ঢাকা   মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১১ আশ্বিন ১৪৩০

একটি নতুন সভ্যতা, একটি ‘তিন শূন্য’র পৃথিবী সৃষ্টির আহ্বান ড. ইউনূসের

Daily Inqilab স্টাফ রিপোর্টার

২৬ মে ২০২৩, ১১:১৪ পিএম | আপডেট: ২৭ মে ২০২৩, ১২:০০ এএম

জার্মান পোস্ট কোড লটারী চ্যারিটি উৎসব ২০২৩-এ ভাষণ দিলেন নোবেল লরিয়েট প্রফেসর ড. মুহাম্মদ ইউনূস। বুধবার জার্মানীর ডুসেলডর্ফে অনুষ্ঠিত এই উৎসবে প্রধান বক্তা হিসেবে যোগ দেন প্রফেসর ইউনূস। গতকাল শুক্রবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে ইউনূস সেন্টার এ তথ্য জানিয়েছে।
জার্মান পোস্ট কোড লটারী ইউরোপীয় পাঁচটি দেশের পোস্ট কোড লটারীগুলির অন্যতম। এই দেশগুলির ১ কোটি ৩০ লাখ মানুষ পোস্টকোডের ভিত্তিতে এই লটারীতে অংশগ্রহণ করে থাকেন। পোস্ট কোড লটারী থেকে যে আয় হয়ে থাকে তার ৩৩ থেকে ৪০ শতাংশ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে পরিচালিত চ্যারিটিগুলিতে দান করা হয়। ডাচ পোস্ট কোড লটারি (ডিপিসিএল) এবং জার্মান পোস্ট কোড লটারি (জিপিসিএল) অনেক বছর ধরে ণণ ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে প্রফেসর ইউনূসের বিশ্বব্যাপী সামাজিক ব্যবসা আন্দোলনকে সমর্থন করে আসছে।
তাঁর ভাষণে প্রফেসর ইউনূস ক্ষুদ্রঋণ, সামাজিক ব্যবসা ও সার্বজনীন ব্যবসা উদ্যোগ নিয়ে কথা বলেন এবং শূন্য বৈশ্বিক উষ্ণায়ন, শূন্য সম্পদ কেন্দ্রীকরণ ও শূন্য বেকারত্ব-ভিত্তিক ‘তিন শূন্য’র একটি নতুন সভ্যতা সৃষ্টি করার জন্য অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলের প্রতি আহ্বান জানান।
তিনি অর্থনৈতিক কাঠামোর পুননির্মাণসহ বিভিন্ন নীতি ও প্রতিষ্ঠানসমূহের উপযুক্ত সংস্কারের উপর বিশেষভাবে জোর দেন যেগুলি পৃথিবীর বড় বড় সমস্যাগুলির জন্য মূলত দায়ী। তিনি একটি নতুন সভ্যতা নির্মাণে সামাজিক ব্যবসা, সার্বজনীন ব্যবসা উদ্যোগ এবং তরুণ সমাজের ভূমিকার উপর বিশেষভাবে গুরুত্ব আরোপ করেন।
প্রফেসর ইউনূসের ভাষণের পর বিশ্বখ্যাত অভিনেতা ও সমাজকর্মী জর্জ ক্লুনি তাঁর কাজ ও অভিজ্ঞতার কাহিনী বর্ণনা করেন। উল্লেখ্য যে, জর্জ ক্লুনিও পোস্ট কোড লটারীর আন্তর্জাতিক দূত হিসেবে কাজ করছেন। তাঁর বক্তব্যে ক্লুনি দক্ষিণ সুদান, ডারফুর ও অন্যান্য যুদ্ধ-বিদ্ধস্ত এলাকাগুলির পুনর্গঠন ও মানুষের জীবনমান উন্নয়নে প্রফেসর ইউনূস প্রবর্তিত ক্ষুদ্রঋণ মডেল কীভাবে একটি কার্যকর পদ্ধতি হিসেবে কাজ করছে তা উল্লেখ করেন। তিনি ক্ষুদ্রঋণকে একটি “অসাধারণরকম সফল” পদ্ধতি বলে এর প্রশংসা করেন এবং এই অসামান্য আইডিয়াটি উদ্ভাবনের জন্য প্রফেসর ইউনূসকে ধন্যবাদ জানান।
উৎসবের পূর্বে প্রফেসর ইউনূস ও জর্জ ক্লুনির মধ্যে একটি পৃথক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। উল্লেখ্য যে, এঁরা দুজনেই ইতোপূর্বে একসঙ্গে কাজ করেছেন। মি. ক্লুনি রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে গণহত্যা বন্ধে এবং কোভিড-১৯ টিকাকে একটি বিনামূল্য বৈশ্বিক গনপণ্য হিসেবে ঘোষণা করতে প্রফেসর ইউনূসের আহ্বানে স্বাক্ষর করেন। প্রফেসর ইউনূসের সাথে আলোচনায় মি. ক্লুনি বলেন যে, প্রফেসর ইউনূস উদ্ভাবিত ক্ষুদ্রঋণ মডেল মি. ক্লুনি তাঁদের “ক্লুনি ফাউন্ডেশন”-এর অধীনে যেসব এলাকায় কাজ করছেন সেখানকার মানুষদের জীবনে ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে। ###


