যুক্তরাষ্ট্র বৈশ্বিক পর্যায়ে ব্যর্থ হচ্ছে: ইলন মাস্ক

Daily Inqilab ইনকিলাব

২৭ মার্চ ২০২৩, ০৩:১২ পিএম | আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০২৩, ০১:১৪ পিএম

মার্কিন ধনকুবের ও টুইটারের মালিক ইলন মাস্ক আন্তর্জাতিক ভূ-রাজনৈতিক ক্ষেত্রে জো বাইডেনের প্রশাসনের জন্য একটি বড় মাথাব্যথা হয়ে উঠেছেন। কয়েক মাস ধরে, তিনি জোর দিয়ে বলে আসছেন যে, রাশিয়ান এবং ইউক্রেনীয়দের মধ্যে সংঘাত একটি শান্তি চুক্তির মাধ্যমে সমাধান করা উচিত।

তার মতে, এটি তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ এড়ানোর একমাত্র উপায়, যে সময়ে রাশিয়া পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করতে দ্বিধা করবে না। মাস্ক আরও বিশ্বাস করেন যে, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন একজন কট্টরপন্থী যিনি পরাজয় মেনে নেবেন না। এ বিশ্বাসের দৃঢ়তার ভিত্তিতে তিনি রাশিয়াকে গুরুত্বপূর্ণ ছাড় সহ সংঘাতের সমাধানের জন্য চাপ দেন।

শান্তির জন্য তার আহ্বান এখন পর্যন্ত উপেক্ষা করা হয়েছে বা ইউক্রেন এবং তার সমর্থকদের দ্বারা ব্যাপকভাবে সমালোচিত হয়েছে। পশ্চিমা শিবির, যারা এ যুদ্ধটিকে গণতন্ত্র এবং একনায়কতন্ত্রের মধ্যে লড়াই হিসাবে উপস্থাপন করে, বিশ্বাস করে যে, এ যুদ্ধের অবসান ঘটানো রাশিয়ার উপর নির্ভর করে, যাতে ইতিমধ্যেই হাজার হাজার মানুষ নিহত এবং আরও লাখ লাখ লোক বাস্তুচ্যুত হয়েছে।

মাস্ক এ জন্য মার্কিন কূটনীতিকদের একটি বড় অংশকে দায়ি করেছেন। তার মতে, মার্কিন কূটনীতিকরা একটি ভাল কাজ করেনি, বরং এ ক্ষেত্রে ব্যর্থও হয়েছেন, যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে এই যুদ্ধের সবচেয়ে বড় পরাজয় বরণকারী হিসেবে চিহ্নিত করেছে।

তিনি বলেন, ‘কূটনীতিকরা যুদ্ধবাজে পরিণত হয়েছে, তারা ভুলে গেছেন যে, তাদের ভূমিকা সবচেয়ে খারাপটা এড়াতে আলোচনা করা। যুদ্ধ অব্যাহত রয়েছে এবং এটি আরও বাড়তে পারে. তাই এটি মার্কিন কূটনীতির ব্যর্থতা। রাশিয়া এবং চীনের মধ্যে একটি অপ্রত্যাশিত জোটের উত্থানের ফলে এ ব্যর্থতা আরও বড় হয়েছে।’

মাস্কের বন্ধু ও আমেরিকান কূটনীতি সম্পর্কে কারিগরি বিনিয়োগকারী ডেভিড স্যাকসের বিবৃতির মন্তব্য হিসাবে তিনি এসব কথা বলেন যেখানে স্যাকস তার শেষ টুইটে মার্কিন মার্কিন কূটনীতিকদের তুলাধুনা করে ছাড়েন। ‘আমাদের স্টেট ডিপার্টমেন্টে এ ক্রুসেডাররা আছে যারা শুধু ন্যাটোর সম্প্রসারণ চালিয়ে যেতে চায়, এবং আমি জানি না কেন তারা দেখতে পাচ্ছে না যে, এটি রাশিয়ানদের কাছে অগ্রহণযোগ্য যেভাবে সোভিয়েত ইউনিয়ন ১৯৬২ সালে কিউবায় পরমাণু অস্ত্র স্থাপনের চেষ্টা করেছিল, যেটা আমাদের কাছে অগ্রহণযোগ্য ছিল,’ স্যাকস রক্ষণশীল ভাষ্যকার গ্লেন বেককে বলেছিলেন।

‘এটা মনে হচ্ছে আমাদের মুখপাত্র এবং কূটনীতিকরা এখানে শিশু,’ স্যাকস অব্যাহত রেখেছিলেন, যোগ করেছেন যে, স্টেট ডিপার্টমেন্টের কাজ হল ‘সংঘাত কমানো। কিন্তু এখানে তাদের আসল উদ্দেশ্য হল শাসনের পরিবর্তন’। সূত্র: দ্য স্ট্রীট।


