Header Ad

‘শুধু জানতে চাই নির্বাচন ৯০ দিনের মধ্যে হবে কিনা’

Daily Inqilab অনলাইন ডেস্ক

৩১ মার্চ ২০২৩, ০৪:৩৭ পিএম | আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০২৩, ১১:০৭ পিএম

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও তেহরিক-ই-ইনসাফের চেয়ারম্যান ইমরান খান বলেছেন, পাঁচ সদস্যের হোক বা ফুল বেঞ্চ হোক, তাতে আমার কিছু যায় আসে না। আমি শুধু জানতে চাই- নির্বাচন ৯০ দিনের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে কিনা।

টুইটারে দেওয়া এক পোস্টে এ মন্তব্য করেন তিনি। পাঞ্জাব ও খাইবার পাখতুনখাওয়া অ্যাসেম্বলি নির্বাচনের তারিখ মুলতবির বিরুদ্ধে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের করা রিট শুনানিতে অংশ নিতে এক বিচারপতির অপারগতার খবরের প্রতিক্রিয়ায় এ মন্তব্য করেন ইমরান খান। খবর ডনের।
তিনি বলেন, দুটি অ্যাসেম্বলি ভেঙে দেওয়ার আগে আমি শীর্ষ সংবিধান বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে পরামর্শ করেছি। তারা বলেছেন, ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠানের বিষয়ে সাংবিধানিক বিধানকে উপেক্ষা করা সম্ভব নয়।

ইমরান খান আরও বলেন, অপরাধীদের আমদানি করা সরকার, এর পৃষ্ঠপোষক এবং বিতর্কিত নির্বাচন কমিশন এখন সংবিধানকে উপহাস করতে এসেছে। সংবিধানের বিভিন্ন ধারাকে নিজেদের জন্য বলবৎযোগ্য ঘোষণা করে অন্যদের অযোগ্য বলে ঘোষণা করেছে। এর মাধ্যমে তারা আসলে পাকিস্তানের ভিত্তিকে আক্রমণ করছে।

পিটিআই চেয়ারম্যান বলেন, তারা নির্বাচনকে এতটাই ভয় পায় এবং তাদের দণ্ডিত অপরাধী নেতাদের বাঁচাতে এতটাই মরিয়া যে তারা আইনের শাসনের শেষ চিহ্নটুকুও মুছে ফেলতে চায়।


বিভাগ : আন্তর্জাতিক


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

রেকর্ডসংখ্যক বিদেশির জার্মান নাগরিকত্ব গ্রহণ

রেকর্ডসংখ্যক বিদেশির জার্মান নাগরিকত্ব গ্রহণ

নওগাঁয় ট্রাক-অটোরিকশা মুখোমুখি সংঘর্ষে ড্রাইভারসহ নিহত ৪

নওগাঁয় ট্রাক-অটোরিকশা মুখোমুখি সংঘর্ষে ড্রাইভারসহ নিহত ৪

তিন দিনের মাথায় ভারতে আবারও ট্রেন লাইনচ্যুত

তিন দিনের মাথায় ভারতে আবারও ট্রেন লাইনচ্যুত

শ্রীনগরে নয়নজুলীর জায়গায় নির্মাণাধীণ স্থাপনা ভাঙ্গার নির্দেশ

শ্রীনগরে নয়নজুলীর জায়গায় নির্মাণাধীণ স্থাপনা ভাঙ্গার নির্দেশ

উখিয়ায় দুর্বৃত্তের গুলিতে রোহিঙ্গা যুবক নিহত

উখিয়ায় দুর্বৃত্তের গুলিতে রোহিঙ্গা যুবক নিহত

ডিআইজি মিজানের বিরুদ্ধে দুদকের মামলার রায় ২১ জুন

ডিআইজি মিজানের বিরুদ্ধে দুদকের মামলার রায় ২১ জুন

জামায়াতের বিক্ষোভ মিছিল স্থগিত, নতুন কর্মসূচি ঘোষণা

জামায়াতের বিক্ষোভ মিছিল স্থগিত, নতুন কর্মসূচি ঘোষণা

সঙ্কটের মুখে জার্মানির অর্থনীতি

সঙ্কটের মুখে জার্মানির অর্থনীতি

Header Ad
নকশা বর্হিভূতভাবে নির্মাণ হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ বরাদ্দের হরিজন পল্লী

নকশা বর্হিভূতভাবে নির্মাণ হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ বরাদ্দের হরিজন পল্লী

পাকিস্তানে বিশৃঙ্খলায় যুক্তরাজ্যের ‘কুখ্যাতি’ বাড়ছে

পাকিস্তানে বিশৃঙ্খলায় যুক্তরাজ্যের ‘কুখ্যাতি’ বাড়ছে

নিখোঁজের একদিন পরে প্রতিবেশীর আমগাছ থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় কৃষকের মরদেহ উদ্ধার!

নিখোঁজের একদিন পরে প্রতিবেশীর আমগাছ থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় কৃষকের মরদেহ উদ্ধার!

চৌগাছা সীমান্ত থেকে ৩কোটি টাকার স্বর্ণ উদ্ধার

চৌগাছা সীমান্ত থেকে ৩কোটি টাকার স্বর্ণ উদ্ধার

ইউক্রেনের ৯৬টি আর্টিলারি ইউনিট ধ্বংস করেছে রুশ সেনা

ইউক্রেনের ৯৬টি আর্টিলারি ইউনিট ধ্বংস করেছে রুশ সেনা

লুহানস্কে ৭ দিনে ২ হাজার ইউক্রেনীয় সেনা নিহত

লুহানস্কে ৭ দিনে ২ হাজার ইউক্রেনীয় সেনা নিহত

ন্যায়বিচার পাওয়ার ব্যবস্থা আমরা করে দিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী

ন্যায়বিচার পাওয়ার ব্যবস্থা আমরা করে দিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী

দাম বাড়াতে তেলের উৎপাদন কমিয়েছে সউদী

দাম বাড়াতে তেলের উৎপাদন কমিয়েছে সউদী

ঢাকা সেনানিবাস এলাকায় অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তার বাসা থেকে চুরি যাওয়া পিস্তল সহ চার বছর পরে বরিশাল থেকে আটক এক

ঢাকা সেনানিবাস এলাকায় অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তার বাসা থেকে চুরি যাওয়া পিস্তল সহ চার বছর পরে বরিশাল থেকে আটক এক

পিটিআই ভেঙ্গে নতুন দল তৈরি করছেন মুরাদ রাজ

পিটিআই ভেঙ্গে নতুন দল তৈরি করছেন মুরাদ রাজ

কুষ্টিয়ায় নাহার ক্লিনিকে প্রসূতি মায়ের মৃত্যু! কথিত ডাক্তার ও ক্লিনিক মালিক পলাতক

কুষ্টিয়ায় নাহার ক্লিনিকে প্রসূতি মায়ের মৃত্যু! কথিত ডাক্তার ও ক্লিনিক মালিক পলাতক

নেছারাবাদে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের অবহেলায় গর্ভবর্তী নারীর মৃত্যুর অভিযোগ

নেছারাবাদে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের অবহেলায় গর্ভবর্তী নারীর মৃত্যুর অভিযোগ