মরক্কোয় তিন দিনের রাষ্ট্রীয় শোক, প্রাণহানি ছাড়ালো ২ হাজার

২৫ বছরে প্রাণ গেছে ৫ লাখ মানুষের

Daily Inqilab ইনকিলাব ডেস্ক

১০ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৮:২৫ পিএম | আপডেট: ১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১২:০৬ এএম

পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে দুই দশকে ভূমিকম্পে প্রাণ হারিয়েছে পাঁচ লাখের বেশি মানুষ। আহত হয়েছেন লাখ লাখ। আর বা¯ুÍচ্যুত হয়েছেন কোটি কোটি মানুষ। সম্প্রতি মরোক্কায় এক ভূমিকম্পে দুই হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন। দুইদিন পরও নিহতের সংখ্যা বেড়ে চলেছে। যা শেষ দুই দশকে ভয়াবহ প্রাণহানির ঘটনাগুলোর মধ্যে অন্যতম। এবার আরো কিছু ভূমিকম্পের তথ্য জেনে নেয়া যাক। ৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ : ৬ দশমিক ৮ মাত্রার ভূমিকম্পে প্রাণ হারিয়েছে দুই হাজারের বেশি মানুষ। এখনো পর্যন্ত আহত এক হাজার ৪০০ ছাড়িয়েছে। ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ : ইউরেশিয়ার দেশ তুরস্ক ও সিরিয়ার এ ভূমিকম্পে মারা যায় ২১ হাজার ৬০০ মানুষ। এর মাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৮। এর আগে ১৯৯৯ সালে তুরস্কে আরেক ভূমিকম্পে ১৮ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়। ২৫ এপ্রিল ২০১৫ : নেপালে ৭ দশমিক ৮ মাত্রার ভূমিকম্পে প্রাণ হারায় ৮ হাজার ৮০০ জন। ১১ মার্চ ২০১১ : দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশ জাপানে সংঘটিত ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৯ দশমিক শূন্য। এই দুর্যোগে প্রাণ হারায় ১৮ হাজার ৪০০ জন। ১২ জানুয়ারি ২০১০ : হাইতিতে ৭ দশমিক শূন্য মাত্রার ভূমিকম্পে মারা যান লক্ষাধিক মানুষ। ধারণা করা হয়েছিল, এ সংখ্যা তিন লাখেরও বেশি হবে। ১২ মে ২০০৮ : চীনে ৭ দশমিক ৯ মাত্রার ভূমিকম্পে মারা যান ৮৭ হাজার ৫০০ মানুষ। ২৬ ডিসেম্বর ২০০৪ : ৯ দশমিক ১ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে ইন্দোনেশিয়ায়। এর ফলে সৃষ্ট সুনামিতে এক ডজন দেশের ২ লাখ ৩০ হাজারের বেশি মানুষ মারা যায়। এর দুই বছর পর ২০০৬ সালের ২৭ মে ৬ দশমিক ৩ মাত্রার ভূমিকম্পে আরো ৫ হাজার ৭০০ এর বেশি মানুষ নিহত হন। ৮ অক্টোবর ২০০৫ : কাশ্মিরে ৭ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকেম্পে মৃত্যু হয় প্রায় ৮০ হাজার মানুষের। ২৬ ডিসেম্বর ২০০৩ : ইরানে ৬ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্পে প্রায় ২০ হাজার মানুষ প্রাণ হারান। এছাড়া ২০০১ সালের ২৬ জানুয়ারি ভারতে ৭ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্পে প্রায় ২০ হাজার মানুষ প্রাণ হারায়। অপর এক খবরে বলা হয়, মরক্কোর ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা দুই হাজার ছাড়িয়ে গেছে। উদ্ধারকারীরা ধ্বংস্তূপের নিচ থেকে জীবিতদের উদ্ধারে সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। গত ৬০ বছরের মধ্যে এটিই ছিল মরক্কোর সবচেয়ে ভয়াবহ ভূমিকম্প। গত শুক্রবার গভীর রাতের ৬.