ভাষা শহীদ ভাষা সৈনিক লও সালাম

Daily Inqilab ইনকিলাব ডেস্ক :

০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২:০১ এএম | আপডেট: ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২:০১ এএম

ভাষা আন্দোলন আমাদের স্বাধীকার আন্দোলনের প্রেরণা। ৫২’র ভাষা আন্দোলন বাঙালী জাতীয়তাবাদের প্রথম স্ফূরণ। ভাষা আন্দোলনে ১৯৫২ সালের ফেব্রুয়ারি ছিল অগ্নিগর্ভ। তারই ধারাবাহিকতায় ৫২’র ৪ ফেব্রুয়ারি ঢাকার চেহারা এক ভিন্নরূপ পরিগ্রহ করে। সেদিন সারা ঢাকাজুড়েই ছিল মিছিলের স্রোত। প্রতিবাদী চেতনার এক আলোকময় বিচ্ছুরণ। বলা যায় এইদিনে মিছিলে মিছিলে ঢেকেছিলো ঢাকা।

বাংলাভাষা ও সংস্কৃতির বিরুদ্ধে যে ষড়যন্ত্র তা শুরু হয়েছিল পাকিস্তান জন্মের আগেই। আর বিশ্বের ইতিহাসে ভাষার আন্দোলন শুধু এদেশেই হয়েছে। আর কোন দেশে মায়ের মুখের ভাষা নিয়ে এমন আন্দোলন হয়নি।

তদানীন্তন পূর্ব বাংলার সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলমানরা পাকিস্তান আন্দোলন সমর্থন করেছিল এটা ঐতিহাসিক সত্য। নানা শোষণ বঞ্চনার শিকার হয়ে তারাই আবার পাকিস্তানের দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নিল। এরপর এলো মাতৃভাষা বাংলা ভাষার ওপর আক্রমণ। গর্জে উঠল সমগ্র বাঙালী সমাজ।

৪ ফেব্রুয়ারি দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে শুরু হয়েছিল প্রতিবাদী জনতার প্রতিবাদী মিছিল। এ দিনের বেশ কিছু ছবি অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম ক্যামেরাবন্দী করেন। যা আজো এক ঐতিহাসিক দলিল হয়ে আছে।

এসব ছবিতে দেখা যায়, ঢাকায় আজিমপুরের দিক থেকে আসা ইডেন কলেজের ছাত্রীদের প্রতিবাদ দিবসের শোভাযাত্রা। হাবিবুর রহমান শেলীর নেতৃত্বে প্রতিবাদ দিবসের মিছিল। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সামনের রাস্তায় সংগ্রামী ছাত্রছাত্রীদের প্রতিবাদ দিবসের শোভাযাত্রা। ঢাকার নবাবপুর রোডে স্কুল-কলেজের ছাত্রীদের প্রতিবাদ দিবসের শোভাযাত্রা ইত্যাদি।

কিংবদন্তি ভাষা সংগ্রামী আবদুল মতিন প্রতিবাদ দিবসের শোভাযাত্রা সম্পর্কে এক সাক্ষাৎকারে জানান, ১৯৫২ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি ঢাকা শহরের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রী মিছিল করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে সমবেত হবার পর এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিকেলে কর্মপরিষদের উদ্যোগে এক জনসভা অনুষ্ঠিত হয়। সেদিনের মিছিলটি ছিল বিশাল।

সভা শেষে প্রায় পাঁচ হাজার ছাত্র-ছাত্রী এক সুদীর্ঘ মিছিলে বিক্ষোভ প্রদর্শন করতে করতে সদরঘাট থেকে চকবাজার হয়ে সারা শহর প্রদক্ষিণ করে। সাধারণ মানুষ সারি বেঁধে দাঁড়িয়ে হাততালি দিয়ে এবং পুষ্পাঞ্জলির মাধ্যমে অভিনন্দন জানায়।


