সিআইডির জিজ্ঞাসাবাদে আবেদ আলী ফেসবুকে দেখেন না কাদের সাথে আমার সম্পর্ক প্রশ্নফাঁসে জড়িতদের তালিকা হচ্ছে

সব ক্যাডারেই আমার লোক

Daily Inqilab সাখাওয়াত হোসেন

১১ জুলাই ২০২৪, ১২:০২ এএম | আপডেট: ১১ জুলাই ২০২৪, ১২:০২ এএম

সব ক্যাডারেই আমার লোকজন রয়েছে। বিভিন্ন সময় পুলিশ প্রশাসনসহ অন্যান্য ক্যাডারের বড় কর্মকর্তারা আমার সাহায্য নিয়েছেন। অনেক প্রভাবশালী ব্যক্তিও আমার সাহায্য নিয়েছেন বিসিএসসহ বিভিন্ন সরকারী চাকরির পরীক্ষায়।
প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় গ্রেফতারের পর সিআইডির কর্মকর্তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য দেন পিএসসির সাবেক গাড়িচালক সৈয়দ আবেদ আলী। জিজ্ঞাসাবাদকালে তিনি আরো বলেন, আমার ফেসবুক দেখলেই বুঝবেন প্রভাবশালীদের সাথে কেমন সম্পর্ক ছিল। আমি অনেককেই প্রশ্ন দিয়ে সাহায্য করেছি। আবেদ আলীর এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য নিয়ে কাজ করছে একটি গোয়েন্দা সংস্থা ও সিআইডির কর্মকর্তারা। এরই মধ্যে গতকাল বুধবার আবেদ আলীর ফেসবুক ঘেটে পুরো তথ্য সংগ্রহ করে একটি গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তারা। এ সময় পুলিশ প্রশাসনসহ প্রভাবশালীদের সাথে তার ঘনিষ্টতা দেখে অনেকটাই অবাক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন দায়িত্বশীল গোয়েন্দা কর্মকর্তা বুধবার ইনকিলাবকে বলেন, আবেদ আলীর সাথে এত প্রভাবশালীদের ছবি আসলেই প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। কেনই বা তাকে ওই কর্মকর্তরা গুরুত্ব দিতেন এবং কেনই বা আবেদ আলী তাদের কাছে যেতেন তা তদন্ত করা হচ্ছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমাদের কাজ হচ্ছে আবেদ আলীসহ গ্রেফতারকৃত অন্যান্যদের সাথে যাদের সখ্যতা ছিল এবং প্রশ্ন ফাঁসে যারা তাদের সাথে জড়িত ছিল তা তদন্ত করা। একই সাথে তাদের কাছ থেকে কত তম বিসিএস ব্যাচের প্রশ্ন ফাঁস হয়েছে এবং কারা এর সুবিধা নিয়েছে তা সরকারের উচ্চ পর্যায়ে অবহিত করা। বিপিএসসির প্রশ্নফাঁসের ঘটনায় সিআইডি করা মামলায় গত মঙ্গলবার সৈয়দ আবেদ আলীসহ ছয়জন দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন। এর পর এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃত ১৭জনকে আদালত কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

নাম প্রকাশ না করার পুলিশ সদর দফতরের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা ইনকিলাবকে বলেন, আবেদ আলীর সাথে কোন কোন কর্মকর্তার সখ্যতা ছিল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এরই মধ্যে তার ফেসবুক থেকে সব ধরনের ছবি ও তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। এসব তথ্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে অবহিক করা হবে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আবেদ আলী জানিয়েছেন, সৈয়দ আবেদ আলী শত শত কোটি টাকার সম্পদের মালিক। ঢাকায় তার একটি ছয়তলা বাড়ি, তিনটি ফ্ল্যাট ও একটি গাড়ি রয়েছে। গ্রামের বাড়িতে রয়েছে ডুপ্লেক্স ভবন। তবে আবেদ আলীর আরও সম্পদ রয়েছে। অপরাধ বিশেষজ্ঞদের মতে, ড্রাইভার আবেদ আলী যদি শত শত কোটি টাকার মালিক হন, তাহলে তিনি পিএসসির যেসব কর্মকর্তার গাড়ি চালিয়েছেন, তারা কত হাজার কোটি টাকার মালিক, তা আর বোঝার অপেক্ষা রাখে না।

