ইরানের প্রেসিডেন্টকে সফরের আমন্ত্রণ জানালেন সউদী বাদশাহ

Daily Inqilab ইনকিলাব

২০ মার্চ ২০২৩, ১০:৩৮ এএম | আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০২৩, ১০:২৩ পিএম

ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসিকে সউদী আরবে সরকারি সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছে রিয়াদ। সউদী বাদশাহ সালমান চিঠি পাঠিয়ে নিজেই আনুষ্ঠানিভাবে এই আমন্ত্রণ জানিয়েছেন বলে জানা গেছে।
মধ্যপ্রাচ্যের প্রতিদ্বন্দ্বী এই দু’টি দেশ নিজেদের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনপ্রতিষ্ঠার বিষয়ে সম্মত হওয়ার মাত্র এক সপ্তাহের মধ্যে ইরানের প্রেসিডেন্টকে সউদী সফরের আমন্ত্রণ জানানো হলো। সোমবার (২০ মার্চ) এক প্রদিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।
প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সউদী আরবের বাদশাহ সালমানের পাঠানো চিঠিতে ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসিকে রিয়াদে সরকারি সফরের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে সউদী আরব এখনও এ বিষয়টি নিশ্চিত করেনি।
বিবিসি বলছে, মধ্যপ্রাচ্যের সাম্প্রতিক ইতিহাস সউদী আরব ও ইরানের মধ্যে বৈরিতার কথাই বলে। তবে চীনের মধ্যস্ততায় সম্প্রতি ইরান এবং সউদী আরব সাত বছর পর আবার কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনে রাজি হয়েছে। এর ফলে প্রতিদ্বন্দ্বী এই দুই দেশের মধ্যে আবার বাণিজ্য এবং নিরাপত্তা সহযোগিতাও শুরু হবে।
সেই সাথে দুই মাসের মধ্যে দু’দেশ পরস্পরের রাজধানীতে তাদের দূতাবাসও খুলবে। যা পশ্চিম এশিয়ার এই অঞ্চলের ভূ-রাজনীতিকে নতুন আকার দিতে পারে।
মোহাম্মদ জামশিদি নামে ইরানের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা সউদী রাজধানী রিয়াদ সফরের আমন্ত্রণ সম্পর্কে টুইট করেছেন। তিনি বলেছেন, প্রেসিডেন্ট রাইসি সউদীর আমন্ত্রণকে স্বাগত জানিয়েছেন এবং ‘সহযোগিতা প্রসারিত করতে ইরানের প্রস্তুতির ওপর জোর দিয়েছেন’।
পৃথকভাবে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির-আব্দুল্লাহিয়ান সাংবাদিকদের বলেছেন, দুই দেশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ে একটি বৈঠক করতে সম্মত হয়েছে এবং বৈঠকের তিনটি সম্ভাব্য স্থানের নামও প্রস্তাব করা হয়েছে। অবশ্য তিনি স্থানগুলোর নাম বলেননি এবং ঠিক কবে এই বৈঠক হতে পারে তাও বলেননি।
বিবিসির মধ্যপ্রাচ্য সম্পাদক সেবাস্টিয়ান উশার বলেছেন, চীনের মধ্যস্থতায় কয়েকদিনের আলোচনার পর অপ্রত্যাশিতভাবে আসা দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের সাম্প্রতিক উন্নতি ব্যাপক গতি তৈরি করছে বলে মনে হচ্ছে। উভয় দেশই ঘোষণা করেছে, তারা দুই মাসের মধ্যে একে অপরের দেশে আবারও দূতাবাস খুলবে এবং বাণিজ্য ও নিরাপত্তা সম্পর্ক পুনঃপ্রতিষ্ঠা করবে।
অতীতে এই দুই দেশের মধ্যে সমঝোতার বহু প্রচেষ্টা ব্যর্থ হওয়ার পর সাম্প্রতিক এই অগ্রগতিকে যুক্তরাষ্ট্র এবং জাতিসংঘসহ অনেকেই সতর্কভাবে স্বাগত জানিয়েছে।
সউদী আরব যুক্তরাষ্ট্রের ঘনিষ্ঠ মিত্র এবং ইরান ও চীন- দুই দেশের সঙ্গেই তাদের সম্পর্কে টানাপোড়েন আছে। আবার ইয়েমেনে যে গৃহযুদ্ধ চলছে, সেখানে ইরান এবং সউদী আরব দুই পরস্পরবিরোধী পক্ষকে সমর্থন ও সহযোগিতা দিয়ে থাকে।
২০১৬ সাল থেকে হতে মধ্যপ্রাচ্যের এই দুই বড় দেশের মধ্যে কোনও কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই। সেবছর সউদী আরব এক শিয়া নেতার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার পর তেহরানের সউদী দূতাবাসে হামলা হয়েছিল। আর তারপর দুই দেশের সম্পর্কে নাটকীয় অবনতি ঘটে।
মূলত ইরানি বিক্ষোভকারীরা তেহরানে সউদী দূতাবাসে হামলার পর ২০১৬ সালের জানুয়ারিতে সউদী আরব ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে। তারপর থেকে সুন্নি এবং শিয়া-নেতৃত্বাধীন এই প্রতিবেশীদের মধ্যে উত্তেজনা প্রায়ই জারি ছিল। এই দুই দেশ একে অপরকে নিজের আঞ্চলিক আধিপত্যের জন্য হুমকি হিসাবে বিবেচনা করে থাকে।
এছাড়া সিরিয়া এবং ইয়েমেনের গৃহযুদ্ধসহ বেশ কয়েকটি আঞ্চলিক সংঘাতে ইরান ও সউদী একে অপরের বিরোধী পক্ষ হয়ে কার্যত পরোক্ষ লড়াইয়ে নিয়োজিত রয়েছে।
ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির-আব্দুল্লাহিয়ান আরও বলেছেন, ইরান বাহরাইনের সাথেও সম্পর্ক উন্নত করার জন্য পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়ে আশাবাদী। সউদীর ঘনিষ্ঠ মিত্র এই দেশটি ২০১৬ সালে রিয়াদকে অনুসরণ করে তেহরানের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করেছিল।
তিনি বলেছেন, ‘আমরা আশা করি, ইরান ও বাহরাইনের মধ্যে বিদ্যমান কিছু বাধা দূর হবে এবং আমরা দূতাবাসগুলো পুনরায় চালু করার জন্য প্রাথমিক পদক্ষেপ নেব।’
বাহরাইন অবশ্য ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এই মন্তব্যের এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া জানায়নি। তবে গত সপ্তাহে কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনপ্রতিষ্ঠার জন্য ইরান-সৌদি চুক্তিকে স্বাগত জানিয়েছে বাহরাইন।
এছাড়া জর্ডান এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতসহ অন্যান্য আঞ্চলিক আরব প্রতিদ্বন্দ্বীদের সাথে সম্পর্ক পুনরায় শুরু করতে বা উন্নত করার ইচ্ছাও প্রকাশ করেছে ইরান।


