মানববন্ধনে গয়েশ্বর

জনগণ কী চায় উপলব্ধি করুন, অন্যথায় কাপড় চোপড় খুলে ফেলবে

Daily Inqilab স্টাফ রিপোর্টার

০৯ মার্চ ২০২৩, ১১:০৮ পিএম | আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০২৩, ১০:৫০ পিএম

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আসন ভাগাভাগি নিয়ে মার্কেটিং করা হচ্ছে উল্লেখ করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, প্রতিবেশি বা বিদেশি যারা এই মার্কেটিং করছেন তাদের বলব- আপনারা ক্ষান্ত হোন। এ দেশের জনগণ কী চায় সেটা উপলব্ধি করুন, অন্যথায় জনগণ আপনাদের কাপড়-চোপড় খুলে ফেলবে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে নারী ও শিশু অধিকার ফোরামের উদ্যোগে এক মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।
বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী ও স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপুসহ সকল রাজবন্দির নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে এই মানববন্ধন হয়।

সংগঠনের আহ্বায়ক ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য বেগম সেলিমা রহমানের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব ও ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এড. নিপুণ রায় চৌধুরীর পরিচালনায় এতে আরো বক্তব্য দেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব এড. সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, বিএনপি নেতা আবদুস সালাম আজাদ, শিরীন সুলতানা, ডা. রফিকুল ইসলাম, মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজ, আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, ফরিদা ইয়াসমিন প্রমুখ।
আওয়ামী লীগ সরকারের দুর্নীতি, গুম, খুন ও নির্যাতনের চিত্র তুলে ধরে গয়েশ্বর রায় বলেন, এমন সময় আসবে পাড়া-মহল্লায় লেখা থাকবে- এখানে আওয়ামী লীগ নিষিদ্ধ, এখানে কোনো আওয়ামী লীগ নেই। যেভাবে দেশ স্বাধীন হওয়ার পর লেখা হয়েছিল-এখানে রাজাকার নেই।

শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণ উদ্ধৃত করে তিনি বলেন, এদেশের মানুষ আজ মুক্তি চায়, বাঁচতে চায়। এটা কিন্তু আপনার (প্রধানমন্ত্রী) আব্বা হুজুরের কথা। আমরা সেই আন্দোলন করছি। এদেশের মানুষ ভোটাধিকার চায়। এবারের সংগ্রাম গণতন্ত্রের সংগ্রাম, ১৮ কোটি মানুষের মুক্তির সংগ্রাম।

গণতন্ত্র ও ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠায় দেশে জনবিস্ফোরণ ঘটাতে জনগণ প্রস্তুত উল্লেখ করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, জনগণের আন্দোলন যখন বিস্ফোরন্মুখী, তখন কৃত্রিম বিস্ফোরণ ঘটিয়ে জনগণের দৃষ্টিভঙ্গি ভিন্নদিকে নিয়ে, বিএনপিকে নির্যাতন করে আপনারা (সরকার) একটি নির্বাচনের স্বপ্ন দেখছেন। বিএনপি ও মানুষ মারার বিস্ফোরণ ঘটাবেন না। আন্দোলনের দৃষ্টি গণতন্ত্র ও ভোটাধিকার আদায়ের।
স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান বলেন, সরকারের সকল অন্যায় অত্যাচারের বিরুদ্ধে এবং গণতন্ত্র ও ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার চলমান আন্দোলন যেকোনো সময় জনবিস্ফোরণ ঘটবে। এ কারণে সরকার তার পুরানো খেলা শুরু করেছে।

যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, সরকারের অন্যায়-অত্যাচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী কন্ঠস্বর বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে বন্দি রাখা হয়েছে। আমাদের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীসহ বহু নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এটা করে চলমান আন্দোলন বন্ধ করা যাবে না।


বিভাগ : জাতীয়


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

ইউরোপের বিভিন্ন শহরে প্রতিবাদে রাজপথ প্রকম্পিত করে তোলেন প্রবাসী বাংলাদেশীরা

ইউরোপের বিভিন্ন শহরে প্রতিবাদে রাজপথ প্রকম্পিত করে তোলেন প্রবাসী বাংলাদেশীরা

দূর সম্পর্কীয় খালাকে বিয়ে করা প্রসঙ্গে।

দূর সম্পর্কীয় খালাকে বিয়ে করা প্রসঙ্গে।

মাদারীপুরে ছাত্রলীগ-পুলিশের ত্রিমুখী সংঘর্ষে কোটা আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী নিহত, আহত ২৫, আটক ৮

