ঢাকা   সোমবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১০ আশ্বিন ১৪৩০
ক্যাম্পাসে সংঘবদ্ধ ছিনতাই, চাঁদাবাজি, হামলা ও মাদকসহ আছে বিস্তর অভিযোগ

কিশোর গ্যাং ‘প্রলয়’ আতঙ্কে ঢাবি ক্যাম্পাস

Daily Inqilab রাহাদ উদ্দিন

২৬ মার্চ ২০২৩, ১১:৩৭ পিএম | আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০২৩, ১১:১২ পিএম

ঘড়িতে তখন রাত সাড়ে সাতটা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর উপর হঠাৎ করেই ঝাপিয়ে পড়ে ১৫-২০ জনের একদল শিক্ষার্থী। উপর্যুপরি কিল ঘুষি ও ইটের আঘাতে আহত করে ওই শিক্ষার্থীকে। মারাত্মক জখম হয়ে বর্তমানে হাসপাতালে আছেন ওই শিক্ষার্থী। গত শনিবার রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি জসীমউদ্দিন হলের সামনে ঘটে যায় এমন নৃশংস ঘটনা। মারধরের শিকার শিক্ষার্থীর নাম জোবায়ের ইবনে হুমায়ুন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাধ বিজ্ঞান বিভাগের ২০২০-২১ সেশন ও স্যার এ এফ রহমান হলের আবাসিক শিক্ষার্থী।

ফিল্মি কায়দায় জোবায়েরকে মারধরের নেপথ্যে কারা ছিল সেই সন্ধান করতেই বেরিয়ে আসে ভয়ংকর এক গ্যাংয়ের নাম। ক্যাম্পাসের সোহরাওয়ার্দী উদ্যান কেন্দ্রীক এই গ্যাংয়ের নাম প্রলয়। ক্যাম্পাসে মারামারি, ছিনতাই ও মাদকের সাথে জড়িতদের বেছে বেছে এই গ্যাংয়ের সদস্য বানানো হয়। জানা যায়, এমন কোনো অপরাধ নেই যেটাতে জড়ায় না গ্যাংয়ের সদস্যরা। নিয়মিত নেশার আসর বসান তাঁরা। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের শিশু চত্বরের পাশে তাঁদের নেশার স্থান। ওই জায়গার নাম দিয়েছেন ‘নিকুম্ভিলা’। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডা. শহীদ মোর্তজা মেডিকেল সেন্টারের তৃতীয় তলায় রয়েছে তাদের অঘোষিত কার্যালয়। মাঝে মাঝেই সেখানে গিয়ে গান গল্পে মেতে উঠেন তারা। সংঘবদ্ধভাবে মাদকও সেবন করেন সেখানে। সংঘবদ্ধভাবেই বিচরণ করেন ক্যাম্পাসে। ক্যাম্পাসে পানির ব্যাবসা নিয়ন্ত্রণ করেন গ্যাংয়ের সদস্যরা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও সবাই সংঘবদ্ধ ছবি দেন নিয়মিত। তাঁরা সবাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হলের দ্বিতীয় বর্ষের (২০২০-২১ সেশন) শিক্ষার্থী।