৮ মাত্রার ভূমিকম্পে এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২,০১২ জনে। আহত হয়েছে ২,০৫৯ জন। বিপুলসংখ্যক লোক গৃহহীন হয়ে পড়েছে। মরক্কোর বাদশাহ ষষ্ঠ মোহাম্মদ অনুসন্ধান ও উদ্ধার কার্যক্রম পরিচালনার জন্য সেনাবাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছেন। ভূমিকম্পে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ঐতিহাসিক মারাকেশ অঞ্চল। এখানকার অনেক ঐতিহাসিক স্থাপনা ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত হযেছে। ভূমিকম্পটির কেন্দ্রস্থ ছিল পার্বত্য গ্রাম তাফেঘাঘতে। এখানে কার্যত একটি ভবনও এখন দাঁড়িয়ে নেই। এই অঞ্চলের ঐতিহ্যবাহী বারবার গোত্রের লোকজন কাদা দিয়ে বাড়ি নির্মাণ করত। খবরে বলা হয়, ভূমিকম্পে চারদিকে এত ধ্বংসযজ্ঞ আর মৃত্যুর মিছিল নিজ চোখে কবে দেখেছে মনে পড়ে না মরক্কোবাসীর। এবারের ভূমিকম্পে তাসের ঘরের মতো ধসে পড়েছে জাতিসংঘের ঐতিহাসিক স্থাপনাসহ হাজারও আবাসিক ঘর-বাড়ি। ভবনের নিচে প্রাণের সন্ধান না মিললেও বেরিয়ে আসছে লাশের পর লাশ। সবশেষ ব্রিফিংয়ে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, মৃত্যুর সংখ্যা ২ হাজার ছাড়িয়েছে। আহত দেড় হাজার। দ্বিতীয় দিনের মতো খোলা আকাশের নিজে আতঙ্ক আর অনিশ্চিত ভবিষ্যৎ চোখে নিয়ে রাত কাটিয়েছে বহু মানুষ। সব হারিয়ে নির্বিকার তারা। সরকারের পক্ষ থেকে আপাতত শুকনো খাবার ও সুপেয় পানির ব্যবস্থা করা হলেও তা সীমিত। শুক্রবারের ভূমিকম্পে সবচেয়ে বেশি হতাহত হয়েছে মারাকেশের দক্ষিণে প্রদেশে। মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা জানিয়েছে, রাতে আঘাত হানা ৬ দশমিক ৮ মাত্রার ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল মারাক্কেশ শহর থেকে ৭১ কিলোমিটার দূরে এটলাস পর্বতমালা এলাকা। গভীরতা ছিল ১৮ দশমিক ৫ কিলোমিটার। ১১টা ১১ মিনিটে জোরালো কম্পন অনুভূত হয়। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, এখন পর্যন্ত আল হাউজ প্রদেশে সবচেয়ে বেশি মারা গেছে। তারপর তারউদান্ত প্রদেশে। আর মারাকেশে মৃত্যু কম হলেও ইউনেস্কো স্বীকৃতি ঐতিহাসিক পুরনো শহরটি ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে তিন দিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করেছেন দেশটির ষষ্ঠ রাজা মোহাম্মদ। রাজ প্রাসাদ বিবৃতিতে জানিয়েছে, সব সরকারি ভবনে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকবে। রাজা উদ্ধারকারী দলকে সহায়তা করার জন্য সশস্ত্র বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছেন। বেঁচে যাওয়াদের জন্য আশ্রয়, খাবার এবং অন্যান্য সাহায্যের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। দেশটির এমন বিপদে পাশে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, চীন, তুরস্ক, রাশিয়া, ইউক্রেনসহ অধিকাংশ দেশ। বিবিসি, আল-জাজিরা।