বিভাগ : আন্তর্জাতিক


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

রহস্যজনকভাবে সেন্টমার্টিন কেন যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন: ব্যাপক ক্ষোভ সামাজিক মাধ্যমে

রহস্যজনকভাবে সেন্টমার্টিন কেন যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন: ব্যাপক ক্ষোভ সামাজিক মাধ্যমে

বন্ধ থাকবে কটেজ, অবকাশযাপন করতে পারবেন না কোনো দর্শনার্থী খুলে দেওয়া হচ্ছে বেনজীরের সাভানা রিসোর্ট

বন্ধ থাকবে কটেজ, অবকাশযাপন করতে পারবেন না কোনো দর্শনার্থী খুলে দেওয়া হচ্ছে বেনজীরের সাভানা রিসোর্ট

জমে ওঠেছে রাজধানীর রায়সাহেব বাজার-ধোলাইখাল-দয়াগঞ্জ মোড়জুড়ে বসা পশুর হাট

জমে ওঠেছে রাজধানীর রায়সাহেব বাজার-ধোলাইখাল-দয়াগঞ্জ মোড়জুড়ে বসা পশুর হাট

প্রখ্যাত আলেম মাওলানা হাতেম আলীর দাফন সম্পন্ন

প্রখ্যাত আলেম মাওলানা হাতেম আলীর দাফন সম্পন্ন

দেশের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে বেশি করে গাছ লাগাতে হবে : পরিবেশমন্ত্রী সাবের চৌধুরী

দেশের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে বেশি করে গাছ লাগাতে হবে : পরিবেশমন্ত্রী সাবের চৌধুরী

বেড়েছে পানি, খুলে দেওয়া হয়েছে তিস্তার ৪৪ জলকপাট

বেড়েছে পানি, খুলে দেওয়া হয়েছে তিস্তার ৪৪ জলকপাট

কোরবানি না করে এই টাকা দান করে দেওয়া প্রসঙ্গে?

কোরবানি না করে এই টাকা দান করে দেওয়া প্রসঙ্গে?

যাত্রা হোক পরিচ্ছন্ন

যাত্রা হোক পরিচ্ছন্ন

সেমিনার লাইব্রেরি চাই

সেমিনার লাইব্রেরি চাই

কোরবানির গরু কিনতে সতর্ক হতে হবে

কোরবানির গরু কিনতে সতর্ক হতে হবে

ভারতকে হিন্দু রাষ্ট্রে পরিণত করার মোদির স্বপ্ন কি ফিকে হয়ে গেল?

ভারতকে হিন্দু রাষ্ট্রে পরিণত করার মোদির স্বপ্ন কি ফিকে হয়ে গেল?

আইনশৃঙ্খলা ও নাগরিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে

আইনশৃঙ্খলা ও নাগরিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে

বই পড়ে মিললো পুরস্কার

বই পড়ে মিললো পুরস্কার

অবশেষে জুলাইতে ‘মির্জাপুর থ্রি’ স্ট্রিমিং হচ্ছে

অবশেষে জুলাইতে ‘মির্জাপুর থ্রি’ স্ট্রিমিং হচ্ছে

টেইলর সুইফটের নতুন রেকর্ড

টেইলর সুইফটের নতুন রেকর্ড

নিউইয়র্কে পুরস্কৃত সায়মা করিম

নিউইয়র্কে পুরস্কৃত সায়মা করিম

বর্ষা বরণ করতে চ্যানেল আই-এর বিশেষ আয়োজন

বর্ষা বরণ করতে চ্যানেল আই-এর বিশেষ আয়োজন

এবারের ঈদেও সঙ্গীতশিল্পী ইমরানের উপস্থাপনায় ইমরান শো

এবারের ঈদেও সঙ্গীতশিল্পী ইমরানের উপস্থাপনায় ইমরান শো

হানিফ সংকেত-এর ঈদের নাটক ‘ব্যবহার বিভ্রাট’

হানিফ সংকেত-এর ঈদের নাটক ‘ব্যবহার বিভ্রাট’

ঈদ যাত্রা কে স্বস্তিদায়ক করতে চ্যালেঞ্জ মাথায় নিয়ে পুলিশ কাজ করছে- আইজিপি

ঈদ যাত্রা কে স্বস্তিদায়ক করতে চ্যালেঞ্জ মাথায় নিয়ে পুলিশ কাজ করছে- আইজিপি