ক্যাম্পাসে সংঘবদ্ধ ছিনতাই, চাঁদাবাজি, হামলা ও মাদকসহ আছে বিস্তর অভিযোগ

কিশোর গ্যাং ‘প্রলয়’ আতঙ্কে ঢাবি ক্যাম্পাস

Daily Inqilab রাহাদ উদ্দিন

২৬ মার্চ ২০২৩, ১১:৩৭ পিএম | আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০২৩, ১১:১২ পিএম

ঘড়িতে তখন রাত সাড়ে সাতটা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর উপর হঠাৎ করেই ঝাপিয়ে পড়ে ১৫-২০ জনের একদল শিক্ষার্থী। উপর্যুপরি কিল ঘুষি ও ইটের আঘাতে আহত করে ওই শিক্ষার্থীকে। মারাত্মক জখম হয়ে বর্তমানে হাসপাতালে আছেন ওই শিক্ষার্থী। গত শনিবার রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি জসীমউদ্দিন হলের সামনে ঘটে যায় এমন নৃশংস ঘটনা। মারধরের শিকার শিক্ষার্থীর নাম জোবায়ের ইবনে হুমায়ুন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাধ বিজ্ঞান বিভাগের ২০২০-২১ সেশন ও স্যার এ এফ রহমান হলের আবাসিক শিক্ষার্থী।

ফিল্মি কায়দায় জোবায়েরকে মারধরের নেপথ্যে কারা ছিল সেই সন্ধান করতেই বেরিয়ে আসে ভয়ংকর এক গ্যাংয়ের নাম। ক্যাম্পাসের সোহরাওয়ার্দী উদ্যান কেন্দ্রীক এই গ্যাংয়ের নাম প্রলয়। ক্যাম্পাসে মারামারি, ছিনতাই ও মাদকের সাথে জড়িতদের বেছে বেছে এই গ্যাংয়ের সদস্য বানানো হয়। জানা যায়, এমন কোনো অপরাধ নেই যেটাতে জড়ায় না গ্যাংয়ের সদস্যরা। নিয়মিত নেশার আসর বসান তাঁরা। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের শিশু চত্বরের পাশে তাঁদের নেশার স্থান। ওই জায়গার নাম দিয়েছেন ‘নিকুম্ভিলা’। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডা. শহীদ মোর্তজা মেডিকেল সেন্টারের তৃতীয় তলায় রয়েছে তাদের অঘোষিত কার্যালয়। মাঝে মাঝেই সেখানে গিয়ে গান গল্পে মেতে উঠেন তারা। সংঘবদ্ধভাবে মাদকও সেবন করেন সেখানে। সংঘবদ্ধভাবেই বিচরণ করেন ক্যাম্পাসে। ক্যাম্পাসে পানির ব্যাবসা নিয়ন্ত্রণ করেন গ্যাংয়ের সদস্যরা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও সবাই সংঘবদ্ধ ছবি দেন নিয়মিত। তাঁরা সবাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হলের দ্বিতীয় বর্ষের (২০২০-২১ সেশন) শিক্ষার্থী।

