ঢাকা   বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ৫ বৈশাখ ১৪৩১
মহাসড়কে খানাখন্দে চলাচলে ঝুঁকি

রূপগঞ্জের দুই মহাসড়কে ঈদ যাত্রায় ভোগান্তির শঙ্কা

Daily Inqilab মো. খলিল সিকদার, রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) থেকে

০৩ এপ্রিল ২০২৪, ১২:০৭ এএম | আপডেট: ০৩ এপ্রিল ২০২৪, ১২:০৭ এএম


নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক ও ঢাকা বাইপাস সড়কে প্রায় ১৫ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এতে ভোগান্তির শিকার হয়েছেন যাত্রীসাধারণ। আটকা পড়েছে যাত্রাবাহী ও মালবাহী বিভিন্ন ধরনের যানবাহন। গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টা থেকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক ও এশিয়ান বাইপাস সড়কের রূপগঞ্জ অঞ্চলে এ যানজটের চিত্র দেখা গেছে। সচেতনমহল দাবি করছেন, দুই মহাসড়কে স্থানে স্থানে খানাখন্দ ও সংস্কার কাজের জন্য ভেঁকু দিয়ে খোঁড়া গর্তগুলোতেও দুর্ঘটনার কবলে পড়ছে যানবাহন। আবার ঢাকা বাইপাস সড়কে ৮ লেনে উন্নীতকরণ কাজের কারণে আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতর নারীর টানে বাড়ি ফেরা মানুষেরা ভোগান্তির আশঙ্কা করছেন। এছাড়াও মহাসড়ক বন্ধ করে স্থানীয় অর্ধশতাধিক বৃহত্তর ও মাঝারি শিল্প প্রতিষ্ঠান গার্মেন্টসে কর্মরত লাখো শ্রমিকদের ডিউটি শেষে কর্মীদের পারাপারের সময় দুপাশে নিত্যদিন থাকে যানজট। তবে ঈদকে সামনে রেখে যানজট নিরসনে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, এবার ঈদ যাত্রাতেও এ দুই মহাসড়কের ১৫টি স্পটে যানজটের স্পট হিসেবে চিহ্নিত করেছেন সড়ক নিরাপত্তা সংশ্লিষ্টরা। ঢাকা বাইপাস সড়ক দিয়ে ময়মনসিংহ, সিরাজগঞ্জ, রংপুর, কুড়িগ্রাম, টাঙ্গাইল, পাবনা, টঙ্গীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের যানবাহন চলাচল করে থাকে। বিপুল পরিমাণ যানবাহন চাপে এ মহাসড়কটিতে যানজট লেগেই থাকে। চালকদের অভিযোগ, যানজটের কারণ হিসেবে তারা উল্লেখ করেন, কাঞ্চন সেতু টোল প্লাজায় টোল গ্রহণে ধীরগতি, এশিয়ান বাইপাস সড়কের ৮ লেনে উন্নীতকরণ, অবৈধ বালু ও যত্রতত্র যাত্রী উঠানামা। তাছাড়া এ সড়কে প্রশস্থ বাড়ানোর জন্য কাজ করে যাচ্ছেন সড়ক ও জনপদ (সওজ) বিভাগের কর্মকর্তারা। এ নির্মাণ কাজ করার কারণে সড়কে ব্যবহৃত মালামাল আনা নেয়া ও সড়কে দুপাশে মালবাহী গাড়ি রাখায় এ সড়কে চলাচলকারী যানবাহন পড়তে হচ্ছে যানজটে। এতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসে থাকতে হচ্ছে যাত্রীসাধারণকে। ঢাকা বাইপাস সড়ক দিয়ে কাভার্ডভ্যান সবচেয়ে বেশি চলাচল করে।
অপরদিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কটি দেশের অন্যতম ব্যস্ততম মহাসড়ক। এ সড়কটি দিয়ে সিলেট, ভৈরব, নরসিংদী, কিশোরগঞ্জ, সুনামগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ বিভিন্ন জেলার প্রতিদিন শত শত দূরপাল্লার মালবাহী ট্রাক, বাস ও অন্যান্য গণপরিবহণ চলাচল করে। অবৈধ বাস স্ট্যান্ড, অবৈধ ফুটপাত চাঁদাবাজি, যত্রতত্র যাত্রী উঠানো নামানো, নিয়ম ভঙ্গ করে গাড়ি চালকদের বিপরীত রুটে গাড়ি চলাচল, সড়ক প্রশস্থ কম হওয়া, সড়ক দুর্ঘটনা, সড়কে গাড়ি বিকল হওয়া যানজটের অন্যতম কারণ হিসেবে মনে করেন এলাকাবাসী। রূপসী বাস স্ট্যান্ড দিয়ে সিটি গ্রুপসহ বেশ কয়েকটি কোম্পানীর ট্রাক রূপসী-কাঞ্চন সড়ক দিয়ে প্রবেশ ও বের হওয়ার সময় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়। এছাড়া প্রয়োজনের তুলনায় এখানে পুলিশের সংখ্যা একেবারেই কম। অল্প কিছু পুলিশ সদস্য দিয়ে যানজট নিরসনের কাজ করানো হচ্ছে।
