আমার নামাজ আমার অনুভূতি

Daily Inqilab মুন্সি আব্দুল কাদির

১৮ এপ্রিল ২০২৪, ১২:০৭ এএম | আপডেট: ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ১২:০৭ এএম

এক একটি পর্ব শেষ করে আমি রাকাতের একেবারে শেষ অবস্থানে পৌছেছি। দুই সেজদার মাঝখানে বৈঠক শেষ করে আমি দ্বিতীয় সেজদায়। আমার তাকবীরে তাহরিমা থেকে বিনয়, নম্রতার প্রকাশ শুরু, সেজদার মাধ্যমে আমার চুড়ান্ত বিনয় প্রকাশ হয়। সেজদার মাধ্যমে কপাল ঠেকিয়ে আমার বড়ত্ব শ্রেষ্ঠত্ব্য, আমার আভিজাত্য সব কিছুকে বিলীন করে দিয়ে আমি নিজেকে মাওলার কাছে সপে দেই। মাটিতে নাক ঠেকিয়ে আমার গর্ব আমার অহংকার, আমার নাক সিটকানো এক্কেবারে মিসমার করে দেই। আমি বার বার যার অবাধ্যতা আর নাফরমানি করেছি, আমি জানি তিনি ছাড়া আমার কোন গতি নেই, আমার কোন উপায় নেই। আমার সব প্রয়োজন তিনি ছাড়া আর কেউ পূরণ করতে পারে না। আমার সব কিছুতে একমাত্র তাঁকেই প্রয়োজন। তাই তাঁর কাছে মাথা ঠেকিয়ে আমার আমার নিবেদন পেশ করছি। আমি পূর্বে একটি সেজদা করেছি। মাঝখানে বসে আমার জীবনের প্রয়োজনীয় দোয়া করেছি। দোয়া করে তার বড়ত্ব আর শ্রেষ্ঠত্বের ঘোষনা দিয়ে আবার সেজদায় লুটিয়ে পড়েছি। ইবলিশ একটি সেজদার আদেশ অমান্য করে লানত প্রাপ্ত হয়েছে। আমি যে মাওলাকে সেজদা করতে পেরেছি তার শুকরিয়া স্বরূপ আবারও সেজদায় মাথা ঠেকিয়ে দিয়েছি।

নামাজে একটি কাজ প্রতি রাকাতে একবার কিন্তু একমাত্র রুকু সেজদার তাসবীহ কমপক্ষে তিন বার এবং সেজদা প্রতি রাকাতে দুই বার। সেজদা প্রত্যেক রাকাতের একেবারে শেষে। সেজদায় দোয়া কবুলের সর্বোত্তম সময়। স্বাভাবিক ভাবে সব কাজ শেষেই কেউ বিনিময় চায়। পুরস্কার চায়। পাওনা চায়। আমি রাকাতের শেষে এমনিতেই নয়, মাওলার সামনে নিজের মাথা ঠেকিয়ে, নিজেকে সবচেয়ে ছোট আর তুচ্ছ হিসেবে উপস্থাপন করে আমার আরাধনা পেশ করি, নিবেদন পেশ করি। আমার প্রিয় রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আমাকে শিখিয়ে দিয়েছেন, রুকুতে বেশি করে তাসবীহ পড়ো। আর সেজদায় বেশি বেশি দোয়া করো।

আমি দোয়ায় লিপ্ত। কিন্তু আমার আবেগ অনুভুতি ভুতা হয়ে আছে। আমার মাওলার সামনে আমি নাক কপাল ঠেকিয়ে আছি। বিড়বিড় করে তাসবীহ পড়ছি। মন উদাস ভাবে ঘুরাঘুরি করছে। আমি সেজদা করছি এই জন্য যে ছোট কাল থেকে নামাজ পড়ছি এটা আমার অভ্যাস। কিন্তু আমার অনুভুতি শানিত করছি না। যে আমি কেন আমার কপাল নাক মাটিতে ঠেকিয়ে আছি। আমার নাক কপাল মাটিতে ঠেকিয়ে রাখার মাধ্যমে সত্যিকার অর্থে আমাকে আমি মাওলার সামনে অন্তরের অন্তস্থল থেকে গভীর আবেগ অনুভুতি দিয়ে পেশ করতে পারছি না। তাইতো দিনের পর দিন, মাসের পর মাস, বছরের পর বছর আমি সেজদা করে যাচ্ছি। কিন্তু মাওলার প্রেম ভালবাসা আমার মধ্যে পয়দা হচ্ছে না। হালাল হারামের কোন চিন্তা আমার মধ্যে নেই। মাওলার আদেশ নিষেধের কোন তোয়াক্কা করছি না। শুধু পাই আর খাই। দুনিয়ার সব কিছু লুট করে হলেও আরো বড় হতে চাই। মহান রবের কথা শোনলে আমার মধ্যে কোন চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয় না। মহান রবকে পাওয়ার জন্য, তাঁর প্রিয় হওয়ার জন্য অন্তরে কোন তাগাদা অনুভব করি না। যেই আমি সেজদার আগে যেমন ছিলাম তেমনই থেকে যাচ্ছি।

