জগন্নাথে হলের খাবারে তেলাপোকা-মাছি, ছাত্রীদের ক্ষোভ

Daily Inqilab অনলাইন ডেস্ক

১৬ মে ২০২৪, ১২:০৪ এএম | আপডেট: ১৬ মে ২০২৪, ১২:০৪ এএম

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ছাত্রীদের একমাত্র হল বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল। এ হলের ক্যান্টিনের খাবারের মান নিয়ে প্রায়ই অভিযোগ করেন ছাত্রীরা। খাবারের সঙ্গে হাতের আংটি, মাছি, তেলাপোকা পাওয়ারও নজির রয়েছে। সর্বশেষ আজ বুধবার হলের খাবারে মাছি ও তেলাপোকা পেয়েছেন তারা।

নাম গোপন রাখার শর্তে ছাত্রী হলের এক শিক্ষার্থী বলেন, গত একমাস ধরে হলের খাবারের মান খুবই খারাপ। বারবার অভিযোগ দিয়েও সুরাহা হয়নি। আজ দুপুরে খাওয়ার সময় তরকারিতে তেলাপোকা এবং মাছি পেয়েছি। ক্যান্টিনে খাবার ঢাকা থাকে না। যারা খাবার পরিবেশন করেন তারাও কোনো সেফটি ব্যবহার করেন না। হলের দায়িত্ব-রত ম্যামকেও পাওয়া যায় না।

জানা গেছে, হলে এক প্লেট ভাতের দাম ১০ টাকা, মুরগি ও মাছের দাম ৩৫ টাকা, মুরগির গিলা-কলিজা ও খাসির মাথা দিয়ে রান্না করা মুগডালের দাম ৪০ টাকা, ভর্তা ও সবজির দাম ১০ টাকা। শিক্ষার্থীদের দাবি, হলে এক বেলা খেতে খরচ হয় কমপক্ষে ৬০ টাকা, সেই হিসেবে খাবারের মান অনেক খারাপ।

মাস্টার্সে অধ্যয়নরত এক শিক্ষার্থী বলেন, আমি দুই দিন নিজে রান্না করতে পারিনি, হলের খাবার খেয়েছি। পরে সমস্যা দেখা দিয়েছে। মাছে কেমিক্যালের গন্ধ পাওয়া যায়, তরকারিতে হলুদের গন্ধ থাকে। এছাড়াও খাবারে হাতের আংটি, তেলাপোকা, অন্যান্য পোকা পাওয়া যায়। এটা খুবই অস্বাস্থ্যকর।

চতুর্থ বর্ষের আরেক শিক্ষার্থী বলেন, হলে খাবার খেতে প্রায় ৬০ টাকার মতো খরচ হয়। এতো দাম নেওয়ার পরও যদি হলের খাবারের মান ভালো হতো তাহলে কোন অভিযোগ থাকতে না। হলে খাবার খেতে যে পরিমাণ টাকা লাগে সে টাকা দিয়ে বাইরের খাবার খাওয়া যায়। এ বিষয়ে হলের ক্যান্টিন ম্যানেজার রুবেল বলেন, মাছি বা পোকা উড়ে গিয়ে পড়তে পারে। বিষয়টি নিয়ে আমি অবগত নই। তবে খাবারের মান যথেষ্ট ভালো।

ক্যান্টিন কমিটির আহ্বায়ক সহযোগী অধ্যাপক ড. নিগার সুলতানা বলেন, আজ খাবারে মাছি পাওয়ার বিষয়ে কোনো অভিযোগ ছাত্রীরা করেনি। এমনটা হওয়ার কথা নয়। আমরা রেগুলার এটা দেখভাল করি। অস্বাস্থ্যকর উপায়ে খাবার পরিবেশনের বিষয়ে তিনি বলেন, যারা খাবার পরিবেশন করেন তারা হয়ত গ্লাভস ব্যবহার করেন না। এ বিষয়টি আমরা দেখব।

 


