জনশক্তি রফতানিতে দুষ্কৃতিকারীদের নৈরাজ্য সার্ভার জালিয়াত চক্র ধরাছোঁয়ার বাইরে প্যানেলভুক্ত নয় এমন এজেন্সিও কর্মী পাঠাচ্ছে

ফের বিএমইটিতে জালিয়াতি!

Daily Inqilab শামসুল ইসলাম

২৫ জুলাই ২০২৩, ১১:৩৮ পিএম | আপডেট: ২৬ জুলাই ২০২৩, ১২:০৩ এএম

বর্হিবিশ্বে প্রায় সোয়া কোটি বাংলাদেশি নারী পুরুষ কর্মী কঠোর পরিশ্রম করে প্রচুর রেমিট্যান্স দেশে পাঠাচ্ছে। বিএমইটিতে অসাধু কর্মকর্তাদের যোগসাজসে জাল জালিয়াতির ঘটনা অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠছে। জনশক্তি রফতানিতে দুর্নীতিমুক্ত স্বচ্ছ প্রক্রিয়া নিশ্চিত এবং জাল জালিয়াতি প্রতিরোধ করা সম্ভব হলে রেমিট্যান্স খাতে অভাবনীয় সাফল্য অর্জন করা সম্ভব। একাধিক জনশক্তি রফতানিকারক এ অভিমত ব্যক্ত করেছেন।
বিএমইটিতে অবাধে জালিয়াতির ঘটনার পরেও বার বার অসাধু কর্মকর্তারা ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকলে জনশক্তি রফতানি হুমকির সম্মুখীন হবার বিষয়টি উড়িয়ে দেয়া যায় না। বিএমইটির সার্ভার জালিয়াতির কয়েকটি ঘটনায় প্রবাসী মন্ত্রণালয়ের টনক লড়লেও অভিযুক্ত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে এখনো কোনো শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। এতে বায়রার শীর্ষ পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ চরমভাবে ক্ষুব্ধ। বায়রা নেতৃবৃন্দ জনশক্তি রফতানিতে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে তদন্ত কমিটি গঠনের মাধ্যমে জালিয়াত চক্রের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার জোর দাবি জানিয়েছেন। বিএমইটির সূত্র জানায়, গত জানুয়ারি থেকে ২২ জুলাই পর্যন্ত বিভিন্ন দেশে ৭ লাখ ৫৯ জন কর্মী বিদেশে চাকরি নিয়ে গেছে। ২০২২ সালে ১১ লাখ ৩৫ হাজার ৯৮৪জন কর্মী বিদেশে চাকরি লাভ করেছে। এদিকে, অর্থনীতির গুরুত্বপূর্ণ সূচক প্রবাসী আয়ে সুবাতাস বইছে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে কর্মরত প্রবাসীরা নতুন অর্থবছরের প্রথম মাস জুলাইয়ের প্রথম ১৪ দিনে ৯৯ কোটি ৫৫ লাখ (৯৯৫ মিলিয়ন) মার্কিন ডলারের রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। গত ১৬ জুলাই বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে। রেমিট্যান্স আয়ের চলমান এই ধারা অব্যাহত থাকলে মাস শেষে প্রবাসী আয় ২০০ কোটি ডলার ছাড়াবে বলে মনে করছেন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মকর্তারা।
জনশক্তি রফতানিতে দুষ্কৃতিকারীদের নৈরাজ্য দিন দিন বাড়ছে। বিএমইটির এক শ্রেণির অসাধু কর্মকর্তা কর্মচারি’র সহযোগিতায় মালয়েশিয়ায় কর্মী নিয়োগে জাল জালিয়াতির ঘটনা থামছে না। মালয়েশিয়ায় কর্মী প্রেরণে প্যানেলভুক্ত নয় এমন অসাধু রিক্রুটিং এজেন্সিও বিধি বর্হিভুতভাবে জাল জালিয়াতির আশ্রয় নিয়ে কর্মী পাঠাচ্ছে। বিএমইটির সার্ভার জালিয়াতির সাথে জড়িত রাঘববোয়ারা ধরাছোঁয়ার প্রতিনিয়ত বাইরে থেকে যাওয়ায় বর্হিগমন ছাড়পত্র ইস্যু কার্যক্রমে দুর্নীতি অনিয়মের ঘটনা থামছে না। মোটা অংকের ঘুষের বিনিময়ে বিএমইটির ছাড়পত্র নিয়ে মালয়েশিয়ায় দেদারসে কর্মী পাঠাচ্ছে অসাধু রিক্রুটিং এজেন্সিগুলো। এতে জনশক্তি রফতানির প্রক্রিয়ায় দুষ্কৃতিকারীদের অরাজকতা দিন দিন বাড়ছে। ভুক্তভোগি একাধিক জনশক্তি রফতানিকারকরা এ অভিমত ব্যক্ত করেছেন।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, রিক্রুটিং এজেন্সি আল ফারাহ হিউম্যান রিসোর্স এন্ড কনসালটেন্সি মালয়েশিয়ার নোবেল মারলোঙ্গ এসডিএন বিএইচডি থেকে ২০০ জন নির্মাণ কর্মী নিয়োগের চাহিদাপত্র লাভ করে। এসব কর্মীদের দেশটিতে পাঠাতে কোটা অ্যালোকেশন, ডিম্যান্ড লেটার, পাওয়অর অব অ্যাটর্নি এবং মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ হাই কমিশনের সত্যায়ন লাভ করে এজেন্সিটি।
