আরেকটি স্বপ্নভঙ্গের বেদনা পাকিস্তানের পর বাংলাদেশও!

Daily Inqilab ইমরান মাহমুদ

১১ জুন ২০২৪, ১২:০৬ এএম | আপডেট: ১১ জুন ২০২৪, ১২:৪৬ এএম

জার্সি আর নামের বদল না হলে আগের দিনের ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের পুনঃপ্রচার বলে নির্দ্বিধায় চালিয়ে দেয়া যেতো। সেই একই চিত্রনাট্য নিউইয়র্কে। আগের দিন জেতা উচিত ছিল পাকিস্তানের। গতকাল বাংলাদেশের। তবে দুই দলের কেউই পারল না সেটি। আগের দিন ভারত নিজেদের সর্বনিম্ন রান ডিফেন্ড করেছিল। গতকাল সেটি করল দক্ষিণ আফ্রিকা। গতপরশু পাকিস্তান হেরেছিল সর্বনিম্ন লক্ষ্য তাড়া করতে ব্যর্থ হয়ে। গতকাল বাংলাদেশও তাই। পার্থক্য কেবল ব্যবধানে। পাকিস্তান হেরেছিল ৬ রানে, বাংলাদেশ পারেনি ৪ রানের জন্য। কেশভ মহারাজের করা শেষ ওভারে ১১ রানের সমীকরণ মেলাতে পারল না বাংলাদেশ। তিনটি ফুলটস দেওয়া বাঁহাতি স্পিনারের বলে ২ উইকেট হারিয়ে করতে পারল কেবল ৬ রান। নাসাউ কাউন্টি ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে জয়ের খুব কাছে গিয়েও তাই তীব্র আক্ষেপে পুড়তে হলো বাংলাদেশকে। বাংলাদেশকে ১০৯ রানে থামিয়ে টানা তৃতীয় জয় পেল দক্ষিণ আফ্রিকা।
শেষ ওভারে কেশব মহারাজ যে ভালো বোলিং করেছেন, তা নয়। শেষ দুই বলও ছিল ফুলটস। কিন্তু দিনটি বাংলাদেশের নয়। লেগ সাইডে ওয়াইড। পরের বলে সিঙ্গেল। এরপর ফুলটস পেয়ে বোলারের মাথার ওপর দিয়ে মেরেছিলেন জাকের। চার পাননি। তবে ডাবলস নিতে যাওয়া মাহমুদউল্লাহকে রানআউটের সুযোগ হারান মহারাজ। তৃতীয় বলে ডাউন দ্য গ্রাউন্ডে গিয়ে মারতে গিয়ে লং অনে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন জাকের আলী অনীক। রিশাদ সøগ করতে গিয়ে মিস করেছেন, তাতে হয়েছে এলবিডব্লুর আবেদন। এবার ইলিংওর্থ আউট দেননি, দক্ষিণ আফ্রিকা নেয় রিভিউ। ইমপ্যাক্ট ছিল বাইরে। আম্পায়ার আউট দেননি বলে লেগবাইয়ে রানটি অবশ্য হয়েছে।
