ইউক্রেনের ৪৭৪ সেনা নিহত কূটনৈতিকভাবে ইউক্রেন সঙ্কট সমাধানের পক্ষে যুক্তরাষ্ট্র মার্কিন হামলা থেকে কোন দেশই নিরাপদ নয়: ল্যাভরভ ইউরোপীয় কাউন্সিলে আর ফিরবে না রাশিয়া কিয়েভে ইউরেনিয়ামযুক্ত গোলা পাঠানোর সিদ্ধান্ত সমর্থন করে না হাঙ্গেরি

জাপোরোজিয়েতে সামরিক জ্বালানি ডিপো ধ্বংস

Daily Inqilab ইনকিলাব ডেস্ক

২৪ মার্চ ২০২৩, ১১:৫৪ পিএম | আপডেট: ২৭ এপ্রিল ২০২৩, ০৯:০৫ পিএম

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট-জেনারেল ইগর কোনাশেনকভ বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন, ইউক্রেনে বিশেষ সামরিক অভিযান চলাকালীন রাশিয়ান বাহিনী গত দিনে জাপোরোজিয়ে অঞ্চলে ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর একটি জ্বালানী ডিপো ধ্বংস করেছে। এদিন, বিভিন্ন স্থানে রাশিয়ার হামলায় অন্তত ৪৭৪ জন ইউক্রেনীয় সেনা নিহত হয়েছে।

‘জাপোরোজিয়ে অঞ্চলের জালিজনিচনয়ে বন্দোবস্তের এলাকায়, ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনীর ৬৫ তম যান্ত্রিক ব্রিগেডের জ্বালানী এবং লুব্রিকেন্ট সংরক্ষণের একটি ডিপো ধ্বংস হয়ে গেছে,’ মুখপাত্র বলেছেন, গত ২৪ ঘন্টায়, অপারেশনাল/কৌশলগত এবং আর্মি এভিয়েশন, মিসাইল ট্রুপস এবং রাশিয়ান গ্রুপ অফ ফোর্সের আর্টিলারি ১১৪টি এলাকায় ফায়ারিং পজিশনে থাকা ৭৬টি ইউক্রেনীয় আর্টিলারি ইউনিট, জনশক্তি এবং সরঞ্জামগুলিতে আঘাত করেছে।

রাশিয়ান বাহিনী গত দিনে কুপিয়ানস্ক এলাকায় প্রায় ৭০ জন ইউক্রেনীয় সেনা, একটি পদাতিক যুদ্ধের যান, দুটি পিকআপ ট্রাক, একটি গ্র্যাড মাল্টিপল রকেট লঞ্চার এবং একটি মার্কিন তৈরি এম৭৭৭ আর্টিলারি সিস্টেম ধ্বংস করেছে, কোনাশেনকভ রিপোর্ট করেছেন, রাশিয়ান বাহিনী গত দিনে ক্রাসনি লিমান এলাকায় ৮০ জনেরও বেশি ইউক্রেনীয় সেনাকে নির্মূল, দুটি সাঁজোয়া যান, তিনটি পিকআপ ট্রাক এবং একটি ডি-৩০ হাউইটজার ধ্বংস করেছে। রাশিয়ান বাহিনী গত দিনে ডোনেৎস্ক এলাকায় তাদের অগ্রযাত্রায় ২৫৯ জনেরও বেশি ইউক্রেনীয় সেনা, ছয়টি ট্যাঙ্ক, পাঁচটি সাঁজোয়া যুদ্ধ যান, সাতটি মোটর যান এবং একটি ডি-২০ হাউইৎজার ধ্বংস হয়েছে ধ্বংস করেছে, কোনাশেনকভ জানিয়েছেন, এছাড়াও, লাস্টোচকিনো সম্প্রদায়ের কাছে ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনীর ৫৩তম যান্ত্রিক ব্রিগেডের একটি গোলাবারুদ ডিপো ধ্বংস করা হয়েছিল।