জসীমউদ্দিন হলের সামনে মারধরের শিকার জোবায়ের ইনকিলাবকে বলেন, একটা অপরিচিত নাম্বার থেকে আমাকে কল করে হুমকি দেয়া হয়। আমাকে বলে তুই কই আছিস? থাকলে কতক্ষণ থাকবি? তখন আমি আমার ঠিকানা জানালে কিছুক্ষণের মধ্যেই ৫০-৬০ জনের একটি গ্যাং এসে আমায় উপর্যুপরি কিল ঘুষি ও ইটের আঘাতে জর্জরিত করে। তারা সবাই উদ্যান কেন্দ্রীক। তাদের নেতৃত্বে ছিল তবারক, অর্ণব, সাহিল ও সাদ।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গ্যাংয়ের সদস্যদের মধ্যে আছেন শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হল এবং গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী মাহিন মুনাওয়ার, মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হল এবং শান্তি ও সংঘর্ষ অধ্যয়নের তবারক, ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্টের সিফরাত সাহিল, হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলের দর্শন বিভাগের অর্ণব খান, তথ্য বিজ্ঞান ও গ্রন্থাগার ব্যবস্থাপনা বিভাগের সাদমান তাওহিদ বর্ষণ, শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের হেদায়েতুন নুর, ফার্সি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের সৈয়দ নাসিফ ইমতিয়াজ, ইতিহাস বিভাগের বদরুজ্জামান সজীব, মার্কেটিং বিভাগের বিপ্লব হাসান জয় ও মোহাম্মদ শোভন, প্রিন্টিং অ্যান্ড পাবলিকেশন বিভাগের এফ রহমান হলের শাহ আলম, মাস্টারদা সূর্য সেন হলের তৌসিফ তাহমিদ অর্পণ ও নাজমুল হোসাইন, কবি জসীম উদ্দীন হল ও রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সাদ, ফার্সি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের তাহমিদ ইকবাল মিরাজ, হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের আবু রায়হান ও জগন্নাথ হলের প্রত্যয় সাহা।

এর মধ্যে নাজমুল হোসাইন ও তৌসিফ তাহমিদ অর্পণ মাস্টারদা সূর্য সেন হল ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক, মাহিন মুনাওয়ার শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হল ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক।

জানা যায়, প্রতিটি হল থেকে প্রথম বর্ষে পড়ে এমন মারদাঙ্গা এবং নেশাগ্রস্ত ২০২০-২১ সেশনের ছাত্রদের বাছাই করে তাঁরা এই গ্যাংয়ে জড়ো করেছেন। ক্যাম্পাসে এবং উদ্যানে নিজেদের আড্ডা, মাদক, ছিনতাইয়ের জগৎ গড়ে তোলেন। এর মধ্যে বিভিন্ন সময়ে মারধর এবং অন্যান্য অপরাধে কয়েকজনকে বিভিন্ন মেয়াদে হল থেকে বহিষ্কারও করা হয়েছে। তাঁরা সংঘবদ্ধ হয়ে চলাফেরা করেন।

বেশ কয়েকটি সূত্র জানায়, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে হওয়া ছিনতাইয়ের ৯০ শতাংশ এই গ্যাংয়ের সদস্যরাই করে থাকে। বিভিন্ন সময়ে ক্যাম্পাসে মারামারি, ছিনতাই, মাদক সেবনের বিস্তর অভিযোগ পাওয়া যায় তাদের বিরুদ্ধে। বিশ্ববিদ্যালয়ের সূর্যসেন হলের কিশোরগঞ্জের এক শিক্ষার্থীর সাথে ঝামেলা নিয়ে হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলের চতুর্থ বর্ষের এক শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ রয়েছে গ্যাংয়ের সদস্য এফ রহমান হলের শাহ আলম ও মুহসীন হলের আবু রায়হানের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বরাবর একটি অভিযোগও দায়ের করেন। কিন্তু একজন সহকারী প্রক্টরের সহায়তায় অভিযুক্তরা সাজা থেকে রেহাই পায় বলে জানা যায়।

ঢাবি মেডিকেল সেন্টারে তাদের আড্ডা নিয়ে শঙ্কিত স্টাফ ও ডাক্তাররা। নাম অপ্রকাশিত রাখার শর্তে এক চিকিৎসক জানান, মেডিকেল চারপাশে খোলা এবং একদল শিক্ষার্থী মদ, গাঁজা খায় এবং আড্ডা দেয়। রাতে ডিউটি করতে খুবই অনিরাপদ বোধ করি।