কিন্ত আল ফারাহ হিউম্যান রিসোর্স এন্ড কনসালটেন্সিকে কোনো প্রকার অবহিত না করেই সিমপ্লেক্স ইন্টারন্যাশনাল (আরএল-১০২২) ও দি জিএমজি এসোসিয়েটস লি: (আরএল-১১৪৩) এর মালিক যথাক্রমে গোলাম মাওলানা ও আবু বকর বিএমইটির অসাধু কর্মকর্তা কর্মচারিদের যোগসাজসে বিধি বর্হিভূতভাবে ১৫৩ জন কর্মীর বর্হিগমন ছাড়পত্র নিয়ে অতিগোপনে মালয়েশিয়ায় পাঠিয়ে দেয়। তথ্য গোপন করে জাল জালিয়াতি এবং প্রতারণার ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে গত ২৪ জুলাই আল ফারাহ হিউম্যান রিসোর্স এন্ড কনসালটেন্সির স্বত্বাধিকারী জাকের আহমদ ভূঁইয়া প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. আহমদ মনিরুছ সালেহীন এবং বিএমইটির মহাপরিচালক মো. শহীদুল আলমের কাছে লিখিত অভিযোগ পেশ করেছেন। জনশক্তি রফতানিকারক জাকের আহমদ ভূঁইয়া অভিযোগে আরো বলেন, বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার সাথে সম্পাদিত সমঝোতা স্বারকেরে কার্য বিবরণী এবং প্রচলিত পদ্ধতির বাইরে গিয়ে এ ধরনের অনিয়ম চলতে থাকলে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার অচিরেই হুমকির সম্মুখীন হবে। সিমপ্লেক্স ইন্টারন্যাশনাল মালয়েশিয়ার জন্য অনুমোদিত রিক্রুটিং এজেন্সি সমূহের প্যানেলভুক্ত নয়। আল ফারাহ হিউম্যান রিসোর্সের স্বত্বাধিকারী জাকের আহমদ ভূঁইয়া গতকাল ইনকিলাবকে বলেন, বিএমইটির অসাধু কর্মকর্তাদের সাথে যোগসাজস করে দুর্নীতির মাধ্যমে ১৫৩ জন কর্মীকে মালয়েশিয়ায় পাঠানো হয়েছে। তিনি বলেন, জনশক্তি রফতানি খাতে এ ধরনের নৈরাজ্য চলমান থাকলে বিদেশের শ্রমবাজারে বিপর্যয় নেমে আসবে। তিনি বিএমইটির অসুধা কর্মকর্তাদের এবং অভিযুক্ত এজেন্সি দু’টির বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জোর দাবি জানান।
এছাড়া কোরবানির ঈদের সময়ে রিক্রুটিং এজেন্সি আল মামুন ওভারসীজ (আর এল ৬২৯) মালয়েশিয়াস্থ কোম্পানী এ্যাক্সিনারি (এম) এসডিএন.বিএইচডি থেকে আল হেরা ওভারসীজের নামে ১৫০ জন কর্মী নিয়োগের চাহিদাপত্র ইস্যু করে। আল মামুন ওভারসীজের মালিক মোশাররফ হোসেন স্বপন আল হেরা ওভারসীজকে কর্মীর পাসপোর্ট দেই দিচ্ছি করে অতিগোপনে জুন মাসের শেষের দিকে ঈদের ছুটি কালিন সময়ে আল খামিছ ইন্টারন্যাশনাল (আর এল ৬৮০) এর নামে ১২০ জন কর্মীর বর্হিগমন ছাড়পত্র নিয়ে মালয়েশিয়ায় পাঠিয়ে দেয়। পরে বিষয়টি জানতে পেরে আল খামিছ ইন্টারন্যাশনালের মালিক মো. ফরিদ আহমেদ গত ৯ জুলাই প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিবের কাছে প্রতারক আল মামুন ওভারসীজের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন। আল খামিছের স্বত্বাধিকারী ফরিদ আহমেদ ইনকিলাবকে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, বর্হিগমন নীতিমালা লঙ্ঘন করে অত্যান্ত সুকৌশলে আল মামুন ওভারসীজের মালিক আল হেরা