ঢাকা   শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪ | ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রেখেও বিশাল সমুদ্রসীমা অর্জনে সক্ষম হয়েছি : প্রধানমন্ত্রী

Daily Inqilab প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৭:৪৮ এএম | আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০২৩, ১০:৫৫ পিএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ভারত ও মিয়ানমারের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রেখেও আমরা আমাদের বিশাল সমুদ্রসীমা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছি।

বাংলাদেশ কোস্টগার্ডের ২৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। আজ (সোমবার) সকালে আগারগাঁও কোস্টগার্ড সদর দপ্তরে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

শেখ হাসিনা বলেন, বঙ্গোপসাগরে বাংলাদেশের যে অধিকার আছে সেটা নির্দিষ্ট করার জন্য বঙ্গবন্ধু ১৯৭৪ সালে আইন প্রণয়ন করে। তখনও জাতিসংঘে এই আইন হয়নি। জাতিসংঘে এই আইন হয়েছে ১৯৮২ সালে। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশই এই আইন প্রথম পাস করে।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আমাদের যেমন সমুদ্র আছে তেমন বিশাল উপকূলীয় অঞ্চল রয়েছে। এই অঞ্চলের সব ধরনের নিরাপত্তা বিধান করা, সব সম্পদ আমাদের অর্থনীতিতে কাজে লাগানো একান্ত অপরিহার্য। ২১ বছর পর ক্ষমতায় এসে এদেশে আমাদের যে অধিকার আছে তা নিশ্চিত করতে পদক্ষেপ গ্রহণ করি। ১৯৭৫ সালের পরে যারা অবৈধভাবে সরকার গ্রহণ করেছিল তারা কিন্তু এই ব্যাপারে কোনো উদ্যোগ গ্রহণ করেনি। আমি জানি না, তাদের এই ব্যাপারে সম্মুক ধারণা ছিল কি না।

তিনি আরও বলেন, আমাদের উদ্যোগের ফলে ১৯৯৬ সালে কিছু কাজ করে যাই, দ্বিতীয় দফা সরকারে আসার পর থেকে আমরা আবার উদ্যোগ নেই এবং সমুদ্রসীমায় আমাদের যে অধিকার তা নিশ্চিত করি। এক দিকে মিয়ানমার, অন্যদিকে ভারতের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সর্ম্পক রেখেও আমরা আমাদের বিশাল সমুদ্র সীমা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল পদ্ধতি ব্যবহার করে আমরা আমাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারব। আমি চাই আমাদের কোস্টগার্ড আধুনিক, প্রযুক্তিজ্ঞান সম্পন্ন, উন্নত, শক্তিশালী বাহিনী হিসেবে গড়ে উঠুক। আমাদের ব্যবসা-বাণিজ্য সমুদ্রপথে পণ্য পরিবহণ, যাত্রী পরিবহন সকলের নিরাপত্তা বিধানে আপনারা বিশাল অবদান রেখে যাচ্ছেন। আপনাদের দায়িত্বপালনে বাংলাদেশের জনগণই সব থেকে লাভবান হবে।

তিনি আরও বলেন, আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল বাংলাদেশ। ঘরে ঘরে আমরা আলো জ্বালছি। দেশের একটি মানুষও ভূমিহীন থাকবে না। ভূমিহীন মানুষদের আমরা বিনামূল্যে ২ কাঠা জমি ও ঘর তৈরি করে জীবন জীবিকার সুযোগ করে দিচ্ছি। নিজেরা নিজেদের পায়ে দাঁড়িয়ে প্রত্যেকের জীবন যেন উন্নত সমৃদ্ধশালী হয়, প্রত্যেকের সন্তান লেখাপড়া শিখবে, আধুনিক ও ডিজিটাল পদ্ধতি শিখবে, তারা নিজেরা উপার্জন করবে, দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখবে। আমাদের জনগোষ্ঠীকে স্মার্ট জনগোষ্ঠী হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। বাংলাদেশকে ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ হিসেবে গড়ে তুলব।


বিভাগ : জাতীয়


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

এই বিভাগের আরও

রমজানের আগেই ‘দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ কমিশন’ গঠনের দাবি নতুনধারার
বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধিতে সাধারণ গ্রাহকের ওপর চাপ পড়বে না: ওবায়দুল কাদের
ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি রাকিব ও সাধারণ সম্পাদক নাসির
বেইলি রোডে অগ্নিকান্ডে আহতদের দেখতে শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও শীর্ষ নেতারা
৪৫ জন মানুষ মারা গেছেন, এর চেয়ে কষ্টের আর কী হতে পারে? : প্রধানমন্ত্রী
আরও

আরও পড়ুন

দিল্লির সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় আক্রান্তদের বিচার পাওয়ার লড়াই শেষ হচ্ছে না

দিল্লির সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় আক্রান্তদের বিচার পাওয়ার লড়াই শেষ হচ্ছে না

এক রাতের জন্য রিহানাকে কত টাকা দিচ্ছেন মুকেশ আম্বানি?

