কুমিল্লায় একটি উচ্চবিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠন নিয়ে শিক্ষাবোর্ডে অভিযোগ

Daily Inqilab কুমিল্লা থেকে স্টাফ রিপোর্টার

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২:০৬ এএম | আপডেট: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২:০৬ এএম

 

 

অভিভাবক সদস্যদের না জানিয়ে গোপনে অনিয়মের মাধ্যমে কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার কাদবা তলাগ্রাম ত চ লাহা উচ্চবিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠন করায় কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যানের কাছে অভিযোগ করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে ওই কমিটির একজন অভিভাবক সদস্যন এ অভিযোগ করেন।

মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারি) বিষয়টি নিশ্চিত করে কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের উপ বিদ্যালয় পরিদর্শক মোহাম্মদ জাহিদুল হক বলেন, বরুড়ার কাদবা তলাগ্রাম ত চ লাহা উচ্চবিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠন নিয়ে একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে ম্যানেজিং কমিটির অভিভাবক সদস্য ও তলাগ্রাম গ্রামের বাসিন্দা মো. কবির হোসেন ভূইয়া অভিযোগে উল্লেখ করেন, গত ১০ জানুয়ারি আমি স্কুলে যাই। তখন আমার কাছ থেকে স্কুল কর্তৃপক্ষ একটি ফরমে স্বাক্ষর নেয়। পরে জানতে পারলাম আমাকে অভিভাবক সদস্য করা হয়েছে। অভিভাবক সদস্য হওয়ার পর সভাপতি নির্বাচনের পালা। কিন্তু আমাকে না জানিয়ে গোপনে একটি স্বার্থানেসী মহল একজন কে সভাপতি করেন। যা কেউ জানে না। এছাড়া ৩১ জানুয়ারির মধ্যে পুর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করার শেষ সময়। কিন্তু নির্ধারিত সময়ে তাঁরা কমিটি গঠন করতে পারেনি। ১০ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা সাতটায় তারা একটি কমিটি গঠন করে। যা নিয়ম বহিভর্‚ত। এমতাবস্থায় ওই কমিটি অনুমোদন না দেওয়ার জন্য বোর্ডের চেয়ারম্যানের কাছে নির্ধারিত ফরমে আবেদন করি। অবিলম্বে ওই ঘটনার তদন্ত করে দায়িদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আইয়ুব আলী বলেন, আমরা কমিটি গঠন করার জন্য মাইকিং করিনি। ক্লাসে শিক্ষার্থীদের বলেছি। নোটিশ বোর্ডে নোটিশ টাঙিয়ে দিয়েছি। পরে পুর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করেছি। কিভাবে পুর্ণাঙ্গ কমিটি করেছেন, তার সদত্তুর তিনি দিতে পারেননি তিনি। তবে গত শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) পুর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করেছেন বলে জানান।


বিভাগ : বাংলাদেশ


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

এই বিভাগের আরও

কুসিক উপনির্বাচন : সংখ্যালঘু নতুন ও দক্ষিনের ভোটার জয়-পরাজয়ে ফ্যাক্টর
সিরাজগঞ্জে ‘শিক্ষকের গুলিতে’ মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থী আহত
কুমিল্লায় দুগ্ধপোষ্য শিশু চুরির অপরাধে এক নারীর দশ বছরের কারাদণ্ড
মুসলিম উম্মাহর ঐক্য, শান্তি ও সমৃদ্ধি এবং দেশের শান্তি- শৃঙ্খলা রক্ষায় আল্লাহর রহমত কামনা করে মোকামিয়ার দুই দিনব্যাপী মাহফিল সম্পন্ন
ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে ১৭, সাধারণ কেন্দ্রে থাকবে ১৬ জনের ফোর্স
আরও

আরও পড়ুন

ভাঙ্গা থেকে পায়রা হয়ে কুয়াকাটা পর্যন্ত রেলপথ নির্মাণের প্রকল্প গ্রহণ করা হবে

ভাঙ্গা থেকে পায়রা হয়ে কুয়াকাটা পর্যন্ত রেলপথ নির্মাণের প্রকল্প গ্রহণ করা হবে

বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী ছিলেন অধ্যাপক মোসলেমা খাতুন

বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী ছিলেন অধ্যাপক মোসলেমা খাতুন

