যুদ্ধবিরতি চায় যুক্তরাষ্ট্র, বৈশ্বিক মিত্ররা

গাজায় ইসরাইলের হামলায় নিহত ৬৮

Daily Inqilab ইনকিলাব ডেস্ক

০৭ জুন ২০২৪, ১২:১২ এএম | আপডেট: ০৭ জুন ২০২৪, ১২:১২ এএম

জাতিসংঘের স্কুলে হামলায় নিহত ৪০ :: ফাতাহর সঙ্গে আলোচনায় বসার ইঙ্গিত হামাসের :: বাইডেনের গাজা নীতির প্রতিবাদে এবার মার্কিন ইহুদি সেনা কর্মকর্তার পদত্যাগ :: লোহিত সাগরে গ্রিস জাহাজে হুথি বিদ্রোহীদের হামলা
একটি বিবৃতিতে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ১৬ টি সহযোগী দেশ বলেছে যে, তারা ৩১ মে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের দ্বারা প্রস্তাবিত যুদ্ধবিরতি এবং বন্দীদের মুক্তি চুক্তিকে ‘সম্পূর্ণ সমর্থন’ করে। গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৬৮ ফিলিস্তিনি নিহত ও ২৩৫ জন আহত হয়েছে। মধ্য গাজার নুসেইরাত শরণার্থী শিবিরে বাস্তুচ্যুত লোকদের এবং বাড়িঘরে আশ্রয় দেয়ার জন্য একটি স্কুলে ইসরাইলি হামলায় কমপক্ষে ৪০ জন নিহত এবং কয়েক ডজন আহত হয়েছে। ইসরাইলি সামরিক বাহিনী নিশ্চিত করেছে যে, তাদের যুদ্ধবিমানগুলো ওই এলাকায় জাতিসংঘের একটি স্কুলকে লক্ষ্য করে হামলা চালিয়েছে।
এদিকে, স্পেন বলেছে যে, তারা আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে দক্ষিণ আফ্রিকার দায়ের করা মামলায় যোগ দেবে, যা ইসরাইলকে গাজার যুদ্ধে গণহত্যা কনভেনশনের অধীনে তার বাধ্যবাধকতা লঙ্ঘনের জন্য অভিযুক্ত করেছে। গত ৭ অক্টোবর থেকে গাজায় ইসরাইলের নৃশংস হামলায় কমপক্ষে ৩৬,৬৫৪ জন নিহত এবং ৮৩,৩০৯ জন আহত হয়েছে। হামাসের হামলায় ইসরাইলে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১,১৩৯, যেখানে কয়েক ডজন লোক এখনও গাজায় বন্দী রয়েছে।
জাতিসংঘের স্কুলে হামলায় নিহত ৪০ : ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকার মধ্যাঞ্চলে অবস্থিত জাতিসংঘ পরিচালিত একটি বিদ্যালয়ে হামলা চালিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী। এতে ৪০ জন নিহতের খবর জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা। গতকাল ইসরাইলি বাহিনী জানিয়েছে, বিদ্যালয়টি ‘হামাসের প্রাঙ্গণ’ হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছিল।
এ ঘটনায় একটি বিবৃতি দিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী। এতে বলা হয়েছে, নুসেইরাত এলাকায় ফিলিস্তিনি শরণার্থীদের জন্য জাতিসংঘের ত্রাণ ও কর্মবিষয়ক সংস্থা (ইউএনআরডবিøউএ) পরিচালিত বিদ্যালয়ে হামলা চালিয়েছে ইসরাইলি যুদ্ধবিমানগুলো। হামলায় ‘বেশ কয়েকজন সন্ত্রাসীর’ প্রাণ গেছে। এই ভয়াবহ হামলা নিয়ে ক্ষুব্ধ ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস। তারা জানিয়েছে, গাজায় যুদ্ধের স্থায়ী সমাপ্তি এবং তাদের যুদ্ধবিরতি প্রস্তাবে সম্মত হওয়ার জন্য ইসরাইলি সেনা প্রত্যাহার করা প্রয়োজন। যদিও পাল্টা ইসরাইলের প্রতিরক্ষা প্রধান জানিয়েছেন, যুদ্ধবিরতির আলোচনার সময় হামলা থামানো হবে না।
