মাগুরায় অপহৃত নারীকে উদ্ধারে পুলিশের ওপর হামলা চার পুলিশ আহত

Daily Inqilab মাগুরা থেকে স্টাফ রিপোর্টার

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০:০৭ এএম | আপডেট: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০:০৭ এএম

অপহরণের পর ইটভাটায় আটকে রাখা এক নারীকে উদ্ধার করতে গিয়ে সোমবার বিকালে অপহরণকারীদের হামলায় পুলিশের একজন এসআইসহ ৪ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এ সময় গুলিবর্ষনের পাশাপাশি অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থল পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সোমবার সন্ধ্যা ৬ টারদিকে মাগুরা জেলা ও দায়রা জজ আদালত প্রাঙ্গন থেকে ঐ নারীকে অপহরণ করা হয়।

সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে পুলিশ অপহৃত মেয়েটিকে উদ্ধার করে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করলেও পুলিশের ওপর হামলা এবং অপহরণের ঘটনায় জড়িত কাউকে আটক করতে পারেনি বলে জানা গেছে।

পুলিশ ও সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, মাগুরার সদর উপজেলার বেঙ্গা বেরইল গ্রামের হারুন মোল্যার পরিবার মেয়ে মাসুরা খাতুনের বিয়ে রেজিস্ট্রির উদ্দেশ্যে সোমবার দুপুরে মাগুরা জেলা জজ আদালত প্রাঙ্গণে উপস্থিত হয়। এ সময় মাগুরা সদর উপজেলার কাশিনাথপুর গ্রামের রজব আলি মোল্যার ছেলে জামির হোসেন বেশ কয়েকটি মোটরসাইকেল নিয়ে জোরপূর্বক বিয়ের কনে মাসুরাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

অপহরণকারীরা মেয়েটিকে শহরতলী ইটখোলার সোনালী ইটভাটায় নিয়ে গিয়ে আটকে রাখে। এ ঘটনার পর থানায় অভিযোগ দিলে পুলিশ সন্ধ্যা ৬ টার দিকে ওই ইটভাটায় গিয়ে মেয়েটিকে উদ্ধারের চেষ্টা চালায়।

এ সময় সোনালী ইটভাটার ম্যানেজার জামির হোসেনের নেতৃত্বে ভাটা শ্রমিকেরা লাঠিসোটা নিয়ে পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে মেয়েটিকে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। অপহরণকারীদের হামলায় এসআই হাফিজ এবং এরশাদ, সাইফুল ও ওমর নামে ৩ কনস্টেবল আহত হন। পরে সদর থানার অতিরিক্ত পুলিশ এবং ডিবি পুলিশের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে এবং অপহৃত মেয়েটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অপহরণের শিকার মাসুরা খাতুন বলেন, ১২ বছর আগে মাগুরার সদর উপজেলার দেড়ুয়া গ্রামের দুলাল মোল্যার ছেলে ফারুকের সঙ্গে তার বিয়ে হয়; কিন্তু নির্যাতনের কারণে চার বছর আগে তাদের ছাড়াছাড়ি হয়ে গেছে। ওই ঘটনার পরও তার পরিবার নতুন করে বিয়ে ঠিক করলে পূর্বের স্বামী বারবার বাধা দিয়ে আসছে। সোমবার একইভাবে তার পূর্বের স্বামীর ইন্ধনে জজ আদালতে বিয়ের আসর থেকে তাকে তুলে নিয়ে ইট ভাটায় আটকে মারধর করে। সেখানে তার ছোট ভাই উপস্থিত হলে তাকেও মারাত্মকভাবে পেটাায়।

মাগুরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) দেবাশীষ কর্মকার পুলিশের ওপর হামলা ভাঙচুর এবং গুলিবর্ষণের ঘটনা স্বীকার করে বলেন, অপহরণের খবর পেয়ে সোনালী ভাটায় গিয়ে দেখা যায় কয়েকজন মিলে মাসুরা নামের ওই মেয়েটিকে আটকে নির্যাতন চালাচ্ছে। এ অবস্থায় তাকে উদ্ধারের পর পুলিশ ভ্যানে ওঠানো হলে ভাটা শ্রমিকেরা পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়ে মেয়েটি ও তার ভাইকে মারধর করে। এ সময় তারা পুলিশের ওপর হামলা চালায়।

তিনি বলেন, অপহরণের ঘটনায় ব্যবহৃত ৪টি মোটরসাইকেল ওই ইটভাটা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া এ ঘটনায় জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে বলেও তিনি জানান। এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ কলিমুল্লাহ রাত সাড়ে ১০ টায় এক ব্রিফিংয়ে বিস্তারিত জানান।


বিভাগ : বাংলাদেশ


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

এই বিভাগের আরও

কুসিক উপনির্বাচন : সংখ্যালঘু নতুন ও দক্ষিনের ভোটার জয়-পরাজয়ে ফ্যাক্টর
সিরাজগঞ্জে ‘শিক্ষকের গুলিতে’ মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থী আহত
কুমিল্লায় দুগ্ধপোষ্য শিশু চুরির অপরাধে এক নারীর দশ বছরের কারাদণ্ড
মুসলিম উম্মাহর ঐক্য, শান্তি ও সমৃদ্ধি এবং দেশের শান্তি- শৃঙ্খলা রক্ষায় আল্লাহর রহমত কামনা করে মোকামিয়ার দুই দিনব্যাপী মাহফিল সম্পন্ন
ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে ১৭, সাধারণ কেন্দ্রে থাকবে ১৬ জনের ফোর্স
আরও