একুশে গ্রন্থমেলায় বিক্রয় শীর্ষে এম মিরাজ হোসেনের নতুন দুই বই

একুশে গ্রন্থমেলায় বিক্রয় শীর্ষে এম মিরাজ হোসেনের নতুন দুই বই

ঢাকা-আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের সমস্যার মূলে সিএমসি

ঢাকা-আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের সমস্যার মূলে সিএমসি

পল্টনে পুলিশ হত্যা মামলার আসামি নীলফামারীতে গ্রেফতার

পল্টনে পুলিশ হত্যা মামলার আসামি নীলফামারীতে গ্রেফতার

গত বছরের জুন পর্যন্ত মেট্রোরেলে আয় ১৮,২৮,০৬,৫১৪ টাকা

গত বছরের জুন পর্যন্ত মেট্রোরেলে আয় ১৮,২৮,০৬,৫১৪ টাকা

টিকিটের দাম ২ কোটিরও বেশি! বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে তুঙ্গে উত্তেজনা

টিকিটের দাম ২ কোটিরও বেশি! বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে তুঙ্গে উত্তেজনা

মনিপুর স্কুলকে গ্রাস করার অপচেষ্টা চলছে: সংবাদ সম্মেলনে অভিভাবকদের অভিযোগ

মনিপুর স্কুলকে গ্রাস করার অপচেষ্টা চলছে: সংবাদ সম্মেলনে অভিভাবকদের অভিযোগ

১ লাখ টন চিনি পুড়ে ছাই, এখনো জ্বলছে আগুন

১ লাখ টন চিনি পুড়ে ছাই, এখনো জ্বলছে আগুন

রুশ ও মার্কিন নভোচারী নিয়ে স্পেসএক্স এর যাত্রা

রুশ ও মার্কিন নভোচারী নিয়ে স্পেসএক্স এর যাত্রা

লাক্ষাদ্বীপে কেন দ্বিতীয় সামরিক নৌঘাঁটি তৈরি করছে ভারত?

লাক্ষাদ্বীপে কেন দ্বিতীয় সামরিক নৌঘাঁটি তৈরি করছে ভারত?

কুসিক উপনির্বাচন : সংখ্যালঘু নতুন ও দক্ষিনের ভোটার জয়-পরাজয়ে ফ্যাক্টর

কুসিক উপনির্বাচন : সংখ্যালঘু নতুন ও দক্ষিনের ভোটার জয়-পরাজয়ে ফ্যাক্টর

সিরাজগঞ্জে ‘শিক্ষকের গুলিতে’ মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থী আহত

সিরাজগঞ্জে ‘শিক্ষকের গুলিতে’ মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থী আহত

বাংলাদেশকে কঠিন লক্ষ্য দিল শ্রীলঙ্কা

বাংলাদেশকে কঠিন লক্ষ্য দিল শ্রীলঙ্কা

সুগার মিলের আগুন নিয়ন্ত্রণে নৌবাহিনী

সুগার মিলের আগুন নিয়ন্ত্রণে নৌবাহিনী

টেকসই ভবিষ্যতের লক্ষ্যে পরিবেশবান্ধব জ্বালানিতে গুরুত্ব দিচ্ছে গ্রামীণফোন

টেকসই ভবিষ্যতের লক্ষ্যে পরিবেশবান্ধব জ্বালানিতে গুরুত্ব দিচ্ছে গ্রামীণফোন

মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম গন্তব্য আবুধাবীতে ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা

মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম গন্তব্য আবুধাবীতে ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা

ওয়ারীর ১৪ রেস্টুরেন্টে অভিযান, আটক ১৬

ওয়ারীর ১৪ রেস্টুরেন্টে অভিযান, আটক ১৬

শিক্ষার্থীদের সঠিক মূল্যায়নের জন্য প্রয়োজন দক্ষ শিক্ষকঃ গবেষণা

শিক্ষার্থীদের সঠিক মূল্যায়নের জন্য প্রয়োজন দক্ষ শিক্ষকঃ গবেষণা

দূষণজনিত রোগ প্রতিরোধে জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনায় স্বাস্থ্য বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা হবে : পরিবেশমন্ত্রী

দূষণজনিত রোগ প্রতিরোধে জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনায় স্বাস্থ্য বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা হবে : পরিবেশমন্ত্রী