বিভাগ : আন্তর্জাতিক


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

দুমকীতে আগুনে পুড়ে ইউপি সদস্যের বসত ঘর ভস্মীভূত , ১৫ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি

দুমকীতে আগুনে পুড়ে ইউপি সদস্যের বসত ঘর ভস্মীভূত , ১৫ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি

কুষ্টিয়ায় স্বাধীন বাংলার প্রথম পতাকা উত্তোলনকারী আব্দুল জলিলকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন

কুষ্টিয়ায় স্বাধীন বাংলার প্রথম পতাকা উত্তোলনকারী আব্দুল জলিলকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন

জাপানে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে ‘মাংসখেকো ব্যাকটেরিয়া’

জাপানে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে ‘মাংসখেকো ব্যাকটেরিয়া’

এবারের ঈদেও ভক্তদের দেখা দিলেন শাহরুখ

এবারের ঈদেও ভক্তদের দেখা দিলেন শাহরুখ

যুক্তরাষ্ট্রে পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপিত

যুক্তরাষ্ট্রে পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপিত

দুর্নীতিগ্রস্ত সেই মতিউরের ছেলের ৫২ লাখ টাকার কোরবানি!

দুর্নীতিগ্রস্ত সেই মতিউরের ছেলের ৫২ লাখ টাকার কোরবানি!

বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী রাখাইন বাসিন্দাদের এলাকা ত্যাগের নির্দেশ

বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী রাখাইন বাসিন্দাদের এলাকা ত্যাগের নির্দেশ

ঈদে বাবা-মাকে নিয়ে জায়েদ খানের আবেগঘন স্ট্যাটাস

ঈদে বাবা-মাকে নিয়ে জায়েদ খানের আবেগঘন স্ট্যাটাস

উত্তর কোরিয়ায় পুতিনের সফর ঘিরে দক্ষিণ কোরিয়ায় উদ্বেগ

উত্তর কোরিয়ায় পুতিনের সফর ঘিরে দক্ষিণ কোরিয়ায় উদ্বেগ

বঙ্গবন্ধু সেতুতে ৮ দিনে ২৪ কোটি ৫৩ লাখ টাকা টোল আদায়

বঙ্গবন্ধু সেতুতে ৮ দিনে ২৪ কোটি ৫৩ লাখ টাকা টোল আদায়

ভারতে চামড়া পাচাররোধে বেনাপোল সীমান্তে বিজিবির সতর্কতা জারি

ভারতে চামড়া পাচাররোধে বেনাপোল সীমান্তে বিজিবির সতর্কতা জারি

ইসরাইলি আগ্রাসনে নিশ্চিহ্ন ফিলিস্তিনের চার প্রজন্ম!

ইসরাইলি আগ্রাসনে নিশ্চিহ্ন ফিলিস্তিনের চার প্রজন্ম!

চীনে ভয়াবহ বন্যা, পানির তোড়ে সেতু ধস

চীনে ভয়াবহ বন্যা, পানির তোড়ে সেতু ধস

ঈদে ঘুরতে প্রাইভেট কারে ছিলেন ৫ বন্ধু, দুর্ঘটনায় প্রাণ হারায় ২

ঈদে ঘুরতে প্রাইভেট কারে ছিলেন ৫ বন্ধু, দুর্ঘটনায় প্রাণ হারায় ২

ঈদের দ্বিতীয় দিনে পর্যটকদের পদচারনায় মুখরিত কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত

ঈদের দ্বিতীয় দিনে পর্যটকদের পদচারনায় মুখরিত কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত

এশিয়ার বিভিন্ন দেশে ঈদুল আজহা উদযাপন

এশিয়ার বিভিন্ন দেশে ঈদুল আজহা উদযাপন

ঈদের শুভেচ্ছা বার্তায় গাজায় যুদ্ধবিরতি বিষয়ে যা বললেন বাইডেন

ঈদের শুভেচ্ছা বার্তায় গাজায় যুদ্ধবিরতি বিষয়ে যা বললেন বাইডেন

“মুসলিমরা ভোট দেয়নি, ওদের সাহায্য নয়” নীতীশের সাংসদের কথায় তপ্ত বিহার

“মুসলিমরা ভোট দেয়নি, ওদের সাহায্য নয়” নীতীশের সাংসদের কথায় তপ্ত বিহার

ঈদের রাতে মহিষের তাণ্ডবে বৃদ্ধের মৃত্যু, আহত ১

ঈদের রাতে মহিষের তাণ্ডবে বৃদ্ধের মৃত্যু, আহত ১

সিলেট ও সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, পানিবন্দি লক্ষাধিক মানুষ

সিলেট ও সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, পানিবন্দি লক্ষাধিক মানুষ