সভাপতি-সম্পাদকসহ ১৩টিতে জয়, আওয়ামী লীগপন্থিদের ভরাডুবি

চট্টগ্রাম আইনজীবী সমিতিতে বিপুল বিজয় বিএনপি-জামায়াতের

Daily Inqilab চট্টগ্রাম ব্যুরো

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২:০৪ এএম | আপডেট: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২:০৪ এএম

চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে বিপুল বিজয় পেয়েছেন বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত প্রার্থীরা। নির্বাচনে আওয়ামী লীগপন্থীদের ভরাডুবি হয়েছে। সভাপতি সাধারণ সম্পাদকসহ ১৩টি পদে জয় পেয়েছে বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত আইনজীবী ঐক্য পরিষদ। আওয়ামী লীগ সমর্থিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ পেয়েছে সহ-সভাপতিসহ ৭টি পদ। এছাড়া ১টি পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী জিতেছেন।

গতকাল সোমবার ভোরে এই ফলাফল ঘোষণা করা হয়। এর আগে রোববার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত সমিতি মিলনায়তনে ভোটগ্রহণ হয়। সম্প্রতি কর আইনজীবী সমিতিরি নির্বাচনেও বিপুল বিজয় পায় বিএনপি সমর্থিত প্যানেল। জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ মোট ২১টি পদে নির্বাচন হয়েছে। নির্বাচনে সম্পাদকীয় পদ ১০টি এবং নির্বাহী সদস্য পদ ১১টি। নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ, বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদ এবং দলনিরপেক্ষ স্বতন্ত্রসহ মোট ৪৫ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ছিলেন।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালনকারী সাবেক মহানগর পিপি অ্যাড. ফখরুদ্দিন চৌধুরী জানান, মোট পাঁচ হাজার ৬২০ জন ভোটারের মধ্যে ৪ হাজার ৪৪৯ জন ভোট দিয়েছেন। ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী, নির্বাচনে সভাপতি পদে ঐক্য পরিষদের মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন চৌধুরী ২ হাজার ৭৯৬ ভোট পেয়ে ফের বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সমন্বয় পরিষদের আবু মোহাম্মদ হাশেম পেয়েছেন ১ হাজার ৫৯৪ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে ঐক্য পরিষদের মোহাম্মদ আশরাফ হোসেন চৌধুরী ২ হাজার ২৮৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সমন্বয় পরিষদের মুহাম্মদ ফখরউদ্দিন জাবেদ পেয়েছেন ২ হাজার ১০৭ ভোট। সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে ঐক্য পরিষদের মো. আবদুল কাদের ২ হাজার ২৬৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সমন্বয় পরিষদের আজিজ উদ্দিন পেয়েছেন ২ হাজার ১২৩ ভোট।

সহ-সভাপতি পদে সমন্বয় পরিষদের মাহফুজুর রহমান খান ২ হাজার ৪৫৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ঐক্য পরিষদের মো. জালাল উদ্দিন পেয়েছেন ১ হাজার ৯৩০ ভোট। সহ সাধারণ সম্পাদক পদে ঐক্য পরিষদের মোহাম্মদ কাশেম কামাল ২ হাজার ৪৮৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সমন্বয় পরিষদের মো. আখতারুজ্জামান পেয়েছেন ১ হাজার ৭৫৮ ভোট।

অর্থ সম্পাদক পদে ঐক্য পরিষদের কাজী মো. আশরাফুল হক আনসারী ৩ হাজার ২২১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সমন্বয় পরিষদের খাইরুন্নিসা আখতার পেয়েছেন ১ হাজার ১৮৩ ভোট। পাঠাগার সম্পাদক পদে ঐক্য পরিষদের আহমেদ কবির ২ হাজার ৫৪২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম সমন্বয় পরিষদের মুহাম্মদ আফজাল হোসাইন পেয়েছেন ১ হাজার ৮৩৭ ভোট।

সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে ঐক্য পরিষদের মারুফ মো. নাজেবুল আলম ২ হাজার ৫৭০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সমন্বয় পরিষদের নাসরিন আখতার চৌধুরী পেয়েছেন ১ হাজার ৪৭৮ ভোট। ক্রীড়া সম্পাদক পদে সমন্বয় পরিষদের মো. হাবিবুর রহমান ২ হাজার ৪১২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ঐক্য পরিষদের সরোয়ার হোসাইন পেয়েছেন ১ হাজার ৯৫৯ ভোট।

তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক পদে সমন্বয় পরিষদের অভিজিত ঘোষ ২ হাজার ৩৭৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ঐক্য পরিষদের আবদুল জব্বার পেয়েছেন ২ হাজার ১০ ভোট। এছাড়া নির্বাহী সদস্যের ১১টি পদের মধ্যে ৬টিতে ঐক্য পরিষদ ও ৪টিতে সমন্বয় পরিষদ এবং ১টিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী জয়ী হয়েছেন।

নির্বাহী সদস্য পদে ঐক্য পরিষদের আবদুল্লাহ আল ফাহাদ (২ হাজার ৯১২ ভোট), ইমরান হোসাইন চৌধুরী (২ হাজার ৪০৬ ভোট), শাহ ইমতিয়াজ রেজা চৌধুরী নিশান (২ হাজার ২০৪ ভোট), নূর হোসেন (২ হাজার ১১০ ভোট), মো. শাকিল (২ হাজার ১০১ ভোট) এবং আয়েশা আক্তার সানজি (২ হাজার ৭৫ ভোট) নির্বাচিত হয়েছেন।

আর সমন্বয় পরিষদের প্রার্থীদের মধ্যে মিঠুন দাশ (২ হাজার ৩৭৮ ভোট), মো. ফখরুল ইসলাম গালিব (২ হাজার ১৪২ ভোট), হাবিবুর রহমান (২ হাজার ৩৪৪) এবং আবু কাউসার পন্নি (২ হাজার ৯৩ ভোট) নির্বাহী সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।
দুই হাজার ৩২৮ ভোট পেয়ে সদস্য পদে জয়ী হয়েছেন স্বতন্ত্র নাসিমুল আবেদীন চৌধুরী রায়হান। তিনি ঐক্য পরিষদ থেকে প্রার্থী হতে চেয়েছিলেন। সেখানে সুযোগ না পাওয়ায় স্বতন্ত্র হিসেবে ভোট করেন।


বিভাগ : জাতীয়


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

লাক্ষাদ্বীপে কেন দ্বিতীয় সামরিক নৌঘাঁটি তৈরি করছে ভারত?