ওভারসীজের ১২০ জন কর্মীর বর্হিগমন ছাড়পত্র আমার এজেন্সির নামে নিয়ে চরম প্রতারণার আশ্রয় নিয়েছে। তিনি বলেন, বিএমইটির অসাধু কর্মকর্তাদের সাথে আতাত করে এ ধরণের কেলেঙ্কারির ঘটনা কোনো মতেই মেনে নেয়া যায় না। তিনি এসব দুষ্টচক্রের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। আল হেরা ওভারসীজের স্বত্বাধিকারী শাহাদাত হোসেন ইনকিলাবকে জানান, আল মামুন ওভারসীজের মালিক মোশাররফ হোসেন স্বপন আমার এজেন্সির নামে মালয়েশিয়া থেকে ১৫০ জন কর্মী নিয়োগের চাহিদাপত্র ইস্যু করে। এসব কর্মীর বর্হিগমন প্রক্রিয়া শুরু করার অনুরোধ জানিয়ে পাসপোর্ট দেই দিচ্ছি করে সময় ক্ষেপণ করেছে। পরে আল মামুন ওভারসীজের মালিক বিএমইটির অসাধু কর্মকর্তাদের মাধ্যমে ঘুষের বিনিময়ে ১২০জন কর্মীকে আল খামিছ এজেন্সির নামে বর্হিগমন করে স্মার্ট কার্ড সংগ্রহ করে মালয়েশিয়ায় পাঠিয়ে দেয়। এতে এফডব্লিউসিএমএস এসব কর্মীর বিপরীতে ১ কোটি ৮২ লাখ ৪০ হাজার টাকা কেটে নিয়ে যায়। এতে আমি আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হই। বিষয়টি আল মামুন ওভারসীজের মালিক মোশাররফকে অবহিত করা হলে তিনি ২/৩ ঘন্টার মধ্যেই বিএমইটির সার্ভার থেকে ১২০জন কর্মীর বর্হিগমণ ডাটা ডিলেট করে ফেলেন। পরে নয়াপল্টনস্থ একটি রিক্রুটিং এজেন্সির অফিসে একঘরোয়া শালিসে আল মামুন ওভারসীজের মালিক মোশাররফ হোসেন তার অপরাধের কথা স্বীকার করে আমার ক্ষতিপূরণের ১ কোটি ৮০ লাখ টাকা কিস্তিতে ফেরত দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। তিনি প্রথম ধাপে ৮০ লাখ টাকা ফেরত এবং বাকি ২৫টি পাসপোর্ট প্রসেসিং করার জন্য অফিসে জমা দিয়েছে।দরবার গ্লোবাল ওভারসীজ (১২৯৫) মালয়েশিয়ার একটি কোম্পানী থেকে ১শ’ কর্মীর চাহিদা নিয়ে কমফোর্ট ওভারসীস কনসালটেন্ট লিমিটেডকে প্রসেসিং করার জন্য কাজের চাহিদপত্র, পাওয়ার অফ এটর্নি, এলোকেশন পেপার জমা দেয়। কমফোর্ট ওভারসীজ প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় ও বিএমইটির নিয়োগ অনুমতি সংগ্রহ করে কর্মীর পাসপোর্ট চায়। দরবার গ্লোবাল ওভারসীজ পাসপোর্ট দেই দিচ্ছি করে সময় ক্ষেপণ এবং টালবাহানা শুরু করে। দরবার গ্লোবাল ওভারসীজের মালিক মাহবুব মিয়া অতিগোপনে এসব কর্মীর বর্হিগমন ছাড়পত্র আল খামিছ ইন্টারন্যাশনাল ও ৪ সাইট ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডের মাধ্যমে স্মার্ট কার্ড সংগ্রহ করে সুকৌশলে বৈআইনীভাবে ৭১ জন কর্মীকে মালয়েশিয়ায় পাঠিয়ে দেয়। বাকি ২৯ জন কর্মী যাওয়ার অপেক্ষায়। এসব প্রতারণার বিষয় জানতে চাইলে দরবার গ্লোবাল ওভারসীজের মালিক কমফোর্ট ওভারসীজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মেহেদী হাসানকে ভয়ভীতি ও হুমকি ধমকি দিয়ে বেড়াচ্ছে। গত ১০ জুলাই প্রবাসী সচিবের কাছে লিখিত অভিযোগে মেহেদী হাসান এসব তথ্য তুলে ধরে এ ধরণের অনৈতিক কাজের সাথে জড়িতদের বিচারের আওতায় নিয়ে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। বায়রার সভাপতি আবুল বাসার, বায়রার সাবেক মহাসচিব মো.রুহুল আমিন স্বপন এবং বায়রার সাবেক সাংস্কৃতিক সচিব কে এম মোবারক উল্লাহ শিমুল বিএমইটির সার্ভার জালিয়াতির ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে অবিলম্বে এসব দুর্নীতি জালিয়াতির বন্ধের কার্যকরি উদ্যোগ নেয়ার জোর দাবি জানিয়েছেন।