রাশিয়ান বাহিনী গত দিনে প্রায় ৫০ জন ইউক্রেনীয় সৈন্য এবং দক্ষিণ ডোনেৎস্ক এবং জাপোরোজিয়ে এলাকায় দুটি হাউইটজার ধ্বংস করেছে, কোনাশেনকভ রিপোর্ট করেছেন, খেরসন এলাকায় ১৫ জন ইউক্রেনীয় কর্মী এবং পাঁচটি মোটর গাড়ি ধ্বংস হয়েছে। পাশাপাশি, রাশিয়ান এরোস্পেস ফোর্সের ফাইটার এয়ারক্রাফ্ট খারকভ অঞ্চলের বোগুসøাভকা বসতির কাছে ইউক্রেনের বিমান বাহিনীর একটি সু-২৪ বিমান গুলি করে ভূপাতিত করেছে। এছাড়াও, রাশিয়ার বিমান প্রতিরক্ষা বাহিনী গত দিনে ১৬টি ইউক্রেনীয় মানববিহীন আকাশযান ধ্বংস করেছে এবং মার্কিন তৈরি হিমারস মাল্টিপল লঞ্চ রকেট সিস্টেমের পাঁচটি রকেট আটকে দিয়েছে।

সব মিলিয়ে, ইউক্রেনে বিশেষ সামরিক অভিযান শুরুর পর থেকে রাশিয়ার সশস্ত্র বাহিনী ৪০৪টি ইউক্রেনীয় যুদ্ধ বিমান, ২২৪টি হেলিকপ্টার, ৩,৫৪৪টি মনুষ্যবিহীন আকাশযান, ৪১৪টি সারফেস টু এয়ার মিসাইল সিস্টেম, ৮,৩৮৪টি ট্যাংক এবং অন্যান্য সাঁজোয়া যুদ্ধ যান, ১,০৭১টি মাল্টিপল রকেট লঞ্চার, ৪,৪১৫টি ফিল্ড আর্টিলারি গান ও মর্টার এবং ৯,০৭৩টি বিশেষ সামরিক মোটর যান ধ্বংস করেছে, কোনাশেনকভ রিপোর্ট করেছেন।
কূটনৈতিকভাবে ইউক্রেন সঙ্কট সমাধানের পক্ষে যুক্তরাষ্ট্র : এতদিন উস্কানি দিয়ে আসলেও এখন কূটনৈতিকভাবে ইউক্রেন সঙ্কট সমাধানের চিন্তা-ভাবনা করছে যুক্তরাষ্ট্র। বৃহস্পতিবার মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন ইউক্রেনের ভবিষ্যত সীমানা নির্ধারণে কূটনীতির ভূমিকার কথা বলেছেন। তিনি আবার নিশ্চিত করেছেন, যে কোনো শান্তির সিদ্ধান্ত কিয়েভকেই নিতে হবে।

ব্লিঙ্কেন বারবার বলেছেন যে, কূটনীতির মাধ্যমে যুদ্ধের সমাপ্তি ঘটতে হবে কিন্তু আলোচনার জন্য তিনি নিকট-মেয়াদী সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়েছেন। তিনি মনে করেন, রাশিয়া এ বিষয়ে সিরিয়াস নয় এবং আক্রমণ প্রতিহত করার জন্য ইউক্রেনের সামরিক বাহিনীকে সহায়তা করা উচিত। কংগ্রেসের সামনে উপস্থিত হয়ে ব্লিঙ্কেন স্বীকার করেছেন যে, ইউক্রেনীয় বাহিনী তাদের দৃষ্টিতে সমস্ত অঞ্চল ফিরে পেতে সক্ষম হবে না। ‘আমি মনে করি ইউক্রেনে এমন একটি অঞ্চল হতে চলেছে যেটির জন্য ইউক্রেনীয়রা মাটিতে লড়াই করার জন্য দৃঢ়প্রতিজ্ঞ; এমন অঞ্চল থাকতে পারে যেটি তাদেরকে যুদ্ধের বদলে অন্য উপায়ে ফিরে পাওয়ার চেষ্টা করতে হবে,’ ব্লিঙ্কেন বলেছিলেন।

তিনি রিপাবলিকান প্রতিনিধি ক্রিস স্টুয়ার্টের একটি প্রশ্নের জবাব দিচ্ছিলেন, যিনি জিজ্ঞাসা করেছিলেন যে, যুক্তরাষ্ট্র ক্রিমিয়াকে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কিকে সমর্থন করেছে কিনা, যা ২০১৪ সালে মস্কো দ্বারা দখল ও সংযুক্ত করা হয়েছিল। ‘যদি আমাদের প্রতিশ্রুতি এবং জেলেনস্কির সাথে আমাদের চুক্তি হয় যে ক্রিমিয়াতে রাশিয়ার উপস্থিতি না থাকা সহ আপনি যা অর্জন করতে চান আমরা আপনাকে সমর্থন করব, তাহলে বিশ্ব ভয়াবহভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হবে,’ তিনি বলেছিলেন।