সিআইডির একটি দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের (বিসিএস) প্রশ্নফাঁস নিয়ে বেরিয়ে আসছে থলের বিড়াল। গত একযুগে ৩০টি নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নফাঁসে জড়িত ছিলেন বিপিএসসির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। আর এসব ফাঁস করা প্রশ্নে পরীক্ষা দিয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন অনেকেই। তাদের অনেকে এখন বিভিন্ন ক্যাডারে চাকরিও করছেন। যারা ফাঁস হওয়া প্রশ্নে টাকার বিনিময়ে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে বর্তমানে চাকরি করছেন প্রশ্নফাঁস-কাণ্ডে একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে আসার পর তারাও রয়েছেন আতঙ্কে।

সূত্রের তথ্যে জানা গেছে, ৩৩তম বিসিএস পরীক্ষায় ১০ জন প্রার্থীর কাছে প্রশ্নফাঁস করে একটি চক্র। তাদের মধ্যে তিনজন বর্তমানে বিভিন্ন ক্যাডারে চাকরি করছেন। এছাড়া আরও কিছু ক্যাডারের কর্মকর্তাদের নামও রয়েছে আলোচনায়। গত একযুগে ৩০টি নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নফাঁসে জড়িত ছিলেন বিপিএসসির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। আর এসব ফাঁস করা প্রশ্নে পরীক্ষা দিয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন অনেকেই। তাদের অনেকে এখন বিভিন্ন ক্যাডারে চাকরিও করছেন। যারা ফাঁস হওয়া প্রশ্নে টাকার বিনিময়ে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে বর্তমানে চাকরি করছেন প্রশ্নফাঁস-কাণ্ডে একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে আসার পর তারাও রয়েছেন আতঙ্কে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, একটি সংঘবদ্ধ চক্র গত ৫ জুলাই পিএসসির অধীনে অনুষ্ঠিত রেলওয়ে সাব এসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার নিয়োগ পরীক্ষার আগে প্রশ্নপত্র ফাঁস করে। পরে একদল পরীক্ষার্থীর কাছে অর্থের বিনিময়ে প্রশ্ন এবং প্রশ্নের উত্তর বিতরণ করে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে গত ৭ জুলাই ঢাকার শ্যামলী থেকে লিটন সরকারকে গ্রেপ্তার করে সিআইডি। পরে তার দেয়া তথ্যে প্রিয়নাথ ও জাহিদকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরবর্তীতে অপর আসামিদের দেয়া তথ্য মতে সিআইডি মোট ১৭ জনকে গ্রেপ্তার করে। এজাহার নামীয় পলাতক আসামিরা হলেন- পিএসসির সাবেক পরিচালক নিখিল চন্দ্র রায়, মো. শরীফুল ইসলাম, দীপক বণিক, খোরশেদ আলম খোকন, কাজী মো. সুমন, একেএম গোলাম পারভেজ, মেহেদী হাসান খান, গোলাম হামিদুর রহমান, মিজানুর রহমান, আতিকুল ইসলাম, এটিএম মোস্তফা, মাহফুজ কালু, আসলাম, কৌশিক দেবনাথ।

