দোকলামে চিনের অংশীদারিত্বকে স্বীকৃতি ভুটানের, চাপে নয়াদিল্লিকে

Daily Inqilab অনলাইন ডেস্ক

২৯ মার্চ ২০২৩, ০৯:৪৪ এএম | আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০২৩, ১০:২০ পিএম

দোকলামের ঝাম্পেরি শৈলশিরা থেকে সরাসরি ভারতের ‘শিলিগুড়ি করিডর’-এর উপরে নজর রাখা যায়। ওই করিডরের মাধ্যমে ভারতের উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলোর সাথে যোগাযোগ রয়েছে বাকি দেশের। তাই এই গুরুত্বপূর্ণ দোকলাম দখলে রাখতে চায় চীন। এবার সেই নিয়ে চীনের হাতই কিছুটা শক্ত করল ভুটান। ওই দেশের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং বলেন, ‘এই সমস্যার সমাধান শুধু ভুটানের উপরেই নির্ভর করে না। আমরা তিন পক্ষই রয়েছি। কোনো দেশ ছোট বা বড় নয়। তিন দেশই সমান। তাদের সমান ভাগ। বলে দাবি করে আসছে ভারত।’

এদিকে ভুটান সীমান্তের দোকলামে ভারত-চীন মুখোমুখি অবস্থানের পর ছয় বছর কেটে গেছে। এবার ভারতের উদ্বেগ বাড়িয়ে ভুটানের প্রধানমন্ত্রী দাবি করলেন, এই সংঘাতের নিষ্পত্তির বিষয়ে চীনেরও মত দেয়ার অধিকার রয়েছে। তার এই মন্তব্য ভারতের মধ্যে উদ্বেগ সৃষ্টি করেছে। কারণ ভারত মনে করে, ভুটানের ওই জমি বেআইনিভাবে দখল করেছে চীন। তাই তাদের এই নিয়ে কোনো বক্তব্য থাকতে পারে না।

দোকলামে চিনের অংশীদারিত্বকে স্বীকৃতি দিয়ে ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্য চাপে ফেলেছে নয়াদিল্লিকে। দোকালম সমস্যার সমাধান নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেরিং আরো বলেন, ‘আমরা প্রস্তুত। বাকি দুই পক্ষ রাজি হলে আমরা আলোচনায় বসতে পারি।’ এর থেকে আরো একটি বিষয় স্পষ্ট যে, দোকলাম নিয়ে ভারত এবং চীনের মধ্যে মধ্যস্থতারও চেষ্টা করছে ভুটান।

ভারতীয় মিডিয়া জানায়, বাতাং লা-তে রয়েছে ত্রিদেশীয় সীমান্ত। এই বাতাং লা-র উত্তরে চীনের চুম্বি উপত্যকা। দক্ষিণে ভুটান আর পূর্বে ভারতের সিকিম। এই ত্রিস্তরীয় সীমান্ত আরো ৭ কিলোমিটার দক্ষিণে গিপমোচি পর্বতে নিয়ে যেতে চায় চীন। সে রকম হলে গোটা দোকলাম চীনের অধীনে চলে আসবে। তাতে লাভ চীনের। ‘শিলিগুড়ি করিডর’-এর উপরে নজর রাখা সহজ হয়ে যাবে। ২০১৬ সালের ১৬ জুন থেকে ত্রিদেশীয় সীমান্তের দোকলামে মুখোমুখি অবস্থানে ছিল ভারত ও চীনের সশস্ত্র বাহিনী। ভুটানের এলাকায় ঢুকে চীন রাস্তা তৈরির চেষ্টা করছিল। ভারত ওই এলাকায় বাহিনী পাঠিয়ে সে কাজ আটকে দেয়। তার পরই দু’দেশের বাহিনী পরস্পরের মুখোমুখি অবস্থান নিয়েছিল। ক্রমাগত কূটনৈতিক প্রয়াস পরিস্থিতি প্রশমিত করে। ২৮ অগস্ট দু’দেশ বাহিনী ফিরিয়ে নেয়া শুরু করে।

ভারতীয় মিডিয়া জানায়, বাহিনী ফিরিয়ে নেয়ার সময় দোকলামের পূর্বে ভুটানের আমো চু নদী উপত্যকার কিছু অংশ দখল করে চীন। সেখানে নিজেদের বাহিনী মোতায়েন করে। উপগ্রহ চিত্রে দেখা গেছে, সেখানে কিছু গ্রামও তৈরি করেছে চীন। ভুটানের প্রধানমন্ত্রী অবশ্য এ কথা মানেননি। জানিয়েছেন, সংবাদ মাধ্যমে ভুল খবর পরিবেশিত হয়েছে। ভুটান এবং চীন জানে, কার কতটা জমি। ভারতীয় বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, চীনের দখলদারি নিয়ে ভুটান অসহায়। তাদের কিছু করার নেই বলেই প্রধানমন্ত্রী এ সব বলছেন। ভারত-চীন সম্পর্ক বিশারদ ব্রহ্ম চেল্লানি বলেন, ‘নিজের মুখ বাঁচাতে ভুটান দাবি করছে, চীন যে জমি দখল করেছে, তা তাদের নয়।’ তার আশঙ্কা, এর ফলে চীনা আগ্রাসন আরো বাড়বে। আন্তর্জাতিক নীতি বিশেষজ্ঞ জেনভিয়েভ ডনেল্লন মে বলেন, ‘ডোকলাম সমস্যা সমাধানে চিনের ভূমিকা মেনে নিয়ে বেজিংয়ের গুরুত্বই শুধু বাড়িয়ে দেয়নি ভুটান, পাশাপাশি বোঝাতে চেয়েছে, চীন অধিকৃত অন্যান্য এলাকার সাথে এর ফারাক রয়েছে।’

