বিভক্ত হয়ে পড়েছে ইসরাইলি মন্ত্রিসভা

গাজায় ১৫ হাজারের বেশি শিশু নিহত

Daily Inqilab ইনকিলাব ডেস্ক

১৭ মে ২০২৪, ১২:১০ এএম | আপডেট: ১৭ মে ২০২৪, ১২:১০ এএম

রাফায় অভিযান নিয়ে ইসরাইলকে কঠোর হুঁশিয়ারি মিশরের :: হামাসের সঙ্গে বৈঠকের পোস্ট অপসারণ, মেটার উপরে ক্ষুব্ধ মালয়েশিয়া
গাজায় প্রতিদিনই ইসরাইলি বাহিনীর হামলায় নিরীহ ফিলিস্তিনিরা প্রাণ হারাচ্ছে। এখন পর্যন্ত সেখানে ৩৫ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি প্রাণ হারিয়েছে। এর মধ্যে ১৫ হাজারের বেশিই শিশু। ফিলিস্তিনি রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। এদিকে যুদ্ধ-পরবর্তী গাজা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর অনির্দিষ্ট পরিকল্পনাকে চ্যালেঞ্জ করেছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইয়োভ গ্যালান্ট। ফলে ইসরাইলের যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভার মধ্যে যে বড় ধরনের ফাটল ধরেছে তা আর গোপন রাখা গেল না। অন্যদিকে, মিশর ও ইসরাইলের মধ্যেও উত্তেজনা ক্রমাগত বাড়তে শুরু করেছে। এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাফায় হামলার কারণে কায়রো তেল আবিবের সঙ্গে সম্পর্ক কমিয়ে আনার বিষয়ে ভাবছে।

গত ৭ অক্টোবর ইসরাইলের সীমান্তে প্রবেশ করে আকস্মিক হামলা চালায় ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস। এরপরেই গাজায় পাল্টা আক্রমণ চালায় ইসরাইল। তারপর থেকে প্রতিদিনই নিরীহ ফিলিস্তিনিদের ওপর বর্বর হামলা অব্যাহত রয়েছে। গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইসরাইলি বাহিনীর হামলায় এখন পর্যন্ত সেখানে ৩৫ হাজার ২৭২ জন ফিলিস্তিনি প্রাণ হারিয়েছেন। এছাড়া আহত হয়েছে আরও ৭৯ হাজার ২০৫ জন। গাজার উত্তরাঞ্চলে ফিলিস্তিনি সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলোর সঙ্গে ইসরাইলি বাহিনীর তীব্র লড়াই চলছে। ফিলিস্তিনি গোষ্ঠীগুলো রকেট এবং উন্নত বিস্ফোরক ডিভাইস দিয়ে অতর্কিত আক্রমণ চালাচ্ছে। ইন্টারন্যাশনাল রেসকিউ কমিটি (আইআরসি) জানিয়েছে, দক্ষিণ গাজার রাফা শহরে ইসরাইলি বাহিনীর স্থল অভিযানের কারণে খাদ্য এবং পানির সংকট তীব্র হয়ে উঠেছে। এছাড়া সেখানে পর্যাপ্ত স্যানিটেশনের অভাবও দেখা দিয়েছে। এদিকে, গাজা যুদ্ধ নিয়ে প্রতিরক্ষামন্ত্রীর একটি বক্তব্য ঘিরে বিভক্ত হয়ে পড়েছে ইসরাইলের যুদ্ধ মন্ত্রিসভা। গাজা যুদ্ধোত্তর পরিকল্পনার অভাব নিয়ে ইসরাইলি মন্ত্রিসভার এ বিভক্তি ওঠে এসেছে জনসমক্ষে। বুধবার প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইয়োভ গ্যালান্ত বলেছেন, তিনি চান না ইসরাইলি সেনাবাহিনী গাজার নিয়ন্ত্রণ নিক বা শাসনভার গ্রহণ করুক। এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘আমি পুনরায় উল্লেখ করতে চাই... আমি অবশ্যই গাজায় ইসরাইলি সেনাশাসনকে সমর্থন করব না। ইসরাইলের অবশ্যই গাজায় বেসামরিক শাসন জারি করা উচিত হবে না।’ প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে তিরস্কার করে গ্যালান্ত বলেন, গত অক্টোবর থেকে চলমান সংঘাতের শুরুর পর থেকেই আমি বিষয়টি অব্যাহতভাবে মন্ত্রিসভায় উপস্থাপন করে যাচ্ছি। কিন্তু কোনো প্রত্যুত্তর পাচ্ছি না। প্রধানমন্ত্রীকে বলেছি, একটা সিদ্ধান্ত নেন।’