ফাতাহর সঙ্গে আলোচনায় বসার ইঙ্গিত হামাসের : গাজায় চলমান ইসরাইলি আগ্রাসন অবসানের পর ফিলিস্তিনের গাজা ও পশ্চিম তীরের শাসক গোষ্ঠী একীভ‚ত হতে আলোচনায় বসতে পারে। পাঁচটি ফিলিস্তিনি সূত্র জানিয়েছে, দুই গোষ্ঠীর মধ্যে গভীর বিভাজন পুনর্মিলনের আলোচনার অগ্রগতিকে সীমিত করতে পারে। তবে এসব বৈঠক ইঙ্গিত দিচ্ছে গাজায় যুদ্ধ শেষ হলেও হামাসের প্রভাব থাকবে।
গাজা ও পশ্চিম তীরের কর্মকর্তারা বলেছেন, জুনের মাঝামাঝি চীনে এই আলোচনা শুরু হতে পারে। এর আগে এই ইস্যুতে দুটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে, একটি চীনে এবং অপরটি রাশিয়া। এই বিষয়ে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। আন্তর্জাতিক মধ্যস্থতাকারীরা যখন গাজায় হামাস-ইসরাইলের একটি যুদ্ধবিরতির চুক্তি নিয়ে আলোচনার চেষ্টা করছেন তখন চীনে হামাস-ফাতাহ বৈঠক আয়োজনের খবর সামনে এলো। উভয় প্রক্রিয়াতেই গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে উঠে আসছে যুদ্ধের পর কীভাবে উপত্যকাটি শাসন করা হবে। একাধিক পশ্চিমা দেশ হামাসকে একটি সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে মনে করে। ৭ অক্টোবর ইসরাইলে তাদের গোষ্ঠীটির হামলায় ১২০০ জন নিহতের আগে থেকেই পশ্চিমা দেশগুলো থেকে বিচ্ছিন্ন ছিল। এই হামলার পরই গাজায় আগ্রাসন শুরু করে ইসরাইল। ইসরাইলি অভিযানে হামাসের সামরিক শক্তির ক্ষয় হয়েছে। তবে ইসরাইলের দখলে থাকা পশ্চিম তীরের শাসক গোষ্ঠী ফাতাহ দলের সঙ্গে হামাস কর্মকর্তাদের বৈঠক ইঙ্গিত দিচ্ছে যুদ্ধের পরে ফিলিস্তিনি ভ‚খÐ নিয়ে তাদের লক্ষ্য সম্পর্কে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক হামাস সূত্র এমনটিই জানিয়েছে রয়টার্সকে।
যুদ্ধ শুরুর পূর্বে গাজা শাসন করছিল হামাস। সূত্র মতে, গোষ্ঠীটি স্বীকার করছে এক সময় গাজায় যুদ্ধ শেষ হলে ফিলিস্তিনি ভ‚খÐে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি যে নতুন সরকার হবে, সেটির অংশ তারা হতে পারবে না।ওই সূত্র ও হামাসের সিনিয়র কর্মকর্তা বাসিম নাইম বলেছেন, তারা চায় পশ্চিম তীর ও গাজায় একটি নতুন টেকনোক্র্যাটি প্রশাসন গড়ে তুলতে ফাতাহ রাজি হোক। যা হবে একটি বৃহত্তর রাজনৈতিক সমঝোতা।
বাইডেনের গাজা নীতির প্রতিবাদে এবার মার্কিন ইহুদি সেনা কর্মকর্তার পদত্যাগ : গাজায় ইসরাইলের নৃশংস হামলায় সমর্থন দেয়ার প্রতিবাদে এবার মার্কিন সেনাবাহিনী থেকে পদত্যাগ করলেন একজন ইহুদি আমেরিকান সেনা কর্মকর্তা মেজর হ্যারিসন মান। তিনি দাবি করেছেন যে, ইসরাইলকে যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থন হাজার হাজার নিরীহ ফিলিস্তিনিদের ‘হত্যা ও অনাহারে রাখায়’ সহায়তা করেছে।