জসীমউদ্দিন হলের সামনে মারধরের শিকার জোবায়ের ইনকিলাবকে বলেন, একটা অপরিচিত নাম্বার থেকে আমাকে কল করে হুমকি দেয়া হয়। আমাকে বলে তুই কই আছিস? থাকলে কতক্ষণ থাকবি? তখন আমি আমার ঠিকানা জানালে কিছুক্ষণের মধ্যেই ৫০-৬০ জনের একটি গ্যাং এসে আমায় উপর্যুপরি কিল ঘুষি ও ইটের আঘাতে জর্জরিত করে। তারা সবাই উদ্যান কেন্দ্রীক। তাদের নেতৃত্বে ছিল তবারক, অর্ণব, সাহিল ও সাদ।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গ্যাংয়ের সদস্যদের মধ্যে আছেন শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হল এবং গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী মাহিন মুনাওয়ার, মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হল এবং শান্তি ও সংঘর্ষ অধ্যয়নের তবারক, ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্টের সিফরাত সাহিল, হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলের দর্শন বিভাগের অর্ণব খান, তথ্য বিজ্ঞান ও গ্রন্থাগার ব্যবস্থাপনা বিভাগের সাদমান তাওহিদ বর্ষণ, শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের হেদায়েতুন নুর, ফার্সি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের সৈয়দ নাসিফ ইমতিয়াজ, ইতিহাস বিভাগের বদরুজ্জামান সজীব, মার্কেটিং বিভাগের বিপ্লব হাসান জয় ও মোহাম্মদ শোভন, প্রিন্টিং অ্যান্ড পাবলিকেশন বিভাগের এফ রহমান হলের শাহ আলম, মাস্টারদা সূর্য সেন হলের তৌসিফ তাহমিদ অর্পণ ও নাজমুল হোসাইন, কবি জসীম উদ্দীন হল ও রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সাদ, ফার্সি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের তাহমিদ ইকবাল মিরাজ, হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের আবু রায়হান ও জগন্নাথ হলের প্রত্যয় সাহা।

এর মধ্যে নাজমুল হোসাইন ও তৌসিফ তাহমিদ অর্পণ মাস্টারদা সূর্য সেন হল ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক, মাহিন মুনাওয়ার শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হল ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক।

জানা যায়, প্রতিটি হল থেকে প্রথম বর্ষে পড়ে এমন মারদাঙ্গা এবং নেশাগ্রস্ত ২০২০-২১ সেশনের ছাত্রদের বাছাই করে তাঁরা এই গ্যাংয়ে জড়ো করেছেন। ক্যাম্পাসে এবং উদ্যানে নিজেদের আড্ডা, মাদক, ছিনতাইয়ের জগৎ গড়ে তোলেন। এর মধ্যে বিভিন্ন সময়ে মারধর এবং অন্যান্য অপরাধে কয়েকজনকে বিভিন্ন মেয়াদে হল থেকে বহিষ্কারও করা হয়েছে। তাঁরা সংঘবদ্ধ হয়ে চলাফেরা করেন।

বেশ কয়েকটি সূত্র জানায়, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে হওয়া ছিনতাইয়ের ৯০ শতাংশ এই গ্যাংয়ের সদস্যরাই করে থাকে। বিভিন্ন সময়ে ক্যাম্পাসে মারামারি, ছিনতাই, মাদক সেবনের বিস্তর অভিযোগ পাওয়া যায় তাদের বিরুদ্ধে। বিশ্ববিদ্যালয়ের সূর্যসেন হলের কিশোরগঞ্জের এক শিক্ষার্থীর সাথে ঝামেলা নিয়ে হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলের চতুর্থ বর্ষের এক শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ রয়েছে গ্যাংয়ের সদস্য এফ রহমান হলের শাহ আলম ও মুহসীন হলের আবু রায়হানের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বরাবর একটি অভিযোগও দায়ের করেন। কিন্তু একজন সহকারী প্রক্টরের সহায়তায় অভিযুক্তরা সাজা থেকে রেহাই পায় বলে জানা যায়।

ঢাবি মেডিকেল সেন্টারে তাদের আড্ডা নিয়ে শঙ্কিত স্টাফ ও ডাক্তাররা। নাম অপ্রকাশিত রাখার শর্তে এক চিকিৎসক জানান, মেডিকেল চারপাশে খোলা এবং একদল শিক্ষার্থী মদ, গাঁজা খায় এবং আড্ডা দেয়। রাতে ডিউটি করতে খুবই অনিরাপদ বোধ করি।