বিভাগ : জাতীয়


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

সরকারের পতন না ঘটিয়ে ঘরে ফিরবো না- মির্জা আব্বাস

সরকারের পতন না ঘটিয়ে ঘরে ফিরবো না- মির্জা আব্বাস

দুর্ভাগ্যের শিকার মুশফিক

দুর্ভাগ্যের শিকার মুশফিক

বিলাসবহুল ৪৯৮ গাড়ি নিয়ে মোংলা বন্দরে ভিড়েছে জাহাজ

বিলাসবহুল ৪৯৮ গাড়ি নিয়ে মোংলা বন্দরে ভিড়েছে জাহাজ

গাজীপুরে জঙ্গলে নিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ গ্রেফতার ২

গাজীপুরে জঙ্গলে নিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ গ্রেফতার ২

র‌্যাব অভিযানে খাটের নিচে থেকে ১ লক্ষ পিস ইয়াবা উদ্ধার, আটক-১

র‌্যাব অভিযানে খাটের নিচে থেকে ১ লক্ষ পিস ইয়াবা উদ্ধার, আটক-১

চার স্বামীসহ ১২ জনকে খুন করেছেন যে নারী সিরিয়াল কিলার

চার স্বামীসহ ১২ জনকে খুন করেছেন যে নারী সিরিয়াল কিলার

ভিসা-মুক্ত নীতির অধীনে প্রথমবার চীনা পর্যটকদের স্বাগত জানাল থাইল্যান্ড

ভিসা-মুক্ত নীতির অধীনে প্রথমবার চীনা পর্যটকদের স্বাগত জানাল থাইল্যান্ড

বিজিএমইএ : যুক্তরাষ্ট্রে পোশাক রফতানি কমেছে এক তৃতীয়াংশ, ইউরোপে ১৪.৫ শতাংশ

বিজিএমইএ : যুক্তরাষ্ট্রে পোশাক রফতানি কমেছে এক তৃতীয়াংশ, ইউরোপে ১৪.৫ শতাংশ

নভেম্বরের শুরুতে তফসিল, জানুয়ারিতে ভোট : ইসি

নভেম্বরের শুরুতে তফসিল, জানুয়ারিতে ভোট : ইসি

৬ ওভারেই নেই ৩ উইকেট

৬ ওভারেই নেই ৩ উইকেট

বিএনপির খুলনার রোডমার্চ উপলক্ষে মাগুরায় সমাবেশ রোডমার্চ এখন যশোরের পথে

বিএনপির খুলনার রোডমার্চ উপলক্ষে মাগুরায় সমাবেশ রোডমার্চ এখন যশোরের পথে

জাকিরের বিবর্ণ অভিষেক, ফিরলেন তানজিদও

জাকিরের বিবর্ণ অভিষেক, ফিরলেন তানজিদও

যে দোকানে ১০ টাকায় পাবেন গরুর মাংস, ৪৫ টাকায় ইলিশ!

যে দোকানে ১০ টাকায় পাবেন গরুর মাংস, ৪৫ টাকায় ইলিশ!

পদোন্নতি ও বৈষম্য সমাধানের দাবি বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতি কুমিল্লা ইউনিটের

পদোন্নতি ও বৈষম্য সমাধানের দাবি বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতি কুমিল্লা ইউনিটের

নোয়াখালীতে ডিটারজেন্ট-কলমের মেশিনসহ বিপুল পরিমাণ নকল পণ্য জব্দ, মালিক পলাতক

নোয়াখালীতে ডিটারজেন্ট-কলমের মেশিনসহ বিপুল পরিমাণ নকল পণ্য জব্দ, মালিক পলাতক

কোরআন শরীফ পোড়ানোয় বন্দীকে মারধর, ছেলের জন্য গর্বিত কাদিরভ

কোরআন শরীফ পোড়ানোয় বন্দীকে মারধর, ছেলের জন্য গর্বিত কাদিরভ

কারাবাখে অভিযান চালাতে আজারবাইজান ‘বাধ্য’ হয়েছে: এরদোগান

কারাবাখে অভিযান চালাতে আজারবাইজান ‘বাধ্য’ হয়েছে: এরদোগান

লন্ডন পুলিশে ‘বিদ্রোহ’, সংঘাতের আশঙ্কায় তৈরি সেনাবাহিনী

লন্ডন পুলিশে ‘বিদ্রোহ’, সংঘাতের আশঙ্কায় তৈরি সেনাবাহিনী

২ শিক্ষার্থী খুন! ভাইরাল ছবি ঘিরে ফের উত্তপ্ত মণিপুরে

২ শিক্ষার্থী খুন! ভাইরাল ছবি ঘিরে ফের উত্তপ্ত মণিপুরে

কুখ্যাত নাৎসিকে পার্লামেন্টে সম্মান! এবার রাশিয়ার রোষের মুখে কানাডা

কুখ্যাত নাৎসিকে পার্লামেন্টে সম্মান! এবার রাশিয়ার রোষের মুখে কানাডা