গত ১৩ বছর ধরে মার্কিন সেনাবাহিনীতে কর্মরত মান, মধ্যপ্রাচ্য ব্যুরোতে কাজ করেছিলেন। তিনি গত নভেম্বরে তার পদত্যাগপত্র জমা দেন এবং সামরিক বাহিনী থেকে তার বিচ্ছেদ সোমবার কার্যকর হয়। সিবিএস নিউজের সিনিয়র জাতীয় সংবাদদাতা জিম অ্যাক্সেলরড তার পদত্যাগের পর তার প্রথম টেলিভিশন সাক্ষাতকার গ্রহণ করেন। ইসরাইলের যুদ্ধে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থনের প্রতিবাদে ছয়জনেরও বেশি মার্কিন সরকারী কর্মকর্তা প্রকাশ্যে পদত্যাগ করেছেন, তবে সামরিক ও গোয়েন্দা বিভাগ থেকে হ্যারিসন মানই প্রথম। ‘আমি বুঝতে পারি যে লোকেরা যদি রাগ করে যে আমি এই বিষয়ে কথা বলার সিদ্ধান্ত নিয়েছি, তবে আমি মনে করি না যে আমার কাছে খুব বেশি পছন্দ ছিল,’ মান অ্যাক্সেলরডকে বলেছিলেন। প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা সংস্থার একজন কর্মকর্তা সিবিএস নিউজকে নিশ্চিত করেছেন যে, মানকে এজেন্সির দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। ‘কর্মচারীদের পদত্যাগ করা ডিআইএ-তে একটি নিয়মিত ঘটনা কারণ তারা অন্যান্য নিয়োগকর্তাদের মধ্যে থাকে এবং কর্মচারীরা যেকোনও কারণ এবং অনুপ্রেরণার জন্য তাদের পদ থেকে পদত্যাগ করেন,’ কর্মকর্তা বলেছেন।
লোহিত সাগরে গ্রিস জাহাজে হুথি বিদ্রোহীদের হামলা : ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীরা লোহিত সাগরে গ্রিসের মালিকানাধীন একটি জাহাজে হামলা চালিয়েছে। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, এটা প্রথমবার নয় এর আগেও লোহিত সাগরে বিভিন্ন জাহাজে হামলার ঘটনা ঘটেছে। জানা গেছে, জাহাজটি রওনা দিয়েছিল ভারতের মুরমুগাও থেকে মিশরের সুয়েজ খালের উদ্দেশে। তবে জাহাজটির নাম জানায় নি ব্রিটিশ নিরাপত্তা সংস্থা। এই সংস্থা জানিয়েছে, এটি পূর্ব আফ্রিকার ইরিত্রিয়া থেকে ১১৮ নটিক্যাল মাইল (প্রায় ২১৮ কিমি) পূর্বে থেমেছিল। তবে জাহাজ এবং এর ক্রুদের অবস্থা এখনও পর্যন্ত অজানা।
হুথিরা বুধবার (৫ জুন) লোহিত সাগর এবং আরব সাগরে তিনটি জাহাজে ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলা চালিয়েছে। হুথির সামরিক মুখপাত্র ইয়াহিয়া সারি জানিয়েছেন এর মধ্যে একটি মার্কিন জাহাজও রয়েছে। তবে গাজায় বোমা হামলা শুরুর পরপরই উত্তেজনা ছড়ায় লোহিত সাগরে। কারণ বিদ্রোহী গোষ্ঠী হুথি সেখানে বাণিজ্যিক জাহাজ লক্ষ্য করে হামলা শুরু করেছে। জানা গেছে, ফিলিস্তিনিদের পক্ষে সমর্থন জানাতেই সেখানে হামলা শুরুর কথা জানিয়েছিল হুথি বিদ্রোহীরা। তাদের দাবি, গাজায় যুদ্ধবিরতির পাশাপাশি মানবিক সহায়তা প্রবেশ চালু রাখতে হবে। সূত্র : আল-জাজিরা, রয়টার্স, সিবিএস নিউজ।