শেষ ২ বলে দরকার ছিল ৬ রান, স্ট্রাইকে মাহমুদউল্লাহ... ফুলটস ছিল, সেকেন্ডের জন্য বাংলাদেশ সমর্থকদের আশা দিয়েছিল মাহমুদউল্লাহর শট। একেবারে সীমানার ওপর সে ক্যাচ নিয়েছেন এইডেন মার্করাম। মাহমুদউল্লাহর মাথায় হাত। মাহারেজের দুহাত উত্থিত শুকরিয়ায়। ওভারের শেষ বলে সুযোগ ছিল তাসকিন আহমেদের সামনে। তিনিও পেয়েছিলেন ফুলটস। তবে সেটি কাজে লাগাতে পারেননি এই পেসার। ৪ রানে হেরেছে বাংলাদেশ। ‘ডি’ গ্রুপের ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার ৬ উইকেটে ১১৩ রানের জবাবে বাংলাদেশ করতে পারে ৭ উইকেটে ১০৯ রান। টি-টোয়েন্টি সংস্করণে নয়বারের দেখায় প্রোটিয়াদের বিপক্ষে জয় অধরাই রয়ে গেল টাইগারদের। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পূর্ণাঙ্গ ম্যাচে এর চেয়ে কম রান করে জেতার নজির নেই আর কোনো। এর আগে ২০১৪ সালের বিশ্বকাপে ১১৯ রান করে নিউজিল্যান্ডকে শ্রীলঙ্কা ও চলতি আসরের আগের রাতেই ১১৯ রান করে পাকিস্তানকে হারায় ভারত।
তবে পাকিস্তানের চাইতে বাংলাদেশের আক্ষেপের গল্পটা আরেকটু করুণ। মাহমুদউল্লাহকে আম্পায়ার ভুল আউট না দিলে লেগবাইয়ে চার রান পেতে পারত বাংলাদেশ। হৃদয়কে দেওয়া সিদ্ধান্ত হতে পারত অন্যরকম। এরপর মাহমুদউল্লাহর ওই শট হতে পারত ছক্কা। তবে সে শট গেছে মার্করামের হাতে। ওই চার রান বাংলাদেশ পায়নি। হৃদয়ও আউট হয়েছেন অসময়ে। যে ম্যাচে দুই দলের ব্যবধান ৪ রান, তাতে এমন সূক্ষ্ম ঘটনা স্বাভাবিকভাবেই গড়বে পার্থক্য। নিউইয়র্কে হয়েছে সেটিই। এমন রঙ বদলের ম্যাচ জিতে প্রোটিয়া অধিনায়ক মার্করামের উপলব্ধিও অনেকটা দ্বিধাবিভক্ত। বলেলেন, ‘২০তম ওভারের পঞ্চম বলটি যে কোনো জায়গায় যেতে পারত, আরও দুই মিটার যেতে পারত।’
বাজে বোলিং সত্ত্বেও শেষ ওভারে মাত্র ৬ রান দেওয়া মহারাজই বল হাতে দক্ষিণ আফ্রিকার সেরা। তার শিকার ২৭ রানে ৩ উইকেট। রাবাদা ও আনরিখ নরকিয়া নিলেন দুটি করে উইকেট। অথচ, এদিন নায়ক হতে পারতেন তানজিম হাসান সাকিব। অথবা তাওহীদ হৃদয়। তবে দিনটি বাংলাদেশের নয়। নিউইয়র্কে ম্যাচসেরা হাইনরিখ ক্লাসেন। ৪৪ বলে ৪৬ রান করেছিলেন, মিলারের সঙ্গে জুটিতে তুলেছিলেন ৭৯ রান। পুরস্কার নিতে এসে ক্লাসেন দিলেন, অভিজ্ঞতা আর মানসিকতায় জোর, ‘ভালো একটা স্কোর গড়েছি, তবে ১০ রান কম করেছি। আমাদের অভিজ্ঞতা আছে এবং ১৫ ওভার পর্যন্ত ওয়ানডের মানসিকতা ছিল।’ আর খুব কাছে এসেও এমন হারের বেদনায় জর্জর নাজমুল হোসেন শান্তর উপলব্ধি, ‘আমাদের ম্যাচটি জেতা উচিৎ ছিল।’ তার সঙ্গে অবশ্যই দ্বিমত করবে না কেউই!


