জামালপুরে মতবিনিময় সভায় প্রিন্সিপাল শাব্বীর আহমদ মোমতাজী

প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে শিক্ষক-কর্মচারীদের চাকরি জাতীয়করণ হবে

Daily Inqilab প্রেস বিজ্ঞপ্তি

১০ জুন ২০২৩, ০৯:৪০ পিএম | আপডেট: ১১ জুন ২০২৩, ১২:০০ এএম

এমপিওভুক্ত বেসকারী শিক্ষক-কর্মচারী বিশেষ করে মাদরাসা শিক্ষক-কর্মচারীদের দীর্ঘদিনের যৌক্তিক দাবি চাকুরী জাতীয়করণের বিষয়টি গুরুত্বের সাথে আমলে নিয়ে দ্রুত বাস্তবায়ন জরুরী। জমিয়াতুল মোদার্রেছীন দেশের সকল মাদরাসা শিক্ষক-কর্মচারীদের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। জাতীয়করণের বিষয়টির গুরুত্ব অনুধাবন করে সর্বপ্রথম আমরাই এ দাবি উত্থাপন করেছি। গতকাল জমিয়াতুল মোদার্রেছীন জামালপুর জেলা শাখা আয়োজিত মাদরাসা শিক্ষার উন্নয়ন শীর্ষক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যকালে সংগঠনের কেন্দ্রীয় মহাসচিব প্রিন্সিপাল শাব্বীর আহমদ মোমতাজী এসব কথা বলেন।

জামালপুর জেলা জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের সভাপতি প্রিন্সিপাল মাওলানা মুজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে ও কেন্দ্রীয় জনকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা মশিউর রহমানের সঞ্চালনায় আয়োজিত এ মতবিনিময় সভায় কেন্দ্রিয় মহাসচিব বলেন, মাদরাসা শিক্ষা উন্নয়ন ও এ শিক্ষা ধারাকে যুগোপযুগি করে গড়ে তুলতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবদান অনস্বীকার্য। জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের দাবির প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিকতায় ইতোমধ্যে আমাদের প্রায় সকল দাবি বাস্তবায়ন হয়েছে। বিশেষ করে একযোগে সকল এমপিওভুক্ত বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন জাতীয় বেতন স্কেলের অন্তর্ভূক্তকরণ ছিল তাঁর যুগান্তকারী পদক্ষেপ। শতভাগ বেতন স্কেল, বিভিন্ন ভাতাদিসহ প্রয়োজনীয় সুযোগ-সুবিধা প্রদানের মাধ্যমে দেশের বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের সমৃদ্ধ জীবনযাত্রা নিশ্চিত করে তিনি সকলের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছেন। তদুপরি বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের দীর্ঘদিনে দাবি সকল শিক্ষক-কর্মচারীদের চাকুরী জাতীয়করণের বিষয়টি এখনও অপূর্ণ রয়েছে। ইতিপূর্বে আমরা প্রধানমন্ত্রী, শিক্ষামন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে বুঝাতে সক্ষম হয়েছি যে, শিক্ষকদের চাকুরী জাতীয়করণে খুব বেশি অর্থায়নের প্রয়োজন হবে না। বৈশাখী ভাতাসহ দুয়েকটি ভাতা যা আংশিক প্রদান করা হয়, সেসকল ভাতাদি শতভাগ প্রদানের মাধ্যমে সামাঞ্জস্য করা সম্ভব। আমরা মনে করি এজন্য শুধুমাত্র প্রধানমন্ত্রীর সদিচ্ছাটুকুই যথেষ্ট। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারী বিশেষ করে মাদরাসা শিক্ষক-কর্মচারীদের চাকুরী জাতীয়করণের বিষয়টির প্রয়োজনীয়তা ও গুরুত্ব অনুধাবন করে চলমান বাজেটে উত্থাপণের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষথেকে সুস্পষ্ট একটি ঘোষণার মধ্য দিয়ে সকলকে আশ্বস্ত করবেন। সেইসাথে প্রধানমন্ত্রী আবারও প্রমাণ দিবেন তিনি একজন ইসলাম ও মুসলিম প্রিয় মানুষ, দ্বীনি শিক্ষা তথা মাদরাসা শিক্ষার প্রতি তার উদারতা অপরিসীম। প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপেই শিক্ষক-কর্মচারীদের চাকুরী জাতীয়করণ হবে ইনশাআল্লাহ।

মাহাসচিব বলেন, জমিয়াতুল মোদার্রেছীন প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই মাদরাসা শিক্ষা, শিক্ষক-কর্মচারী ও শিক্ষার্থীদের কল্যাণে নিরলস প্রচেষ্টা করে যাচ্ছে। সংগঠনের সভাপতি আলহাজ্ব এএমএম বাহাউদ্দীনের নেতৃত্বে আমরা সকলে ঐক্যবদ্ধ ছিলাম এবং ভবিষ্যতেও থাকবো। মাদরাসা শিক্ষক-কর্মচারীদের প্রয়োজন, দাবি ও বিভিন্ন সুবিধা অসুবিধা নিরসনে সরকারকে সর্বাত্মক সহযোগিতার মাধ্যমে জমিয়াতুল মোদার্রেছীন দ্বীনি শিক্ষা তথা মাদরাসা শিক্ষা উন্নয়নে সর্বাত্মক ভূমিকা রেখে আসছে।

সভায় প্রিন্সিপাল মাও. মুজিবুর রহমানকে সভাপতি, মাও. আনোয়ার হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক, মাওলানা মশিউর রহমানকে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, মাও. ওমর ফারুককে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ৫১ সদস্য বিশিষ্ট জামালপুর জেলা কমিটি গঠন করা হয়।

