মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় শঙ্কা রূপপুর বিদ্যুৎকেন্দ্র বাস্তবায়ন নিয়ে

Daily Inqilab ইনকিলাব

২৭ এপ্রিল ২০২৩, ১০:৪৭ পিএম | আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০২৩, ১১:১৬ পিএম

রাশিয়া-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্কের টানাপোড়েনে বেকায়দায় পড়েছে বাংলাদেশ। মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পরমাণু সংস্থা রোসাটম। এতে অনিশ্চয়তায় প্রতিষ্ঠানটির তত্ত¡াবধানে বাংলাদেশে নির্মাণাধীন রূপপুর বিদ্যুৎকেন্দ্র বাস্তবায়ন। তবে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা প্রকল্পে কোনো প্রভাব ফেলবে না, দাবি ঢাকা ও মস্কোর। চলতি মাসের ১২ এপ্রিল রোসাটমের উপর দেওয়া মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় রুপপুর পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণে বিরূপ প্রভাব পড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। মার্কিন পররাষ্ট্রদপ্তরের ঘোষণায় বলা হয়, ইউক্রেন যুদ্ধে মদদ দেয়ায় নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মূল ঠিকাদার রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান রোসাটমকে। এরফলে দেশের সবচেয়ে ব্যয়বহুল রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র প্রকল্পটি কি ভবিষ্যতে থামকে যাবে এমনটা নারাজ বাংলাদেশ ও রাশিয়া দুপক্ষই। এক মেইলে রোসাটমের দাবি, প্রকল্পের কাজ বাধাগ্রস্ত হবার কোনো সুযোগ নেই। বরং রূপপুরের প্রথম ইউনিটের জ্বালানি ইউরেনিয়াম সরবরাহের প্রস্তুতি নিচ্ছে রাশিয়া। আর খুদেবার্তায় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জানান, যতই বাধা আসুক আলোচনা করে সমাধান করা হবে। ইতোমধ্যেই রূপপুরের অবকাঠামোগত প্রায় ৮০ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে। বাংলাদেশের পাবনা জেলার ঈশ্বরদী উপজেলার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র হচ্ছে ২.৪ গিগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র। এটি দেশের প্রথম পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র যার প্রথম ইউনিট চলতি বছরে বিদ্যুৎ উৎপাদন কার্যক্রম শুরু করবে। এই বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণে প্রাথমিকভাবে এক লাখ ১৩ হাজার কোটি টাকারও বেশি খরচ ধরা হয়েছে।
ইউক্রেনে হামলার কারণে মস্কোকে আরও চাপে ফেলতে চায় ওয়াশিংটন। তারই ধারাবাহিকতায় রাশিয়ার ৮০ প্রতিষ্ঠান ও একক ব্যক্তির বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সদ্য দেওয়া এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়েছে রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় অন্যতম প্রতিষ্ঠান রোসাটম। এতে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে বাংলাদেশে রোসাটমের তত্ত¡াবধানে নির্মাণাধীন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র বাস্তবায়ন নিয়ে। স¤প্রতি রোসাটমের ওপর নিষেধাজ্ঞা নিয়ে ঢাকাকে ক‚টনৈতিক পত্র পাঠিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস। গত ১২ এপ্রিল ৮০ প্রতিষ্ঠান ও একক ব্যক্তির ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়ে তালিকা প্রকাশ করা হয়। এ তালিকায় থাকা প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তির যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্র দেশে থাকা সম্পদ, ব্যাংক হিসাবসহ সব সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। নিষেধাজ্ঞার তালিকায় থাকা রাশিয়ার অন্যতম ধনকুবের ও ওলিগার আলিসের উসমানোভের বিশ্বের অন্যতম দামি প্রমোদতরী ইতোমধ্যে জব্দ করেছে জার্মানি।