মহান রবের কত সুন্দর ব্যবস্থাপনা। রাকাতের শেষে দুই সেজদা রেখেছেন। সেজদায় নিজের আরজি পেশ করার, প্রয়োজন পেশ করার, দোয়া করার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। শেষ বৈঠকে সবার শেষে নিজের আরজি পেশ করার, প্রয়োজন পেশ করার, দোয়া করার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। এতেই শেষ নয়, দিন শেষে ঘুমুতে যাওয়ার আগে সর্বশেষ নামাজ বিতেরের নামাজে শেষ রাকাতে বিশেষ ভাবে দোয়া করার জন্য দোয়া কুনুত পাঠ করে দোয়া করার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। শেষ রাতে জেগে তাহাজ্জুদ নামাজের মাধ্যমে মাওলার কাছে গুনাহ মাফি চাওয়ার, নিজের প্রয়োজন পেশ করার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। এটা মহান মালিকের বান্দার প্রতি কত মায়া আর ভালবাসার প্রকাশ!
মহান রব কত মায়াময়, কত দয়ালু। পৃথিবীর সবার কাছে একবার দুই বার তিন বার, বার বার কোন কিছু চাইলে রাগ করেন। কিন্তু রবের কাছে যত চাওয়া হয় তত খুশি হন। বরং না চাইলে তিনি বেজার হন, নাখুশ হন। আল্লাহু আকবার। সুবহানাল্লাহ।

আমার প্রথম সেজদা কেমন ছিল। এখন দ্বিতীয় সেজদা কেমন হওয়া উচিত আমাকে ভাবতে হবে। প্রিয় রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের সেজদা কেমন ছিল আমাকে জানতে হবে ভাবতে হবে। নিজে অনুশীলন করতে হবে। আর কত কাল আমি দায়সারা গোছের সেজদা করব। এক কথায় আছে আমরা এমন ভাবে ইস্তেগফার পড়ি যে এই ইস্তেগফারের জন্য আবার ইস্তেগফার পড়ার দরকার। প্রিয় ভাই আমার সেজদার মান যেন এমন না হয়। যে এই সেজদার জন্যও আমাকে অনুতপ্ত হতে হয়। আল্লাহর কাছে সবচেয়ে প্রিয় জিনিস সবচেয়ে সুন্দর আর প্রাণবন্ত হওয়ার দাবী রাখে। কিন্তু এখানেই আমার যত তাড়াহুড়া। কিসের দোয়া করব তিন বার সুবহানা রাব্বিয়াল আ’লা পড়ার মত সময়ও আমার হাতে নেই।

আমরা আরো চিন্তা করতে পারি। প্রথম সেজদা দ্বিতীয় সেজদার ভূমিকা। যেমন ভাবে এই সেজদার জন্যই তাকবীরে তাহরীমা থেকে এই পর্যন্ত একটার পর একটা কাজ করে এসেছি। সবগুলো কাজ এই সেজদার পূর্ব প্রস্ততি। নিজেকে আল্লাহর সামনে সর্বান্তকরণে পেশ করার, সপে দেওয়ার প্রস্তুতি। এখন এই সেজদা যদি সুন্দর করা না যায়। তাহলে আমি কিভাবে সফল হতে পারি?

আবার এভাবেও ভাবতে পারি যে আমি যে মাওলার সামনে প্রথম সেজদার মাধ্যমে নিজেকে সপে দিতে পারলাম। তার জন্য মাওলার শুকরিয়া স্বরূপ দ্বিতীয় সেজদা দিচ্ছি। যেহেতু দ্বিতীয় সেজদার মাধ্যমে মাওলার শুকরিয়া আদায় করছি। স্বাভাবিক ভাবেই এখানে আমার বিনয় নম্রতা আরো বেড়ে যাওয়ার কথা।

