মুখ খুললেন সালাম মুর্শেদী!

Daily Inqilab স্পোর্টস রিপোর্টার

২৫ মে ২০২৪, ১২:০৪ এএম | আপডেট: ২৫ মে ২০২৪, ১২:০৪ এএম

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) চার কর্মচারীর সঙ্গে সিনিয়র সহ-সভাপতি আবদুস সালাম মুর্শেদীকে গত পরশু আর্থিক শাস্তি দিয়েছে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা। আর্থিক অসঙ্গতি ও ফিফার কমপ্ল্যায়ন্স সঠিকভাবে পূরণ করতে না পারায় সালামকে দশ হাজার সুইস ফ্রাঁ বা প্রায় ১৩ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। ফিফার এই শাস্তির বিষয়ে গতকাল মুখ খুললেন সালাম মুর্শেদী।

বাফুফের প্যাডে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘বাফুফের আর্থিক বিষয়াদি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে তদন্ত করছিল ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা। যার প্রেক্ষিতে গত ৮ ফেব্রুয়ারি ফিফা এথিক্স কমিটির অ্যাডজুডিকেটরি চেম্বার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে একটি শুনানির আয়োজন করে। যেখানে আমার বিরুদ্ধে ফিফার অনুচ্ছেদ ১৪, ১৬ ও ২৫ লংঘনের অভিযোগ আনা হয়। ওই শুনানিতে আমার আইনজীবীদের সঙ্গে উল্লেখিত অভিযোগ প্রত্যাহার করার পক্ষে অত্যন্ত বিশ্বাসযোগ্য যুক্তি তুলে ধরেছি। পরবর্তীতে ৭ মার্চ ফিফা এথিক্স কমিটির অ্যাডজুডিকেটরি চেম্বার কর্তৃক গৃহীত পরবর্তী সিদ্ধান্তে আমার বিরুদ্ধে আনা তিনটি অভিযোগের মধ্যে দু’টি খারিজ করে দেয়।’ তিনি যোগ করেন, ‘এথিক্স কমিটির অ্যাডজুডিকেটরি চেম্বার কর্তৃক অধিকতর তদন্তের পর আমার বিরুদ্ধে আনা মোট তিনটির মধ্যে অনৈতিক কার্যক্রম এবং জালিয়াতি বা মিথ্যাচারের মতো গুরুত্বপূর্ণ দুইটি অভিযোগের কোনো ভিত্তি পায়নি ফিফা। ক্রয় প্রক্রিয়ায় চারজন স্বাক্ষরকারীর মধ্যে দুইজনকে ইতোমধ্যেই নিষিদ্ধ করেছে ফিফা। বাফুফে সভাপতি কাজী মো.সালাউদ্দীনের সরাসরি জড়িত না থাকায় তাকে খারিজ করা হয়েছে। তবে আমি যেহেতু ফিন্যান্স কমিটির চেয়ারম্যান সে কারণেই আমাকে গুনতে হচ্ছে নূন্যতম ১০ হাজার সুইস ফ্রাঁ (প্রায় ১৩ লাখ টাকা) জরিমানা।’

এদিকে আবদুস সালাম মুশের্দীর বিরুদ্ধে ৫২ পাতার ফিফা প্রতিবেদনে বাফুফের সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিনের নামও এসেছে। প্রতিবেদনের পাঁচ নম্বর পাতায় ২৬ নম্বর পয়েন্টে ফিফার ইনভেস্টগরী চেম্বার বাফুফের তুলনামূলক কোটেশন বিশ্লেষণ করে দেখেছে ভেন্ডর নির্বাচনের ক্ষেত্রে বাফুফের চারজন সব সময় জড়িত ছিলেন। এই চারজন হলেন- বাফুফের সাবেক প্রধান অর্থ কর্মকর্তা আবু হোসেন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ, ফিন্যান্স কমিটির চেয়ারম্যান আবদুস সালাম মুর্শেদী ও বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন।

 


