সংঘাত থাকবেই, মত তৃণমূল নেতাদের

উপজেলায় ‘নৌকা’ না দিয়ে নির্ভার আওয়ামী লীগ

Daily Inqilab আল হেলাল শুভ

০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২:০২ এএম | আপডেট: ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২:০২ এএম

উপ জেলা নির্বাচনে দলীয় প্রতীক না রেখে এখন অনেকটাই নির্ভার আওয়ামী লীগের কেন্দ্র। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে খুনোখুনির পরিস্থিতি বন্ধ হওয়ার আগে এমন সিদ্ধান্ত নেয় দলটি। জাতীয় নির্বাচন পর পরই অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া উপ জেলা নির্বাচনের আগে দলের এমন সিদ্ধান্তে জনপ্রিয়রা ভবিষ্যতে জয়লাভ করবে বলে আওয়ামী লীগের কেন্দ্র থেকে তৃণমূল নেতারা মনে করছেন। আওয়ামী লীগ নেতা বলছেন, এখন আওয়ামী লীগ দলের কাউকে সমর্থনও করবে না। নিজের জনপ্রিয়তায় এ নির্বাচন জয়লাভ করে আসতে হবে। আর আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতারা মনে করছেন, এতে জনপ্রিয়রা জনপ্রতিনিধি হবার সুযোগ বাড়বে। তবে দলের যারা প্রার্থী হবে তাদের ওপর চাপও বাড়বে। এ ছাড়া উপ জেলা নির্বাচনে সংঘাত তেমন কমবে না বলেই তারা মনে করছেন।
২০১৫ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রতীকে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন শুরু হয়। আর নির্বাচন কমিশনের সূত্রগুলো বলছেন, আগামী মার্চ মাসেই শুরু হতে যাচ্ছে উপ জেলা নির্বাচন।

উল্লেখ্য, দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনকেন্দ্রিক সহিংসতা নিয়ে হিউম্যান রাইটস সাপোর্ট সোসাইটির (এইচআরএসএস) প্রতিবেদনের এ তথ্যে দেখা গেছে, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দেশের ৪১ জেলায় সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। সহিংস এসব ঘটনায় ৭ জন নিহত ও অন্তত ৬৯৬ জন আহত হন। এ ছাড়া চার শতাধিক বাড়িঘর ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে হামলা, ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। প্রতিবেদন বলা হয়েছে, ভোট দিতে না যাওয়ায় অনেক ভোটার ও তাঁদের বাড়িঘরে হামলা করা হয়েছে। এ ছাড়া পরাজিত বা জয়ী দলের প্রার্থী, ভোটার, কর্মী-সমর্থকসহ সংখ্যালঘু, সনাতন ধর্মাবলম্বী ও বেদে সম্প্রদায়ের সদস্যদের ওপর হামলা ও নির্যাতনের ঘটনা ঘটে।

আওয়ামী লীগ সূত্র জানিয়েছে, চলতি বছরের শুরুতে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের ছাড় দেয়ার ‘কৌশলে’ সারা দেশে দলটির তৃণমূলে যে বিভেদ ও সংঘাত হয়েছিল তা নির্বাচনের পরেও চলমান ছিল। এমন অবস্থায় ওই সংঘাত এড়াতে বেশ বিপাকে পরেছিল আওয়ামী লীগের কেন্দ্র। এমন অবস্থায় উপজেলা নির্বাচনে ‘নৌকা’ না দেয়ার পক্ষে মত দেয় আওয়ামী লীগ। যা দলের সর্বশেষ কেন্দ্রীয় কমিটিতে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, জাতীয় নির্বাচনে দলীয় স্বতন্ত্র প্রার্থীর কারণে বিভেদ তৈরি হয়েছে। ভোটের পরেও যার রেশে খুনোখুনি হয়েছে। তখন আবার উপজেলায় দলীয় প্রতীক দিলে কোন্দল আরো বাড়তো। এতে দলীয় প্রতীক না দেওয়াই দলের জন্য মঙ্গল হয়েছে। আওয়ামী লীগের এই সিদ্ধান্তের ফলে দলীয় প্রতীক না পাওয়ায় অনেক নেতারাই এখন নিজ থেকে জয়লাভ করে আসতে হবে। এতে জনপ্রিয়রাই জয়ভাল করবে। যার ফলে দ্বন্দ্ব ও সংঘাত হওয়ার সম্ভাবনা থাকলেও নিকট অতীতে ‘একচেটিয়া নৌকার’ যে প্রভাব তা অনেকটাই কমে যাবে।

