বান্দরবানে কেএনএর গুলিতে সেনা কর্মকর্তা নিহত আহত ২

Daily Inqilab স্পোর্টস রিপোর্টার

১৩ মার্চ ২০২৩, ০৫:৫৮ পিএম | আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০২৩, ১১:৩৮ পিএম

 

বান্দরবানে সেনা সদস্যদের ওপর কুকি-চিন ন্যাশনাল আর্মির (কেএনএ) অতর্কিত গুলিবর্ষণে এক সেনা সদস্য নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দুজন। গতকাল সোমবার আইএসপিআরের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। গত রোববার কেএনএর সশস্ত্র সন্ত্রাসী দল সেনা সদস্যদের ওপর অতর্কিতভাবে হামলা চালায়। এ ঘটনায় সেনাবাহিনীর মাস্টার ওয়ারেন্ট অফিসার নাজিম উদ্দিন গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যুবরণ করেন এবং দুই জন সেনা সদস্য আহত হয়। আহত দুই সেনাসদস্য বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
আইএসপিআরের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, দেশ মাতৃকার সেবায় তার এই মৃত্যুতে সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। বিচ্ছিন্নতাবাদী ভাবধারায় বিশ¡াসী কুকি-চিন ন্যাশনাল আর্মি নামক এই সশস্ত্র সন্ত্রাসী দলটি ইতোপূর্বে "জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্বিয়া’ এর মত একটি জঙ্গী গোষ্ঠীকেও বান্দরবানের পাহাড়ী এলাকায় অর্থের বিনিময়ে অস্ত্র প্রশিক্ষণ প্রদান করেছে। পাহাড়ী এলাকার অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর উন্নয়নের জন্য সরকার কর্তৃক নির্মিতব্য বান্দরবানের থানচি সড়ক সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে পরিচালিত হচ্ছে। সরকারের এই উন্নয়নমূলক কার্যক্রমকে প্রতিহত করার জন্য কেএনএ সন্ত্রাসী দলটি সড়ক নির্মাণ কার্যক্রমের সাথে সম্পৃক্ত অসামরিক ঠিকাদার, মালামাল সরবরাহকারী এবং শ্রমিকদের নিকট থেকে প্রথমে চাঁদা দাবী করে ও পরবর্তীতে কাজ বন্ধ করার হুমকি দেয়।
কিন্তু সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে পরিচালিত এই কাজ চলমান থাকায় কেএনএ সন্ত্রাসী দল গত ১১ মার্চ ১২ জন শ্রমিককে অপহরণ করে। এদের মধ্যে একজন শ্রমিক গুলিবিদ্ধ হয় এবং চার জন শ্রমিককে এখনও কেএনএ জিম্মি করে রেখেছে। অবশিষ্ট সাত জন শ্রমিককে মুক্তিপণের বিনিময়ে ছেড়ে দিলেও তাদেরকে সেনাবাহিনীর সাথে সড়ক নির্মাণ প্রকল্পের কাজ না করার জন্য হুমকি প্রদান করে এবং কেএনএ ১২ মার্চ সেনাবাহিনীর টহল দলের উপর গুলিবর্ষণ করে।
উল্লেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি বান্দরবানের তিন উপজেলায় গাড়ি চলাচল বন্ধের জন্য কেএনএ পরিবহন মালিক সমিতিকে হুমকি প্রদান করে নোটিশ জারি করে। কেএনএ সদস্যদের বিবিধ সন্ত্রাসী কর্মকা- দ্বারা সৃষ্ট নিরাপত্তাজনিত কারণে গত রোববার উক্ত এলাকায় অনির্দিষ্ট কালের জন্য ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করে জেলা প্রশাসন। এছাড়াও কেএনএ এর নির্যাতনে স্থানীয় বিভিন্ন পাহাড়ী সম্প্রদায়ের জনগোষ্ঠী ঘরছেড়ে অন্যত্র বসবাস করছে। কেএনএ সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর চাঁদাবাজি, মাদকের চোরাচালান, অপহরণ ও নৃশংস হত্যাকা-ের কারণে বর্তমান সরকারের বিবিধ উন্নয়নমূলক কর্মকা-, বেসরকারি বিনিয়োগ ও পর্যটন শিল্প বাঁধাগ্রস্থ হােচ্ছ, যার সূদুরপ্রসারী নেতিবাচক প্রভাব রয়েছে। কেএনএ এর এই অপতৎপরতা দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার পাশাপাশি বিশ¡ দরবারে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করছে এবং সর্বোপরি পার্বত্য চট্টগ্রামের বিরাজমান শান্তি-শৃঙ্খলা পরিস্থিতিকে বিঘিœত করছে।

 


বিভাগ : বাংলাদেশ


মন্তব্য করুন

HTML Comment Box is loading comments...