মাদারীপুরে ছাত্রলীগ-পুলিশের ত্রিমুখী সংঘর্ষে কোটা আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী নিহত, আহত ২৫, আটক ৮

পুলিশ-আন্দোলনকারী সংঘর্ষে রণক্ষেত্র ঝিনাইদহ ওসিসহ আহত ১৫

পুলিশ-আন্দোলনকারী সংঘর্ষে রণক্ষেত্র ঝিনাইদহ ওসিসহ আহত ১৫

অচল ময়মনসিংহ: বন্ধ দুরপাল্লার যান চলাচল বন্ধ

অচল ময়মনসিংহ: বন্ধ দুরপাল্লার যান চলাচল বন্ধ

যুক্তরাষ্ট্রকে জবাব দিতে রাশিয়াও পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করতে পারে

যুক্তরাষ্ট্রকে জবাব দিতে রাশিয়াও পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করতে পারে

আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের

আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের

নাঙ্গলকোটে কোটা বিরোধীদের সাথে ছাত্র লীগের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও বাঙ্গড্ডা বাজারে বিক্ষোভ মিছিল

নাঙ্গলকোটে কোটা বিরোধীদের সাথে ছাত্র লীগের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও বাঙ্গড্ডা বাজারে বিক্ষোভ মিছিল

পুলিশের সামনেই রাজশাহী মহাসড়ক অবরোধ করল রাবি শিক্ষার্থীরা

পুলিশের সামনেই রাজশাহী মহাসড়ক অবরোধ করল রাবি শিক্ষার্থীরা

গুলিবিদ্ধসহ আহত ৮৭ জন ঢামেকে ভর্তি

গুলিবিদ্ধসহ আহত ৮৭ জন ঢামেকে ভর্তি

সংঘটিত ঘটনার তদন্তে এক সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিশন গঠন

সংঘটিত ঘটনার তদন্তে এক সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিশন গঠন

চট্টগ্রামে ত্রিমুখী সংঘর্ষে নিহত ২ পুলিশ বক্সে আগুন থানা ঘেরাও

চট্টগ্রামে ত্রিমুখী সংঘর্ষে নিহত ২ পুলিশ বক্সে আগুন থানা ঘেরাও

চীন দেখতে চায় না বাংলাদেশে প্রাণহানি

চীন দেখতে চায় না বাংলাদেশে প্রাণহানি

রাশিয়া এ বছরেই বিশেষ অভিযান শেষ করবে: চেচেন কমান্ডার

রাশিয়া এ বছরেই বিশেষ অভিযান শেষ করবে: চেচেন কমান্ডার

বিহারে এক মাসে ধসে পড়ল ১৫ সেতু

বিহারে এক মাসে ধসে পড়ল ১৫ সেতু

বিটিভির ট্রান্সমিশন বন্ধ

বিটিভির ট্রান্সমিশন বন্ধ

শিক্ষার্থীদের মৃত্যু, হামলার প্রতিবাদে শুক্রবার বাদ জুমা সর্বদলীয় সমাবেশ ও মিছিলের ডাক বিএনপির যুগপৎ আন্দোলনের শরিকদের

শিক্ষার্থীদের মৃত্যু, হামলার প্রতিবাদে শুক্রবার বাদ জুমা সর্বদলীয় সমাবেশ ও মিছিলের ডাক বিএনপির যুগপৎ আন্দোলনের শরিকদের

চাসভ ইয়ার ছেড়ে পালাচ্ছে ইউক্রেনীয় সেনা

চাসভ ইয়ার ছেড়ে পালাচ্ছে ইউক্রেনীয় সেনা

মধ্যপ্রাচ্য, ইউক্রেন সংঘাতে যুক্তরাষ্ট্র সরাসরি জড়িত: ল্যাভরভ

মধ্যপ্রাচ্য, ইউক্রেন সংঘাতে যুক্তরাষ্ট্র সরাসরি জড়িত: ল্যাভরভ

বাধার মুখে যেতে পারেনি ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও সেতু ভবনে আগুন

বাধার মুখে যেতে পারেনি ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও সেতু ভবনে আগুন