গ্যাংয়ের অন্যতম সদস্য তবারক বলেন, আমাদের এক বন্ধু অসুস্থ থাকায় সেখানে তাকে দেখতে গিয়েছি কেবল। সবাই মিলে ছিলাম বলে সুন্দর একটা সেলফি তুলেছিলাম। তবে আরেক সদস্য আবু রায়হান বলেন, বন্ধু বান্ধব মিলে জাস্ট গান বাজনা করছিলাম। মাদক সেবন করিনি। তবারক আরো জানান সেদিনই আমরা সিদ্ধান্ত নেই যে আমরা ক্যাম্পাসে পানির ব্যবসা করব। এবং আমরা পানির ব্যবসায় সফল। তা দেখে অনেকের সহ্য হচ্ছে না বিধায় আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। আমাদের পানির ব্যবসা সম্পূর্ণ লিগ্যাল।

জোবায়েরকে মারধরের বিষয়ে তবারক বলেন, দোয়েল চত্বরে ইফতারের পর আমাদের কয়েকজন বন্ধু প্রাইভেট কার চালাচ্ছিলেন এবং গাড়িতে বসে গান বাজনা করছিলেন। এমন সময় জোবায়ের ও তার সাথে ২জন মিলে বাইক চালিয়ে প্রাইভেট কারের সামনে দাঁড়ায় এবং জেরা করতে থাকে। সেই মূলত সেখানে একরকম মাস্তানি করে। এ ঘটনার জেরে তাকে জিজ্ঞেস করার জন্য ডাকা হলে সে আমাদের এক বন্ধুকে ধাক্কা মারে। তখন উত্তেজিত হয়ে সবাই মিলে তাকে মারধর করা হয়। এদিকে এ ঘটনার পর থেকে গ্যাংয়ের অধিকাংশ সদস্যের ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর এ আই মাহবুব খান বলেন, বর্তমানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যারা আসেন তাদের অধিকাংশই প্রত্যন্ত অঞ্চলের নি¤œ মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান। বিশ্ববিদ্যালয় আসার পর নতুন পরিবেশের সাথে খাপ খাইয়ে নেয়ার জন্য তাদের নতুন সঙ্গ দরকার হয়। আর এ সঙ্গ হিসেবে তারা পায় কিছু ছেলেদের, যাদের মাথার উপর ছাদ হিসেবে রয়েছে পলিটিক্যাল গডফাদাররা এবং তাঁদের ছত্রছায়ায় এরাও বিশ্ববিদ্যালয়ে নানা অপরাধে মেতে উঠে। তারা যখন দেখে টিউশনি কিংবা অন্যান্য জবের চেয়ে এই পথটা (ছিনতাই) অনেক সহজ এবং এতে পার পাওয়া যায় তখন এটাকেই তারা অর্থ উপার্জনের উপায় হিসেবে গ্রহণ করে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. একেএম গোলাম রব্বানী বলেন, মারধরের ঘটনায় এখনো কেউ লিখিত অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে অবশ্যই আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। আর গ্যাংয়ের সদস্যদের ব্যাপারে সব ধরনের ইনফরমেশন পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।###


বিভাগ : জাতীয়


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

ভিয়েতনামের কাছে বড় হারে বিদায় সাবিনাদের

ভিয়েতনামের কাছে বড় হারে বিদায় সাবিনাদের

নারী ক্রিকেটে পাকিস্তানকে হারিয়ে ব্রোঞ্জ পেল বাংলাদেশ

নারী ক্রিকেটে পাকিস্তানকে হারিয়ে ব্রোঞ্জ পেল বাংলাদেশ

প্রো বক্সিং চ্যাম্পিয়নশিপ ২.০ ফাইট নাইট শনিবার

প্রো বক্সিং চ্যাম্পিয়নশিপ ২.০ ফাইট নাইট শনিবার

সাত ডিসিপ্লিনের মধ্যে ৪টিতে চরম ব্যর্থ বাংলাদেশ!

সাত ডিসিপ্লিনের মধ্যে ৪টিতে চরম ব্যর্থ বাংলাদেশ!