গত ২২ জানুয়ারী আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের জরুরি সভায় আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতীক থাকবে না বলে সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা জানান দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। দলীয় সূত্র জানিয়েছে, ওই সভায় উপজেলা নির্বাচন নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হয়। সেখানে দলীয় প্রতীকের পক্ষে-বিপক্ষে মতামত দেন নেতারা। তবে বেশির ভাগ নেতা দলীয় কোন্দল ও সংঘাত থেকে নেতা-কর্মীদের দূরে রাখতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতীক না রাখার পরামর্শ দেন। আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাও নেতাদের এই মতামতের প্রতি নিজের সমর্থন জানান।

আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতারাও মনে করছেন, জাতীয় নির্বাচন পরবর্তী উপ জেলা নির্বাচনে দলীয় প্রতীক না দেয়ার যে সিদ্ধান্ত আওয়ামী লীগ নিয়েছে, তাতে খুবই ভাল সিদ্ধান্ত হয়েছে। এর ফলে নির্বাচনে যে দ্বন্দ্ব সংঘাত তা কমবে। কারণ যাদের হাতে ‘নৌকা’ প্রতীক থাকে তাদের দলীয় অন্য স্বতন্ত্র প্রার্থীদের সঙ্গে সংঘাতে জড়ানোর সুযোগ বেশি থাকে।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের এক তৃণমূল নেতা বলেন, এবার যারা জয়লাভ করবে তাদের মূলত জনপ্রিয়তার ওপরই নির্ভর করতে হবে। সেই সঙ্গে যাদের অর্থনৈতিক অবস্থা ভাল তারাও কিছুটা সুযোগ পাবে। মূলত যারা দলের প্রতি প্রতিশ্রুতি বদ্ধ ও মাঠের নেতা তাদেরই জনপ্রিয়তা থাকে। এ ক্ষেত্রেও ভিন্ন হবে না। আগে শুধু নৌকা প্রতীক নিয়ে আসলেই জয়লাভের বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যেত। এবার আর সেই সুযোগ নেই। মাঠে গিয়েই জয়লাভ করতে হবে। অপর দিকে দলীয় অনেক প্রার্থী দলে তৃণমূলে দলের চেইন অব কমান্ড ভেঙ্গে যাওয়ার আশাঙ্কাও থেকে যাচ্ছে বলে তিনি মনে করেন।

অপর দিকে যশোরের ঝিকরগাছা উপ জেলার ভাইস চেয়ারম্যান ও উপ জেলা যুবলীগের সদস্য সেলিম রেজা। তিনি নিজেই এবার উপ জেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হচ্ছেন বলে ইনকিলাবকে জানিয়েছেন। তিনিও দলের এমন সিদ্ধান্ত নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন। তিনি বলেন, দলের ওই সিদ্ধান্তে জনপ্রিয়তারা নির্বাচিত হওয়ার সুযোগ বাড়বে। কারণ অতীতে অনেক ক্ষেত্রে জনপ্রিয়রা দলীয় প্রতীক থেকে বঞ্চিতও হয়েছেন। কিন্তু এতে তৃণমূলে দলের মধ্যে কয়েক টুকরা কিংবা উপ গ্রুপ হওয়ারও আশঙ্কা তৈরী হবে। আর সিদ্ধান্তের ফলে সংঘাত কমবে না বলেই মনে করেন তিনি। তিনি এ প্রসঙ্গে বলেন, সংঘাত কমবে না। বরং বাড়তে পারে।