বিভাগ : খেলাধুলা


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

বোলিংয়ের পর শাহিন আফ্রিদির ব্যাটিং 'বীরত্বে' পাকিস্তানের মান বাঁচানো জয়

বোলিংয়ের পর শাহিন আফ্রিদির ব্যাটিং 'বীরত্বে' পাকিস্তানের মান বাঁচানো জয়

শেষের প্রত্যাবর্তনে ডেনমার্ককে রুখে দিল স্লোভেনিয়া

শেষের প্রত্যাবর্তনে ডেনমার্ককে রুখে দিল স্লোভেনিয়া

টেকনাফে বিজিবির পৃথক অভিযানে দেড় লক্ষ ইয়াবা উদ্ধার, আটক ১

টেকনাফে বিজিবির পৃথক অভিযানে দেড় লক্ষ ইয়াবা উদ্ধার, আটক ১

আইরিশদের বিপক্ষে জয়ের জন্য পাকিস্তানের দরকার ১০৭ রান

আইরিশদের বিপক্ষে জয়ের জন্য পাকিস্তানের দরকার ১০৭ রান

দেশের নিরাপত্তার বিধানে সশস্ত্র বাহিনী প্রস্তুত : হানিফ

দেশের নিরাপত্তার বিধানে সশস্ত্র বাহিনী প্রস্তুত : হানিফ

সেন্ট মার্টিন দ্বীপ নিয়ে স্বার্থান্বেষী মহলের গুজবে বিভ্রান্ত হবেন না : আইএসপিআর

সেন্ট মার্টিন দ্বীপ নিয়ে স্বার্থান্বেষী মহলের গুজবে বিভ্রান্ত হবেন না : আইএসপিআর

দিনাজপুরে গোর-এ-শহীদ ঈদগাহ মাঠের নিরাপত্তায় র‌্যাব

দিনাজপুরে গোর-এ-শহীদ ঈদগাহ মাঠের নিরাপত্তায় র‌্যাব

ঘুরে দাঁড়িয়ে পোল্যান্ডকে হারাল নেদারল্যান্ডস

ঘুরে দাঁড়িয়ে পোল্যান্ডকে হারাল নেদারল্যান্ডস

ঈদের দিন ঢাকাসহ চার বিভাগে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা

ঈদের দিন ঢাকাসহ চার বিভাগে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা

পুরো জাতিকে হতাশ করায় অনুতপ্ত ম্যাথিউস

পুরো জাতিকে হতাশ করায় অনুতপ্ত ম্যাথিউস

ঈদে ভ্যাপসা গরম, কোথাও কোথাও বৃষ্টিপাতের আভাস

ঈদে ভ্যাপসা গরম, কোথাও কোথাও বৃষ্টিপাতের আভাস

ওয়েস্ট ইন্ডিজ-আফগানিস্তান ম্যাচ দিয়ে শেষ হচ্ছে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব

ওয়েস্ট ইন্ডিজ-আফগানিস্তান ম্যাচ দিয়ে শেষ হচ্ছে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব

রাত পোহালেই পবিত্র ঈদুল আজহা

রাত পোহালেই পবিত্র ঈদুল আজহা

প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী চৌকস বাহিনী হিসেবে বিশ্ব-দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে : সেনা প্রধান

প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী চৌকস বাহিনী হিসেবে বিশ্ব-দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে : সেনা প্রধান

ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে বেড়েছে রেমিট্যান্স প্রবাহ

ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে বেড়েছে রেমিট্যান্স প্রবাহ

কোপায় অর্জেন্টিনা চূড়ান্ত দলে কারা

কোপায় অর্জেন্টিনা চূড়ান্ত দলে কারা

ঈদুল আজহা উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট

ঈদুল আজহা উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট

পিকআপ ভ্যানের পানের ঝুঁড়িতে ৫৪ হাজার ইয়াবা, আটক ১

পিকআপ ভ্যানের পানের ঝুঁড়িতে ৫৪ হাজার ইয়াবা, আটক ১

নেপাল বাধা টপকে সুপার এইটে যেতে মরিয়া বাংলাদেশ

নেপাল বাধা টপকে সুপার এইটে যেতে মরিয়া বাংলাদেশ

সউদী আরবের সঙ্গে মিল রেখে লালমনিরহাটে অর্ধশতাধিক পরিবারের ঈদুল আজহা উদযাপন

সউদী আরবের সঙ্গে মিল রেখে লালমনিরহাটে অর্ধশতাধিক পরিবারের ঈদুল আজহা উদযাপন