এজাহারে বলা হয়, সংঘবদ্ধ এই চক্রের মূলহোতা সাজেদুল। তিনি বিভিন্ন পরীক্ষার প্রশ্নপত্র পিএসসির উপ-পরিচালক আবু জাফরের নিকট হতে সংগ্রহ করতেন। পরে তিনি অন্যান্য সহযোগী সাখাওয়াত ও সাইমের মাধ্যমে বাংলাদেশের বিভিন্ন এলাকা হতে চাকরিপ্রার্থী সংগ্রহ করে ঢাকা ও আশপাশের এলাকায় বাসা ভাড়া বা হোটেলে জড়ো করতেন। পরীক্ষা শুরুর এক-দুই ঘণ্টা আগেই অর্থের বিনিময়ে প্রশ্নপত্র ও উত্তর ফাঁস করতেন। সাজেদুল তার সহযোগীদের মাধ্যমে চাকরিপ্রত্যাশীদের সংগ্রহ করার পাশাপাশি নির্দিষ্ট অর্থের বিনিময়ে এই চক্রের অন্যতম সদস্য পিএসসির সাবেক চালক সৈয়দ আবেদ আলীর নিকট বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশন কর্তৃক আয়োজিত বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন (বাংলাদেশ রেলওয়ে) সাব এসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার (নন-ক্যাডার) এর নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন এবং উত্তর বিতরণ করেছেন। সৈয়দ আবেদ আলী আবু সোলেমান মো. সোহেল নামে এক ব্যক্তি বাংলাদেশ কর্ম কমিশনের এই নিয়োগ পরীক্ষার জন্য প্রার্থী সরবরাহ করতো এবং নিজেই বুথ পরিচালনা করতো। সিআইডি প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানতে পারে, আসামিরা একটি সংঘবদ্ধ চক্র হিসেবে বিগত বছরগুলোতে বিভিন্ন বিসিএসসহ পিএসসির বিভিন্ন গ্রেডের নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র অর্থের বিনিময়ে পরীক্ষা অনুষ্ঠানের নির্ধারিত সময়ের আগেই প্রশ্নপত্র ফাঁসের কথা স্বীকার করে।

ঢাকায় আরেক বাড়ির সন্ধান আবেদ আলীর : প্রশ্নপত্র ফাঁসে জড়িত অভিযোগে গ্রেপ্তার আবেদ আলীর ঢাকায় আরেকটি বাড়ির সন্ধান পাওয়া গেছে। তিনি দুই যুগ আগে ঢাকার মিরপুরের মধ্য পীরেরবাগে জনতা রোডে একটি ভবনের নিচতলার ফ্ল্যাটে ভাড়া থাকতেন। পরে সেই বাড়ির পাশে পৌনে চার কাঠার একটি প্লট কিনে সেখানে সাড়ে ছয়তলা ভবন গড়ে তোলেন তিনি। এ নিয়ে ঢাকায় তার দুটি বহুতল ভবন, তিনটি ফ্ল্যাট ও একটি গাড়ির সন্ধান পাওয়া গেছে। গ্রামের বাড়িতে রয়েছে ডুপ্লেক্স ভবন। আবেদ আলীর এই বাড়ির পাশের বাড়ির মালিক নজরুল ইসলাম। তিনি জানান, সৈয়দ আবেদ আলী ২০০১ সালে তার ভবনের নিচতলার একটি ফ্ল্যাটে সাড়ে ৪ হাজার টাকায় ভাড়া থাকতেন। প্রথম দিকে সেই ভাড়াও তিনি প্রতি মাসে দিতে পারতেন না। একপর্যায়ে তার বাসায় গভীর রাতে অনেক মানুষের যাতায়াত শুরু হয়। ওই সব লোকজন পরদিন ভোরে চলে যেতেন। এরপর ধীরে ধীরে আবেদ আলীর ভাগ্য বদলাতে থাকে। তিনি ২০১০ সালের দিকে হঠাৎ ৩৫/২ জনতা রোডে পৌনে চার কাঠার প্লট কেনেন। পরের বছর সেখানে সাড়ে ছয়তলার ভবন নির্মাণ করেন। এই বাড়ি করার সময় আবেদ আলী বলেছিলেন, পাইকপাড়ায়ও তিনি ছয়তলা বাড়ি নির্মাণ করছেন।