রোসাটমের সংশ্লিষ্ট পাঁচটি প্রতিষ্ঠান এবং রোসাটম ওভারসিসের প্রেসিডেন্ট ইভজেনি পাকেরমানভের বিরুদ্ধেও নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। নিষেধাজ্ঞায় থাকা রোসাটমের প্রতিষ্ঠানগুলো হলো– দ্য ফেডারেল সায়েন্টিফিক অ্যান্ড প্রোডাক্টশন সেন্টার এম.ভি. প্রোটসেনকো স্টার্ট প্রোডাকশন অ্যাসোসিয়েশন, রোসাটম ওভারসিস, কভরভ মেকানিক্যাল প্লান্ট (কেএমজেড), ভ্লাদিমির টচম্যাশ এবং জেএসসি নাউচানো-ইসলেডোভাটেলস্কি আই কনস্ট্রাক্টরস্কাই ইনস্টিটিউট মনটাজনয় টেকনোলজি অ্যাটোমসট্রয়। দ্য ফেডারেল সায়েন্টিফিক অ্যান্ড প্রোডাক্টশন সেন্টার এম.ভি. প্রোটসেনকো স্টার্ট প্রোডাকশন অ্যাসোসিয়েশন প্রতিষ্ঠানকে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে রাশিয়ার অর্থনীতিতে প্রতিরক্ষা এবং এ-সংক্রান্ত পণ্য সহযোগিতার জন্য। এ প্রতিষ্ঠানটি পরমাণু নিয়ে একটি জটিল প্রযুক্তি উৎপাদন করেছে বলে বিজ্ঞাপন দিয়েছে।
মার্কিন নথিতে বলা হয়েছে, রোসাটম ওভারসিস প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে রাশিয়ার সরকারের হয়ে কাজ করছে। প্রতিষ্ঠানটি রোসাটমের রাষ্ট্রীয় লক্ষ্য পূরণে কাজ করছে এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্র উন্নয়ন, নির্মাণ এবং রক্ষণাবেক্ষণে কাজ করছে। প্রতিষ্ঠানটি বৈশ্বিক পরমাণু বাজারে রাশিয়াকে শীর্ষস্থান ধরে রাখতে সহযোগিতা করছে। এ প্রতিষ্ঠানের প্রেসিডেন্ট হওয়ার জন্য ইভজেনি পাকেরমানভের বিরুদ্ধেও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। ভ্লাদিমির টচম্যাশ ও কভরভ মেকানিক্যাল প্লান্ট (কেএমজেড) পরমাণু বিদ্যুৎ ও পরমাণু সংক্রান্ত সামগ্রী ও সরঞ্জাম উৎপাদন করে। যা প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে রাশিয়া সরকারকে সহযোগিতা করছে। ফলে তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। মার্কিন নথিতে বলা হয়, জেএসসি নাউচানো-ইসলেডোভাটেলস্কি আই কনস্ট্রাক্টরস্কাই ইনস্টিটিউট মনটাজনয় টেকনোলজি অ্যাটোমসট্রয় পরমাণু সংক্রান্ত প্রযুক্তি উন্নয়ন, নতুন অবকাঠামো নির্বাচনসহ ডিকমিশনিংয়ের কাজে জড়িত। যা প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে রাশিয়া সরকারকে সহযোগিতা করছে। ফলে তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় ও ক‚টনৈতিক সূত্রগুলো বলছে, রোসাটমের যে প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে, তাদের সঙ্গে কাজ না করতে পারলে রূপপুর পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্রের কাজ কে এগিয়ে নেবে, তা এখন বড় প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ ৭০ শতাংশের ওপর কাজ সম্পন্ন হলেও এখনও অনেক পণ্য ও যন্ত্রাংশ আমদানি বাকি রয়েছে। নিষেধাজ্ঞার কারণে এসব সামগ্রী কীভাবে এবং কোথা থেকে জোগাড় হবে তা অনিশ্চিত। শুধু এক রুশ জাহাজের নিষেধাজ্ঞার কারণে পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্রের কিছু সরঞ্জাম পেতে প্রায় তিন মাস দেরি হয়েছে। এখন এ নিষেধাজ্ঞা প্রকল্পটি যথাসময়ে বাস্তবায়নে বাধা হিসেবে কাজ করতে পারে। সমস্যা নিয়ে দরকষাকষি করা ছাড়া আর কোনো উপায় নেই বলে মনে করছেন খাত-সংশ্লিষ্টরা।