আয়োজিত এ মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ জামিয়াতুল মোদার্রেছীনের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাও. ইদ্রিস খান, শেরপুর জেলা সভাপতি মাও. ফজলুর রহমান, কেন্দ্রীয় প্রকাশনা সম্পাদক মো. মেরাজ উদ্দিন। আরো উপস্থিত ছিলেন জামালপুর জেলা জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের সাধারণ সম্পাদক মাও. আনোয়ার হোসেন, জামালপুর সদর উপজেলা সভাপতি ফজলুর রহমান, সা.সম্পাদক ওমর ফারুক, বেলটিয়া কামিল মাদরাসার প্রিন্সিপাল রেজাউল করিম, শেরপুর জেলা জমিয়তের সাংগঠনিক সম্পাদক মাও. আব্দুর রাজ্জাক, শেরপুর সদর উপজেলা জমিয়তের সাধারণ সম্পাদক মাও. মো. শরাফত আলী, বকশিগঞ্জ উপজেলা জমিয়তের সভাপতি রফিকুল ইসলাম, বাট্রাজোর ফাজিল মাদরাসার প্রিন্সিপাল সুলতান মাহমুদ খসরু প্রমুখ।


বিভাগ : বাংলাদেশ


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ৫০ বছরের চুক্তি বাতিল করল সৌদি আরব

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ৫০ বছরের চুক্তি বাতিল করল সৌদি আরব

মিশিগানে শিশুদের ওয়াটার পার্কে অতর্কিত হামলা, ২৮ বার গুলি! জখম একাধিক

মিশিগানে শিশুদের ওয়াটার পার্কে অতর্কিত হামলা, ২৮ বার গুলি! জখম একাধিক

দুই দশকেরও বেশি সময় পর কাল উত্তর কোরিয়া যাচ্ছেন রুশ প্রেসিডেন্ট

দুই দশকেরও বেশি সময় পর কাল উত্তর কোরিয়া যাচ্ছেন রুশ প্রেসিডেন্ট

অতীত তিক্ততা ভুলে মুইজ্জুকে মোদির ঈদ অভিনন্দন

অতীত তিক্ততা ভুলে মুইজ্জুকে মোদির ঈদ অভিনন্দন

বাংলাদেশ নৌবাহিনী ও কোস্টগাডের টহল জোরদার -ভীতি ও আতঙ্ক কেটেছে দ্বীপবাসীর

বাংলাদেশ নৌবাহিনী ও কোস্টগাডের টহল জোরদার -ভীতি ও আতঙ্ক কেটেছে দ্বীপবাসীর

ভারতে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা, নিহত বেড়ে ১৫

ভারতে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা, নিহত বেড়ে ১৫

ইজরায়েলের যুদ্ধকালীন বিশেষ মন্ত্রিসভা বাতিল করলেন নেতানিয়াহু

ইজরায়েলের যুদ্ধকালীন বিশেষ মন্ত্রিসভা বাতিল করলেন নেতানিয়াহু

ঈশ্বরগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই কিশোরের মৃত্যু

ঈশ্বরগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই কিশোরের মৃত্যু

সিলেট-সুনামগঞ্জে বন্যার অবনতি, উত্তরাঞ্চলে নদ-নদীর পানি বাড়ছেই

সিলেট-সুনামগঞ্জে বন্যার অবনতি, উত্তরাঞ্চলে নদ-নদীর পানি বাড়ছেই

কেউ মাংস দিতে চায় না, তাড়িয়ে দেয়

কেউ মাংস দিতে চায় না, তাড়িয়ে দেয়

পশু কোরবানি দিতে গিয়ে আহত ৯৪

পশু কোরবানি দিতে গিয়ে আহত ৯৪

হরিরামপুরে সাপের কামড়ে দেড় বছরের শিশুর মৃত্যু

হরিরামপুরে সাপের কামড়ে দেড় বছরের শিশুর মৃত্যু

ফৌজদারহাাটে মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত

ফৌজদারহাাটে মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত

৭ দিনে পদ্মা সেতুতে ২৫ কোটি ৭৩ লাখ টাকা টোল আদায়

৭ দিনে পদ্মা সেতুতে ২৫ কোটি ৭৩ লাখ টাকা টোল আদায়

যুদ্ধ মন্ত্রিসভা ভেঙে দিয়েছেন নেতানিয়াহু

যুদ্ধ মন্ত্রিসভা ভেঙে দিয়েছেন নেতানিয়াহু

কাদেরের বক্তব্যের জবাব দিতে ‘রুচিতে বাধে’ ফখরুলের

কাদেরের বক্তব্যের জবাব দিতে ‘রুচিতে বাধে’ ফখরুলের

ইউরোয় ‘বড় কিছুর’ লক্ষ্য রোনালদোর

ইউরোয় ‘বড় কিছুর’ লক্ষ্য রোনালদোর

ছোট পুঁজি নিয়েও আত্মবিশ্বাসী ছিলাম: শান্ত

ছোট পুঁজি নিয়েও আত্মবিশ্বাসী ছিলাম: শান্ত

কেন্দ্রীয় কৃষকলীগ নেতা সোহাগ তালুকদার আর নেই

কেন্দ্রীয় কৃষকলীগ নেতা সোহাগ তালুকদার আর নেই

জনগণের মধ্যে ‘ঈদের আনন্দ নেই: মির্জা

জনগণের মধ্যে ‘ঈদের আনন্দ নেই: মির্জা