এ বিষয়ে ঝিকরগাছা উপ জেলার চেয়ারম্যান ও উপ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম বলেন, দল যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা সমযোপযোগী সিদ্ধান্ত। আমি এই সিদ্ধান্তের বিষয়ে এক মত।
আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা গেছে, স্থানীয় সরকার নির্বাচনে দলীয় প্রতীকে মনোনয়ন নিয়ে আওয়ামী লীগের একটি অংশের আপত্তি ছিল দীর্ঘদিনের। যাদের মধ্যে কেন্দ্রীয় নেতা ও স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সদস্যরাও রয়েছেন। কয়েকজনের আপত্তির কারণে গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনেও গোপালগঞ্জ ও মাদারীপুর জেলার কয়েকটি উপজেলার ইউপি নির্বাচন উম্মুক্ত রেখেছিল আওয়ামী লীগ।

গত শুক্রবার দুপুরে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জানান, আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন আওয়ামী লীগ কাউকে সমর্থন দেবে না। তিনি বলেন, জনগণ যাকে চাইবেন, তিনি নির্বাচিত হবে।
এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের এক কেন্দ্রীয় নেতা ইনকিলাবকে বলেন, এবার উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ কাউকে সমর্থনও করবে না। দলের যারা প্রার্থী হবে নিজের জনপ্রিয়তায় জয়লাভ করে আসতে হবে। আর যদি বিএনপি এই সুযোগ নেয় তারা নিতেই পারে। কারণ গণতন্ত্রে কোন এমন সুযোগ থাকবেই। আর জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও তো ‘নৌকা’ প্রতীক হেরেছে। সব দিক থেকে বর্তমান প্রেক্ষাপটে ‘নৌকা’ প্রতীক না থাকার দলীয় সিদ্ধান্ত ভাল বলেই তিনি মনে করছেন।

দলীয় সূত্র জানিয়েছে, আগামী পৌরসভা নির্বাচনেও দলীয় প্রতীকে নির্বাচন করবে না আওয়ামী লীগ। দলীয় নেতা-কর্মীরা এতে অংশ নেবে কিন্তু সরাসরি নৌকা প্রতীক দেওয়া হবে না। তবে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় প্রতীক দেওয়া হবে কি না এ বিষয়ে পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

দলীয় সূত্র জানিয়েছে, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের যে সংঘাত ও সংঘর্ষ শুরু হয়েছিল তার প্রেক্ষিতে শুধু উপজেলায় নৌকা প্রতীক বাদ দিয়েই কাজ শেষ করে নি আওয়ামী লীগ। ইতিমধ্যে সারা দেশের বিভিন্ন জেলায় যে সকল জেলায় সংঘাত হয়েছে তাতে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনে সংঘাতপূর্ণ এলাকাগুলো চিহ্নিত করে ওই এলাকার নেতাদের ঢাকায় কেন্দ্রে ডেকে মিমাংসার পাঠানোর সিদ্ধান্তও নিয়েছে দলটি। আর যেন কোন সংঘাত না হয় সে জন্যই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে আওয়ামী লীগ।

কবে নাগাদ ঢাকায় সংঘাতপূর্ণ এলাকার নেতাদের ডাকা হবে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সফিউল আলম চৌধুরী নাদেল ইনকিলাবকে বলেন, শুধু সংঘাত হয়েছে এমন এলাকায় নয় আমরা বিভাগীয় পর্যায়ের নেতাদের ঢাকায় ডাকবো। চলতি মাসেই যারা শুরু হবে। তবে তারিখ এখনও নির্ধারিত হয় নি বলেই জানান তিনি।
#