ব্লিঙ্কেন জোর দিয়েছিলেন যে, ‘তারা তাদের ভবিষ্যত কী হতে চায় এবং কীভাবে এটি দেশের সার্বভৌমত্ব, আঞ্চলিক অখ-তা এবং দেশের স্বাধীনতার পরিপ্রেক্ষিতে ভূমিষ্ঠ হয় সে সম্পর্কে ইউক্রেনের সিদ্ধান্ত হতে হবে।’ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং তার ইউরোপীয় মিত্ররা সকলেই মস্কোর ক্রিমিয়া অধিগ্রহণকে স্বীকৃতি দিতে অস্বীকার করেছে, যেখানে রাশিয়া ২০১৪ সালে গণভোট করেছিল যা কিয়েভ বা পশ্চিম দ্বারা গৃহীত হয়নি।
মার্কিন হামলা থেকে কোন দেশই নিরাপদ নয় : রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ গতকাল রাজভেদচিক (গোয়েন্দা কর্মকর্তা) ম্যাগাজিনের জন্য একটি নিবন্ধে বলেছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্রদের ‘শত্রুতাপূর্ণ অভিযান’ থেকে বর্তমানে কোনো দেশই সুরক্ষিত নয়।

‘সাধারণভাবে, আমেরিকান এবং তাদের ন্যাটো মিত্রদের শত্রুতামূলক ‘অভিযান’ থেকে আজ কেউই নিরাপদ নয়,’ তিনি বলেছিলেন, ‘রাশিয়া ছাড়াও, বর্তমানে অনেক দেশকে হুমকি দেয়া হচ্ছে এবং ব্ল্যাকমেইল করা হচ্ছে।’ রাশিয়ার শীর্ষ কূটনীতিকের মতে, ‘ইউক্রেনের এবং তার আশেপাশের পরিস্থিতি শুধুমাত্র একটি বড় আকারের সংঘর্ষের একটি প্রকাশ যা পশ্চিমা দেশগুলোর একটি ছোট গোষ্ঠীর বিশ্ব আধিপত্য খোঁজার প্রচেষ্টা এবং একটি বহুমুখী স্থাপত্যের অন্তর্নিহিত উত্থানের উল্টোদিকে জড়িত।’

‘তারা তথাকথিত ইন্দো-প্যাসিফিক কৌশলগুলোর অংশ হিসাবে চীনকে ব্যাপকভাবে নিবৃত্ত করার একটি কৌশলগত কাজ নির্ধারণ করেছে,’ ল্যাভরভ বলেছেন। তিনি ভ্রাতৃত্বপূর্ণ বেলারুশ সহ সার্বভৌম দেশগুলির অভ্যন্তরীণ বিষয়ে পশ্চিমের হস্তক্ষেপের এবং কিউবায় বছরের পর বছর ধরে চলা দীর্ঘ অর্থনৈতিক অবরোধের নিন্দা করেছিলেন। ‘নিকৃষ্ট ঔপনিবেশিক ঐতিহ্যে কাজ করার সময়, আমেরিকানরা এবং তাদের মদদদাতারা বিশ্বকে ‘গণতন্ত্র’ এবং ‘স্বৈরাচারী শাসনে’ বিভক্ত করার চেষ্টা করছে,’ রাশিয়ান পররাষ্ট্রমন্ত্রী উল্লেখ করেছেন। তিনি ইউরোপকে একটি বাগান এবং বাকি বিশ্ব একটি জঙ্গল সম্পর্কে তার ‘বর্ণবাদী’ বক্তব্যের জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নের কূটনৈতিক প্রধান জোসেপ বোরেলেরও নিন্দা করেছিলেন।

ইউরোপীয় কাউন্সিলে আর ফিরবে না রাশিয়া : গত এক বছরে রাশিয়া বুঝতে পেরেছে যে, ইউরোপীয় কাউন্সিল থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তটি সঠিক ছিল এবং ভবিষ্যতে এ সংস্থায় তারা আর ফিরে আসবে না। একজন সিনিয়র রাশিয়ান কূটনীতিক এ তথ্য জানিয়েছেন।

রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ইউরোপীয় সহযোগিতা বিভাগের পরিচালক নিকোলে কোব্রিনেটস বলেছেন, ‘গত বছর আমাদের কাছে প্রমাণ করেছে যে আমরা (ইউরোপ কাউন্সিল থেকে বেরিয়ে যাওয়ার) সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’ ‘স্ট্রাসবার্গের (ইউরোপীয় কাউন্সিল প্রধান) সাথে আমাদের ‘বিচ্ছেদ’ কোনো বাতিক নয়, এটি একটি সুচিন্তিত সিদ্ধান্ত যা পাকা হতে কয়েক বছর লেগেছিল। বর্তমানের ইউরোপীয় কাউন্সিল ১৯৯৬ সালে যা ছিল তা থেকে অনেক দূরে। দ্বিমুখী চরিত্র, ভ-ামি এবং রুসোফোবিয়া এখন এর স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্য। স্পষ্টতই, এ ধরণের ইউরোপীয় কাউন্সিলের সাথে আমাদের পথ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে,’ রাশিয়ান কূটনীতিক বলেছিলেন।

তিনি বলেছিলেন যে, রাশিয়া ইউরোপের কাউন্সিল সদস্য হিসাবে তার ২৬ বছরের দীর্ঘ ইতিহাসকে কলঙ্কিত করতে যাচ্ছে না। ‘অনেক দরকারী জিনিস ছিল, বিশেষ করে রাশিয়ান আইনের উন্নয়নের জন্য। কিন্তু এ অধ্যায়টি এখন বন্ধ,’ কোব্রিনেটস বলেছেন।

কিয়েভে ইউরেনিয়ামযুক্ত গোলা পাঠানোর সিদ্ধান্ত সমর্থন করে না হাঙ্গেরি : ইউক্রেনে ডিপ্লিটেড ইউরেনিয়ামযুক্ত গোলা পাঠানোর বিষয়ে যুক্তরাজ্যের সিদ্ধান্তকে হাঙ্গেরি ভুল বলে মনে করছে, হাঙ্গেরির প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মন্ত্রী গারগেলি গুলিয়াস বৃহস্পতিবার রিপোর্ট করেছেন। গুলিয়াস বলেন, এ পদক্ষেপটি ইউক্রেনীয় সংঘাতের ক্রমবর্ধমান বৃদ্ধির দিকে নিয়ে যায়, হাঙ্গেরি কাউকে ডিপ্লিটেড ইউরেনিয়াম শেল ব্যবহার করার সুপারিশ করবে না। মন্ত্রী বলেন, ‘হাঙ্গেরি এমন কোনো পদক্ষেপকে সমর্থন করে না যা যুদ্ধের বৃদ্ধি ঘটাতে পারে।’ তিনি আরও উল্লেখ করেছেন যে, হাঙ্গেরিয়ান সরকার ইউক্রেনে অস্ত্র ও গোলাবারুদ পাঠায় না এবং শুধুমাত্র শান্তি আলোচনার মাধ্যমে চলমান সংঘাতের সমাধানের আহ্বান জানায়।

প্রসঙ্গত, ইউরেনিয়াম একটি অতি তেজস্ক্রিয় পদার্থ যা পারমাণবিক বোমা তৈরির মূল উপাদান। এর আগে সোমবার, যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী অ্যানাবেল গোল্ডি হাউস অফ লর্ডসের সদস্য রেমন্ড জোলিফের একটি তদন্তের লিখিত প্রতিক্রিয়ায় বলেছিলেন যে, ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ ইউক্রেনে শেল পাঠাবে যাতে ডিপ্লিটেড ইউরেনিয়াম রয়েছে এবং এটি সাঁজোয়া যানগুলির বিরুদ্ধে দক্ষতা বৃদ্ধি করে। ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষের এ সিদ্ধান্তের বিষয়ে মন্তব্য করে, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন মঙ্গলবার বলেছেন যে, ‘সম্মিলিত পশ্চিম একটি পারমাণবিক উপাদান সহ অস্ত্র ব্যবহার শুরু করেছে’ এই সত্যের সাথে রাশিয়াকে সঙ্গতিপূর্ণ প্রতিক্রিয়া জানাতে হবে। যুক্তরাজ্যের রুশ দূতাবাস কিয়েভের কাছে ক্ষয়প্রাপ্ত ইউরেনিয়াম শেল পাঠানোর বিরুদ্ধে লন্ডনকে সতর্ক করেছে। দূতাবাস জোর দিয়ে বলেছে যে, এ পদক্ষেপটি সংঘর্ষের বৃদ্ধি ঘটাতে পারে এবং ইউক্রেনে এ ধরনের শেল ব্যবহার স্থানীয় জনগণের স্বাস্থ্যকে প্রভাবিত করবে। সূত্র : তাস, রয়টার্স, এএফপি।