গ্যাংয়ের অন্যতম সদস্য তবারক বলেন, আমাদের এক বন্ধু অসুস্থ থাকায় সেখানে তাকে দেখতে গিয়েছি কেবল। সবাই মিলে ছিলাম বলে সুন্দর একটা সেলফি তুলেছিলাম। তবে আরেক সদস্য আবু রায়হান বলেন, বন্ধু বান্ধব মিলে জাস্ট গান বাজনা করছিলাম। মাদক সেবন করিনি। তবারক আরো জানান সেদিনই আমরা সিদ্ধান্ত নেই যে আমরা ক্যাম্পাসে পানির ব্যবসা করব। এবং আমরা পানির ব্যবসায় সফল। তা দেখে অনেকের সহ্য হচ্ছে না বিধায় আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। আমাদের পানির ব্যবসা সম্পূর্ণ লিগ্যাল।

জোবায়েরকে মারধরের বিষয়ে তবারক বলেন, দোয়েল চত্বরে ইফতারের পর আমাদের কয়েকজন বন্ধু প্রাইভেট কার চালাচ্ছিলেন এবং গাড়িতে বসে গান বাজনা করছিলেন। এমন সময় জোবায়ের ও তার সাথে ২জন মিলে বাইক চালিয়ে প্রাইভেট কারের সামনে দাঁড়ায় এবং জেরা করতে থাকে। সেই মূলত সেখানে একরকম মাস্তানি করে। এ ঘটনার জেরে তাকে জিজ্ঞেস করার জন্য ডাকা হলে সে আমাদের এক বন্ধুকে ধাক্কা মারে। তখন উত্তেজিত হয়ে সবাই মিলে তাকে মারধর করা হয়। এদিকে এ ঘটনার পর থেকে গ্যাংয়ের অধিকাংশ সদস্যের ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর এ আই মাহবুব খান বলেন, বর্তমানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যারা আসেন তাদের অধিকাংশই প্রত্যন্ত অঞ্চলের নি¤œ মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান। বিশ্ববিদ্যালয় আসার পর নতুন পরিবেশের সাথে খাপ খাইয়ে নেয়ার জন্য তাদের নতুন সঙ্গ দরকার হয়। আর এ সঙ্গ হিসেবে তারা পায় কিছু ছেলেদের, যাদের মাথার উপর ছাদ হিসেবে রয়েছে পলিটিক্যাল গডফাদাররা এবং তাঁদের ছত্রছায়ায় এরাও বিশ্ববিদ্যালয়ে নানা অপরাধে মেতে উঠে। তারা যখন দেখে টিউশনি কিংবা অন্যান্য জবের চেয়ে এই পথটা (ছিনতাই) অনেক সহজ এবং এতে পার পাওয়া যায় তখন এটাকেই তারা অর্থ উপার্জনের উপায় হিসেবে গ্রহণ করে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. একেএম গোলাম রব্বানী বলেন, মারধরের ঘটনায় এখনো কেউ লিখিত অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে অবশ্যই আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। আর গ্যাংয়ের সদস্যদের ব্যাপারে সব ধরনের ইনফরমেশন পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।###


বিভাগ : জাতীয়


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

ইউরোপের বিভিন্ন শহরে প্রতিবাদে রাজপথ প্রকম্পিত করে তোলেন প্রবাসী বাংলাদেশীরা

ইউরোপের বিভিন্ন শহরে প্রতিবাদে রাজপথ প্রকম্পিত করে তোলেন প্রবাসী বাংলাদেশীরা

দূর সম্পর্কীয় খালাকে বিয়ে করা প্রসঙ্গে।

দূর সম্পর্কীয় খালাকে বিয়ে করা প্রসঙ্গে।

মাদারীপুরে ছাত্রলীগ-পুলিশের ত্রিমুখী সংঘর্ষে কোটা আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী নিহত, আহত ২৫, আটক ৮

মাদারীপুরে ছাত্রলীগ-পুলিশের ত্রিমুখী সংঘর্ষে কোটা আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী নিহত, আহত ২৫, আটক ৮

