষ ইয়াবা উদ্ধার, আটক ১

টেকনাফে বিজিবির পৃথক অভিযানে দেড় লক্ষ ইয়াবা উদ্ধার, আটক ১

আইরিশদের বিপক্ষে জয়ের জন্য পাকিস্তানের দরকার ১০৭ রান

আইরিশদের বিপক্ষে জয়ের জন্য পাকিস্তানের দরকার ১০৭ রান

দেশের নিরাপত্তার বিধানে সশস্ত্র বাহিনী প্রস্তুত : হানিফ

দেশের নিরাপত্তার বিধানে সশস্ত্র বাহিনী প্রস্তুত : হানিফ

সেন্ট মার্টিন দ্বীপ নিয়ে স্বার্থান্বেষী মহলের গুজবে বিভ্রান্ত হবেন না : আইএসপিআর

সেন্ট মার্টিন দ্বীপ নিয়ে স্বার্থান্বেষী মহলের গুজবে বিভ্রান্ত হবেন না : আইএসপিআর

দিনাজপুরে গোর-এ-শহীদ ঈদগাহ মাঠের নিরাপত্তায় র‌্যাব

দিনাজপুরে গোর-এ-শহীদ ঈদগাহ মাঠের নিরাপত্তায় র‌্যাব

ঘুরে দাঁড়িয়ে পোল্যান্ডকে হারাল নেদারল্যান্ডস

ঘুরে দাঁড়িয়ে পোল্যান্ডকে হারাল নেদারল্যান্ডস

ঈদের দিন ঢাকাসহ চার বিভাগে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা

ঈদের দিন ঢাকাসহ চার বিভাগে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা

পুরো জাতিকে হতাশ করায় অনুতপ্ত ম্যাথিউস

পুরো জাতিকে হতাশ করায় অনুতপ্ত ম্যাথিউস

ঈদে ভ্যাপসা গরম, কোথাও কোথাও বৃষ্টিপাতের আভাস

ঈদে ভ্যাপসা গরম, কোথাও কোথাও বৃষ্টিপাতের আভাস

ওয়েস্ট ইন্ডিজ-আফগানিস্তান ম্যাচ দিয়ে শেষ হচ্ছে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব

ওয়েস্ট ইন্ডিজ-আফগানিস্তান ম্যাচ দিয়ে শেষ হচ্ছে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব

রাত পোহালেই পবিত্র ঈদুল আজহা

রাত পোহালেই পবিত্র ঈদুল আজহা

প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী চৌকস বাহিনী হিসেবে বিশ্ব-দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে : সেনা প্রধান

প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী চৌকস বাহিনী হিসেবে বিশ্ব-দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে : সেনা প্রধান

ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে বেড়েছে রেমিট্যান্স প্রবাহ

ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে বেড়েছে রেমিট্যান্স প্রবাহ

কোপায় অর্জেন্টিনা চূড়ান্ত দলে কারা

কোপায় অর্জেন্টিনা চূড়ান্ত দলে কারা

ঈদুল আজহা উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট

ঈদুল আজহা উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট

পিকআপ ভ্যানের পানের ঝুঁড়িতে ৫৪ হাজার ইয়াবা, আটক ১

পিকআপ ভ্যানের পানের ঝুঁড়িতে ৫৪ হাজার ইয়াবা, আটক ১

নেপাল বাধা টপকে সুপার এইটে যেতে মরিয়া বাংলাদেশ

নেপাল বাধা টপকে সুপার এইটে যেতে মরিয়া বাংলাদেশ

সউদী আরবের সঙ্গে মিল রেখে লালমনিরহাটে অর্ধশতাধিক পরিবারের ঈদুল আজহা উদযাপন

সউদী আরবের সঙ্গে মিল রেখে লালমনিরহাটে অর্ধশতাধিক পরিবারের ঈদুল আজহা উদযাপন

ডিএনসিসির নির্ধারিত স্থানে গরু কোরবানি দিলে ১ হাজার টাকা প্রণোদনা : মেয়র আতিকুল ইসলাম

ডিএনসিসির নির্ধারিত স্থানে গরু কোরবানি দিলে ১ হাজার টাকা প্রণোদনা : মেয়র আতিকুল ইসলাম