এদিকে, রমজানের আগে থেকে রূপসী, বরাবো, বরপা, ভুলতা, যাত্রামুড়া, বিশ্বরোড, তারাবসহ বেশ কয়েকটি পয়েন্টে যানজট লেগেই থাকছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে ঈদ যাত্রায় সাধারণ মানুষ এ স্পট গুলোতে যানজটের শিকার হতে পারেন।
অভিযোগ রয়েছে, ভুলতা ফ্লাইওভার এলাকায় বলাইখায় বাস স্টপেজ দখল করে স্থানীয় প্রভাবশালীরা পাকা স্থাপনা গড়ে তুলেছেন। এতে স্বাভাবিক যানচলাচল ব্যাহত হচ্ছে। স্থানীয় পরিবহণ শ্রমিকরা বাসস্টপেজ ব্যবহার না করে ভুলতা ও গোলাকান্দাইল বাজার এলাকায় ব্যস্ততম স্থান দখল করে গড়ে তুলেছেন কাউন্টার। যেসব কাউন্টারের কারণেও যানজটের সৃষ্টি হয়। এ বিষয়ে স্থানীয় হাইওয়ে পুলিশ ও ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যদের রহস্যজনক আচরণকে দায়ী করছেন ভুক্তভোগীরা।
অপরদিকে, এশিয়ান বাইপাস সড়কটি অন্যতম একটি ব্যস্ততম মহাসড়ক। মহাসড়কটি পূর্বাচল তিনশ’ ফুট সড়কের সঙ্গে গিয়ে মিশেছে।
গতকাল সকাল ১১টা থেকেই তীব্র যানজট সৃষ্টি হয় এশিয়ান হাইওয়ে বাইপাস সড়ক ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে। বিশেষ করে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের কাঁচপুর থেকে বরপা, আউখাব থেকে মাহনা, এশিয়ান হাইপার সড়কের কুশাব থেকে জিন্দা পর্যন্ত ও চান টেক্সটাইল থেকে সোনপাড়া পর্যন্ত এ যানজট দেখা যায়।
কিশোরগঞ্জ যাতায়াত বাসের যাত্রী মাসুম মিয়া বলেন, তীব্র যানজটে পড়ে বিশ্বরোড থেকে ভুলতা যেতে সময় লেগেছে দেড় ঘণ্টা।
গার্মেন্টস শ্রমিক আব্দুল্লাহ মিয়া বলেন, দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে হাজার হাজার শ্রমিক কর্মচারী রূপগঞ্জের বিভিন্ন শিল্পকারখানায় কাজ করে আসছে। প্রতিবছরের ন্যায় এবারের ঈদেও গ্রামের বাড়িতে যাওয়ার প্রস্তুতি সবার রয়েছে। আমরা এখন যানজটের আশঙ্কায় রয়েছি।
গাউছিয়া এলাকার কয়েকজন ব্যবসায়ী জানান, প্রতি সোমবার ও মঙ্গলবার গাউছিয়া কাপড়ের বাজারের পাইকারী হাট। এ হাটে এই দুই দিন হাজার হাজার ব্যবসায়ী আসে বেচা-কেনা করতে। সকাল থেকে যানজট থাকার কারণে মঙ্গলবার ক্রেতা ছিলো অনেকটা কম। ক্রেতাদের মধ্যে অনেকেই জানিয়েছেন তারা ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে যানজটে আটকা পড়েছেন। এতে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন এখানকার ক্রেতা-বিক্রেতারা। এছাড়া প্রতি বৃহস্পতিবার গোলাকান্দাইল হাটের কারণেও তীব্র যানজট লেগে থাকে।
বরাব এলাকায় যানজটে পড়া ট্রাক চালক সাঈদুর রহমানের সাথে তিনি বলেন, চট্টগ্রাম থেকে মাল নিয়ে গাজীপুরের উদ্দেশ্যে গাড়ি ছেড়ে এসেছি। কিন্তু এখানেই প্রায় ৩ ঘণ্টা যাবত যানজটে আটকা পড়ে আছি। এসময়ে এক কিলোমিটারও আগাতে পারি নাই।
এ ব্যাপারে ভুলতা হাইওয়ে পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ আশরাফ উদ্দিন বলেন, ঈদে ঘরমুখি মানুষ যাতে নির্বিঘেœ বাড়ি ফিরতে পারেন সে জন্য আমরা কাজ করে যাচ্ছি। মহাসড়কে নির্মাণ কাজ চলায় কিছুটা ভোগান্তি হচ্ছে। ঈদের চার পাচদিন আগে থেকে কাজ বন্ধ করে দিলে সড়কে চলাচল অনেকটা সহজ হবে।