আরও পড়ুন

একুশে গ্রন্থমেলায় বিক্রয় শীর্ষে এম মিরাজ হোসেনের নতুন দুই বই

একুশে গ্রন্থমেলায় বিক্রয় শীর্ষে এম মিরাজ হোসেনের নতুন দুই বই

ঢাকা-আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের সমস্যার মূলে সিএমসি

ঢাকা-আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের সমস্যার মূলে সিএমসি

পল্টনে পুলিশ হত্যা মামলার আসামি নীলফামারীতে গ্রেফতার

পল্টনে পুলিশ হত্যা মামলার আসামি নীলফামারীতে গ্রেফতার

গত বছরের জুন পর্যন্ত মেট্রোরেলে আয় ১৮,২৮,০৬,৫১৪ টাকা

গত বছরের জুন পর্যন্ত মেট্রোরেলে আয় ১৮,২৮,০৬,৫১৪ টাকা

টিকিটের দাম ২ কোটিরও বেশি! বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে তুঙ্গে উত্তেজনা

টিকিটের দাম ২ কোটিরও বেশি! বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে তুঙ্গে উত্তেজনা

মনিপুর স্কুলকে গ্রাস করার অপচেষ্টা চলছে: সংবাদ সম্মেলনে অভিভাবকদের অভিযোগ

মনিপুর স্কুলকে গ্রাস করার অপচেষ্টা চলছে: সংবাদ সম্মেলনে অভিভাবকদের অভিযোগ

১ লাখ টন চিনি পুড়ে ছাই, এখনো জ্বলছে আগুন

১ লাখ টন চিনি পুড়ে ছাই, এখনো জ্বলছে আগুন

রুশ ও মার্কিন নভোচারী নিয়ে স্পেসএক্স এর যাত্রা

রুশ ও মার্কিন নভোচারী নিয়ে স্পেসএক্স এর যাত্রা

লাক্ষাদ্বীপে কেন দ্বিতীয় সামরিক নৌঘাঁটি তৈরি করছে ভারত?

লাক্ষাদ্বীপে কেন দ্বিতীয় সামরিক নৌঘাঁটি তৈরি করছে ভারত?

কুসিক উপনির্বাচন : সংখ্যালঘু নতুন ও দক্ষিনের ভোটার জয়-পরাজয়ে ফ্যাক্টর

কুসিক উপনির্বাচন : সংখ্যালঘু নতুন ও দক্ষিনের ভোটার জয়-পরাজয়ে ফ্যাক্টর

সিরাজগঞ্জে ‘শিক্ষকের গুলিতে’ মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থী আহত

সিরাজগঞ্জে ‘শিক্ষকের গুলিতে’ মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থী আহত

বাংলাদেশকে কঠিন লক্ষ্য দিল শ্রীলঙ্কা

বাংলাদেশকে কঠিন লক্ষ্য দিল শ্রীলঙ্কা

সুগার মিলের আগুন নিয়ন্ত্রণে নৌবাহিনী

সুগার মিলের আগুন নিয়ন্ত্রণে নৌবাহিনী

টেকসই ভবিষ্যতের লক্ষ্যে পরিবেশবান্ধব জ্বালানিতে গুরুত্ব দিচ্ছে গ্রামীণফোন

টেকসই ভবিষ্যতের লক্ষ্যে পরিবেশবান্ধব জ্বালানিতে গুরুত্ব দিচ্ছে গ্রামীণফোন

মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম গন্তব্য আবুধাবীতে ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা

মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম গন্তব্য আবুধাবীতে ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা

ওয়ারীর ১৪ রেস্টুরেন্টে অভিযান, আটক ১৬

ওয়ারীর ১৪ রেস্টুরেন্টে অভিযান, আটক ১৬

শিক্ষার্থীদের সঠিক মূল্যায়নের জন্য প্রয়োজন দক্ষ শিক্ষকঃ গবেষণা

শিক্ষার্থীদের সঠিক মূল্যায়নের জন্য প্রয়োজন দক্ষ শিক্ষকঃ গবেষণা

দূষণজনিত রোগ প্রতিরোধে জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনায় স্বাস্থ্য বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা হবে : পরিবেশমন্ত্রী

দূষণজনিত রোগ প্রতিরোধে জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনায় স্বাস্থ্য বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা হবে : পরিবেশমন্ত্রী

কুমিল্লায় দুগ্ধপোষ্য শিশু চুরির অপরাধে এক নারীর দশ বছরের কারাদণ্ড

কুমিল্লায় দুগ্ধপোষ্য শিশু চুরির অপরাধে এক নারীর দশ বছরের কারাদণ্ড

ভি সিরিজের নতুন স্মার্টফোন এনেছে ভিভো

ভি সিরিজের নতুন স্মার্টফোন এনেছে ভিভো