পুলিশ-আন্দোলনকারী সংঘর্ষে রণক্ষেত্র ঝিনাইদহ ওসিসহ আহত ১৫

পুলিশ-আন্দোলনকারী সংঘর্ষে রণক্ষেত্র ঝিনাইদহ ওসিসহ আহত ১৫

অচল ময়মনসিংহ: বন্ধ দুরপাল্লার যান চলাচল বন্ধ

অচল ময়মনসিংহ: বন্ধ দুরপাল্লার যান চলাচল বন্ধ

যুক্তরাষ্ট্রকে জবাব দিতে রাশিয়াও পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করতে পারে

যুক্তরাষ্ট্রকে জবাব দিতে রাশিয়াও পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করতে পারে

আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের

আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের

নাঙ্গলকোটে কোটা বিরোধীদের সাথে ছাত্র লীগের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও বাঙ্গড্ডা বাজারে বিক্ষোভ মিছিল

নাঙ্গলকোটে কোটা বিরোধীদের সাথে ছাত্র লীগের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও বাঙ্গড্ডা বাজারে বিক্ষোভ মিছিল

পুলিশের সামনেই রাজশাহী মহাসড়ক অবরোধ করল রাবি শিক্ষার্থীরা

পুলিশের সামনেই রাজশাহী মহাসড়ক অবরোধ করল রাবি শিক্ষার্থীরা

গুলিবিদ্ধসহ আহত ৮৭ জন ঢামেকে ভর্তি

গুলিবিদ্ধসহ আহত ৮৭ জন ঢামেকে ভর্তি

সংঘটিত ঘটনার তদন্তে এক সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিশন গঠন

সংঘটিত ঘটনার তদন্তে এক সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিশন গঠন

চট্টগ্রামে ত্রিমুখী সংঘর্ষে নিহত ২ পুলিশ বক্সে আগুন থানা ঘেরাও

চট্টগ্রামে ত্রিমুখী সংঘর্ষে নিহত ২ পুলিশ বক্সে আগুন থানা ঘেরাও

চীন দেখতে চায় না বাংলাদেশে প্রাণহানি

চীন দেখতে চায় না বাংলাদেশে প্রাণহানি

রাশিয়া এ বছরেই বিশেষ অভিযান শেষ করবে: চেচেন কমান্ডার

রাশিয়া এ বছরেই বিশেষ অভিযান শেষ করবে: চেচেন কমান্ডার

বিহারে এক মাসে ধসে পড়ল ১৫ সেতু

বিহারে এক মাসে ধসে পড়ল ১৫ সেতু

বিটিভির ট্রান্সমিশন বন্ধ

বিটিভির ট্রান্সমিশন বন্ধ

শিক্ষার্থীদের মৃত্যু, হামলার প্রতিবাদে শুক্রবার বাদ জুমা সর্বদলীয় সমাবেশ ও মিছিলের ডাক বিএনপির যুগপৎ আন্দোলনের শরিকদের

শিক্ষার্থীদের মৃত্যু, হামলার প্রতিবাদে শুক্রবার বাদ জুমা সর্বদলীয় সমাবেশ ও মিছিলের ডাক বিএনপির যুগপৎ আন্দোলনের শরিকদের

চাসভ ইয়ার ছেড়ে পালাচ্ছে ইউক্রেনীয় সেনা

চাসভ ইয়ার ছেড়ে পালাচ্ছে ইউক্রেনীয় সেনা

মধ্যপ্রাচ্য, ইউক্রেন সংঘাতে যুক্তরাষ্ট্র সরাসরি জড়িত: ল্যাভরভ

মধ্যপ্রাচ্য, ইউক্রেন সংঘাতে যুক্তরাষ্ট্র সরাসরি জড়িত: ল্যাভরভ

বাধার মুখে যেতে পারেনি ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও সেতু ভবনে আগুন

বাধার মুখে যেতে পারেনি ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও সেতু ভবনে আগুন