বিভাগ : জাতীয়


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

জেমস বন্ডের থিম সং লিখেছিলেন লানা দেল রে, তবে মনোনীত হয়নি

জেমস বন্ডের থিম সং লিখেছিলেন লানা দেল রে, তবে মনোনীত হয়নি

খালেদ মুন্নার ফোক ম্যাশআপ

খালেদ মুন্নার ফোক ম্যাশআপ

চেম্বার আদালতে আপিল করলেন ডিপজল

চেম্বার আদালতে আপিল করলেন ডিপজল

‘অ্যানিমেল’ সিক্যুয়েলে রণবীরের প্রতিপক্ষ ভিকি

‘অ্যানিমেল’ সিক্যুয়েলে রণবীরের প্রতিপক্ষ ভিকি

গানে ফিরছেন সঙ্গীতশিল্পী রিংকু

গানে ফিরছেন সঙ্গীতশিল্পী রিংকু

কোক স্টুডিও বাংলায় ওয়ারফেজের গান

কোক স্টুডিও বাংলায় ওয়ারফেজের গান

উন্নয়ন সম্ভাবনায় দক্ষিণের জনপদ

উন্নয়ন সম্ভাবনায় দক্ষিণের জনপদ

নদী রক্ষায় বড় ধরনের যুদ্ধ শুরু হয়েছে, এ যুদ্ধে আমরা বিজয়ী হব : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

নদী রক্ষায় বড় ধরনের যুদ্ধ শুরু হয়েছে, এ যুদ্ধে আমরা বিজয়ী হব : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিল দাবি, ইবি শিক্ষকদের মানববন্ধন

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিল দাবি, ইবি শিক্ষকদের মানববন্ধন

বাসের ওপর উল্টে গেল ট্রাক, ১১ জনের মৃত্যু

বাসের ওপর উল্টে গেল ট্রাক, ১১ জনের মৃত্যু

ভয়েস চেঞ্জ অ্যাপে গলা বদলে ৭ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

ভয়েস চেঞ্জ অ্যাপে গলা বদলে ৭ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

গুগল ম্যাপ দেখে গাড়ি চালিয়ে পানিতে পড়লেন ৪ পর্যটক

গুগল ম্যাপ দেখে গাড়ি চালিয়ে পানিতে পড়লেন ৪ পর্যটক

পৃথিবীর কাছাকাছি বাসযোগ্য নতুন গ্রহ আবিষ্কার

পৃথিবীর কাছাকাছি বাসযোগ্য নতুন গ্রহ আবিষ্কার

বাইডেন ও ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতায় ফাটল ধরানোর অভিযোগ কেনেডির

বাইডেন ও ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতায় ফাটল ধরানোর অভিযোগ কেনেডির

ভারতে ধনীদের ওপর সম্পদ করারোপ প্রস্তাব

ভারতে ধনীদের ওপর সম্পদ করারোপ প্রস্তাব

নিউইয়র্ক-লন্ডনের তুলনায় এশিয়ায় বাড়ছে আবাসন মূল্য

নিউইয়র্ক-লন্ডনের তুলনায় এশিয়ায় বাড়ছে আবাসন মূল্য

ভানুয়াতুতে ভূমিকম্প

ভানুয়াতুতে ভূমিকম্প

পাঞ্জাবে নিহত ৬

পাঞ্জাবে নিহত ৬

দেশে সুষ্ঠু ভোটে যোগ্য নেতৃত্ব পছন্দের পথ কার্যত বন্ধ: জমিয়ত নেতৃবৃন্দ

দেশে সুষ্ঠু ভোটে যোগ্য নেতৃত্ব পছন্দের পথ কার্যত বন্ধ: জমিয়ত নেতৃবৃন্দ

গরমে কালো কোট ও গাউন পড়তে হবে না অধস্তন আদালতে

গরমে কালো কোট ও গাউন পড়তে হবে না অধস্তন আদালতে