যুক্তরাষ্ট্র আমাকে ভিসা নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে : মশিউর রহমান রাঙ্গা

যুক্তরাষ্ট্র আমাকে ভিসা নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে : মশিউর রহমান রাঙ্গা

যুক্তরাষ্ট্র আমাকে ভিসা নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে : মশিউর রহমান রাঙ্গা

যুক্তরাষ্ট্র আমাকে ভিসা নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে : মশিউর রহমান রাঙ্গা

বোয়ালখালীতে ডাকাতি করতে এসে তিন ডাকাত আটক

বোয়ালখালীতে ডাকাতি করতে এসে তিন ডাকাত আটক

প্রবাসীদের বৈধপথে রেমিটেন্স প্রেরণ ও সর্বজনীন পেনশন স্কিমে অংশগ্রহণের আহবান হাইকমিশনার আল্লামা সিদ্দিকীর

প্রবাসীদের বৈধপথে রেমিটেন্স প্রেরণ ও সর্বজনীন পেনশন স্কিমে অংশগ্রহণের আহবান হাইকমিশনার আল্লামা সিদ্দিকীর

সড়কে ঝরল প্রাণ!

সড়কে ঝরল প্রাণ!

কারা ভিসা নীতির আওতায় পড়ছেন, স্পষ্ট করলেন পিটার হাস

কারা ভিসা নীতির আওতায় পড়ছেন, স্পষ্ট করলেন পিটার হাস

ঢাকায় আসছেন যুক্তরাষ্ট্রের কনস্যুলার সহকারী সচিব রেনা বিটার

ঢাকায় আসছেন যুক্তরাষ্ট্রের কনস্যুলার সহকারী সচিব রেনা বিটার

বাংলাদেশের উন্নয়ন ও অর্জন তুলে ধরতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের প্রতি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আহ্বান

বাংলাদেশের উন্নয়ন ও অর্জন তুলে ধরতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের প্রতি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আহ্বান

খালেদা জিয়ার মুক্তির মাধ্যমে বিদেশে সুচিকিৎসা নিশ্চিত করার জোর দাবি গণফোরামের

খালেদা জিয়ার মুক্তির মাধ্যমে বিদেশে সুচিকিৎসা নিশ্চিত করার জোর দাবি গণফোরামের

কখনো আমেরিকা যাইনি, ভবিষ্যতেও যাব না : বিদায়ী প্রধান বিচারপতি

কখনো আমেরিকা যাইনি, ভবিষ্যতেও যাব না : বিদায়ী প্রধান বিচারপতি

লৌহজংয়ে ট্রাকসেলে আলু বিক্রি শুরু

লৌহজংয়ে ট্রাকসেলে আলু বিক্রি শুরু

টিটু-শান্তর নেতৃত্বে ১১৬ সদস্য বিশিষ্ট ময়মনসিংহ মহানগর আ’লীগের পূর্নাঙ্গ কমিটি ঘোষণা

টিটু-শান্তর নেতৃত্বে ১১৬ সদস্য বিশিষ্ট ময়মনসিংহ মহানগর আ’লীগের পূর্নাঙ্গ কমিটি ঘোষণা

স্কুলে শিক্ষার্থীদের সুরক্ষার নতুন মানদ-ে গুরুত্বারোপ করল দ্য বাংলাদেশ সেফগার্ডিং সামিট

স্কুলে শিক্ষার্থীদের সুরক্ষার নতুন মানদ-ে গুরুত্বারোপ করল দ্য বাংলাদেশ সেফগার্ডিং সামিট

বিআইবিএম’এ ‘বৈদেশিক বাণিজ্য অর্থায়ন এবং এসএমই’র মধ্যে সেতুবন্ধন’ সেমিনার অনুষ্ঠিত

বিআইবিএম’এ ‘বৈদেশিক বাণিজ্য অর্থায়ন এবং এসএমই’র মধ্যে সেতুবন্ধন’ সেমিনার অনুষ্ঠিত

নেত্রকোণার পূর্বধলায় পুকুরের পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

নেত্রকোণার পূর্বধলায় পুকুরের পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

ঢাকায় হেলথকেয়ার এক্সপো শুরু বৃহস্পতিবার

ঢাকায় হেলথকেয়ার এক্সপো শুরু বৃহস্পতিবার