অপরদিকে, প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু ইঙ্গিত দিয়েছেন যে গাজার নিরাপত্তাজনিত বিষয়গুলোতে উন্মুক্ত নিয়ন্ত্রণ রাখতে চায় ইসরাইল। তিনি এর আগে বলেছিলেন, হামাসকে পুরোদমে পরাস্ত করা ছাড়া এ সংঘাতের অবসান হবে না। গ্যালান্তকে সমর্থন করেছেন যুদ্ধ মন্ত্রিসভার আরেক সদস্য বেনি গান্তজ। তিনি বলেছেন, তিনি (গ্যালান্ত) সত্য কথা বলেছেন এবং যেকোনো মূল্যে দেশের জন্য সঠিক কাজটি করা নেতৃত্বের দায়িত্ব। জর্ডানের আম্মান থেকে আলজাজিরার সংবাদদাতা মোহাম্মদ জামজুম জানিয়েছেন, ‘সংকটময় সময়ে এটা সত্যিই ইসরাইলের যুদ্ধ মন্ত্রিসভায় বড় ধরনের বিভক্তি।’

রাফায় অভিযান নিয়ে ইসরাইলকে কঠোর হুঁশিয়ারি মিশরের : মিশরীয় সীমান্তে অবস্থিত গাজার দক্ষিণতম শহর রাফাহতে সামরিক অভিযান চালালে ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক কমানোর কথা বিবেচনা করতে পারে মিশর, একজন মিশরীয় কর্মকর্তা মার্কিন বার্তা সংস্থা সিএনএনকে বলেছেন। ‘সম্পর্কের অবনতি সহ সবকিছুই সম্ভব এবং টেবিলে রয়েছে। কিন্তু আমরা এখনও সেখানে নেই. আমরা ইসরাইলিদের সাথে কথা বলছি, ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করছি এবং ঐকমত্যে পৌঁছানোর চেষ্টা করছি,’ কর্মকর্তা বলেছেন। তিনি আরও বলেছিলেন যে, রাফাহ অপারেশনে দুই দেশের মধ্যে সমন্বয়, যা মিশর প্রকাশ্যে বিরোধিতা করেছে, ‘ভাল হয়নি। আর সে কারণেই আমরা ইসরাইলকে ভয়ঙ্কর প্রতিক্রিয়ার বিষয়ে সতর্ক করে দিয়েছি’।

সিএনএন মন্তব্যের জন্য ইসরাইলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছেও পৌঁছেছে। ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল এর আগে জানিয়েছিল যে, মিশর ইসরাইলের সাথে সম্পর্ক কমানোর কথা ভাবছে। ইসরাইল গত সপ্তাহে রাফাহতে সীমিত সামরিক অভিযান শুরু করার এবং মিশরের সাথে সীমান্তের ফিলিস্তিনি অংশ দখল করার পর এই সপ্তাহে দুই দেশ বিবাদে জড়িয়ে পড়েছিল। মিশর পরবর্তীকালে ইসরাইলের সাথে গাজায় সাহায্য বিতরণের সমন্বয় করতে অস্বীকার করে। ইসরাইল বলেছে যে, তারা কখনই হামাসকে সীমান্ত ক্রসিংয়ের নিয়ন্ত্রণ নিতে দেবে না। মিশরীয় কর্মকর্তা সিএনএনকে বলেছেন যে, মিশর হামাসকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে চায় না, তবে ইসরাইলের নিয়ন্ত্রণও অগ্রহণযোগ্য। ‘এটি ফিলিস্তিনিদের হাতে থাকা দরকার; কর্মকর্তা বলেছেন, ক্রসিংটি ফিলিস্তিনি নাগরিক প্রতিরক্ষার নিয়ন্ত্রণে রাখা যেতে পারে। ‘এরা হামাস বা ফাতাহ (হামাসের প্রতিদ্ব›দ্বী দল) নয়।’ খবর আল জাজিরার।