বিভাগ : জাতীয়


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

ঘূর্ণিঝড় রেমাল : সব মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল

ঘূর্ণিঝড় রেমাল : সব মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল

ফের পুতিনের বিরুদ্ধে আপত্তিকর বক্তব্য বাইডেনের

ফের পুতিনের বিরুদ্ধে আপত্তিকর বক্তব্য বাইডেনের

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ

ভয়েস চেঞ্জ অ্যাপে গলা বদলে ৭ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

ভয়েস চেঞ্জ অ্যাপে গলা বদলে ৭ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’ : বন্ধ হলো বরিশাল বিমানবন্দরের সব কার্যক্রম

ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’ : বন্ধ হলো বরিশাল বিমানবন্দরের সব কার্যক্রম

হাতিয়ার সঙ্গে সারা দেশের নৌ চলাচল বন্ধ

হাতিয়ার সঙ্গে সারা দেশের নৌ চলাচল বন্ধ

রয়েল এয়ার ফোর্সের বিমান বিধ্বস্ত, পাইলট নিহত

রয়েল এয়ার ফোর্সের বিমান বিধ্বস্ত, পাইলট নিহত

কুয়াকাটায় আবাসিক হোটেলগুলোকে আশ্রয়স্থল হিসাবে খুলে দেয়া হয়েছে

কুয়াকাটায় আবাসিক হোটেলগুলোকে আশ্রয়স্থল হিসাবে খুলে দেয়া হয়েছে

রাজকোটে গেমিং জোন অগ্নিকাণ্ডে নিহত বেড়ে ৩২

রাজকোটে গেমিং জোন অগ্নিকাণ্ডে নিহত বেড়ে ৩২

ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে পশ্চিমবঙ্গে রেড অ্যালার্ট জারি

ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে পশ্চিমবঙ্গে রেড অ্যালার্ট জারি

উপকূলে রেমালের প্রভাব, আতঙ্ক জনমনে

উপকূলে রেমালের প্রভাব, আতঙ্ক জনমনে

যশোরে 'রেমাল' মোকাবিলায় ২২৪৫ আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত

যশোরে 'রেমাল' মোকাবিলায় ২২৪৫ আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত

উখিয়ায় ১০ কোটি টাকার ক্রিস্টাল মেথসহ ১ রোহিঙ্গা যুবক আটক

উখিয়ায় ১০ কোটি টাকার ক্রিস্টাল মেথসহ ১ রোহিঙ্গা যুবক আটক

নোয়াখালীতে ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে জখম করায় তরুণকে পিটিয়ে হত্যা

নোয়াখালীতে ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে জখম করায় তরুণকে পিটিয়ে হত্যা

গরমে সিদ্ধ হচ্ছে উত্তর ভারত, তাপমাত্রা ৫০ ডিগ্রি ছুঁই ছুঁই

গরমে সিদ্ধ হচ্ছে উত্তর ভারত, তাপমাত্রা ৫০ ডিগ্রি ছুঁই ছুঁই

সিদ্ধিরগঞ্জে ময়লার গাড়ির ধাক্কায় গর্ভবতী নারী নিহত

সিদ্ধিরগঞ্জে ময়লার গাড়ির ধাক্কায় গর্ভবতী নারী নিহত

চিনে রাষ্ট্রিয়ভাবে মসজিদের আকৃতিকে প্যাগোডার আকৃতিতে বদলে ফেলা হয়

চিনে রাষ্ট্রিয়ভাবে মসজিদের আকৃতিকে প্যাগোডার আকৃতিতে বদলে ফেলা হয়

আজ গুলশানে দেখা মিলবে তুর্কি অভিনেতা বুরাকের

আজ গুলশানে দেখা মিলবে তুর্কি অভিনেতা বুরাকের

অর্ধশত শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, শিক্ষক গ্রেপ্তার

অর্ধশত শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, শিক্ষক গ্রেপ্তার

বাস্তবতার ভিত্তিতে ইউক্রেনের সঙ্গে আলোচনা করবে রাশিয়া: পুতিন

বাস্তবতার ভিত্তিতে ইউক্রেনের সঙ্গে আলোচনা করবে রাশিয়া: পুতিন