জিআই পেল আরও ৪ পণ্য

Daily Inqilab অর্থনৈতিক রিপোর্টার

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২:০৪ এএম | আপডেট: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২:০৪ এএম

আরও চারটি পণ্যকে বাংলাদেশের ভৌগোলিক নির্দেশক (জিআই) পণ্য হিসেবে অনুমোদন দিয়ে জার্নাল প্রকাশিত হয়েছে। পণ্য চারটি হলো- রংপুরের হাঁড়িভাঙ্গা আম, মৌলভীবাজারের আগর, মৌলভীবাজারের আগর আতর ও মুক্তাগাছার মন্ডা। এ নিয়ে বাংলাদেশে অনুমোদিত জিআই পণ্যের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৮টি। গতকাল শিল্প মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানিয়েছে। ২০০৩ সালে বাংলাদেশে এ কাজের জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন পেটেন্ট, ডিজাইন ও ট্রেড মার্কস অধিদপ্তর (ডিপিডিটি) যাত্রা শুরু করে। বর্তমানে একে পেটেন্ট, শিল্প-নকশা ও ট্রেড মার্কস অধিদপ্তর (ডিপিডিটি) নামে অভিহিত করা হয়। শিল্প মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগের ফলে ভৌগোলিক নির্দেশক পণ্য (নিবন্ধন ও সুরক্ষা) আইন, ২০১৩ পাস হয়। এর দুই বছর পর ভৌগোলিক নির্দেশক পণ্য বিধিমালা, ২০১৫ প্রণয়ন করা হয়। ২০১৬ সালে জামদানি শাড়িকে বাংলাদেশে প্রথম জিআই পণ্য হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়। এরপর স্বীকৃতি পায় আরও ২০টি পণ্য। সেগুলো হলো- বাংলাদেশের ইলিশ, চাঁপাইনবাবগঞ্জের খিরসাপাত আম, বিজয়পুরের সাদা মাটি, দিনাজপুর কাটারীভোগ, বাংলাদেশ কালিজিরা, রংপুরের শতরঞ্জি, রাজশাহী সিল্ক, ঢাকাই মসলিন, রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জের ফজলি আম, বাংলাদেশের বাগদা চিংড়ি, বাংলাদেশের শীতল পাটি, বগুড়ার দই, শেরপুরের তুলশীমালা ধান, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ল্যাংড়া আম, চাঁপাইনবাবগঞ্জের আশ্বিনা আম, নাটোরের কাঁচাগোল্লা, বাংলাদেশের ব্ল্যাক বেঙ্গল ছাগল, টাঙ্গাইলের পোড়াবাড়ির চমচম, কুমিল্লার রসমালাই ও কুষ্টিয়ার তিলের খাজা। সম্প্রতি অনুমোদিত তিনটি পণ্য টাঙ্গাইল শাড়ি, নরসিংদীর অমৃতসাগর কলা ও গোপালগঞ্জের রসগোল্লার অনুমোদনের কপি ও জার্নাল গত রোববার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে তুলে দেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন এবং শিল্প মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব জাকিয়া সুলতানা। এতে জিআই পণ্যের সংখ্যা হয় ২৪টি। এদিন ৪টি জিআই পণ্যের জার্নাল প্রকাশিত হওয়ায় মোট অনুমোদিত জিআই পণ্যের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৮টি।

এছাড়া আরও দুটি পণ্য জিআই পণ্য হিসেবে অনুমোদনের জন্য প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। সেগুলো হলো- জামালপুরের নকশিকাঁথা এবং যশোরের খেজুর গুড়। আগামী সপ্তাহে এই দুটি পণ্যের জার্নাল প্রকাশিত হবে বলে আশা করা যাচ্ছে।


বিভাগ : জাতীয়


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

কুসিক উপনির্বাচন : সংখ্যালঘু নতুন ও দক্ষিনের ভোটার জয়-পরাজয়ে ফ্যাক্টর

কুসিক উপনির্বাচন : সংখ্যালঘু নতুন ও দক্ষিনের ভোটার জয়-পরাজয়ে ফ্যাক্টর

সিরাজগঞ্জে ‘শিক্ষকের গুলিতে’ মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থী আহত

সিরাজগঞ্জে ‘শিক্ষকের গুলিতে’ মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থী আহত