মার্কিন এ নিষেধাজ্ঞা প্রয়োগের বিষয়ে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্র দেশে নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা সব প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তির সম্পদ বাজেয়াপ্ত করা হবে। সেই সঙ্গে নিষেধাজ্ঞায় থাকা কোনো প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তির সঙ্গে সুবিধা, তাদের ব্যবসায় অবদান রাখা, অর্থায়ন, পণ্য ক্রয় বা সেবাগ্রহণ করে থাকলে সেই প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তি একই ধরনের নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়বে। তবে কেউ যদি যুক্তরাষ্ট্রের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ থেকে লাইসেন্স নিয়ে থাকে অথবা অর্থ মন্ত্রণালয়ের নির্দিষ্ট কার্যালয় থেকে অব্যাহতি পেয়ে থাকে, তাহলে সেই প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তির ওপর এ নিষেধাজ্ঞা বলবত হবে না। রোসাটমের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় বাংলাদেশে কি প্রভাব পড়বে– জানতে চাইলে ঢাকার মার্কিন দূতাবাসের মুখপাত্র শন ম্যাকিনটোশ সরাসরি কোনো জবাব দেননি। এক ই-মেইলে তিনি সমকালকে জানান, নিয়মিত কাজের অংশ হিসেবে ঢাকার মার্কিন দূতাবাস ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নিজেদের মধ্যে ক‚টনৈতিক পত্র আদান-প্রদান করে থাকে। ক‚টনৈতিক পত্রের বিষয়বস্তু প্রকাশ করা হয় না। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস থেকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে রোসাটমের ওপর নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি নিয়ে যে ক‚টনৈতিক পত্র দেওয়া হয়েছে, সেখানে রূপপুরের অর্থ পরিশোধের বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে আলোচনা করতে চায় তারা। এ বিষয়গুলো সংশ্লিষ্টদের জানাতে গত মঙ্গলবার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তারা সিদ্ধান্ত নেবে পরবর্তী পদক্ষেপ নিয়ে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দ্বিপক্ষীয় রাজনৈতিক সম্পর্ক ঠিক রাখতে কাজ করবে এবং করছে। বাংলাদেশ কখনও কারও কাছে দেনায় পড়েনি। কিন্তু রাশিয়ার ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে বাংলাদেশ দেনায় পড়ে গিয়েছিল। তা কাটিয়ে উঠতে চীনের মাধ্যমে রাশিয়ার দেনা পরিশোধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা বলেন, রূপপুরের অর্থ পরিশোধের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনার বিষয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।
দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় একক প্রকল্প রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র। ১ হাজার ২০০ মেগাওয়াটের দুটি ইউনিট নির্মাণ করা হচ্ছে। খরচ হচ্ছে প্রায় ১ লাখ ১৪ হাজার কোটি টাকা। এর মধ্যে সরকার দেবে ২২ হাজার ৫২ কোটি ৯১ লাখ ২৭ হাজার টাকা। রাশিয়া থেকে ঋণ সহায়তা হিসেবে আসছে ৯১ হাজার ৪০ কোটি টাকা। রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান রোসাটমের সার্বিক তত্ত¡াবধানে রূপপুর পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণকাজ এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান অ্যাটোমসট্রয় এক্সপোর্ট। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের প্রথম পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্রের কাজের অগ্রগতি ৭০ শতাংশের বেশি। ২০২৪ সালের শেষ দিকে উৎপাদনে আসতে পারে প্রথম ইউনিট। দ্বিতীয় ইউনিট ২০২৫ সালে। এ প্রকল্পের দুটি ইউনিটে ব্যবহৃত হবে টিজেডভি ১২০০-২ টার্বাইন জেনারেটর। এগুলোর নকশা প্রণয়ন ও নির্মাণ করেছে রুশ প্রতিষ্ঠান পাওয়ার মেশিন্স। মোট ২ হাজার ৪০০ মেগাওয়াট ক্ষমতার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের দুটি ইউনিট স্থাপিত হচ্ছে থ্রিপ্লাস বা তৃতীয় প্রজন্মের ভিভিইআর-১২০০ রিয়্যাক্টর দিয়ে। ##