হামাসের সঙ্গে বৈঠকের পোস্ট অপসারণ, মেটার উপরে ক্ষুব্ধ মালয়েশিয়া : মালয়েশিয়ার যোগাযোগ মন্ত্রী মঙ্গলবার ফেসবুক ও ইস্টাগ্রামের মালিক মেটা প্ল্যাটফর্মের উপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তিনি চলতি সপ্তাহে হামাস নেতার সাথে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকের সংবাদ তুলে ধরে স্থানীয় মিডিয়ার ফেসবুক পোস্টগুলো কেন সরিয়ে নেয়া হয়েছে তা ব্যাখ্যা করার দাবি করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিম সোমবার কাতারে হামাস নেতা ইসমাইল হানিয়েহের সাথে দেখা করেন এবং পরে জোর দিয়ে বলেছিলেন যে, দলটির রাজনৈতিক নেতাদের সাথে তার সুসম্পর্ক থাকলেও এর সামরিক অংশের সঙ্গে তার কোন সম্পৃক্ততা নেই। মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ মালয়েশিয়া, ফিলিস্তিনের সোচ্চার সমর্থক, আনোয়ারের বৈঠক সম্পর্কে দুটি মিডিয়া সংস্থার পোস্ট মুছে দেয়ায় এবং ফিলিস্তিনি বিষয়গুলো কভার করে তৃতীয় আউটলেটের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়ার ঘটনায় ব্যাখ্যা দিতে মেটাকে একটি চিঠি পাঠিয়েছে। ‘আমি পোস্ট অপসারণের মেটার পদক্ষেপের নিন্দা করছি, বিশেষ করে যেহেতু তারা কাতারে প্রধানমন্ত্রীর সরকারী সফরের সাথে সম্পর্কিত ছিল,’ যোগাযোগ মন্ত্রী ফাহমি ফাদজিল, যিনি সরকারের মুখপাত্রও, একটি নিয়মিত ব্রিফিংয়ে বলেছেন। ‘আমি দুঃখিত যে, এ পদক্ষেপগুলি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক একটি সংস্থা দ্বারা নেয়া হয়েছিল এবং এটি স্পষ্ট যে তারা তাদের প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করার ক্ষেত্রে মিডিয়া আউটলেটের স্বাধীনতাকে সম্মান করে না।’ মেটা তাৎক্ষণিকভাবে মালয়েশিয়ার অনুরোধে মন্তব্যের অনুরোধের জবাব দেয়নি। গত অক্টোবরে, ফাহমি সতর্ক করে দিয়েছিলেন যে, মেটা এবং অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া সংস্থাগুলো যদি তাদের প্ল্যাটফর্মে ফিলিস্তিনিপন্থী বিষয়বস্তু বøক করে তবে তাদের বিরুদ্ধে দৃঢ় ব্যবস্থা নেয়া হতে পারে। সূত্র : সিএনএন, আল-জাজিরা, রয়টার্স।