এক রাতের জন্য রিহানাকে কত টাকা দিচ্ছেন মুকেশ আম্বানি?

ভবন নির্মাণে সিটি করপোরেশনের অনুমতির বিষয়ে যা বললেন তাপস

ভবন নির্মাণে সিটি করপোরেশনের অনুমতির বিষয়ে যা বললেন তাপস

রাশিয়ায় আক্রমণ করলে করুণ পরিণতি হবে, হুঁশিয়ারি পুতিনের

রাশিয়ায় আক্রমণ করলে করুণ পরিণতি হবে, হুঁশিয়ারি পুতিনের

ইউক্রেনে ন্যাটোর কোন সৈন্য পাঠানো হবে না: জার্মান চ্যান্সেলর

ইউক্রেনে ন্যাটোর কোন সৈন্য পাঠানো হবে না: জার্মান চ্যান্সেলর

ঢাকায় বেইলি রোডের অগ্নিকাণ্ড ব্রাহ্মণপাড়ার মা ও মেয়ে দুজনের মৃত্যু

ঢাকায় বেইলি রোডের অগ্নিকাণ্ড ব্রাহ্মণপাড়ার মা ও মেয়ে দুজনের মৃত্যু

বেইলী রোডে অগ্নিকাণ্ড নিয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য নাছিম-  সবাইকে আরো দায়িত্বশীল হতে হবে

বেইলী রোডে অগ্নিকাণ্ড নিয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য নাছিম- সবাইকে আরো দায়িত্বশীল হতে হবে

গাজাবাসীকে জয় উৎসর্গ করলেন ব্রিটিশ এমপি

গাজাবাসীকে জয় উৎসর্গ করলেন ব্রিটিশ এমপি

বন্দরে স্বামীকে আহত করে গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ

বন্দরে স্বামীকে আহত করে গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ

আফগানিস্তানকে হারিয়ে আয়ারল্যান্ডের ঐতিহাসিক জয়

আফগানিস্তানকে হারিয়ে আয়ারল্যান্ডের ঐতিহাসিক জয়

পাকিস্তানের সরকারকে স্বীকৃতি না দিতে বাইডেন-ব্লিংকেনকে চিঠি

পাকিস্তানের সরকারকে স্বীকৃতি না দিতে বাইডেন-ব্লিংকেনকে চিঠি

হুমকির মুখে নিষিদ্ধ পগবার ক্যারিয়ার

হুমকির মুখে নিষিদ্ধ পগবার ক্যারিয়ার

এআই নথি প্রকাশে ইসলামিক দেশগুলির শীর্ষে ইরান

এআই নথি প্রকাশে ইসলামিক দেশগুলির শীর্ষে ইরান

নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও ইরানের তেল খাতের প্রবৃদ্ধি দ্বিগুণ

নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও ইরানের তেল খাতের প্রবৃদ্ধি দ্বিগুণ

আইএসও সদস্যদের তালিকায় ইরানের ৬ ধাপ উন্নতি

আইএসও সদস্যদের তালিকায় ইরানের ৬ ধাপ উন্নতি

শিবগঞ্জে ফসলের মাঠ থেকে ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার

শিবগঞ্জে ফসলের মাঠ থেকে ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার

কাল ৮ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না ঢাকার যেসব এলাকায়

কাল ৮ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না ঢাকার যেসব এলাকায়

হাতে ঘড়ি দেখে মিনহাজের লাশ শনাক্ত করলো পরিবার

হাতে ঘড়ি দেখে মিনহাজের লাশ শনাক্ত করলো পরিবার

আমরা এমন মর্মান্তিক ঘটনা মেনে নিতে পারছি না : বাবলা

আমরা এমন মর্মান্তিক ঘটনা মেনে নিতে পারছি না : বাবলা

রাজনৈতিক চরিত্রের অপরাধ প্রবণতা জাহিলী যুগকেও হার মানিয়েছে- পীর সাহেব চরমোনাই

রাজনৈতিক চরিত্রের অপরাধ প্রবণতা জাহিলী যুগকেও হার মানিয়েছে- পীর সাহেব চরমোনাই