বগুড়ার দই

Daily Inqilab মহসিন আলী রাজু

০৩ জুন ২০২৩, ০৯:০৯ পিএম | আপডেট: ০৪ জুন ২০২৩, ০১:০২ এএম

বগুড়া দইয়ের জন্য বিখ্যাত। দই বা দধি নামে পরিচিত দুগ্ধজাত এই খাবারটি বরিশাল ও চাঁপাইনবাবগঞ্জেও পাওয়া যায় এবং সেগুলোও বেশ মানসম্মত। কিন্তু বগুড়ার দই সবার সেরা। ছোটবড় সব মানুষের কাছেই বগুড়ার দইয়ের কদর সব চেয়ে বেশি। বগুড়ার দই সবার থেকে আলাদা কেন?

কমন এই প্রশ্নের জবাবে স্থানীয় দই তৈরির সঙ্গে যুক্তরা বলেন, আবহাওয়া, পরিবেশ গবাদীপশুর খাবার দাবার এবং দই তৈরির গুপ্ত রেসিপিই মূল কারণ। কবে থেকে বগুড়ার দই হয়েছে উঠেছে বিখ্যাত? বগুড়ার শেরপুরের বিখ্যাত ঘোষ পরিবারের সদস্যরা বলেন, মোঘল আমলের শেষ এবং বৃটিশ আমলের সূচনা লগ্নে শেরপুরের ঘেটু ঘাষ নামের এক গোয়ালা দইয়ের বর্তমান রূপ দেন। দইয়ের গোপন ফর্মুলা তখন তিনি নিজের হেফাজতে রেখে দেন। তার অবর্তমানে তার উত্তরসূরিরা একইভাবে দই তৈরির ফর্মুলা গোপন রেখে নিজেরা সীমিত আকারে তৈরি করে হাটের দিনে বিক্রি করতেন। এছাড়া দাওয়াত বা জেয়াফতে অর্ডার নিয়ে পৌঁছে দিত। পাকিস্তানের আগে পর্যন্ত বগুড়ার দই বলতে শেরপুরের দইই বুঝাতো।

পাকিস্তানের ঠিক আগে গৌর গোপাল নামের এক ঘোষ নিয়মিতভাবে শেরপুর থেকে ২০ কিলো রাস্তা হেঁটে অথবা গরুগাড়ি যোগে বগুড়ায় এসে দই বিক্রি শুরু করলে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে দই। বগুড়ার নবাব ও জমিদার বাড়িতে নিয়মিত দই সরবরাহ করে প্রচুর অর্থ উপার্জন করেন গৌর গোপাল। বগুড়ার নবাব পরিবারের সদস্যরা তাকে নবাববাড়ি সংলগ্ন স্থানে বিনা ভাড়ায় দোকানঘর করে দেন। এই দোকানঘরকে কেন্দ্র করে বগুড়ার সর্বসাধারণের মধ্যে দই খাওয়ার প্রচলন শুরু হয়। গৌর গোপাল এরপর বগুড়ায় সেটেল্ড হয়ে দই উৎপাদনের পরিমাণ বাড়িয়ে দেন। তার কারখানার অনেক কর্মীই দইয়ের ফর্মুলা জেনে নিয়ে নিজেরাই দই তৈরি ও বাজারজাত করা শুরু করেন। বগুড়ায় এরপর বিয়ে শাদীর গুরুভোজের পর দই হয়ে ওঠে নিয়মিত অনুসঙ্গ।

কথিত আছে, আইযুব খান একবার বগুড়ায় এলে বগুড়ার নবাব পরিবার তাকে দই দিয়ে আপ্যায়ন করেন। দইয়ের স্বাদে তিনি অভিভূত হন এবং পশ্চিম পাকিস্তানে সাথে করে নিয়ে যান বগুড়ার দই। শোনা যায়, আইয়ুব খান ব্রিটেনের রানী এবং মার্কিন প্রেসিডেন্টকে দই পাঠিয়ে ‘দই ডিপ্লোমেসি’র নজির তৈরি করেন। আইযুব খানের দই ডিপ্লোমেসি কতটা সফল হয়েছে সেটা নিশ্চিত হওয়া না গেলেও দেশে তদ্বির ও নিয়োগ বদলীতে বগুড়ার দই মোটামুটি সফল।

যাহোক, ৬০ এর দশকেই হিন্দু ঘোষ পরিবারের পাশাপাশি বগুড়া শহরে মহরম আলী এবং বগুড়া সদরের গোকুলে মো. রফাতুল্লা সরকার পাল্লা দিয়ে বগুড়ার বিখ্যাত মিষ্টি দইয়ের উৎপাদনে রীতিমত বিপ্লব ঘটান। সারাদেশে জ্যামিতিক আকারে ছড়িয়ে পড়ে বগুড়ার দইয়ের সুনাম-সুখ্যাতি। বগুড়া সদর ছাড়াও ধুনট উপজেলার হাসোখালি পল্লীর দই এবং গাবতলী উপজেলার সূর্য ঘোষের দইয়ের একটা আলাদা সুখ্যাতি আছে।