বিভাগ : জাতীয়


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

স্টুয়ার্ট ল এখন যুক্তরাষ্ট্রের কোচ

স্টুয়ার্ট ল এখন যুক্তরাষ্ট্রের কোচ

যে কারণে ৫৮ বছর বয়সে পেশাদার ফুটবলে রোমারিও

যে কারণে ৫৮ বছর বয়সে পেশাদার ফুটবলে রোমারিও

চন্দ্রঘোনা থানার সি আর মামলার ৭ আসামী গ্রেপ্তার

চন্দ্রঘোনা থানার সি আর মামলার ৭ আসামী গ্রেপ্তার

শাহিনের সাথে আমার কোনো বিবাদ নেই: বাবর

শাহিনের সাথে আমার কোনো বিবাদ নেই: বাবর

সালথায় আগুনে পুড়ল ১২টি দোকান, বিপুল পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি

সালথায় আগুনে পুড়ল ১২টি দোকান, বিপুল পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি

উলভার্টের ১৮৪* ছাপিয়ে আতাপাত্তুর ১৯৫*, শ্রীলঙ্কার রেকর্ডময় জয়

উলভার্টের ১৮৪* ছাপিয়ে আতাপাত্তুর ১৯৫*, শ্রীলঙ্কার রেকর্ডময় জয়

মালিকদের লুটপাটে বেসরকারি অনেকগুলো ব্যাংক ধ্বংসের মুখে

মালিকদের লুটপাটে বেসরকারি অনেকগুলো ব্যাংক ধ্বংসের মুখে

শরিফুল-তাসকিন তোপে উড়ে গেল শেখ জামালও

শরিফুল-তাসকিন তোপে উড়ে গেল শেখ জামালও

বাসের ধাক্কায় কিশোরগঞ্জে দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

বাসের ধাক্কায় কিশোরগঞ্জে দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

ফারাক্কার প্রভাবে পদ্মা নদী এখন বিলে পরিনত হয়েছে

ফারাক্কার প্রভাবে পদ্মা নদী এখন বিলে পরিনত হয়েছে

আমার স্ত্রীর কোনো ক্ষতি হলে সেনাপ্রধানকে দায়ী করব : ইমরান খান

আমার স্ত্রীর কোনো ক্ষতি হলে সেনাপ্রধানকে দায়ী করব : ইমরান খান

পশ্চিমাদের চাপ বাড়লেও ইরানের তেল রপ্তানিতে বাধা নেই

পশ্চিমাদের চাপ বাড়লেও ইরানের তেল রপ্তানিতে বাধা নেই

কারাবন্দি থেকে ফের গৃহবন্দি সু চি

কারাবন্দি থেকে ফের গৃহবন্দি সু চি

প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনীর উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনীর উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

ক্রিমিয়া ও ডনবাস চিরকাল রাশিয়ার মধ্যে থাকবে: স্লোভাক প্রধানমন্ত্রী

ক্রিমিয়া ও ডনবাস চিরকাল রাশিয়ার মধ্যে থাকবে: স্লোভাক প্রধানমন্ত্রী

রুশ সেনাদের অগ্রগতির কথা স্বীকার করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট

রুশ সেনাদের অগ্রগতির কথা স্বীকার করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট

সিঙ্গাপুরের নতুন প্রধানমন্ত্রীকে যে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে

সিঙ্গাপুরের নতুন প্রধানমন্ত্রীকে যে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে

বনশ্রীতে লাগা আগুন নিয়ন্ত্রণে

বনশ্রীতে লাগা আগুন নিয়ন্ত্রণে

ছাতকে সড়ক দুর্ঘটনায় কণ্ঠশিল্পী পাগল হাসানসহ প্রাণ গেল দুইজনের

ছাতকে সড়ক দুর্ঘটনায় কণ্ঠশিল্পী পাগল হাসানসহ প্রাণ গেল দুইজনের

ইসরাইল প্রতিশোধ নিলে আঞ্চলিক যুদ্ধের ঝুঁকি বাড়বে: জর্ডান

ইসরাইল প্রতিশোধ নিলে আঞ্চলিক যুদ্ধের ঝুঁকি বাড়বে: জর্ডান