লাক্ষাদ্বীপে কেন দ্বিতীয় সামরিক নৌঘাঁটি তৈরি করছে ভারত?

কুসিক উপনির্বাচন : সংখ্যালঘু নতুন ও দক্ষিনের ভোটার জয়-পরাজয়ে ফ্যাক্টর

কুসিক উপনির্বাচন : সংখ্যালঘু নতুন ও দক্ষিনের ভোটার জয়-পরাজয়ে ফ্যাক্টর

সিরাজগঞ্জে ‘শিক্ষকের গুলিতে’ মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থী আহত

সিরাজগঞ্জে ‘শিক্ষকের গুলিতে’ মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থী আহত

বাংলাদেশকে কঠিন লক্ষ্য দিল শ্রীলঙ্কা

বাংলাদেশকে কঠিন লক্ষ্য দিল শ্রীলঙ্কা

সুগার মিলের আগুন নিয়ন্ত্রণে নৌবাহিনী

সুগার মিলের আগুন নিয়ন্ত্রণে নৌবাহিনী

টেকসই ভবিষ্যতের লক্ষ্যে পরিবেশবান্ধব জ্বালানিতে গুরুত্ব দিচ্ছে গ্রামীণফোন

টেকসই ভবিষ্যতের লক্ষ্যে পরিবেশবান্ধব জ্বালানিতে গুরুত্ব দিচ্ছে গ্রামীণফোন

মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম গন্তব্য আবুধাবীতে ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা

মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম গন্তব্য আবুধাবীতে ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা

ওয়ারীর ১৪ রেস্টুরেন্টে অভিযান, আটক ১৬

ওয়ারীর ১৪ রেস্টুরেন্টে অভিযান, আটক ১৬

শিক্ষার্থীদের সঠিক মূল্যায়নের জন্য প্রয়োজন দক্ষ শিক্ষকঃ গবেষণা

শিক্ষার্থীদের সঠিক মূল্যায়নের জন্য প্রয়োজন দক্ষ শিক্ষকঃ গবেষণা

দূষণজনিত রোগ প্রতিরোধে জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনায় স্বাস্থ্য বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা হবে : পরিবেশমন্ত্রী

দূষণজনিত রোগ প্রতিরোধে জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনায় স্বাস্থ্য বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা হবে : পরিবেশমন্ত্রী

কুমিল্লায় দুগ্ধপোষ্য শিশু চুরির অপরাধে এক নারীর দশ বছরের কারাদণ্ড

কুমিল্লায় দুগ্ধপোষ্য শিশু চুরির অপরাধে এক নারীর দশ বছরের কারাদণ্ড

ভি সিরিজের নতুন স্মার্টফোন এনেছে ভিভো

ভি সিরিজের নতুন স্মার্টফোন এনেছে ভিভো

অ্যাপলকে ১৮০ কোটি ইউরো জরিমানা করেছে ইইউ

অ্যাপলকে ১৮০ কোটি ইউরো জরিমানা করেছে ইইউ

গ্রুমিং সচেতনতার জন্য বিয়ার্ডো ও লিভনের স্পেশাল এডিশন ‘স্টাইলিং সল্যুশন’

গ্রুমিং সচেতনতার জন্য বিয়ার্ডো ও লিভনের স্পেশাল এডিশন ‘স্টাইলিং সল্যুশন’

মুসলিম উম্মাহর ঐক্য, শান্তি ও সমৃদ্ধি এবং দেশের শান্তি- শৃঙ্খলা রক্ষায় আল্লাহর রহমত কামনা করে মোকামিয়ার দুই দিনব্যাপী মাহফিল সম্পন্ন

মুসলিম উম্মাহর ঐক্য, শান্তি ও সমৃদ্ধি এবং দেশের শান্তি- শৃঙ্খলা রক্ষায় আল্লাহর রহমত কামনা করে মোকামিয়ার দুই দিনব্যাপী মাহফিল সম্পন্ন

ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে ১৭, সাধারণ কেন্দ্রে থাকবে ১৬ জনের ফোর্স

ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে ১৭, সাধারণ কেন্দ্রে থাকবে ১৬ জনের ফোর্স

হিলি সীমান্ত পরিদর্শনে সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর প্রতিনিধি দল

হিলি সীমান্ত পরিদর্শনে সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর প্রতিনিধি দল

আড়াই ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি চিনি মিলের আগুন

আড়াই ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি চিনি মিলের আগুন

স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে ভূমিকা রাখবেন স্মার্ট ইমামরা-সিকৃবি ভিসি

স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে ভূমিকা রাখবেন স্মার্ট ইমামরা-সিকৃবি ভিসি

প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর বাড়িতে পুলিশের অভিযান, সমালোচনার মুখে পাকিস্তানের সরকার

প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর বাড়িতে পুলিশের অভিযান, সমালোচনার মুখে পাকিস্তানের সরকার