কোটিপতি হয়ে আপন ভাইদের সাথে সম্পর্ক রাখেনি :
স্টাফ রিপোর্টার, ডাসার (মাদারীপুর) থেকে জানান : পিএসসির চেয়ারম্যানের গাড়িচালক হয়ে রাতারাতি কোটিপতি হওয়ায় আপন ভাইদের সাথে সুসম্পর্ক রাখেনি সৈয়দ আবেদ আলী জীবন। গেল কয়েকবছর ধরে নিজ বাড়ি মাদারীপুরের ডাসার উপজেলার পশ্চিম বোতলা গ্রামে এসে আলিশান বাড়ি করলেও আপন ভাইদের ভাগ্যের কোনো পরিবর্তন হয়নি। এখনো দোচালা টিনের ঘরে ভাইয়েরা পরিবার নিয়ে বসবাস করেন। তাই তো আবেদ আলী গ্রেফতার হওয়ায় আপন ভাইদের কোনো ক্ষোভ নেই বরং তদন্ত করার দাবি তাদের।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, দোচালা টিনের ঘরে বসবাস করছে সৈয়দ আবেদ আলীর ছোট ভাই সাবেদ আলী। এখন তিনি অটোরিকশা চালিয়ে সংসার চালাচ্ছে। দু’মুঠো ভাত জোগাড় করতেই যেন হিমশিম খেতে হয়। ঘরেও নেই কোনো জৌলস। তাতে আফসোস নেই সাবেদ আলীর। বড় ভাই আবেদ আলীর কোটিপতি হওয়ায় নিয়েও কোনো দিন মাথা ঘামায়নি বরং তার কাছে প্রতিবেশিরা কম-বেশি সহযোগিতা পেলেও আপন ভাইয়ের কোনো খোঁজ নেইনি। ঈদ বা কোরবানীতে উপহার দিলেও গ্রহণ করেন না সাবেদ আলী। তাই তো আপন ভাই ও ভাতিজা গ্রেফতার হওয়াতে কোনো আপেক্ষ বা অনুরাগ নেই সাবেক আলীর বরং বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করে পরিস্কার করার দাবি তার।

সৈয়দ আবেদ আলীর ছোট ভাই সাবেদ আলী জানান, ১৯৯৭ সালের দিকে আমি মেরাদিয়াতে চানাচুর বিক্রি করতাম। আবেদ আলী থাকতো ইন্দিরা রোডে। সে বেকার ছিল। মাঝে মধ্যেই আমার থেকে মেসের খরচের জন্য ৩০০ থেকে ৫০০ টাকা নিত। তবে শাহিন নামে এক বন্ধুর মাধ্যমে পিএসসিতে চাকরি হওয়ার পর ওই বছরই সে বিয়ে করে। বিয়ের পরে সে আমাদের পরিবারের কারও সঙ্গে যোগাযোগ রাখেনি। এখনও তার সঙ্গে আমাদের কোনো সম্পর্ক নেই।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বিত্ত-বৈভব ফুলে-ফেঁপে ওঠার সঙ্গে সঙ্গে আবেদ আলী মীর পদবি পাল্টে নামের আগে সৈয়দ পদবি ব্যবহার শুরু করেন। বাবার উত্থান নিয়ে ছেলে সৈয়দ সোহানুর রহমান সিয়ামও সস্প্রতি একটি সমাবেশে বক্তব্য দেন। বাবার উত্থানের গল্প বলতে গিয়ে তিনি বলেন, আমার বাবা একদম ছোট থেকে বড় হয়েছেন। আমার বাবার বয়স যখন ৮ বছর, তখন পেটের দায়ে তিনি ঢাকায় চলে গেছেন। ঢাকায় গিয়ে কুলিগিরি করে ৫০ টাকা রুজি দিয়ে ব্যবসা শুরু করেন। এখন তিনি একটি লিমিটেড কোম্পানির মালিক। তিনি কষ্ট করে বড় হয়েছেন।


বিভাগ : জাতীয়


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

প্রেসক্লাব, সেগুনবাগিচায় পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতা কর্মীদের সংঘর্ষ

প্রেসক্লাব, সেগুনবাগিচায় পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতা কর্মীদের সংঘর্ষ