বিভাগ : আন্তর্জাতিক


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

প্রেসক্লাব, সেগুনবাগিচায় পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতা কর্মীদের সংঘর্ষ

প্রেসক্লাব, সেগুনবাগিচায় পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতা কর্মীদের সংঘর্ষ

সারা দেশে ট্রেন চলাচল বন্ধ রেখেছে কর্তৃপক্ষ

সারা দেশে ট্রেন চলাচল বন্ধ রেখেছে কর্তৃপক্ষ

গুলিবিদ্ধ হয়ে ঢাকা টাইমসের সাংবাদিক নিহত

গুলিবিদ্ধ হয়ে ঢাকা টাইমসের সাংবাদিক নিহত

রুহুল কবির রিজভী আটকের দাবি

রুহুল কবির রিজভী আটকের দাবি

আন্দোলন নিয়ে বিতর্কিত স্ট্যাটাস দিলেন ঢাকাই সিনেমার চিত্রনায়িকা শিরিন শিলা

আন্দোলন নিয়ে বিতর্কিত স্ট্যাটাস দিলেন ঢাকাই সিনেমার চিত্রনায়িকা শিরিন শিলা

ভৈরবে থানা ঘেরাও করলেন আন্দোলনকারীরা, গুলি, আহত শতাধিক

ভৈরবে থানা ঘেরাও করলেন আন্দোলনকারীরা, গুলি, আহত শতাধিক

রাজধানীতে সব ধরনের সভা-সমাবেশ ও মিছিল নিষিদ্ধ করেছে ডিএমপি

রাজধানীতে সব ধরনের সভা-সমাবেশ ও মিছিল নিষিদ্ধ করেছে ডিএমপি

মেধার ভিত্তিতে ৮০ শতাংশ কোটার প্রস্তাব দেবে সরকার: ওবায়দুল কাদের

মেধার ভিত্তিতে ৮০ শতাংশ কোটার প্রস্তাব দেবে সরকার: ওবায়দুল কাদের

শুক্রবারও ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ চলবে

শুক্রবারও ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ চলবে

ঢাকা–চট্টগ্রাম মহাসড়কের যাত্রাবাড়ী, শনির আখড়া এলাকায় আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আজ শুক্রবারও পুলিশের সংঘর্ষ চলছে

ঢাকা–চট্টগ্রাম মহাসড়কের যাত্রাবাড়ী, শনির আখড়া এলাকায় আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আজ শুক্রবারও পুলিশের সংঘর্ষ চলছে

কোটা নিয়ে আপিল শুনানি রোববার

কোটা নিয়ে আপিল শুনানি রোববার

দেশজুড়ে বিক্ষোভ, সংঘর্ষ–গুলি, নিহত ২৭

দেশজুড়ে বিক্ষোভ, সংঘর্ষ–গুলি, নিহত ২৭

অস্ত্র জমা দিয়েছি কিন্তু ট্রেনিং জমা দিইনি : মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী

অস্ত্র জমা দিয়েছি কিন্তু ট্রেনিং জমা দিইনি : মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী

সংঘর্ষের সময় যাত্রাবাড়ীতে গুলিবিদ্ধ হয়ে সাংবাদিক নিহত

সংঘর্ষের সময় যাত্রাবাড়ীতে গুলিবিদ্ধ হয়ে সাংবাদিক নিহত

রক্ত মাড়িয়ে কোনো সংলাপ নয় : বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন

রক্ত মাড়িয়ে কোনো সংলাপ নয় : বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন

বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ

বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ

শিক্ষার্থীদের উপর বর্বরোচিত হামলা ও হত্যাকাণ্ডে ইত্তেফাকুল উলামার উদ্বেগ

শিক্ষার্থীদের উপর বর্বরোচিত হামলা ও হত্যাকাণ্ডে ইত্তেফাকুল উলামার উদ্বেগ

সৈয়দপুর কোটা বিরোধী আন্দোলন পুলিশ বক্সে আগুন

সৈয়দপুর কোটা বিরোধী আন্দোলন পুলিশ বক্সে আগুন

সিলেটে বিএনপি নেতা কয়েছ লোদীকে আটক করেছে পুলিশ

সিলেটে বিএনপি নেতা কয়েছ লোদীকে আটক করেছে পুলিশ

রংপুরে আ.লীগ-ছাত্রলীগের অফিসে ভাঙচুর-অগ্নিসংযোগ

রংপুরে আ.লীগ-ছাত্রলীগের অফিসে ভাঙচুর-অগ্নিসংযোগ