তবে ভোক্তাদের অভিযোগ, বগুড়ার দই উৎপাদকরা ইদানিং ক্রেতা ঠকিয়ে নিজেদের মুনাফা লুটতেই বেশি আগ্রহী। ভোক্তা সন্তÍষ্টিতে তাদের একদমই মনোযোগ নেই। বগুড়ার একাধিক স্বনামধন্য দই উৎপাদক প্রতিষ্ঠানে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ প্রতিষ্ঠানের অভিযানে বহু অসঙ্গতি, অব্যস্থাপনা, অপরিচ্ছন্ন ও বিপজ্জনক পরিবেশ লক্ষ করা গেছে। একটি নামকরা প্রতিষ্ঠানেতো দই তৈরির জন্য গরম দুধে টিস্যু পেপার ব্যবহারের প্রমাণ পেয়ে অভিযানকারীরা পর্যন্ত হতবাক হয়ে গেছেন। ক্রেতা ও ভোক্তারা আরো বলেন, এক কেজি দইয়ের ঘোষণার স্টিকার লাগিয়ে যে দই বিক্রি করা হয় তাতে মাত্র ৬/৭শ’ গ্রাম দই পাওয়া যায়, যা অত্যন্ত দুঃখ ও হতাশাজনক। ক্রেতা ও ভোক্তাদের স্বার্থের দিকে বগুড়ার দই ব্যবসায়ীরা কি মনোযেগী হবে না?

লেখক: বিশেষ সংবাদদাতা, দৈনিক ইনকিলাব, বগুড়া।


বিভাগ : বিশেষ সংখ্যা

বিষয় : year


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

এমপি আনার হত্যা: শিলাস্তির সর্বোচ্চ শাস্তি চান পরিবার

এমপি আনার হত্যা: শিলাস্তির সর্বোচ্চ শাস্তি চান পরিবার

ঘূর্ণিঝড় রেমাল : সব মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল

ঘূর্ণিঝড় রেমাল : সব মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল

ফের পুতিনের বিরুদ্ধে আপত্তিকর বক্তব্য বাইডেনের

ফের পুতিনের বিরুদ্ধে আপত্তিকর বক্তব্য বাইডেনের

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ

ভয়েস চেঞ্জ অ্যাপে গলা বদলে ৭ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

ভয়েস চেঞ্জ অ্যাপে গলা বদলে ৭ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’ : বন্ধ হলো বরিশাল বিমানবন্দরের সব কার্যক্রম

ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’ : বন্ধ হলো বরিশাল বিমানবন্দরের সব কার্যক্রম

হাতিয়ার সঙ্গে সারা দেশের নৌ চলাচল বন্ধ

হাতিয়ার সঙ্গে সারা দেশের নৌ চলাচল বন্ধ

রয়েল এয়ার ফোর্সের বিমান বিধ্বস্ত, পাইলট নিহত

রয়েল এয়ার ফোর্সের বিমান বিধ্বস্ত, পাইলট নিহত

কুয়াকাটায় আবাসিক হোটেলগুলোকে আশ্রয়স্থল হিসাবে খুলে দেয়া হয়েছে

কুয়াকাটায় আবাসিক হোটেলগুলোকে আশ্রয়স্থল হিসাবে খুলে দেয়া হয়েছে

রাজকোটে গেমিং জোন অগ্নিকাণ্ডে নিহত বেড়ে ৩২

রাজকোটে গেমিং জোন অগ্নিকাণ্ডে নিহত বেড়ে ৩২

ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে পশ্চিমবঙ্গে রেড অ্যালার্ট জারি

ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে পশ্চিমবঙ্গে রেড অ্যালার্ট জারি

উপকূলে রেমালের প্রভাব, আতঙ্ক জনমনে

উপকূলে রেমালের প্রভাব, আতঙ্ক জনমনে

যশোরে 'রেমাল' মোকাবিলায় ২২৪৫ আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত

যশোরে 'রেমাল' মোকাবিলায় ২২৪৫ আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত

উখিয়ায় ১০ কোটি টাকার ক্রিস্টাল মেথসহ ১ রোহিঙ্গা যুবক আটক

উখিয়ায় ১০ কোটি টাকার ক্রিস্টাল মেথসহ ১ রোহিঙ্গা যুবক আটক

নোয়াখালীতে ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে জখম করায় তরুণকে পিটিয়ে হত্যা

নোয়াখালীতে ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে জখম করায় তরুণকে পিটিয়ে হত্যা

গরমে সিদ্ধ হচ্ছে উত্তর ভারত, তাপমাত্রা ৫০ ডিগ্রি ছুঁই ছুঁই

গরমে সিদ্ধ হচ্ছে উত্তর ভারত, তাপমাত্রা ৫০ ডিগ্রি ছুঁই ছুঁই

সিদ্ধিরগঞ্জে ময়লার গাড়ির ধাক্কায় গর্ভবতী নারী নিহত

সিদ্ধিরগঞ্জে ময়লার গাড়ির ধাক্কায় গর্ভবতী নারী নিহত

চিনে রাষ্ট্রিয়ভাবে মসজিদের আকৃতিকে প্যাগোডার আকৃতিতে বদলে ফেলা হয়

চিনে রাষ্ট্রিয়ভাবে মসজিদের আকৃতিকে প্যাগোডার আকৃতিতে বদলে ফেলা হয়

আজ গুলশানে দেখা মিলবে তুর্কি অভিনেতা বুরাকের

আজ গুলশানে দেখা মিলবে তুর্কি অভিনেতা বুরাকের

অর্ধশত শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, শিক্ষক গ্রেপ্তার

অর্ধশত শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, শিক্ষক গ্রেপ্তার