বিভাগ : ইসলামী বিশ্ব


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

কেউ মাংস দিতে চায় না, তাড়িয়ে দেয়

কেউ মাংস দিতে চায় না, তাড়িয়ে দেয়

পশু কোরবানি দিতে গিয়ে আহত ৯৪

পশু কোরবানি দিতে গিয়ে আহত ৯৪

হরিরামপুরে সাপের কামড়ে দেড় বছরের শিশুর মৃত্যু

হরিরামপুরে সাপের কামড়ে দেড় বছরের শিশুর মৃত্যু

ফৌজদারহাাটে মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত

ফৌজদারহাাটে মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত

৭ দিনে পদ্মা সেতুতে ২৫ কোটি ৭৩ লাখ টাকা টোল আদায়

৭ দিনে পদ্মা সেতুতে ২৫ কোটি ৭৩ লাখ টাকা টোল আদায়

যুদ্ধ মন্ত্রিসভা ভেঙে দিয়েছেন নেতানিয়াহু

যুদ্ধ মন্ত্রিসভা ভেঙে দিয়েছেন নেতানিয়াহু

কাদেরের বক্তব্যের জবাব দিতে ‘রুচিতে বাধে’ ফখরুলের

কাদেরের বক্তব্যের জবাব দিতে ‘রুচিতে বাধে’ ফখরুলের

ইউরোয় ‘বড় কিছুর’ লক্ষ্য রোনালদোর

ইউরোয় ‘বড় কিছুর’ লক্ষ্য রোনালদোর

ছোট পুঁজি নিয়েও আত্মবিশ্বাসী ছিলাম: শান্ত

ছোট পুঁজি নিয়েও আত্মবিশ্বাসী ছিলাম: শান্ত

কেন্দ্রীয় কৃষকলীগ নেতা সোহাগ তালুকদার আর নেই

কেন্দ্রীয় কৃষকলীগ নেতা সোহাগ তালুকদার আর নেই

জনগণের মধ্যে ‘ঈদের আনন্দ নেই: মির্জা

জনগণের মধ্যে ‘ঈদের আনন্দ নেই: মির্জা

ঈদ জামাতে মাথা ঘুরে পড়ে গেলেন আ জ ম নাছির

ঈদ জামাতে মাথা ঘুরে পড়ে গেলেন আ জ ম নাছির

সাড়ে ৩টার মধ্যে ৮০ শতাংশ বর্জ্য পরিষ্কার করেছে চসিক

সাড়ে ৩টার মধ্যে ৮০ শতাংশ বর্জ্য পরিষ্কার করেছে চসিক

মুসল্লীদের সাথে ভিজে ঈদ জামাতে শরীক হলেন সিসিক মেয়র আনোয়ারুজ্জামান

মুসল্লীদের সাথে ভিজে ঈদ জামাতে শরীক হলেন সিসিক মেয়র আনোয়ারুজ্জামান

ঈদ মোবারক

ঈদ মোবারক

বৃষ্টির তান্ডবে সিলেটে ঈদ উৎসবের সর্বনাশ : পশু জবাইয়ের আমেজে ভাটা

বৃষ্টির তান্ডবে সিলেটে ঈদ উৎসবের সর্বনাশ : পশু জবাইয়ের আমেজে ভাটা

শাসকগোষ্ঠী উল্লাসের ঈদ করছে আর বিএনপি নেতাকর্মীদের বাসায় চলছে শোকের মাতম : রিজভী

শাসকগোষ্ঠী উল্লাসের ঈদ করছে আর বিএনপি নেতাকর্মীদের বাসায় চলছে শোকের মাতম : রিজভী

ঈদের দিনেও রাজধানী ছেড়ে বাড়ি যাচ্ছেন মানুষ

ঈদের দিনেও রাজধানী ছেড়ে বাড়ি যাচ্ছেন মানুষ

কুড়িগ্রামে কচুক্ষেতে মিললো কীটনাশক ব্যবসায়ীর গলা কাটা লাশ

কুড়িগ্রামে কচুক্ষেতে মিললো কীটনাশক ব্যবসায়ীর গলা কাটা লাশ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আপন দুই ভাই নিহত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আপন দুই ভাই নিহত