ঢাকা   বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪ | ৫ বৈশাখ ১৪৩১

সউদির রাডারে সালাহ, ডি ব্রুইনার মতো তারকারা

Daily Inqilab স্পোর্টস ডেস্ক

২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৫:১২ পিএম | আপডেট: ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৫:১২ পিএম

ছবি: ফেসবুক

আসন্ন গ্রীষ্মকালীন দলবদল সামনে রেখে প্রিমিয়ার লিগের বেশ কিছু তারকাদের প্রতি নজর রয়েছে সউদি পেশাদার লিগের (এসপিএল) ক্লাবের। লিগের একটি সূত্র এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।

আগামী মৌসুমে যাদের প্রতি এসপিএল আগ্রহ দেখিয়েছে তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন কেভিন ডি ব্রুইনা, মোহাম্মদ সালাহ, ভার্জিল ফন ডাইক, এ্যালিসন, রাফায়েল ভারানে, কাসেমিরো, ব্রুনো ফার্নান্দেস, বার্নান্ডো সিলভা, আন্দ্রেস পেরেইরা।

একটি সূত্র ইএসপিএনকে নিশ্চিত করেছে এই তালিকায় বেশ কিছু তরুণ খেলোয়াড়ও রয়েছেন। এদের মধ্যে অন্যতম হলেন জুভেন্টাসের ২০ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড মাটিয়াস সুলে।

২০২৩ সালে ট্রান্সফার মার্কেটে রেকর্ড ৭৫৭ মিলিয়ন পাউন্ড ব্যয় করার পর এবার আর সেই প্রত্যাশা করছে না সউদি আরবের শীর্ষ ক্লাবগুলো। কিন্তু তাদের ট্রান্সফার কৌশল আগের মতই আগ্রাসী হবে বলে ইঙ্গিত দিয়েছে। একইসাথে খেলোয়াড়দের বেতনও সমানভাবেই গুরুত্ব পাবে।

২০২৩ সালের গ্রীষ্মে প্রিমিয়ার লিগে রেকর্ড ১.১ বিলিয়ন পাউন্ড ট্রান্সফারে ব্যয় করা হয়েছিল। তার পরের অবস্থানেই ছিল এসপিএল।

সূত্রমতে আল আহলি স্ট্রাইকারের খোঁজে রয়েছে। ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর আল নাসর একজন গোলরক্ষক দলে নিতে মুখিয়ে আছে। আল ইত্তিহাদের আগ্রহে আছে সেন্টার-ব্যাক ও সেন্ট্রাল ফরোয়ার্ড।

গত গ্রীষ্মে পিএসজি থেকে নেইমারকে দলে ভেড়ানো আল হিলাল আল নাসরের থেকে সাত পয়েন্ট এগিয়ে লিগ টেবিরের শীর্ষে রয়েছে।

সউদি আরবের পাবলিক ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডের (পিআইএফ) অধীনে চারটি ক্লাবের মালিকানা রয়েছে। ক্লাবগুলো হলো আল ইত্তিহাদ, আল আহলি, আল নাসর ও আল হিলাল।

সূত্রটি আরো নিশ্চিত করেছে এসপিএল’এ উন্নীত হতে পারলে গ্রীষ্মে ট্রান্সফার মার্কেটে বড় অঙ্কের অর্থ ব্যয় করার ইঙ্গিত দিয়েছেন আল কাদিসিয়াহ। দ্বিতীয় বিভাগে তারা শীর্ষ স্থানে রয়েছে।

শুধুমাত্র খেলোয়াড় নয়, হাই প্রোফাইল কোচদের দলে নিতে এসপিএলর ক্লাবগুলো কাজ শুরু করেছে। মৌসুমের শেষে বায়ার্ন মিউনিখ ছাড়া থমাস টাচেল, এফসি পোর্তো সার্জিও কোনকেইসাও ও চাপে থাকা চেলসি বস মরিসিও পোচেত্তিনোর নাম সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে শোনা যাচ্ছে।


