জাপানে দুই পুলিশসহ চারজনকে হত্যা, গ্রেফতার ১

Daily Inqilab ইনকিলাব ডেস্ক

২৬ মে ২০২৩, ০৮:০৪ পিএম | আপডেট: ২৭ মে ২০২৩, ১২:০১ এএম

দুই পুলিশ কর্মকর্তাসহ চারজনকে হত্যার দায়ে জাপানে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে শুক্রবার পুলিশ জানিয়েছে। পুলিশ কর্মকর্তাদের গুলি করে এবং দুই নারীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয় বলে অভিযোগ। হামলাকারীর নাম মাসানোরি আওকি। বয়স ৩১। তিনি জাপানের নাকানো শহর পরিষদের স্পিকারের ছেলে। এই ঘটনায় মামলা হয়েছে। পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। তবে হামলার কারণ জানা যায়নি।
নাকানো শহরে হামলার সূত্রপাত বৃহস্পতিবার বিকালে। ঐ সময় ক্ষেতে কাজ করার সময় এক নারীকে রাস্তা দিয়ে দৌড়ে আসতে দেখার কথা এনএইচকে টেলিভিশনকে জানান স্থানীয় এক ব্যক্তি। ঐ নারী ‘আমাকে সহায়তা করুন’ বলছিলেন। আর ‘তার পেছনে ছদ্মবেশ ধরা এক ব্যক্তি ছিলেন, যার হাতে একটি বড় ছুরি ছিল। ঐ ব্যক্তি ঐ নারীর পেছনে ছুরি চালান,’ বলে জানান ৭২ বছর বয়সি ঐ প্রত্যক্ষদর্শী। এদিকে কিয়োদো নিউজ আরেক প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে জানিয়েছে, হামলাকারী বলছিলেন, ‘আমি তাকে হত্যা করেছি, কারণ, আমি এটা করতে চেয়েছি।’ এরপর ঘটনাস্থলে উপস্থিত পুলিশ কর্মকর্তাদের দিকে ঐ হামলাকারী শিকার করার বন্দুক দিয়ে গুলি চালায় বলে স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে। এনএইচকে বলছে, পুলিশ কর্মকর্তারা গাড়ির ভেতরে ছিলেন। হামলাকারী তার বন্দুকটি গাড়ির জানালায় ধরে দুইবার গুলি করে। নিহত ঐ দুই পুলিশ কর্মকর্তা হলেন ইয়োশিকি তামাই (৪৬) ও তাকু ইকেওচি (৬১)। এরপর ঐ ব্যক্তি একটি বাড়ির ভেতর ঢুকে যায়। ঐ বাড়িতে হামলাকারীর মা ও খালাও ছিলেন বলে স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে। রাতে ঐ বাড়িতে থাকার সময় মাঝেমধ্যে গুলির শব্দ শোনা গেছে। তবে এর মধ্যে ঐ দুই নারী পালিয়ে যান। গুলিতে আহত ঐ দুই পুলিশ কর্মকর্তা ও ছুরিকাহত নারীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর তারা মারা যান। এদিকে সম্ভাব্য ছুরিকাঘাতের পর আরেকজন বয়স্ক নারী প্রাণ হারিয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে। তিনি তার বাড়ির বাইরে পড়েছিলেন বলে স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে। পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তিনি মারা যান। এই হত্যার জন্যও আওকি দায়ী বলে অভিযোগ করা হয়েছে। জাপানে সহিংস ঘটনার উদাহরণ কম। সেখানে বন্দুক আইনও বেশ কড়া। সূত্র : এএফপি, রয়টার্স।