সারা দেশে ট্রেন চলাচল বন্ধ রেখেছে কর্তৃপক্ষ

সারা দেশে ট্রেন চলাচল বন্ধ রেখেছে কর্তৃপক্ষ

গুলিবিদ্ধ হয়ে ঢাকা টাইমসের সাংবাদিক নিহত

গুলিবিদ্ধ হয়ে ঢাকা টাইমসের সাংবাদিক নিহত

রুহুল কবির রিজভী আটকের দাবি

রুহুল কবির রিজভী আটকের দাবি

আন্দোলন নিয়ে বিতর্কিত স্ট্যাটাস দিলেন ঢাকাই সিনেমার চিত্রনায়িকা শিরিন শিলা

আন্দোলন নিয়ে বিতর্কিত স্ট্যাটাস দিলেন ঢাকাই সিনেমার চিত্রনায়িকা শিরিন শিলা

ভৈরবে থানা ঘেরাও করলেন আন্দোলনকারীরা, গুলি, আহত শতাধিক

ভৈরবে থানা ঘেরাও করলেন আন্দোলনকারীরা, গুলি, আহত শতাধিক

রাজধানীতে সব ধরনের সভা-সমাবেশ ও মিছিল নিষিদ্ধ করেছে ডিএমপি

রাজধানীতে সব ধরনের সভা-সমাবেশ ও মিছিল নিষিদ্ধ করেছে ডিএমপি

মেধার ভিত্তিতে ৮০ শতাংশ কোটার প্রস্তাব দেবে সরকার: ওবায়দুল কাদের

মেধার ভিত্তিতে ৮০ শতাংশ কোটার প্রস্তাব দেবে সরকার: ওবায়দুল কাদের

শুক্রবারও ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ চলবে

শুক্রবারও ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ চলবে

ঢাকা–চট্টগ্রাম মহাসড়কের যাত্রাবাড়ী, শনির আখড়া এলাকায় আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আজ শুক্রবারও পুলিশের সংঘর্ষ চলছে

ঢাকা–চট্টগ্রাম মহাসড়কের যাত্রাবাড়ী, শনির আখড়া এলাকায় আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আজ শুক্রবারও পুলিশের সংঘর্ষ চলছে

কোটা নিয়ে আপিল শুনানি রোববার

কোটা নিয়ে আপিল শুনানি রোববার

দেশজুড়ে বিক্ষোভ, সংঘর্ষ–গুলি, নিহত ২৭

দেশজুড়ে বিক্ষোভ, সংঘর্ষ–গুলি, নিহত ২৭

অস্ত্র জমা দিয়েছি কিন্তু ট্রেনিং জমা দিইনি : মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী

অস্ত্র জমা দিয়েছি কিন্তু ট্রেনিং জমা দিইনি : মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী

সংঘর্ষের সময় যাত্রাবাড়ীতে গুলিবিদ্ধ হয়ে সাংবাদিক নিহত

সংঘর্ষের সময় যাত্রাবাড়ীতে গুলিবিদ্ধ হয়ে সাংবাদিক নিহত

রক্ত মাড়িয়ে কোনো সংলাপ নয় : বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন

রক্ত মাড়িয়ে কোনো সংলাপ নয় : বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন

বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ

বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ

শিক্ষার্থীদের উপর বর্বরোচিত হামলা ও হত্যাকাণ্ডে ইত্তেফাকুল উলামার উদ্বেগ

শিক্ষার্থীদের উপর বর্বরোচিত হামলা ও হত্যাকাণ্ডে ইত্তেফাকুল উলামার উদ্বেগ

সৈয়দপুর কোটা বিরোধী আন্দোলন পুলিশ বক্সে আগুন

সৈয়দপুর কোটা বিরোধী আন্দোলন পুলিশ বক্সে আগুন

সিলেটে বিএনপি নেতা কয়েছ লোদীকে আটক করেছে পুলিশ

সিলেটে বিএনপি নেতা কয়েছ লোদীকে আটক করেছে পুলিশ

রংপুরে আ.লীগ-ছাত্রলীগের অফিসে ভাঙচুর-অগ্নিসংযোগ

রংপুরে আ.লীগ-ছাত্রলীগের অফিসে ভাঙচুর-অগ্নিসংযোগ