বিভাগ : খেলাধুলা


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

জাতির পিতার সমাধিতে বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের চেয়ারম্যানের শ্রদ্ধা

জাতির পিতার সমাধিতে বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের চেয়ারম্যানের শ্রদ্ধা

সিনিয়র শিল্প সচিবের সঙ্গে যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশ হাইকমিশনারের সাক্ষাৎ

সিনিয়র শিল্প সচিবের সঙ্গে যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশ হাইকমিশনারের সাক্ষাৎ

রাজবাড়ী পদ্মা নদীতে গোসলে নেমে ডুবে যুবকের মৃত্যু

রাজবাড়ী পদ্মা নদীতে গোসলে নেমে ডুবে যুবকের মৃত্যু

স্টুয়ার্ট ল এখন যুক্তরাষ্ট্রের কোচ

স্টুয়ার্ট ল এখন যুক্তরাষ্ট্রের কোচ

যে কারণে ৫৮ বছর বয়সে পেশাদার ফুটবলে রোমারিও

যে কারণে ৫৮ বছর বয়সে পেশাদার ফুটবলে রোমারিও

চন্দ্রঘোনা থানার সি আর মামলার ৭ আসামী গ্রেপ্তার

চন্দ্রঘোনা থানার সি আর মামলার ৭ আসামী গ্রেপ্তার

শাহিনের সাথে আমার কোনো বিবাদ নেই: বাবর

শাহিনের সাথে আমার কোনো বিবাদ নেই: বাবর

সালথায় আগুনে পুড়ল ১২টি দোকান, বিপুল পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি

সালথায় আগুনে পুড়ল ১২টি দোকান, বিপুল পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি

উলভার্টের ১৮৪* ছাপিয়ে আতাপাত্তুর ১৯৫*, শ্রীলঙ্কার রেকর্ডময় জয়

উলভার্টের ১৮৪* ছাপিয়ে আতাপাত্তুর ১৯৫*, শ্রীলঙ্কার রেকর্ডময় জয়

মালিকদের লুটপাটে বেসরকারি অনেকগুলো ব্যাংক ধ্বংসের মুখে

মালিকদের লুটপাটে বেসরকারি অনেকগুলো ব্যাংক ধ্বংসের মুখে

শরিফুল-তাসকিন তোপে উড়ে গেল শেখ জামালও

শরিফুল-তাসকিন তোপে উড়ে গেল শেখ জামালও

বাসের ধাক্কায় কিশোরগঞ্জে দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

বাসের ধাক্কায় কিশোরগঞ্জে দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

ফারাক্কার প্রভাবে পদ্মা নদী এখন বিলে পরিনত হয়েছে

ফারাক্কার প্রভাবে পদ্মা নদী এখন বিলে পরিনত হয়েছে

আমার স্ত্রীর কোনো ক্ষতি হলে সেনাপ্রধানকে দায়ী করব : ইমরান খান

আমার স্ত্রীর কোনো ক্ষতি হলে সেনাপ্রধানকে দায়ী করব : ইমরান খান

পশ্চিমাদের চাপ বাড়লেও ইরানের তেল রপ্তানিতে বাধা নেই

পশ্চিমাদের চাপ বাড়লেও ইরানের তেল রপ্তানিতে বাধা নেই

কারাবন্দি থেকে ফের গৃহবন্দি সু চি

কারাবন্দি থেকে ফের গৃহবন্দি সু চি

প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনীর উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনীর উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

ক্রিমিয়া ও ডনবাস চিরকাল রাশিয়ার মধ্যে থাকবে: স্লোভাক প্রধানমন্ত্রী

ক্রিমিয়া ও ডনবাস চিরকাল রাশিয়ার মধ্যে থাকবে: স্লোভাক প্রধানমন্ত্রী

রুশ সেনাদের অগ্রগতির কথা স্বীকার করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট

রুশ সেনাদের অগ্রগতির কথা স্বীকার করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট

সিঙ্গাপুরের নতুন প্রধানমন্ত্রীকে যে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে

সিঙ্গাপুরের নতুন প্রধানমন্ত্রীকে যে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে