কে আ.লীগের নেতৃত্ব কত টাকা দিয়ে পায় আমরা জানি : বিএনপি

Daily Inqilab অনলাইন ডেস্ক

১৪ মার্চ ২০২৩, ১০:১৫ পিএম | আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০২৩, ১১:২৬ পিএম

‘৩০০ আসনে ৭০০ নমিনেশন দিয়ে, টাকা খেয়ে নিজেরাই নিজেদের নির্বাচন থেকে সরিয়ে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে’- সোমবার সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এ সংক্রান্ত বক্তব্যের জবাব দিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘কত টাকা দিয়ে কে আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব পায়, কত টাকা দিয়ে কে মন্ত্রিত্ব পায় —এগুলো আমরা জানি। আমি নাম বললাম না, বাংলাদেশ এতটুকু দেশ। সুতরাং এ কথাগুলো বলবেন না।’ মঙ্গলবার (১৪ মার্চ) গুলশান বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্যের প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘মনোনয়নের সময়ে নাকি আমরা বাণিজ্য করেছি। এটা তাদের (আওয়ামী লীগ) অভ্যাস। নাম বলব না, নাম বলা উচিত না, এটা সৌজন্যমূলক নয়। আমরা এখানে (গুলশানের কার্যালয়ে) স্থায়ী কমিটি সাত-আট দিন ধরে দিনরাত খেটে নমিনেশন দিয়েছি এবং সেখানে কোনও রকমের সমস্যাও ছিল না।’

২০১৮ সালের নির্বাচনে সব আসনে বিএনপি তিনজন করে প্রাথমিকভাবে প্রার্থী মনোনয়ন দিয়েছিল। কেন প্রাথমিকভাবে তিনজনকে মনোয়ন দেওয়া হয়েছিল তার ব্যাখ্যা দিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা তিনজন করে দিয়েছি আওয়ামী লীগের জন্য। তারা আমাদের প্রার্থীদের বেআইনি ঘোষণা করবে, উপযুক্ত নয় ঘোষণা করবে, ব্যাংকের ইস্যু নিয়ে আসবে। ট্রাইব্যুনাল থেকে আউট করে দেবে। ওই জন্যই বিকল্প প্রার্থী রাখতে হয়েছে।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, ‘আমি আপনাদের সত্যি বলছি, আমি তো ২৫ বছর পাকিস্তানে বড় হয়েছি। আবারও বলব, এ কথা আমি জানি, কাদের সিদ্দিকীও বলবে। এই রকম ভয়াবহ অবস্থা আমরা কখনও দেখিনি। একাত্তরে দেখেছি যুদ্ধের সময়, তার আগে আমরা দেখিনি।’

নিজের বাসার বিদ্যুৎ বিল মাসে প্রায় ২২ হাজার টাকার মতো আসে জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘এটা নিয়ে প্রায় আমার স্ত্রীর সঙ্গে কথা হয়। কেন আমি এতো টাকা বিদ্যুৎ বিলদেবো। সত্যি কথা, বিদ্যুৎ বিল দিতে হিমশিম খাচ্ছি। বাসায় আমরা দুই জন (স্বামী-স্ত্রী) থাকি। বাড়িতে এসি তেমন একটা চলে না। বাড়ির নিচের অফিসেও এক লাইট জ্বলে। তারপর এতো টাকা বিল দিতে হয়। আসলে বিদ্যুৎ খাতকে আওয়ামী লীগ তাদের লুটপাটের খাত বানিয়েছে। চুরির জন্য তারা বারবার বিদ্যুতের দাম বাড়িয়েছে।’

এদিকে বিকেলে ধারাবাহিক বৈঠকের অংশ হিসেবে স্থানীয় সরকারের সাবেক ও বর্তমান জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করে বিএনপি। এতে ভার্চুয়ালি যুক্ত ছিলেন দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, বরকত উল্লাহ বুলু, মোহাম্মদ শাহজাহান প্রমুখ।


