মিয়ানমারের সঙ্গে সম্পর্ক জোরদারে প্রতিশ্রুতি চীনের

Daily Inqilab ইনকিলাব ডেস্ক :

০৩ মে ২০২৩, ১১:২২ পিএম | আপডেট: ০৪ মে ২০২৩, ১২:০০ এএম

চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী নেপিডোতে মিয়ানমারের শীর্ষ জেনারেলের সাথে দেখা করেছেন, দুই দেশের মধ্যে ‘বন্ধুত্ব’কে স্বাগত জানিয়েছেন এবং একটি সামরিক অভ্যুত্থানের দুই বছর পর দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশটিতে সহিংসতা বেড়ে যাওয়ায় মধ্যেই সম্পর্ক জোরদার করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

মঙ্গলবার মিয়ানমারের জান্তা সরকারের প্রধান সিনিয়র জেনারেল মিন অং হ্লাইং-এর সাথে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিন গ্যাং বৈঠক করেন। ২০২১ সালে অং সান সু চির নির্বাচিত বেসামরিক সরকারকে উৎখাত করে ক্ষমতা দখল করে সামরিক বাহিনী। তারপর থেকে তিনি হচ্ছেন সর্বোচ্চ পদস্থ চীনা কর্মকর্তা যিনি মিয়ানমার সফর করলেন। চীন আন্তর্জাতিকভাবে বিচ্ছিন্ন মিয়ারমারের সামরিক বাহিনীর একটি প্রধান মিত্র এবং অস্ত্র সরবরাহকারী এবং তারা মিন অং হ্লাইংয়ের দখলের নিন্দা করতে অস্বীকার করেছে। বৈঠকের পর চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, তার এই সফর শুধু দুই দেশের মধ্যে বন্ধুত্বের ইঙ্গিত নয়, বিশ্ব মঞ্চে মিয়ানমারের পক্ষে চীনের অবস্থানেরও প্রকাশ।

মিয়ানমারের রাষ্ট্র-চালিত এমআরটিভির খবরে বলা হয়েছে, জেনারেলের সঙ্গে মিয়ানমারের স্থিতিশীলতা ও উন্নয়ন নিয়ে আলোচনা করেছেন চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী। মিয়ানমারের রাজনৈতিক পরিস্থিতি এবং স্থিতিশীলতা ও উন্নয়ন নিয়ে তারা মতবিনিময় করেছেন। তাদের আলোচনায় স্থান পেয়েছে সীমান্ত বাণিজ্য, বিনিয়োগ এবং জ্বালানিতে সহযোগিতা। চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে কিন বলেন, ‘চীন সমর্থন করে যে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের উচিত মিয়ানমারের সার্বভৌমত্বকে সম্মান করা এবং শান্তি ও পুনর্মিলন অর্জনে সহায়তা করার জন্য গঠনমূলক ভূমিকা পালন করা।’ এমআরটিভি কিনকে উদ্ধৃত করে বলেছে যে তার সফর ‘শুধু দুই দেশের বন্ধুত্বই নয়, বিশ্ব মঞ্চে মিয়ানমারের প্রতি চীনের অবস্থানের ইঙ্গিত দেয়’। তার অংশের জন্য, জেনারেল কিনকে বলেছিলেন যে, তিনি ‘মিয়ানমার-সম্পর্কিত ইস্যুতে বেইজিংয়ের উদ্দেশ্যমূলক এবং ন্যায্য অবস্থানের প্রশংসা করেছেন এবং চীনকে বৃহত্তর ভূমিকা পালনে স্বাগত জানিয়েছেন’।

২০২১ সালে সেনাবাহিনী ক্ষমতা দখল করার পর থেকে মিয়ানমারে রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা ও সহিংসতা বৃদ্ধি পেয়েছে। গণতন্ত্রপন্থি ও জান্তাবিরোধীদের কঠোরভাবে দমন করা হচ্ছে। হাজার হাজার বিরোধী এবং গণতন্ত্রপন্থি কর্মীকে জেলে ঢুকিয়েছে সেনাবাহিনী। অন্তত ৩ হাজার ২৪০ জন বেসামরিক নাগরিককে হত্যা করে নৃশংসভাবে বিক্ষোভ দমন করেছে তারা। মিয়ানমার জান্তার এমন পদক্ষেপের সমালোচনা করেছে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়, বিশেষ করে পশ্চিমা শক্তিগুলো। যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় কয়েকটি দেশ সামরিক সরকারের সংশ্লিষ্ট অনেকের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। তবে রাশিয়া ও চীন মিয়ানমারের সামরিক সরকারের মিত্র হিসেবে বহাল রয়েছে। সূত্র : আল-জাজিরা।