বিভাগ : আন্তর্জাতিক


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

করতোয়া নদী থেকে হাত-পা বাঁধা নারীর লাশ উদ্ধার

করতোয়া নদী থেকে হাত-পা বাঁধা নারীর লাশ উদ্ধার

সউদীতে এ পর্যন্ত ৩১ বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু

সউদীতে এ পর্যন্ত ৩১ বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু

চিকিৎসা শেষে বিকেলে দেশে ফিরছেন বিএনপি নেতা খসরু

চিকিৎসা শেষে বিকেলে দেশে ফিরছেন বিএনপি নেতা খসরু

সিলেটে বিস্তৃত হচ্ছে বন্যা, পানিবন্দি প্রায় ১০ লাখ মানুষ

সিলেটে বিস্তৃত হচ্ছে বন্যা, পানিবন্দি প্রায় ১০ লাখ মানুষ

কলকাতায় চিকিৎসা করাতে গিয়ে নিখোঁজ ২ বাংলাদেশি

কলকাতায় চিকিৎসা করাতে গিয়ে নিখোঁজ ২ বাংলাদেশি

ইউনেস্কোর মেমোরি অফ দ্য ওয়ার্ল্ডে জায়গা পেল ছেংতুর চায়ের দোকান

ইউনেস্কোর মেমোরি অফ দ্য ওয়ার্ল্ডে জায়গা পেল ছেংতুর চায়ের দোকান

আজ ১০টি ফিরতি হজ ফ্লাইটে দেশে ফিরবেন ৪,০৩৭ হাজী

আজ ১০টি ফিরতি হজ ফ্লাইটে দেশে ফিরবেন ৪,০৩৭ হাজী

আজ দুপুরে ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

আজ দুপুরে ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

ভিয়েতনামের সঙ্গে তেল-গ্যাস ও পারমাণবিকসহ পুতিনের ১১ চুক্তি

ভিয়েতনামের সঙ্গে তেল-গ্যাস ও পারমাণবিকসহ পুতিনের ১১ চুক্তি

জনপ্রিয়তার শীর্ষে চীনের টানেল প্রযুক্তি ও সরঞ্জাম

জনপ্রিয়তার শীর্ষে চীনের টানেল প্রযুক্তি ও সরঞ্জাম

কামিন্সের হ্যাটট্রিক, ১৪০ রানে থামল বাংলাদেশ

কামিন্সের হ্যাটট্রিক, ১৪০ রানে থামল বাংলাদেশ

মেসির রেকর্ড, জয়ে শুরু আর্জেন্টিনার কোপা অভিযান

মেসির রেকর্ড, জয়ে শুরু আর্জেন্টিনার কোপা অভিযান

ইসরায়েলের আয়রন ডোম ফাঁকি দিচ্ছে হিজবুল্লাহ

ইসরায়েলের আয়রন ডোম ফাঁকি দিচ্ছে হিজবুল্লাহ

আবগারি দুর্নীতি মামলায় জামিন পেলেন কেজরিওয়াল

আবগারি দুর্নীতি মামলায় জামিন পেলেন কেজরিওয়াল

শুরুর ধাক্কার পর শান্ত-লিটন জুটি

শুরুর ধাক্কার পর শান্ত-লিটন জুটি

একাদশে একটি পরিবর্তন নিয়ে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

একাদশে একটি পরিবর্তন নিয়ে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে বৃষ্টির বাগড়া

বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে বৃষ্টির বাগড়া

হাইভোল্টেজ ম্যাচে আত্মঘাতী গোলে স্পেনের কাছে হারল চ্যাম্পিয়ন ইতালি

হাইভোল্টেজ ম্যাচে আত্মঘাতী গোলে স্পেনের কাছে হারল চ্যাম্পিয়ন ইতালি

সিংগাইর বাসস্ট্যান্ডের পাশেই ময়লার ভাগাড়, জনদুর্ভোগ চরমে

সিংগাইর বাসস্ট্যান্ডের পাশেই ময়লার ভাগাড়, জনদুর্ভোগ চরমে

সেনবাগে অজ্ঞাত নারীর গলিত লাশ উদ্ধার

সেনবাগে অজ্ঞাত নারীর গলিত লাশ উদ্ধার