বিভাগ : খেলাধুলা


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

ভারতে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা, নিহত বেড়ে ১৫

ভারতে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা, নিহত বেড়ে ১৫

ইজরায়েলের যুদ্ধকালীন বিশেষ মন্ত্রিসভা বাতিল করলেন নেতানিয়াহু

ইজরায়েলের যুদ্ধকালীন বিশেষ মন্ত্রিসভা বাতিল করলেন নেতানিয়াহু

ঈশ্বরগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই কিশোরের মৃত্যু

ঈশ্বরগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই কিশোরের মৃত্যু

সিলেট-সুনামগঞ্জে বন্যার অবনতি, উত্তরাঞ্চলে নদ-নদীর পানি বাড়ছেই

সিলেট-সুনামগঞ্জে বন্যার অবনতি, উত্তরাঞ্চলে নদ-নদীর পানি বাড়ছেই

কেউ মাংস দিতে চায় না, তাড়িয়ে দেয়

কেউ মাংস দিতে চায় না, তাড়িয়ে দেয়

পশু কোরবানি দিতে গিয়ে আহত ৯৪

পশু কোরবানি দিতে গিয়ে আহত ৯৪

হরিরামপুরে সাপের কামড়ে দেড় বছরের শিশুর মৃত্যু

হরিরামপুরে সাপের কামড়ে দেড় বছরের শিশুর মৃত্যু

ফৌজদারহাাটে মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত

ফৌজদারহাাটে মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত

৭ দিনে পদ্মা সেতুতে ২৫ কোটি ৭৩ লাখ টাকা টোল আদায়

৭ দিনে পদ্মা সেতুতে ২৫ কোটি ৭৩ লাখ টাকা টোল আদায়

যুদ্ধ মন্ত্রিসভা ভেঙে দিয়েছেন নেতানিয়াহু

যুদ্ধ মন্ত্রিসভা ভেঙে দিয়েছেন নেতানিয়াহু

কাদেরের বক্তব্যের জবাব দিতে ‘রুচিতে বাধে’ ফখরুলের

কাদেরের বক্তব্যের জবাব দিতে ‘রুচিতে বাধে’ ফখরুলের

ইউরোয় ‘বড় কিছুর’ লক্ষ্য রোনালদোর

ইউরোয় ‘বড় কিছুর’ লক্ষ্য রোনালদোর

ছোট পুঁজি নিয়েও আত্মবিশ্বাসী ছিলাম: শান্ত

ছোট পুঁজি নিয়েও আত্মবিশ্বাসী ছিলাম: শান্ত

কেন্দ্রীয় কৃষকলীগ নেতা সোহাগ তালুকদার আর নেই

কেন্দ্রীয় কৃষকলীগ নেতা সোহাগ তালুকদার আর নেই

জনগণের মধ্যে ‘ঈদের আনন্দ নেই: মির্জা

জনগণের মধ্যে ‘ঈদের আনন্দ নেই: মির্জা

ঈদ জামাতে মাথা ঘুরে পড়ে গেলেন আ জ ম নাছির

ঈদ জামাতে মাথা ঘুরে পড়ে গেলেন আ জ ম নাছির

সাড়ে ৩টার মধ্যে ৮০ শতাংশ বর্জ্য পরিষ্কার করেছে চসিক

সাড়ে ৩টার মধ্যে ৮০ শতাংশ বর্জ্য পরিষ্কার করেছে চসিক

মুসল্লীদের সাথে ভিজে ঈদ জামাতে শরীক হলেন সিসিক মেয়র আনোয়ারুজ্জামান

মুসল্লীদের সাথে ভিজে ঈদ জামাতে শরীক হলেন সিসিক মেয়র আনোয়ারুজ্জামান

ঈদ মোবারক

ঈদ মোবারক

বৃষ্টির তান্ডবে সিলেটে ঈদ উৎসবের সর্বনাশ : পশু জবাইয়ের আমেজে ভাটা

বৃষ্টির তান্ডবে সিলেটে ঈদ উৎসবের সর্বনাশ : পশু জবাইয়ের আমেজে ভাটা