বিভাগ : জাতীয়


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

ইণ্ডিগো এয়ারলাইনসের স্বেচ্ছাচারিতা

ইণ্ডিগো এয়ারলাইনসের স্বেচ্ছাচারিতা

বৈধপথে রেমিট্যান্স পাঠিয়ে নিজে সম্মানিত হোন দেশকেও সম্মানিত করুন

বৈধপথে রেমিট্যান্স পাঠিয়ে নিজে সম্মানিত হোন দেশকেও সম্মানিত করুন

বাংলাদেশে এখন আর স্বাধীন সাংবাদিকতা নেই: রিজভী

বাংলাদেশে এখন আর স্বাধীন সাংবাদিকতা নেই: রিজভী

এক দশক পর চ্যাম্পিয়ন কলকাতা

এক দশক পর চ্যাম্পিয়ন কলকাতা

জেমস বন্ডের থিম সং লিখেছিলেন লানা দেল রে, তবে মনোনীত হয়নি

জেমস বন্ডের থিম সং লিখেছিলেন লানা দেল রে, তবে মনোনীত হয়নি

খালেদ মুন্নার ফোক ম্যাশআপ

খালেদ মুন্নার ফোক ম্যাশআপ

চেম্বার আদালতে আপিল করলেন ডিপজল

চেম্বার আদালতে আপিল করলেন ডিপজল

‘অ্যানিমেল’ সিক্যুয়েলে রণবীরের প্রতিপক্ষ ভিকি

‘অ্যানিমেল’ সিক্যুয়েলে রণবীরের প্রতিপক্ষ ভিকি

গানে ফিরছেন সঙ্গীতশিল্পী রিংকু

গানে ফিরছেন সঙ্গীতশিল্পী রিংকু

কোক স্টুডিও বাংলায় ওয়ারফেজের গান

কোক স্টুডিও বাংলায় ওয়ারফেজের গান

উন্নয়ন সম্ভাবনায় দক্ষিণের জনপদ

উন্নয়ন সম্ভাবনায় দক্ষিণের জনপদ

নদী রক্ষায় বড় ধরনের যুদ্ধ শুরু হয়েছে, এ যুদ্ধে আমরা বিজয়ী হব : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

নদী রক্ষায় বড় ধরনের যুদ্ধ শুরু হয়েছে, এ যুদ্ধে আমরা বিজয়ী হব : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিল দাবি, ইবি শিক্ষকদের মানববন্ধন

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিল দাবি, ইবি শিক্ষকদের মানববন্ধন

বাসের ওপর উল্টে গেল ট্রাক, ১১ জনের মৃত্যু

বাসের ওপর উল্টে গেল ট্রাক, ১১ জনের মৃত্যু

ভয়েস চেঞ্জ অ্যাপে গলা বদলে ৭ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

ভয়েস চেঞ্জ অ্যাপে গলা বদলে ৭ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

গুগল ম্যাপ দেখে গাড়ি চালিয়ে পানিতে পড়লেন ৪ পর্যটক

গুগল ম্যাপ দেখে গাড়ি চালিয়ে পানিতে পড়লেন ৪ পর্যটক

পৃথিবীর কাছাকাছি বাসযোগ্য নতুন গ্রহ আবিষ্কার

পৃথিবীর কাছাকাছি বাসযোগ্য নতুন গ্রহ আবিষ্কার

বাইডেন ও ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতায় ফাটল ধরানোর অভিযোগ কেনেডির

বাইডেন ও ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতায় ফাটল ধরানোর অভিযোগ কেনেডির

ভারতে ধনীদের ওপর সম্পদ করারোপ প্রস্তাব

ভারতে ধনীদের ওপর সম্পদ করারোপ প্রস্তাব

নিউইয়র্ক-লন্ডনের তুলনায় এশিয়ায় বাড়ছে আবাসন মূল্য

নিউইয়র্ক-লন্ডনের তুলনায় এশিয়ায় বাড়ছে আবাসন মূল্য