বাংলাদেশকে কঠিন লক্ষ্য দিল শ্রীলঙ্কা

বাংলাদেশকে কঠিন লক্ষ্য দিল শ্রীলঙ্কা

সুগার মিলের আগুন নিয়ন্ত্রণে নৌবাহিনী

সুগার মিলের আগুন নিয়ন্ত্রণে নৌবাহিনী

টেকসই ভবিষ্যতের লক্ষ্যে পরিবেশবান্ধব জ্বালানিতে গুরুত্ব দিচ্ছে গ্রামীণফোন

টেকসই ভবিষ্যতের লক্ষ্যে পরিবেশবান্ধব জ্বালানিতে গুরুত্ব দিচ্ছে গ্রামীণফোন

মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম গন্তব্য আবুধাবীতে ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা

মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম গন্তব্য আবুধাবীতে ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা

ওয়ারীর ১৪ রেস্টুরেন্টে অভিযান, আটক ১৬

ওয়ারীর ১৪ রেস্টুরেন্টে অভিযান, আটক ১৬

শিক্ষার্থীদের সঠিক মূল্যায়নের জন্য প্রয়োজন দক্ষ শিক্ষকঃ গবেষণা

শিক্ষার্থীদের সঠিক মূল্যায়নের জন্য প্রয়োজন দক্ষ শিক্ষকঃ গবেষণা

দূষণজনিত রোগ প্রতিরোধে জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনায় স্বাস্থ্য বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা হবে : পরিবেশমন্ত্রী

দূষণজনিত রোগ প্রতিরোধে জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনায় স্বাস্থ্য বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা হবে : পরিবেশমন্ত্রী

কুমিল্লায় দুগ্ধপোষ্য শিশু চুরির অপরাধে এক নারীর দশ বছরের কারাদণ্ড

কুমিল্লায় দুগ্ধপোষ্য শিশু চুরির অপরাধে এক নারীর দশ বছরের কারাদণ্ড

ভি সিরিজের নতুন স্মার্টফোন এনেছে ভিভো

ভি সিরিজের নতুন স্মার্টফোন এনেছে ভিভো

অ্যাপলকে ১৮০ কোটি ইউরো জরিমানা করেছে ইইউ

অ্যাপলকে ১৮০ কোটি ইউরো জরিমানা করেছে ইইউ

গ্রুমিং সচেতনতার জন্য বিয়ার্ডো ও লিভনের স্পেশাল এডিশন ‘স্টাইলিং সল্যুশন’

গ্রুমিং সচেতনতার জন্য বিয়ার্ডো ও লিভনের স্পেশাল এডিশন ‘স্টাইলিং সল্যুশন’

মুসলিম উম্মাহর ঐক্য, শান্তি ও সমৃদ্ধি এবং দেশের শান্তি- শৃঙ্খলা রক্ষায় আল্লাহর রহমত কামনা করে মোকামিয়ার দুই দিনব্যাপী মাহফিল সম্পন্ন

মুসলিম উম্মাহর ঐক্য, শান্তি ও সমৃদ্ধি এবং দেশের শান্তি- শৃঙ্খলা রক্ষায় আল্লাহর রহমত কামনা করে মোকামিয়ার দুই দিনব্যাপী মাহফিল সম্পন্ন

ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে ১৭, সাধারণ কেন্দ্রে থাকবে ১৬ জনের ফোর্স

ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে ১৭, সাধারণ কেন্দ্রে থাকবে ১৬ জনের ফোর্স

হিলি সীমান্ত পরিদর্শনে সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর প্রতিনিধি দল

হিলি সীমান্ত পরিদর্শনে সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর প্রতিনিধি দল

আড়াই ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি চিনি মিলের আগুন

আড়াই ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি চিনি মিলের আগুন

স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে ভূমিকা রাখবেন স্মার্ট ইমামরা-সিকৃবি ভিসি

স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে ভূমিকা রাখবেন স্মার্ট ইমামরা-সিকৃবি ভিসি

প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর বাড়িতে পুলিশের অভিযান, সমালোচনার মুখে পাকিস্তানের সরকার

প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর বাড়িতে পুলিশের অভিযান, সমালোচনার মুখে পাকিস্তানের সরকার

সড়ক দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত ২১৪ জনকে সহায়তা দেয়া হয়েছে : ওবায়দুল কাদের

সড়ক দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত ২১৪ জনকে সহায়তা দেয়া হয়েছে : ওবায়দুল কাদের