বিভাগ : আন্তর্জাতিক


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

ইণ্ডিগো এয়ারলাইনসের স্বেচ্ছাচারিতা

ইণ্ডিগো এয়ারলাইনসের স্বেচ্ছাচারিতা

বৈধপথে রেমিট্যান্স পাঠিয়ে নিজে সম্মানিত হোন দেশকেও সম্মানিত করুন

বৈধপথে রেমিট্যান্স পাঠিয়ে নিজে সম্মানিত হোন দেশকেও সম্মানিত করুন

বাংলাদেশে এখন আর স্বাধীন সাংবাদিকতা নেই: রিজভী

বাংলাদেশে এখন আর স্বাধীন সাংবাদিকতা নেই: রিজভী

এক দশক পর চ্যাম্পিয়ন কলকাতা

এক দশক পর চ্যাম্পিয়ন কলকাতা

জেমস বন্ডের থিম সং লিখেছিলেন লানা দেল রে, তবে মনোনীত হয়নি

জেমস বন্ডের থিম সং লিখেছিলেন লানা দেল রে, তবে মনোনীত হয়নি

খালেদ মুন্নার ফোক ম্যাশআপ

খালেদ মুন্নার ফোক ম্যাশআপ

চেম্বার আদালতে আপিল করলেন ডিপজল

চেম্বার আদালতে আপিল করলেন ডিপজল

‘অ্যানিমেল’ সিক্যুয়েলে রণবীরের প্রতিপক্ষ ভিকি

‘অ্যানিমেল’ সিক্যুয়েলে রণবীরের প্রতিপক্ষ ভিকি

গানে ফিরছেন সঙ্গীতশিল্পী রিংকু

গানে ফিরছেন সঙ্গীতশিল্পী রিংকু

কোক স্টুডিও বাংলায় ওয়ারফেজের গান

কোক স্টুডিও বাংলায় ওয়ারফেজের গান

উন্নয়ন সম্ভাবনায় দক্ষিণের জনপদ

উন্নয়ন সম্ভাবনায় দক্ষিণের জনপদ

নদী রক্ষায় বড় ধরনের যুদ্ধ শুরু হয়েছে, এ যুদ্ধে আমরা বিজয়ী হব : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

নদী রক্ষায় বড় ধরনের যুদ্ধ শুরু হয়েছে, এ যুদ্ধে আমরা বিজয়ী হব : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিল দাবি, ইবি শিক্ষকদের মানববন্ধন

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিল দাবি, ইবি শিক্ষকদের মানববন্ধন

বাসের ওপর উল্টে গেল ট্রাক, ১১ জনের মৃত্যু

বাসের ওপর উল্টে গেল ট্রাক, ১১ জনের মৃত্যু

ভয়েস চেঞ্জ অ্যাপে গলা বদলে ৭ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

ভয়েস চেঞ্জ অ্যাপে গলা বদলে ৭ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

গুগল ম্যাপ দেখে গাড়ি চালিয়ে পানিতে পড়লেন ৪ পর্যটক

গুগল ম্যাপ দেখে গাড়ি চালিয়ে পানিতে পড়লেন ৪ পর্যটক

পৃথিবীর কাছাকাছি বাসযোগ্য নতুন গ্রহ আবিষ্কার

পৃথিবীর কাছাকাছি বাসযোগ্য নতুন গ্রহ আবিষ্কার

বাইডেন ও ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতায় ফাটল ধরানোর অভিযোগ কেনেডির

বাইডেন ও ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতায় ফাটল ধরানোর অভিযোগ কেনেডির

ভারতে ধনীদের ওপর সম্পদ করারোপ প্রস্তাব

ভারতে ধনীদের ওপর সম্পদ করারোপ প্রস্তাব

নিউইয়র্ক-লন্ডনের তুলনায় এশিয়ায় বাড়ছে আবাসন মূল্য

নিউইয়র্ক-লন্ডনের তুলনায় এশিয়ায় বাড়ছে আবাসন মূল্য