বিভাগ : জাতীয়


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

১৫ বছর পর বন্ধ হলো বেইজিং এলজিবিটি সেন্টার

১৫ বছর পর বন্ধ হলো বেইজিং এলজিবিটি সেন্টার

সাগরে চীনকে প্রতিরোধে ফিলিপিন্স কৌশলের মূল খেলোয়াড় ভিয়েতনাম

সাগরে চীনকে প্রতিরোধে ফিলিপিন্স কৌশলের মূল খেলোয়াড় ভিয়েতনাম

পঙ্গপালের আক্রমণে বিশাল ক্ষতিতে আফগান কৃষকরা

পঙ্গপালের আক্রমণে বিশাল ক্ষতিতে আফগান কৃষকরা

‘পাকিস্তানে আজ নৈরাজ্য, বেকারত্ব সাধারণ ব্যাপার’

‘পাকিস্তানে আজ নৈরাজ্য, বেকারত্ব সাধারণ ব্যাপার’

চলতি অর্থবছরে পাকিস্তানের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ০.২৯ শতাংশ

চলতি অর্থবছরে পাকিস্তানের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ০.২৯ শতাংশ

শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৪২তম শাহাদাতবার্ষিকী আজ

শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৪২তম শাহাদাতবার্ষিকী আজ

কানাডায় ছুরিকাঘাতে শিখ নারী খুন

কানাডায় ছুরিকাঘাতে শিখ নারী খুন

মশা নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ

মশা নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ

সংঘাত নয় শান্তিপূর্ণ সমাধান চাই : প্রধানমন্ত্রী

সংঘাত নয় শান্তিপূর্ণ সমাধান চাই : প্রধানমন্ত্রী

মার্কিন ভিসা নীতিতে বিএনপির নির্বাচন বর্জনের ষড়যন্ত্র ভেস্তে গেছে

মার্কিন ভিসা নীতিতে বিএনপির নির্বাচন বর্জনের ষড়যন্ত্র ভেস্তে গেছে

কিসের জাদুতে আমেরিকা থেকে রেমিট্যান্স বাড়ছে

কিসের জাদুতে আমেরিকা থেকে রেমিট্যান্স বাড়ছে

মার্কিন ভিসা নীতি বিএনপির ওপরই বড় চাপ সৃষ্টি করেছে

মার্কিন ভিসা নীতি বিএনপির ওপরই বড় চাপ সৃষ্টি করেছে

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে জাতিসংঘ বিশেষ প্রতিবেদক শ্যুটারের উদ্বেগ

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে জাতিসংঘ বিশেষ প্রতিবেদক শ্যুটারের উদ্বেগ

বাজেটের পর জ্বালানির দাম সমন্বয়

বাজেটের পর জ্বালানির দাম সমন্বয়

টিভিতে দেখুন

টিভিতে দেখুন

মেয়র তাপসকে গ্রেফতার দাবি

মেয়র তাপসকে গ্রেফতার দাবি

বাফুফেকে পদত্যাগপত্র পাঠালেন ছোটন

বাফুফেকে পদত্যাগপত্র পাঠালেন ছোটন

নেইমারহীন ব্রাজিলে নতুনের ছড়াছড়ি

নেইমারহীন ব্রাজিলে নতুনের ছড়াছড়ি

লেস্টারের অবনমন টিকে রইল এভারটন

লেস্টারের অবনমন টিকে রইল এভারটন

আজ ট্রফির জন্য লড়বে মোহামেডান-আবাহনী

আজ ট্রফির জন্য লড়বে মোহামেডান-আবাহনী