বিভাগ : মহানগর


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

‘পরের মহামারী অনিবার্য’, আশঙ্কার কথা শোনালেন শীর্ষ ব্রিটিশ বিজ্ঞানী

‘পরের মহামারী অনিবার্য’, আশঙ্কার কথা শোনালেন শীর্ষ ব্রিটিশ বিজ্ঞানী

টাঙ্গাইলে তিন উপজেলায় পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলছে

টাঙ্গাইলে তিন উপজেলায় পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলছে

পাইলটদের ধন্যবাদ দিলেন তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট

পাইলটদের ধন্যবাদ দিলেন তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট

ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে পদ্মা নদীর তীর রক্ষা বাঁধে ধস

ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে পদ্মা নদীর তীর রক্ষা বাঁধে ধস

দেশের অর্থনীতি শক্তিশালী করতে ব্যবসায়ীদের প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রীর অনুরোধ

দেশের অর্থনীতি শক্তিশালী করতে ব্যবসায়ীদের প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রীর অনুরোধ

ভোটারদের চিরচেনা লাইন নেই ফেনীর ভোটকেন্দ্রে

ভোটারদের চিরচেনা লাইন নেই ফেনীর ভোটকেন্দ্রে

ভোটকেন্দ্র দখল নিয়ে সংঘর্ষ, শোকজ চবির ২৩ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীকে

ভোটকেন্দ্র দখল নিয়ে সংঘর্ষ, শোকজ চবির ২৩ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীকে

ভোটের শেষ পর্বে কলকাতায় মোদি-মমতার তীব্র বাগযুদ্ধ

ভোটের শেষ পর্বে কলকাতায় মোদি-মমতার তীব্র বাগযুদ্ধ

প্যাঁচে সুনক, ইস্তফা ৭৮ জন এমপি-র

প্যাঁচে সুনক, ইস্তফা ৭৮ জন এমপি-র

দ্রাবিড়ের পর গাম্ভিরই ভারতের কোচ: রিপোর্ট

দ্রাবিড়ের পর গাম্ভিরই ভারতের কোচ: রিপোর্ট

নোয়াখালীতে ৩ উপজেলায় চলছে ভোট, ভোটারদের লাইন দেখা যাচ্ছে না

নোয়াখালীতে ৩ উপজেলায় চলছে ভোট, ভোটারদের লাইন দেখা যাচ্ছে না

ইকুয়াটোরিয়াল গিনির প্রেসিডেন্টের সাথে শি জিনপিংয়ের আলোচনা

ইকুয়াটোরিয়াল গিনির প্রেসিডেন্টের সাথে শি জিনপিংয়ের আলোচনা

ভারতে গোমূত্র বিক্রি বাড়ছে

ভারতে গোমূত্র বিক্রি বাড়ছে

হজ পালনে সউদি আরব পৌঁছেছেন ৪৭ হাজার ৯৮৫ জন

হজ পালনে সউদি আরব পৌঁছেছেন ৪৭ হাজার ৯৮৫ জন

ত্রাণ ও দুর্যোগ মন্ত্রীকে ক্ষয়ক্ষতি জানালেন হাতিয়ার এমপি মোহাম্মদ আলী

ত্রাণ ও দুর্যোগ মন্ত্রীকে ক্ষয়ক্ষতি জানালেন হাতিয়ার এমপি মোহাম্মদ আলী

উন্নয়নশীল ছোট দ্বীপদেশগুলোর চতুর্থ সম্মেলন শুরু

উন্নয়নশীল ছোট দ্বীপদেশগুলোর চতুর্থ সম্মেলন শুরু

প্রস্তুতি ম্যাচে নামিবিয়াকে উড়িয়ে দিল অস্ট্রেলিয়া

প্রস্তুতি ম্যাচে নামিবিয়াকে উড়িয়ে দিল অস্ট্রেলিয়া

দেশের পতাকা হাতে নিউইয়র্কের রাস্তায় মৌসুমী

দেশের পতাকা হাতে নিউইয়র্কের রাস্তায় মৌসুমী

চীন-ইউরোপ মালবাহী ট্রেন ‘ইস্ট প্যাসেজ’ রেলপথ পুনর্গঠন প্রকল্প শুরু

চীন-ইউরোপ মালবাহী ট্রেন ‘ইস্ট প্যাসেজ’ রেলপথ পুনর্গঠন প্রকল্প শুরু

অবশেষে তমা মির্জা ও মিষ্টি জান্নাতের দ্বন্দ্বের অবসান

অবশেষে তমা মির্জা ও মিষ্টি জান্নাতের দ্বন্দ্বের অবসান