সেজদা সবচেয়ে মূল্যবান। জিনিস যত মূল্যবান তার যত্নও তত বেশি। লোহা তার দাম কম। তাকে যত্র তত্র ফেলে রাখে। স্বর্ণ তার দাম অনেক বেশি তাকে অনেক যত্ন আর নিরাপত্ত্বা দিয়ে হেফাজতে রাখে। নামাজের মধ্যে সেজদাই সবচেয়ে মূল্যবান। সেজদায় বান্দা আল্লাহর সবচেয়ে নিকটে থাকে। আমার উচিত সেজদাকে আরো প্রাণবন্ত করা। সেজদাকে সুন্দর থেকে আরো সুন্দর করার জন্য চেষ্টা মেহনত করা। সেজদা নিয়ে চিন্তা ভাবনা করা। আমার চিন্তা আমার জ্ঞান আমার মেহনতের সমন্বয় হলে আমার সেজদা সুন্দর হবেই। আর আমার সেজদা সুন্দর করলে দেখা যাবে আমার পুরো নামাজটাই সুন্দর হয়ে গেছে। আমার পুরো নামাজটাই জীবন্ত নামাজে পরিনত হয়েছে।

লেখক: গবেষক, কলামিস্ট


বিভাগ : ধর্ম দর্শন


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

ইণ্ডিগো এয়ারলাইনসের স্বেচ্ছাচারিতা

ইণ্ডিগো এয়ারলাইনসের স্বেচ্ছাচারিতা

বৈধপথে রেমিট্যান্স পাঠিয়ে নিজে সম্মানিত হোন দেশকেও সম্মানিত করুন

বৈধপথে রেমিট্যান্স পাঠিয়ে নিজে সম্মানিত হোন দেশকেও সম্মানিত করুন

বাংলাদেশে এখন আর স্বাধীন সাংবাদিকতা নেই: রিজভী

বাংলাদেশে এখন আর স্বাধীন সাংবাদিকতা নেই: রিজভী

এক দশক পর চ্যাম্পিয়ন কলকাতা

এক দশক পর চ্যাম্পিয়ন কলকাতা

জেমস বন্ডের থিম সং লিখেছিলেন লানা দেল রে, তবে মনোনীত হয়নি

জেমস বন্ডের থিম সং লিখেছিলেন লানা দেল রে, তবে মনোনীত হয়নি

খালেদ মুন্নার ফোক ম্যাশআপ

খালেদ মুন্নার ফোক ম্যাশআপ

চেম্বার আদালতে আপিল করলেন ডিপজল

চেম্বার আদালতে আপিল করলেন ডিপজল

‘অ্যানিমেল’ সিক্যুয়েলে রণবীরের প্রতিপক্ষ ভিকি

‘অ্যানিমেল’ সিক্যুয়েলে রণবীরের প্রতিপক্ষ ভিকি

গানে ফিরছেন সঙ্গীতশিল্পী রিংকু

গানে ফিরছেন সঙ্গীতশিল্পী রিংকু

কোক স্টুডিও বাংলায় ওয়ারফেজের গান

কোক স্টুডিও বাংলায় ওয়ারফেজের গান

উন্নয়ন সম্ভাবনায় দক্ষিণের জনপদ

উন্নয়ন সম্ভাবনায় দক্ষিণের জনপদ

নদী রক্ষায় বড় ধরনের যুদ্ধ শুরু হয়েছে, এ যুদ্ধে আমরা বিজয়ী হব : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

নদী রক্ষায় বড় ধরনের যুদ্ধ শুরু হয়েছে, এ যুদ্ধে আমরা বিজয়ী হব : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিল দাবি, ইবি শিক্ষকদের মানববন্ধন

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিল দাবি, ইবি শিক্ষকদের মানববন্ধন

বাসের ওপর উল্টে গেল ট্রাক, ১১ জনের মৃত্যু

বাসের ওপর উল্টে গেল ট্রাক, ১১ জনের মৃত্যু

ভয়েস চেঞ্জ অ্যাপে গলা বদলে ৭ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

ভয়েস চেঞ্জ অ্যাপে গলা বদলে ৭ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

গুগল ম্যাপ দেখে গাড়ি চালিয়ে পানিতে পড়লেন ৪ পর্যটক

গুগল ম্যাপ দেখে গাড়ি চালিয়ে পানিতে পড়লেন ৪ পর্যটক

পৃথিবীর কাছাকাছি বাসযোগ্য নতুন গ্রহ আবিষ্কার

পৃথিবীর কাছাকাছি বাসযোগ্য নতুন গ্রহ আবিষ্কার

বাইডেন ও ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতায় ফাটল ধরানোর অভিযোগ কেনেডির

বাইডেন ও ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতায় ফাটল ধরানোর অভিযোগ কেনেডির

ভারতে ধনীদের ওপর সম্পদ করারোপ প্রস্তাব

ভারতে ধনীদের ওপর সম্পদ করারোপ প্রস্তাব

নিউইয়র্ক-লন্ডনের তুলনায় এশিয়ায় বাড়ছে আবাসন মূল্য

নিউইয়র্ক-লন্ডনের তুলনায় এশিয়ায় বাড়ছে আবাসন মূল্য