বিভাগ : রাজনীতি


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

সম্ভাব্য শেষ ফরাসি ওপেনে প্রথম রাউন্ডেই বিদায় নাদালের

সম্ভাব্য শেষ ফরাসি ওপেনে প্রথম রাউন্ডেই বিদায় নাদালের

বাংলাদেশে কুরুলুস উসমান অভিনেতা ওসমান বে'কে নিয়ে ভক্তদের মাঝে উন্মাদনা

বাংলাদেশে কুরুলুস উসমান অভিনেতা ওসমান বে'কে নিয়ে ভক্তদের মাঝে উন্মাদনা

'অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনা' আখ্যা দিলেও আগ্রাসন চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার নেতানিয়াহুর

'অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনা' আখ্যা দিলেও আগ্রাসন চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার নেতানিয়াহুর

ইউরোর প্রাথমিক দল ঘোষণা স্পেনের,নতুন মুখ ফেরমিন লোপেজ

ইউরোর প্রাথমিক দল ঘোষণা স্পেনের,নতুন মুখ ফেরমিন লোপেজ

দেড় লাখ ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত

দেড় লাখ ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত

পানিবন্দি লাখো মানুষ

পানিবন্দি লাখো মানুষ

দুনিয়ার ধন-সম্পদ মানুষের জন্য পরীক্ষা

দুনিয়ার ধন-সম্পদ মানুষের জন্য পরীক্ষা

ভারত একনায়কতন্ত্রের দিকে যাচ্ছে, পুতিন ও শেখ হাসিনা যা করেছেন মোদি তাই করতে চাইছেন -অরবিন্দ কেজরিওয়াল

ভারত একনায়কতন্ত্রের দিকে যাচ্ছে, পুতিন ও শেখ হাসিনা যা করেছেন মোদি তাই করতে চাইছেন -অরবিন্দ কেজরিওয়াল

ফিচ রেটিংসে ফের বাংলাদেশের ঋণমান অবনমন

ফিচ রেটিংসে ফের বাংলাদেশের ঋণমান অবনমন

এডিপি বাস্তবায়ন অর্ধেকেরও কম

এডিপি বাস্তবায়ন অর্ধেকেরও কম

নিজের বুক পেতে উপকূলকে এবারও রক্ষা করল সুন্দরবন

নিজের বুক পেতে উপকূলকে এবারও রক্ষা করল সুন্দরবন

পৌনে তিন কোটি গ্রাহক বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন

পৌনে তিন কোটি গ্রাহক বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন

কসাই জিহাদকে নিয়ে কলকাতার সেই ফ্ল্যাটে ঢাকা ডিবির তদন্ত দল

কসাই জিহাদকে নিয়ে কলকাতার সেই ফ্ল্যাটে ঢাকা ডিবির তদন্ত দল

একদিনে ৩ হাজার ৩৩৫ মি.মি. বৃষ্টিপাত রেকর্ড!

একদিনে ৩ হাজার ৩৩৫ মি.মি. বৃষ্টিপাত রেকর্ড!

রিমালের প্রভাবে আন্তর্জাতিক রুটের ১০ ফ্লাইট বাতিল

রিমালের প্রভাবে আন্তর্জাতিক রুটের ১০ ফ্লাইট বাতিল

১১১ উপজেলায় কোটিপতি ১০৬ প্রার্থী

১১১ উপজেলায় কোটিপতি ১০৬ প্রার্থী

নিষেধাজ্ঞা উঠছে, সউদীর কাছে প্রাণঘাতী অস্ত্র বিক্রি করবে যুক্তরাষ্ট্র

নিষেধাজ্ঞা উঠছে, সউদীর কাছে প্রাণঘাতী অস্ত্র বিক্রি করবে যুক্তরাষ্ট্র

রাখাইনে নির্বিচারে মুসলিম নিধন ও শিরোñেদ চালাচ্ছে আর্মি

রাখাইনে নির্বিচারে মুসলিম নিধন ও শিরোñেদ চালাচ্ছে আর্মি

শরণার্থী শিবিরে ইসরাইলি হামলায় জীবন্ত পুড়ে মরল অসহায় ফিলিস্তিনিরা

শরণার্থী শিবিরে ইসরাইলি হামলায় জীবন্ত পুড়ে মরল অসহায় ফিলিস্তিনিরা

একদিনে ১৩ জনের করোনা শনাক্ত

একদিনে ১৩ জনের করোনা শনাক্ত