বিভাগ : ইসলামী বিশ্ব


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

টেকনাফে বিজিবির পৃথক অভিযানে দেড় লক্ষ ইয়াবা উদ্ধার, আটক ১

টেকনাফে বিজিবির পৃথক অভিযানে দেড় লক্ষ ইয়াবা উদ্ধার, আটক ১

আইরিশদের বিপক্ষে জয়ের জন্য পাকিস্তানের দরকার ১০৭ রান

আইরিশদের বিপক্ষে জয়ের জন্য পাকিস্তানের দরকার ১০৭ রান

দেশের নিরাপত্তার বিধানে সশস্ত্র বাহিনী প্রস্তুত : হানিফ

দেশের নিরাপত্তার বিধানে সশস্ত্র বাহিনী প্রস্তুত : হানিফ

সেন্ট মার্টিন দ্বীপ নিয়ে স্বার্থান্বেষী মহলের গুজবে বিভ্রান্ত হবেন না : আইএসপিআর

সেন্ট মার্টিন দ্বীপ নিয়ে স্বার্থান্বেষী মহলের গুজবে বিভ্রান্ত হবেন না : আইএসপিআর

দিনাজপুরে গোর-এ-শহীদ ঈদগাহ মাঠের নিরাপত্তায় র‌্যাব

দিনাজপুরে গোর-এ-শহীদ ঈদগাহ মাঠের নিরাপত্তায় র‌্যাব

ঘুরে দাঁড়িয়ে পোল্যান্ডকে হারাল নেদারল্যান্ডস

ঘুরে দাঁড়িয়ে পোল্যান্ডকে হারাল নেদারল্যান্ডস

ঈদের দিন ঢাকাসহ চার বিভাগে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা

ঈদের দিন ঢাকাসহ চার বিভাগে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা

পুরো জাতিকে হতাশ করায় অনুতপ্ত ম্যাথিউস

পুরো জাতিকে হতাশ করায় অনুতপ্ত ম্যাথিউস

ঈদে ভ্যাপসা গরম, কোথাও কোথাও বৃষ্টিপাতের আভাস

ঈদে ভ্যাপসা গরম, কোথাও কোথাও বৃষ্টিপাতের আভাস

ওয়েস্ট ইন্ডিজ-আফগানিস্তান ম্যাচ দিয়ে শেষ হচ্ছে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব

ওয়েস্ট ইন্ডিজ-আফগানিস্তান ম্যাচ দিয়ে শেষ হচ্ছে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব

রাত পোহালেই পবিত্র ঈদুল আজহা

রাত পোহালেই পবিত্র ঈদুল আজহা

প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী চৌকস বাহিনী হিসেবে বিশ্ব-দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে : সেনা প্রধান

প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী চৌকস বাহিনী হিসেবে বিশ্ব-দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে : সেনা প্রধান

ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে বেড়েছে রেমিট্যান্স প্রবাহ

ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে বেড়েছে রেমিট্যান্স প্রবাহ

কোপায় অর্জেন্টিনা চূড়ান্ত দলে কারা

কোপায় অর্জেন্টিনা চূড়ান্ত দলে কারা

ঈদুল আজহা উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট

ঈদুল আজহা উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট

পিকআপ ভ্যানের পানের ঝুঁড়িতে ৫৪ হাজার ইয়াবা, আটক ১

পিকআপ ভ্যানের পানের ঝুঁড়িতে ৫৪ হাজার ইয়াবা, আটক ১

নেপাল বাধা টপকে সুপার এইটে যেতে মরিয়া বাংলাদেশ

নেপাল বাধা টপকে সুপার এইটে যেতে মরিয়া বাংলাদেশ

সউদী আরবের সঙ্গে মিল রেখে লালমনিরহাটে অর্ধশতাধিক পরিবারের ঈদুল আজহা উদযাপন

সউদী আরবের সঙ্গে মিল রেখে লালমনিরহাটে অর্ধশতাধিক পরিবারের ঈদুল আজহা উদযাপন

ডিএনসিসির নির্ধারিত স্থানে গরু কোরবানি দিলে ১ হাজার টাকা প্রণোদনা : মেয়র আতিকুল ইসলাম

ডিএনসিসির নির্ধারিত স্থানে গরু কোরবানি দিলে ১ হাজার টাকা প্রণোদনা : মেয়র আতিকুল ইসলাম

ঈদের সকালে রাজধানীর যেসব সড়ক বন্ধ থাকবে : ডিএমপি

ঈদের সকালে রাজধানীর যেসব সড়ক বন্ধ থাকবে : ডিএমপি