বিদ্যালয়ের বেতন দিতে না পারায় অভিমানে শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

Daily Inqilab সরিষাবাড়ী(জামালপুর)সংবাদদাতা

০৫ জুন ২০২৩, ০৭:৪০ পিএম | আপডেট: ০৫ জুন ২০২৩, ০৭:৪০ পিএম


জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে বেতন না দেওয়ায় অভিমানে লাবনী নামের রুদ্র বয়ড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা করেছে । সোমবার (৫জুন) সকাল ১১:৩০ মিনিটের দিকে উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের তারাকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সোমবার বিকেলে এ রিপোর্ট লেখা পযর্ন্ত লাশ দাফনের প্রস্তুতি চলছিল।
স্থানীয় ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে,উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের তারাকান্দি গ্রামের মুদি দোকানদার লাল মিয়ার তিন মেয়ে। তাদের মধ্যে লাভনী আক্তার দ্বিতীয়। লাভনী রুদ্র বয়ড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেনীর শিক্ষার্থী।আগামী ৭ জুন তার অর্ধ বার্ষিক পরীক্ষা।পরীক্ষা দিতে লাভনীকে ২ হাজার ২ শ টাকা পরিশোধ করতে হবে বলে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দেয়।
এর আগে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের দাবি করা টাকা নির্ধারিত সময়ে পরিশোধ করতে না পেরে অনেক শিক্ষার্থীকে অপমান-অপদস্ত হতে হয় বলে অভিযোগ করে এলাকাবাসী।এ কারনে সোমবার সকালে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের দাবি করা টাকা না নিয়ে বিদ্যালয়ে যাবে না বলে বায়না ধরে লাবনী। পরে তার বাবা-মা অর্ধেক টাকা জোগাড় করে দিলেও কর্তৃপক্ষের কাছে লজ্জা পাওয়ার ভয়ে বিদ্যালয়ে যেতে রাজি হয়নি লাভনী।পরে পরিবারের লোকজন কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়ার সুযোগে বসত ঘরের ধর্নার সাথে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে লাভনী।
তারাকান্দি গ্রামের এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন, রুদ্র বয়ড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কোন বিষয়ে এক টাকাও কম নেন না। তার কাছে কোন অনুরোধই কাজে আসে না।
ওই বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেনী পড়ুয়া এক শিক্ষার্থী অভিভাবক উজ্জল মিয়া বলেন, তার মেয়ের বেতন দিতে একদিন দেরি হয়েছিল। এ কারনে তার মেয়েকে রোদে দাঁড় করিয়ে রাখা হয়েছিল।
এ ব্যাপারে লাভনী আক্তারের মা ফাহিমা বেগম বলেন, অর্ধেক টাকা জোগাড় করে দেওয়া হয়েছিল কিন্তু তার মেয়ে ভয়ে সে টাকা নিয়ে স্কুলে যায়নি। পরে ঘরের ধর্নার সাথে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।
এ বিষয়ে রুদ্র বয়ড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইফুর রহমান বাছেদকে একাধিকবার মুঠোফোনে কল দেওয়া হলে নাম্বারটি বন্ধ থাকায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।
তবে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো: মোজাম্মেল হোসেন বলেন, বিষয়টি দু:খ জনক। খোজ খবর নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এ দিকে সরিষাবাড়ী থানার ওসি(তদন্ত) ফয়সাল আহমেদ মুঠোফোনে বলেন,সংবাদ পেয়ে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। তদন্ত চলছে।


বিভাগ : বাংলাদেশ


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

দক্ষিণ এশিয়ার দ্বিতীয় সবোচ্চ ব্যয়বহুল শহর ঢাকা

দক্ষিণ এশিয়ার দ্বিতীয় সবোচ্চ ব্যয়বহুল শহর ঢাকা

আফগানিস্তান ২৬টি প্রদেশে ফাইবার অপটিক পরিষেবা প্রসারিত করেছে

আফগানিস্তান ২৬টি প্রদেশে ফাইবার অপটিক পরিষেবা প্রসারিত করেছে

রাফায় রাস্তায় রাস্তায় চলছে হামাস-ইসরায়েল রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ

রাফায় রাস্তায় রাস্তায় চলছে হামাস-ইসরায়েল রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ

চামড়ার বাজারে এবারো দর পতন : গরিব মেরে ব্যবসায়ীদের পোয়াবাড়ো

চামড়ার বাজারে এবারো দর পতন : গরিব মেরে ব্যবসায়ীদের পোয়াবাড়ো

দুমকীতে আগুনে পুড়ে ইউপি সদস্যের বসত ঘর ভস্মীভূত , ১৫ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি

দুমকীতে আগুনে পুড়ে ইউপি সদস্যের বসত ঘর ভস্মীভূত , ১৫ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি

কুষ্টিয়ায় স্বাধীন বাংলার প্রথম পতাকা উত্তোলনকারী আব্দুল জলিলকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন

কুষ্টিয়ায় স্বাধীন বাংলার প্রথম পতাকা উত্তোলনকারী আব্দুল জলিলকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন

জাপানে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে ‘মাংসখেকো ব্যাকটেরিয়া’

জাপানে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে ‘মাংসখেকো ব্যাকটেরিয়া’

এবারের ঈদেও ভক্তদের দেখা দিলেন শাহরুখ

এবারের ঈদেও ভক্তদের দেখা দিলেন শাহরুখ

যুক্তরাষ্ট্রে পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপিত

যুক্তরাষ্ট্রে পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপিত

দুর্নীতিগ্রস্ত সেই মতিউরের ছেলের ৫২ লাখ টাকার কোরবানি!

দুর্নীতিগ্রস্ত সেই মতিউরের ছেলের ৫২ লাখ টাকার কোরবানি!

বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী রাখাইন বাসিন্দাদের এলাকা ত্যাগের নির্দেশ

বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী রাখাইন বাসিন্দাদের এলাকা ত্যাগের নির্দেশ

ঈদে বাবা-মাকে নিয়ে জায়েদ খানের আবেগঘন স্ট্যাটাস

ঈদে বাবা-মাকে নিয়ে জায়েদ খানের আবেগঘন স্ট্যাটাস

উত্তর কোরিয়ায় পুতিনের সফর ঘিরে দক্ষিণ কোরিয়ায় উদ্বেগ

উত্তর কোরিয়ায় পুতিনের সফর ঘিরে দক্ষিণ কোরিয়ায় উদ্বেগ

বঙ্গবন্ধু সেতুতে ৮ দিনে ২৪ কোটি ৫৩ লাখ টাকা টোল আদায়

বঙ্গবন্ধু সেতুতে ৮ দিনে ২৪ কোটি ৫৩ লাখ টাকা টোল আদায়

ভারতে চামড়া পাচাররোধে বেনাপোল সীমান্তে বিজিবির সতর্কতা জারি

ভারতে চামড়া পাচাররোধে বেনাপোল সীমান্তে বিজিবির সতর্কতা জারি

ইসরাইলি আগ্রাসনে নিশ্চিহ্ন ফিলিস্তিনের চার প্রজন্ম!

ইসরাইলি আগ্রাসনে নিশ্চিহ্ন ফিলিস্তিনের চার প্রজন্ম!

চীনে ভয়াবহ বন্যা, পানির তোড়ে সেতু ধস

চীনে ভয়াবহ বন্যা, পানির তোড়ে সেতু ধস

ঈদে ঘুরতে প্রাইভেট কারে ছিলেন ৫ বন্ধু, দুর্ঘটনায় প্রাণ হারায় ২

ঈদে ঘুরতে প্রাইভেট কারে ছিলেন ৫ বন্ধু, দুর্ঘটনায় প্রাণ হারায় ২

ঈদের দ্বিতীয় দিনে পর্যটকদের পদচারনায় মুখরিত কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত

ঈদের দ্বিতীয় দিনে পর্যটকদের পদচারনায় মুখরিত কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত

এশিয়ার বিভিন্ন দেশে ঈদুল আজহা উদযাপন

এশিয়ার বিভিন্ন দেশে ঈদুল আজহা উদযাপন