আরও পড়ুন

রাফার অস্থায়ী আশ্রয় শিবিরগুলোতে ইসরায়েলি হামলা চলছেই

রাফার অস্থায়ী আশ্রয় শিবিরগুলোতে ইসরায়েলি হামলা চলছেই

মানিকগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি কম, দুই ঘন্টায় ভোট পড়েছে ৬.৭ পার্সেন্ট

মানিকগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি কম, দুই ঘন্টায় ভোট পড়েছে ৬.৭ পার্সেন্ট

জাতীয় পরিবেশ পদক পাচ্ছে ৫ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান

জাতীয় পরিবেশ পদক পাচ্ছে ৫ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান

চকরিয়ায় বন্য হাতির আক্রমণে এক বৃদ্ধ নিহত

চকরিয়ায় বন্য হাতির আক্রমণে এক বৃদ্ধ নিহত

কে হবেন ইরানের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট?

কে হবেন ইরানের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট?

আজ ১০ ঘণ্টা যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না

আজ ১০ ঘণ্টা যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না

ভোটের আগের রাতে পোলিং ও সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার পরিবর্তন

ভোটের আগের রাতে পোলিং ও সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার পরিবর্তন

‘পরের মহামারী অনিবার্য’, আশঙ্কার কথা শোনালেন শীর্ষ ব্রিটিশ বিজ্ঞানী

‘পরের মহামারী অনিবার্য’, আশঙ্কার কথা শোনালেন শীর্ষ ব্রিটিশ বিজ্ঞানী

টাঙ্গাইলে তিন উপজেলায় পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলছে

টাঙ্গাইলে তিন উপজেলায় পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলছে

পাইলটদের ধন্যবাদ দিলেন তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট

পাইলটদের ধন্যবাদ দিলেন তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট

ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে পদ্মা নদীর তীর রক্ষা বাঁধে ধস

ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে পদ্মা নদীর তীর রক্ষা বাঁধে ধস

দেশের অর্থনীতি শক্তিশালী করতে ব্যবসায়ীদের প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রীর অনুরোধ

দেশের অর্থনীতি শক্তিশালী করতে ব্যবসায়ীদের প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রীর অনুরোধ

ভোটারদের চিরচেনা লাইন নেই ফেনীর ভোটকেন্দ্রে

ভোটারদের চিরচেনা লাইন নেই ফেনীর ভোটকেন্দ্রে

ভোটকেন্দ্র দখল নিয়ে সংঘর্ষ, শোকজ চবির ২৩ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীকে

ভোটকেন্দ্র দখল নিয়ে সংঘর্ষ, শোকজ চবির ২৩ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীকে

ভোটের শেষ পর্বে কলকাতায় মোদি-মমতার তীব্র বাগযুদ্ধ

ভোটের শেষ পর্বে কলকাতায় মোদি-মমতার তীব্র বাগযুদ্ধ

প্যাঁচে সুনক, ইস্তফা ৭৮ জন এমপি-র

প্যাঁচে সুনক, ইস্তফা ৭৮ জন এমপি-র

দ্রাবিড়ের পর গাম্ভিরই ভারতের কোচ: রিপোর্ট

দ্রাবিড়ের পর গাম্ভিরই ভারতের কোচ: রিপোর্ট

নোয়াখালীতে ৩ উপজেলায় চলছে ভোট, ভোটারদের লাইন দেখা যাচ্ছে না

নোয়াখালীতে ৩ উপজেলায় চলছে ভোট, ভোটারদের লাইন দেখা যাচ্ছে না

ইকুয়াটোরিয়াল গিনির প্রেসিডেন্টের সাথে শি জিনপিংয়ের আলোচনা

ইকুয়াটোরিয়াল গিনির প্রেসিডেন্টের সাথে শি জিনপিংয়ের আলোচনা

ভারতে গোমূত্র বিক্রি বাড়ছে

ভারতে গোমূত্র বিক্রি বাড়ছে