 

 


বিভাগ : জাতীয়


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

ঘূর্ণিঝড় রেমাল : সব মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল

ঘূর্ণিঝড় রেমাল : সব মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল

ফের পুতিনের বিরুদ্ধে আপত্তিকর বক্তব্য বাইডেনের

ফের পুতিনের বিরুদ্ধে আপত্তিকর বক্তব্য বাইডেনের

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ

ভয়েস চেঞ্জ অ্যাপে গলা বদলে ৭ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

ভয়েস চেঞ্জ অ্যাপে গলা বদলে ৭ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’ : বন্ধ হলো বরিশাল বিমানবন্দরের সব কার্যক্রম

ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’ : বন্ধ হলো বরিশাল বিমানবন্দরের সব কার্যক্রম

হাতিয়ার সঙ্গে সারা দেশের নৌ চলাচল বন্ধ

হাতিয়ার সঙ্গে সারা দেশের নৌ চলাচল বন্ধ

রয়েল এয়ার ফোর্সের বিমান বিধ্বস্ত, পাইলট নিহত

রয়েল এয়ার ফোর্সের বিমান বিধ্বস্ত, পাইলট নিহত

কুয়াকাটায় আবাসিক হোটেলগুলোকে আশ্রয়স্থল হিসাবে খুলে দেয়া হয়েছে

কুয়াকাটায় আবাসিক হোটেলগুলোকে আশ্রয়স্থল হিসাবে খুলে দেয়া হয়েছে

রাজকোটে গেমিং জোন অগ্নিকাণ্ডে নিহত বেড়ে ৩২

রাজকোটে গেমিং জোন অগ্নিকাণ্ডে নিহত বেড়ে ৩২

ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে পশ্চিমবঙ্গে রেড অ্যালার্ট জারি

ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে পশ্চিমবঙ্গে রেড অ্যালার্ট জারি

উপকূলে রেমালের প্রভাব, আতঙ্ক জনমনে

উপকূলে রেমালের প্রভাব, আতঙ্ক জনমনে

যশোরে 'রেমাল' মোকাবিলায় ২২৪৫ আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত

যশোরে 'রেমাল' মোকাবিলায় ২২৪৫ আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত

উখিয়ায় ১০ কোটি টাকার ক্রিস্টাল মেথসহ ১ রোহিঙ্গা যুবক আটক

উখিয়ায় ১০ কোটি টাকার ক্রিস্টাল মেথসহ ১ রোহিঙ্গা যুবক আটক

নোয়াখালীতে ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে জখম করায় তরুণকে পিটিয়ে হত্যা

নোয়াখালীতে ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে জখম করায় তরুণকে পিটিয়ে হত্যা

গরমে সিদ্ধ হচ্ছে উত্তর ভারত, তাপমাত্রা ৫০ ডিগ্রি ছুঁই ছুঁই

গরমে সিদ্ধ হচ্ছে উত্তর ভারত, তাপমাত্রা ৫০ ডিগ্রি ছুঁই ছুঁই

সিদ্ধিরগঞ্জে ময়লার গাড়ির ধাক্কায় গর্ভবতী নারী নিহত

সিদ্ধিরগঞ্জে ময়লার গাড়ির ধাক্কায় গর্ভবতী নারী নিহত

চিনে রাষ্ট্রিয়ভাবে মসজিদের আকৃতিকে প্যাগোডার আকৃতিতে বদলে ফেলা হয়

চিনে রাষ্ট্রিয়ভাবে মসজিদের আকৃতিকে প্যাগোডার আকৃতিতে বদলে ফেলা হয়

আজ গুলশানে দেখা মিলবে তুর্কি অভিনেতা বুরাকের

আজ গুলশানে দেখা মিলবে তুর্কি অভিনেতা বুরাকের

অর্ধশত শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, শিক্ষক গ্রেপ্তার

অর্ধশত শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, শিক্ষক গ্রেপ্তার

বাস্তবতার ভিত্তিতে ইউক্রেনের সঙ্গে আলোচনা করবে রাশিয়া: পুতিন

বাস্তবতার ভিত্তিতে ইউক্রেনের সঙ্গে আলোচনা করবে রাশিয়া: পুতিন