ভারতীয় পক্ষে আরো বলা হয়, ভুটানের উত্তরের কিছু এলাকাও দখল করে রেখেছে চীন। এই নিয়ে গত জানুয়ারিতে কুনমিংয়ে বৈঠকে বসেন দুই দেশের কর্মকর্তারা। সূত্রের খবর, এই সীমান্ত সংঘাত নিয়ে ২০ দফা বৈঠক করেও সুরাহা হয়নি। যদিও ভুটান বার বার মুখে বলে গেছে, সমস্যা গুরুতর নয়। এবার ডোকলাম সমস্যায় চীনকে একটি পক্ষ মেনে ভুটান তাদের হাত আরো শক্ত করল বলেই মনে করছে নয়াদিল্লির একটা অংশ। আর তাতে কিছুটা হলেও চাপে ভারত সরকার। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা


বিভাগ : আন্তর্জাতিক


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

মজুদদারদের বিরুদ্ধে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান রেখে নতুন আইন হচ্ছে

মজুদদারদের বিরুদ্ধে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান রেখে নতুন আইন হচ্ছে

সূর্য-হার্দিকের ব্যাটে ভারতের বড় সংগ্রহ

সূর্য-হার্দিকের ব্যাটে ভারতের বড় সংগ্রহ

বন্যা দুর্গত এলাকায় ত্রাণ তৎপরতা জোরদার করতে হবে -জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ

বন্যা দুর্গত এলাকায় ত্রাণ তৎপরতা জোরদার করতে হবে -জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ

ময়মনসিংহ নগরীর সোহাগ কমিউনিটি সেন্টারে পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে ঈদ পূর্ণমিলন

ময়মনসিংহ নগরীর সোহাগ কমিউনিটি সেন্টারে পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে ঈদ পূর্ণমিলন

অল্পতে ফিরলেন রোহিত-কোহলি,চাপে ভারত

অল্পতে ফিরলেন রোহিত-কোহলি,চাপে ভারত

কুড়িগ্রামে তিস্তা নদীতে নৌকা ডুবিতে এখনো ৬জন নিখোঁজ : উদ্ধার ১ শিশু

কুড়িগ্রামে তিস্তা নদীতে নৌকা ডুবিতে এখনো ৬জন নিখোঁজ : উদ্ধার ১ শিশু

অতীতে কর্জ নেওয়া টাকা এখন পরিশোধ করলে কত টাকা পরিশোধ করতে হবে প্রসঙ্গে।

অতীতে কর্জ নেওয়া টাকা এখন পরিশোধ করলে কত টাকা পরিশোধ করতে হবে প্রসঙ্গে।

মতলবে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনা না ফেরার দেশে চলে গেলেন হিমেল: আটক ২

মতলবে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনা না ফেরার দেশে চলে গেলেন হিমেল: আটক ২

সেনবাগে অজ্ঞাত নারীর গলিত লাশ উদ্ধার

সেনবাগে অজ্ঞাত নারীর গলিত লাশ উদ্ধার

সিংগাইর বাসস্ট্যান্ডের পাশেই ময়লার ভাগাড়, জনদুর্ভোগ চরমে

সিংগাইর বাসস্ট্যান্ডের পাশেই ময়লার ভাগাড়, জনদুর্ভোগ চরমে

বেসরকারি হাজীরা দেশে পৌঁছেছেন

বেসরকারি হাজীরা দেশে পৌঁছেছেন

বন্যদুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর আহবান সিলেট জেলা বিএনপির

বন্যদুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর আহবান সিলেট জেলা বিএনপির

আফগানিস্তানের  বিপক্ষে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে ভারত

আফগানিস্তানের বিপক্ষে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে ভারত

বন্যার পেটে সিলেটের ১৫ হাজার ৭৮৯ হেক্টর জমির ফসল : দু:চিন্তায় কৃষক

বন্যার পেটে সিলেটের ১৫ হাজার ৭৮৯ হেক্টর জমির ফসল : দু:চিন্তায় কৃষক

উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তার পর এবার ভুয়া ম্যাজিষ্ট্রেট সাজা নারী আটক

উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তার পর এবার ভুয়া ম্যাজিষ্ট্রেট সাজা নারী আটক

সুনামগঞ্জ বন্যা মোকাবিলায় ২০টি নদীতে একসঙ্গে কাজ শুরু করবো : পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী

সুনামগঞ্জ বন্যা মোকাবিলায় ২০টি নদীতে একসঙ্গে কাজ শুরু করবো : পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী

সুপার এইটে এবার মুখোমুখি দ. আফ্রিকা-ইংল্যান্ড

সুপার এইটে এবার মুখোমুখি দ. আফ্রিকা-ইংল্যান্ড

জনগণ এখন সরকারের দুর্নীতির খেসারত দিচ্ছে  -হাসান সরকার

জনগণ এখন সরকারের দুর্নীতির খেসারত দিচ্ছে -হাসান সরকার

সস্ত্রীক মহানবী (সা.)-র রওজা জিয়ারত করলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সস্ত্রীক মহানবী (সা.)-র রওজা জিয়ারত করলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

শাহজাদপুরে সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩ : পুরুষশুণ্য এলাকা!

শাহজাদপুরে সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩ : পুরুষশুণ্য এলাকা!