২০ বছর পর প্রথমবার সিঙ্গাপুরে নারীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর

Daily Inqilab ইনকিলাব ডেস্ক

২৯ জুলাই ২০২৩, ১০:৫৫ এএম | আপডেট: ২৯ জুলাই ২০২৩, ১০:৫৫ এএম

প্রায় দুই দশকের মধ্যে প্রথমবারের মতো কোনো নারীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করল সিঙ্গাপুর। দেশটির কর্মকর্তারা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
বিবিসি জানায়, গতকাল শুক্রবার (২৮ জুলাই) চেঙ্গি কারাগারে সিঙ্গাপুরের নাগরিক সারিদেউই জামানির (৪৫) মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়। ২০১৮ সালে ৩০ গ্রাম হেরোইন পাচারের জন্য দোষী সাব্যস্ত হন।
একই অপরাধে জামানির সহযোগী মোহাম্মদ আজিজ বিন হুসেনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হয় দুইদিন আগে। বিশ্বে কঠোর মাদকবিরোধী আইন প্রয়োগকারী দেশের অন্যতম সিঙ্গাপুর।
সিঙ্গাপুরের আইন সুনির্দিষ্ট করে জানায়, ৫০০ গ্রামের বেশি গাঁজা বা ১৫ গ্রাম হেরোইন পাচার করলে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হবে।
সিঙ্গাপুরের সেন্ট্রাল নারকোটিক্স ব্যুরো (সিএনবি) এক বিবৃতিতে জানায়, ২০১৮ সালের ৬ জুলাই জামানির মৃত্যুদণ্ডের রায় হয়। যথাযথ আইনি প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করে তার দণ্ড কার্যকর হয়েছে।
গত ৬ অক্টোবর নগররাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আদালত জামানির আপিল খারিজ করে দেয়। এরপর রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা চেয়েও ব্যর্থ হন তিনি।
এদিকে সিঙ্গাপুরের মৃত্যুদণ্ডের বিধান নিয়ে সমালোচনা করেছেন অনেকে। ব্রিটিশ ধনকুবের স্যার রিচার্ড ব্র্যানসন বলেছেন, মৃত্যুদণ্ড অপরাধের বিরুদ্ধে কোনো বাধা নয়। টুইট বার্তায় বলেন, ছোট আকারের মাদক পাচারকারীদের সাহায্যের প্রয়োজন। কারণ তাদের বেশিরভাগই পরিস্থিতির শিকার।
সিঙ্গাপুর-ভিত্তিক মানবাধিকার গোষ্ঠী ট্রান্সফরমেটিভ জাস্টিস কালেক্টিভ জানায়, জামানি সিঙ্গাপুরে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই নারীর একজন। ২০০৪ সালে ইয়েন মে উয়েন নামের এক নারীকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়।
অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এক বিবৃতিতে বলেছ, মাদকের ব্যবহার ও প্রাপ্যতার ওপর মৃত্যুদণ্ড কোনো প্রভাব ফেলেছে এমন প্রমাণ নেই। এই মৃত্যুদণ্ড এ বার্তা দেয় যে সিঙ্গাপুর সরকার মৃত্যুদণ্ডের ব্যবহারে আন্তর্জাতিক সুরক্ষা ব্যবস্থাকে অস্বীকার করতে ইচ্ছুক।
সংস্থাটি আরো জানায়, চীন, ইরান ও সউদী আরবের পাশাপাশি চতুর্থ দেশ হিসেবে সিঙ্গাপুর সম্প্রতি মাদক সংক্রান্ত অভিযোগে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে।

 


বিভাগ : আন্তর্জাতিক


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

জেমস বন্ডের থিম সং লিখেছিলেন লানা দেল রে, তবে মনোনীত হয়নি

জেমস বন্ডের থিম সং লিখেছিলেন লানা দেল রে, তবে মনোনীত হয়নি

খালেদ মুন্নার ফোক ম্যাশআপ

খালেদ মুন্নার ফোক ম্যাশআপ

চেম্বার আদালতে আপিল করলেন ডিপজল

চেম্বার আদালতে আপিল করলেন ডিপজল

‘অ্যানিমেল’ সিক্যুয়েলে রণবীরের প্রতিপক্ষ ভিকি

‘অ্যানিমেল’ সিক্যুয়েলে রণবীরের প্রতিপক্ষ ভিকি

গানে ফিরছেন সঙ্গীতশিল্পী রিংকু

গানে ফিরছেন সঙ্গীতশিল্পী রিংকু

কোক স্টুডিও বাংলায় ওয়ারফেজের গান

কোক স্টুডিও বাংলায় ওয়ারফেজের গান

উন্নয়ন সম্ভাবনায় দক্ষিণের জনপদ

উন্নয়ন সম্ভাবনায় দক্ষিণের জনপদ

নদী রক্ষায় বড় ধরনের যুদ্ধ শুরু হয়েছে, এ যুদ্ধে আমরা বিজয়ী হব : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

নদী রক্ষায় বড় ধরনের যুদ্ধ শুরু হয়েছে, এ যুদ্ধে আমরা বিজয়ী হব : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিল দাবি, ইবি শিক্ষকদের মানববন্ধন

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিল দাবি, ইবি শিক্ষকদের মানববন্ধন

বাসের ওপর উল্টে গেল ট্রাক, ১১ জনের মৃত্যু

বাসের ওপর উল্টে গেল ট্রাক, ১১ জনের মৃত্যু

ভয়েস চেঞ্জ অ্যাপে গলা বদলে ৭ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

ভয়েস চেঞ্জ অ্যাপে গলা বদলে ৭ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

গুগল ম্যাপ দেখে গাড়ি চালিয়ে পানিতে পড়লেন ৪ পর্যটক

গুগল ম্যাপ দেখে গাড়ি চালিয়ে পানিতে পড়লেন ৪ পর্যটক

পৃথিবীর কাছাকাছি বাসযোগ্য নতুন গ্রহ আবিষ্কার

পৃথিবীর কাছাকাছি বাসযোগ্য নতুন গ্রহ আবিষ্কার

বাইডেন ও ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতায় ফাটল ধরানোর অভিযোগ কেনেডির

বাইডেন ও ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতায় ফাটল ধরানোর অভিযোগ কেনেডির

ভারতে ধনীদের ওপর সম্পদ করারোপ প্রস্তাব

ভারতে ধনীদের ওপর সম্পদ করারোপ প্রস্তাব

নিউইয়র্ক-লন্ডনের তুলনায় এশিয়ায় বাড়ছে আবাসন মূল্য

নিউইয়র্ক-লন্ডনের তুলনায় এশিয়ায় বাড়ছে আবাসন মূল্য

ভানুয়াতুতে ভূমিকম্প

ভানুয়াতুতে ভূমিকম্প

পাঞ্জাবে নিহত ৬

পাঞ্জাবে নিহত ৬

দেশে সুষ্ঠু ভোটে যোগ্য নেতৃত্ব পছন্দের পথ কার্যত বন্ধ: জমিয়ত নেতৃবৃন্দ

দেশে সুষ্ঠু ভোটে যোগ্য নেতৃত্ব পছন্দের পথ কার্যত বন্ধ: জমিয়ত নেতৃবৃন্দ

গরমে কালো কোট ও গাউন পড়তে হবে না অধস্তন আদালতে

গরমে কালো কোট ও গাউন পড়তে হবে না অধস্তন আদালতে